লামায় অবৈধভাবে পাহাড় কেটে পাথর উত্তোলনের সময় রোহিঙ্গা শ্রমিক নিহত


লামা প্রতিনিধি:

লামা উপজেলার গজালিয়ায় অবৈধভাবে পাহাড় কেটে পাথর উত্তোলনের সময় পাহাড় চাপা পড়ে মো. আজম (১৯) নামক এক রোহিঙ্গা শ্রমিক নিহত হয়েছে। নিহত রোহিঙ্গা শ্রমিক কক্সবাজারের উখিয়া কুতুপালং ধুমছড়া ক্যাম্পের শরণার্থী।

মঙ্গলবার(২৪এপ্রিল) সকালে পুলিশ নিহত রোহিঙ্গার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বান্দরবান সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেছে। অবৈধভাবে পাথর উত্তোলনের দায়ে পুলিশ পাথর ব্যবসায়ীসহ ৩ রোহিঙ্গাকে আটক করেছে।

জানা গেছে, উপজেলার গজালিয়া ইউনিয়নের উলুরঝিরিতে পাথর ব্যবসায়ী বাবুল(৩৬) উখিয়া শরণার্থী ক্যাম্পের রোহিঙ্গাদের দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে পাথর উত্তোলন করে পাচার করে আসছে। সোমবার বিকালে পাহাড় কেটে পাথর উত্তোলনের সময় ঘটনাস্থলে রোহিঙ্গা শ্রমিক মো. আজম(১৯) নিহত হয়। পাহাড় কেটে পাথর উত্তোলনে পাহাড় চাপা পড়ে নিহত হওয়ার ঘটনাটি প্রথমে ধামাচাপা দেওয়ার জন্য চেষ্টা করা হয়। ঘটনাটি জানতে পেরে ফাইতং পুলিশ ফাঁড়ির আইসি মো. হানিফের হস্তক্ষেপে লাশ উদ্ধার করা হয়।

লামা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আনোয়ার হোসেন জানান, পাহাড় কেটে পাথর উত্তোলন করার অপরাধে পাথর ব্যবসায়ী মো. বাবুলকে আটক করা হয়েছে। অবৈধভাবে পাথর উত্তোলনে নিয়োজিত থাকায় রোহিঙ্গা শ্রমিক মো. নুর(১৯), মোহছেন আলী(৩৫), জাহেদুল্লাহ (২২) কে আটক করা হয়েছে। এরা সকলে উখিয়ার কুতুপালং শরনার্থী শিবিরের রোহিঙ্গা। আটককৃতদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূর-এ-জান্নাত রুমি জানান, এই ঘটনায় ২টি মামলা রুজু করা হচ্ছে। সকল দোষীদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *