রোহিঙ্গা ফেরত নেওয়ার ব্যাপারে আর্ন্তজাতিকভাবে চাপ প্রয়োগ করা হচ্ছে


টেকনাফ প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের টেকনাফে অনুপ্রবেশকারী মিয়ানমার রোহিঙ্গা পরিস্থিতি পরিদর্শন করেছেন দূর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া। পরিদর্শনকালে তিনি বলেছেন, মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ার পর বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশানুযায়ী মানবিক দৃষ্টিকোণ থেকে আশ্রয় দেওয়া হবে এবং আশ্রিত রোহিঙ্গাদের ফেরত নেওয়ার ব্যাপারে আর্ন্তজাতিকভাবে চাপ প্রয়োগ করা হচ্ছে। মিয়ানমারে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের স্বদেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হবে।

শনিবার (৯ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২ টায় নয়াপাড়া নিবন্ধিত শরনার্থী ক্যাম্পে নতুন অনুপ্রবেশকারী রোহিঙ্গাদের উদ্দেশ্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের প্রেস বিফ্রিংকালে তিনি আরো বলেন, ছড়িয়ে ছিটিয়ে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের এক জায়গায় নিয়ে আসা হবে। এ জন্যে জায়গা খোঁজা হচ্ছে। সীমান্ত পাড়ি দিয়ে ইতিমধ্যে কি পরিমাণ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে তার কোন সঠিক পরিসংখ্যান না থাকলেও সূত্রমতে প্রায় ৩ লক্ষাধিক রোহিঙ্গা মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে।

এসময় মন্ত্রীর সাথে ছিলেন সাবেক আইনমন্ত্রী আমিনুল হক খসরু, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. শাহ কামাল, উখিয়া-টেকনাফ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুর রহমান বদি, কক্সবাজার এডিসি আবদুর রহমান, শরনার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মো. আবুল কালাম, উখিয়া সার্কেল চাইলাউ মারমা,  টেকনাফ উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর আলম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদ হোসেন ছিদ্দিক, আওয়ামীলীগের নেত্রী  ইসমত আরা ইসলুসহ প্রশাসন ও এনজিও সংস্থার প্রতিনিধিবৃন্দ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *