‘সততা স্টোরে’ মুগ্ধ শিক্ষার্থীরা


রাজস্থলী প্রতিনিধি:

বিদ্যালয়ের একটি কক্ষে সাজিয়ে রাখা হয়েছে বই, খাতা, কলম, পেন্সিল, চকলেট ও নিত্য প্রয়োজনীয় খাবার। কিন্তু সেখানে নেই কোন বিক্রেতা। নেই কোন ক্রেতা। বিদ্যালয়ের একটি কক্ষে অবস্থিত এমন দোকানের ক্রেতা শিক্ষার্থীরাই।

ওই দোকানের নিয়ম হচ্ছে জিনিস কিনে বক্সে টাকা জমা রাখা। আর রেজিস্টার খাতায় লিপিবদ্ধ করে রাখা। নাম রাখা হয়েছে সততা স্টোর। দেশের নানা বিদ্যালয়ে সততা স্টোর নামে এ ধরণের দোকান চালু হয়েছে এর আগে। উদ্দেশ্য শিশু কাল থেকে শিক্ষার্থীদের শুদ্ধাচার চর্চায় আগ্রহী করে তোলা।

এবার রাঙ্গামাটি জেলাধীন রাজস্থলী উপজেলার রাজস্থলী তাইতং পাড়া সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ে চালু করা হয়েছে সততা স্টোর নামে একটি দোকান। সম্প্রতি সরেজমিনে ঘুরেও দেখা গেছে উক্ত বিদ্যালয়ে একটি কক্ষে সাজিয়ে রাখা হয়েছে খাতা, কলম, পেন্সিল ও খাবারসহ নানা প্রয়োজনীয় জিনিস।

স্কুলের শিক্ষার্থীরা যার যার প্রয়োজন মতো জিনিস নিচ্ছে আর একটি খাতায় টাকার পরিমাণ বসিয়ে বাক্সে টাকা জমা দিচ্ছে।

গতকাল রাজস্থলী তাইতং পাড়া সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ে সততা স্টোর উদ্ভোধন করেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অংনুচিং মারমা ও উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সঞ্জয় দেবনাথ, সাংবাদিক চাউচিং মারমা, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের একাডেমিক সুপারভাইজার অসিার বিভিশন চাকমা।

বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী আসমিনা খানম মায়া বলেন, এমন দোকান দেখে সত্যি অবাক হয়েছি। টিফিনের টাকা দিয়ে সে একটি খাতা ও একটি কলম কিনেছে। এমন দোকান দেখে খুবই ভাল লাগছে। এখানে কোন বিক্রেতা নেই। সবাই যার যার পছন্দমত জিনিস কিনে বাক্সে টাকা দিয়ে যাচ্ছে।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা স্নিগ্ধা চাকমা বলেন, দেশের অনেক বিদ্যালয়ে সততা স্টোর চালু হয়েছে। শিক্ষার্থীদের মধ্যে খুব ভাল সাড়া জাগিয়েছে এ কর্মসুচি। ভবিষ্যতে সৎ নাগরিক হয়ে উঠতে এ অভিজ্ঞতা কাজে আসবে তাদের।

সততা স্টোর সম্পর্কে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান বলেন, আমাদের আশা আগামী প্রজন্ম সৎ নাগরিক হয়ে উঠতে সততা স্টোরের শিক্ষা কাজে আসবে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ সরকার শুধু দেশের উন্নয়ন করছে তা নয়। তিনি শিক্ষা ক্ষেত্রেও ব্যাপক পরিবর্তন এনেছেন। শিক্ষা ক্ষেত্রে পরিবর্তনের নতুন প্রকল্প হচ্ছে সততা স্টোর। এর মাধ্যমে ছাত্র ছাত্রীরা হয়ে উঠবে আদর্শবান, নৈতিক এবং ভদ্র আগামীতে এই উপজেলায় অন্যান্য বিদ্যালয় গুলোর মধ্যে সততা স্টোর চালু হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *