মাটিরাঙ্গায় পুত্রের হাতে পিতা খুন


08-01-2017_matiranga-murder-news-pic-02

নিজস্ব প্রতিবেদক :

খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গায় ট্রাক্টর বিক্রয়কে কেন্দ্রকে মো. মফিজুল ইসলাম (৬২) নামে এক পিতা তার পুত্রের হাতে খুন হয়েছে। রোববার বেলা ১১টার দিকে মাটিরাঙ্গার তবরলছড়ি ইউনিয়নের সিংহপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকে ঘাতক পুত্র মো জসিম উদ্দিন (২৮) পলাতক রয়েছে।

পুত্রের হাতে থুন হওয়া পিতা মো. মফিজুল ইসলাম (৬২) সিংহ পাড়ার বাসিন্দা মৃত. সায়েদ আলীর ছেলে ও চার ছেলে ও তিন মেয়ের জনক।

নিহতের আত্মীয়-স্বজন ও পত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, বেশ কিছুদিন আগে চাষের জন্য একটি ট্রাক্টর ক্রয় করেন কৃষক মো. মফিজুল ইসলাম। যৌথ পরিবারে থাকা ছেলে মো. জসিম উদ্দিন ঠিকমতো কৃষিকাজ না করার কারণে তিনি ট্রাক্টর বিক্রি করে দিবেন বলে জানালে ঘটনার দিন সকালে পিতা-পুত্র বাক-বিতণ্ডে জড়িয়ে পড়ে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে পুত্র জসিম উদ্দিন ঘর থেকে ধারালো দা নিয়ে বয়োবৃদ্ধ পিতা মো. মফিজুল ইসলাম (৬২)-কে ধারালো দা দিয়ে তার ঘাড়ে একাধিক আঘাত করে। এসময় তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। ঘটনার পরপরই নিহতের আত্মীয়-স্বজন তাকে খাগড়াছড়ি হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে।

এদিকে নিহতের ছোট ভাই মো. নুরু মিয়া এ ঘটনায় মামলা দায়ের করবেন জানিয়ে বলেন, আমার ভাইকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। এমন পুত্রের বেঁচে থাকারও কোন অধিকার নেই বলেও মনে করেন তিনি।

নিহতের ঘাড়ের বাম পাশে দায়ের কোপ ছিল বলে নিশ্চিত করেছে খাগড়াছড়ি আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. ত্রিটন চাকমা।

পুত্রের হাতে পিতা খুন হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে মাটিরাঙ্গা থানার অফিসার ইচার্জ মো. সাহাদাত হোসেন টিটো বলেন, আমি ঘটনাস্থলে আছি। এবিষয়ে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান তিনি।

image_pdfimage_print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *