রাঙামাটিতে দুর্বৃত্তের হামলার শিকার মহিলা আ’লীগের নেত্রী


নিজস্ব প্রতিনিধি:

রাঙামাটিতে এবার দুর্বৃত্তের হামলার শিকার হয়েছেন জেলা মহিলা আ’লীগের সহ-সভাপতি ঝর্ণা খীসা।

তার পারিবারিক স্বজনরা জানান, বুধবার (৬ডিসেম্বর) ১০-১৫জনের একটি দল গভীর রাতে  মহিলা আ’লীগ নেত্রী ঝর্ণার বাড়িতে অতর্কিত হামলা চালায়। এসময় ঝর্ণা চাকমা তার স্বামী জীতেন্দ্র লাল চাকমা এবং ছেলে রণ বিষ্ণু চাকমাকে দুর্বৃত্তরা কুপিয়ে আহত করে। তারা বর্তমানে রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীণ রয়েছে।

এ ঘটনার জন্য তারা পাহাড়ের একটি আঞ্চলিক সংগঠনকে দায়ী করেছে। তাদের অভিযোগ বুধবার বিকেলে আ’লীগের সমাবেশে একটি আঞ্চলিক দলের বিরুদ্ধে কথা বলার কারণে তার উপর এ বর্বরোচিত হামলা করা হয়।

এদিকে রাঙামাটি কোতয়ালী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) লিমন বোস জানান, এ ঘটনায় থানায় এখনো কোন অভিযোগ পায়নি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

জাতীয় সংসদ সদস্য ও জেলা মহিলা আ’লীগের সভানেত্রী ফিরোজা বেগম চিনু এ ঘটনার তীব্র নিন্দা এবং অভিলম্বে অপরাধীদের গ্রেফতারের জোর দাবি জানান।

নিজের ফেসবুক পেইজে পোস্ট দিয়ে তিনি জানান, “আবারো নোংরা হামলার শিকার। গত রাতে মহিলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ঝর্না খীসা কে কুপিয়ে জখম করেছে। সাহস থাকলে রাজপথে আসুক। তীব্র ঘৃণা জানাচ্ছি এই ঘটনার। চোরের মত রাতের আঁধারে কাউকে আঘাত করা কাপুরুষতার পরিচয় বহন করে।বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগ রাঙামাটি জেলা শাখার পক্ষ থেকে তীব্র ক্ষোভ ও ঘৃণা জানাচ্ছি। তারা নিজেদের অবস্থান জেনে নোংরা খেলায় নেমেছে। এটার রেজাল্ট ভালো হবেনা। এখনই সময় ঐক্যবদ্ধ হবার। এ সকল সন্ত্রাসীরা দেশের শত্রু, জনগণের শত্রু, শান্তিতে সহবস্থানের শত্রু।”

তিনি আরো বলেন,“ কোথাকার কোন নাগরিক জানিনা। সে না কি পাহাড়ে অমানবিক হত্যাকাণ্ডের নির্দেশ দিবে। তার শিকার আমরা। মেনে নেওয়া যায়? সন্তুবাবু রাঙামাটির ভোটার না। রাঙামাটি থেকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করা হোক। প্রশাসন ব্যবস্থা নিন। না হলে ভালো হবেনা। আর কতদিন সইব এই নির্যাতন, আর খুন? কোথায় গেল সেই তথাকথিত বাম দল গুলো? আমরা যদি জেগে উঠি কেউই পার পাবেনা।”

image_pdfimage_print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *