শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বে পাহাড়ে সাম্প্রদায়িক-সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে: কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা


নিজস্ব প্রতিবেদক, মাটিরাঙ্গা:

পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তি প্রতিষ্ঠায় শেখ হাসিনার উদ্যোগের কথা স্মরণ করে খাগড়ছড়ি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি বলেন, খালেদা জিয়া পার্বত্য চট্টগ্রাম নিয়ে শুধু ষড়যন্ত্র করেছেন। শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বে পাহাড়ে সাম্প্রদায়িক-সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। পাহাড়ে এখন আর কোন বাড়িতে সাম্প্রায়িকতার আগুন জ্বলেনা। পাহাড়ি-বাঙ্গালীর মধ্যে সম্প্রীতির মেলবন্ধন সৃষ্টি হয়েছে।

শনিবার (১১ নভেম্বর) বেলা সাড়ে ১২টার সময় বাংলাদেশ যুবলীগের ৪৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষ্যে মাটিরাঙ্গ উপজেলা যুবলীগের উদ্যোগে যুব র‌্যালি শেষে আয়োজিত যুব সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। মাটিরাঙ্গা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত যুব সমাবেশ সভাপতিত্ব করেন মাটিরাঙ্গা উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মো. রফিকুল ইসলাম। মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক পরিচালনায় সমাবেশে স্বাগত বক্তব্য রাখেন মাটিরাঙ্গা উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জহিরুল ইসলাম খোন্দকার।

দেশের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে চাইলে আগামী নির্বাচনে ঐক্যবদ্ধভাবে নৌকায় ভোট দিতে হবে এমন মন্তব্য করে খাগড়ছড়ি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি বলেন, নৌকা শুধু আওয়ামী লীগেরই নয়, দেশের উন্নয়ন ও সাম্প্রদায়িক-সম্প্রীতির প্রতীক। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। খালেদা-এরশাদ পরিকল্পনাবিহীন দেশ চালিয়েছেন মন্তব্য করে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্দিষ্ট পরিকল্পনার মধ্য দিয়ে দেশ পচিালনা করে যাচ্ছেন।

মাটিরাঙ্গায় সাম্প্রতিক সময়ের বৃহত্তম এ যুব সমাবেশে বাংলাদেশ যুবলীগের কেন্দ্রীয় প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ মাহমুদুল হক প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন। খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামী লীগের জৈষ্ঠ্য সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা রণ বিক্রম ত্রিপুরা, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী, কেন্দ্রীয় যুবলীগের গ্রন্থ ও প্রকাশনা সম্পাদক শহীদুল হক চৌধুরী রাসেল, কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা মো. জাহেদুল হক চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. রইচ উদ্দিন, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. আবদুল জব্বার, যুব বিষয়ক সম্পাদক মংশেপ্রু চৌধুরী অপু, মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মাটিরাঙ্গা পৌরসভার মেয়র মো. শামছুল হক এবং মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও যুবলীগ সংক্রান্ত স্টিয়ারিং কমিটির চেয়ারম্যান কালাচান বণিক বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।

উন্নয়নের স্বার্থে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিনিধি কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপির নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ থেকে আগামী নির্বাচনে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে যুবলীগের নেতাকর্মীদের আহ্বান জানিয়ে বাংলাদেশ যুবলীগের কেন্দ্রীয় প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ মাহমুদুল হক বলেন, যুবলীগের নেতাকর্মীরা শেখ হাসিনার প্রাণ শাক্তি। এ সমাবেশ থেকে আগামী নির্বাচনের প্রস্তুতি গ্রহণেরও আহ্বান জানান তিনি।

বিএনপির শাসনামলের কথা উল্লেখ করে খাগড়ছড়ি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি বলেন, সেসময় ওয়াদুদ ভুইয়া উন্নয়নের নামে নিজের ও দলীয় নেতাকর্মীদের ভাগ্যের উন্নয়ন করেছেন। উন্নয়নের নামে লুটপাট করেছেন। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে এলাকাছাড়া করেছেন।

শেখ হাসিনার পার্বত্য শান্তিচুক্তির বিরোধীতাকারীরা এখন নৌকায় উঠে নৌকার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে উল্লেখ করে খাগড়ছড়ি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি বলেন, আজকের সমাবেশ থেকেই সেসব ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে জেগে উঠতে হবে। তাদের ষড়যন্ত্রের ফাঁদে কেউ পা দিবেন না।

মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সুবাস চাকমা, মাটিরাঙ্গা পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. হারুনুর রশীদ ফরাজী, সাধারণ সম্পাদক ও পৌর কাউন্সিলর মো. আলাউদ্দিন লিটন, খাগড়াছড়ি জেলা যুবলীগের সভাপতি যতন কুমার ত্রিপুরা ও সাধারণ সম্পাদক কেএম ইসমাইলসহ জেলা-উপজেলা ও পৌরসভাসহ বিভিন্ন ইউনিটের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখবেন।

এর আগে দলীয় ও জাতীয় পতাকা উত্তোলন শেষে কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি’র নেতৃত্বে এক বর্ণাঢ্য যুব র‌্যালি মাটিরাঙ্গার গুরুত্বপুর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এর পরপরই সমাবেশ মঞ্চে কেক কেটে যুবলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর উদ্বোধন করেন যুবলীগের কেন্দ্রীয় প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ মাহমুদুল হক।

যুবলীগের ৪৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষ্যে মাটিরাঙ্গা উপজেলা যুবলীগ আয়োজিত যুব র‌্যালি ও যুব সমাবেশে সাবেক সংসদ সদস্য একেএম আলীম উল্যাহ, আওয়ামী লীগ নেতা মো. আবুল কাশেম ভুইয়া, মাটিরাঙ্গা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. মনছুর আলী, মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ও সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান হিরনজয় ত্রিপুরা, সহসভাপতি মো. অলি উল্যাহ, জেলা যুবলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. মেহেদী হাসান হেলাল, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি ও পৌর কাউন্সিলর মো. এমরান হোসেন এবং আওয়ামী লীগ নেতা ও পৌর কাউন্সিলর মো. আবুল হাসেম ভুইয়া প্রমুখ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *