বাঘাইছড়িতে জেএসএস নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবাদ


 

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাঙামাটি:

 

পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (জেএসএস, এমএন লারমা গ্রুপ) নেতা এবং বাঘাইছড়ি উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান সুদর্শন চাকমাকে প্রধান আসামী করে সংগঠনটির ২১ নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে বাঘাইছড়ি থানায় দায়েরকৃত মামলার প্রতিবাদ জানিয়েছে সংগঠনটির নেতৃবৃন্দ।

রোববার (১২মার্চ) গণ মাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে প্রতিবাদ জানায় সংগঠনটি।

বিবৃতিতে বলা হয়, ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট’র (ইউপিডিএফ) উপজেলার কালেক্টর নতুন মণি চাকমাকে তার বাড়িতে চলতি মাসের ১০মার্চ শুক্রবার দিনগত রাতে ধারালো দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে তার সহকারী কালেক্টর অমরত্নন চাকমা দর্শন (৩৩)।

বিবৃতিতে আরও জানানো হয়, ইউপিডিএফ’র ওই দু’কালেক্টর উপজেলার রূপকারী ইউনিয়নে নিয়মিত চাঁদা আদায় করতো। চাঁদা আদায় নিয়ে দু’জনের মধ্যে ব্যক্তি সংঘাতের জেরে অমরত্নন কালেক্টর নতুন মণিকে হত্যা করে।

এ ঘটনাকে ভিন্ন খাতে প্রভাহিত করতে ইউপিডিএফ রাজনৈতিক উদ্দেশ্য জেএসএস এমএন লারমা গ্রুপের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে বাঘাইছড়ি থানায় মামলা দায়ের করে। সংগঠনটি এ মামলার তীব্র নিন্দা এবং মামলাটি প্রত্যাহারের জন্য জোর দাবি জানান।

প্রসঙ্গত: চলতি মাসের শনিবার (১১মার্চ) রাতে বাঘাইছড়ি থানায় গিয়ে নতুন মণি চাকমার স্ত্রী পঞ্চনালী চাকমা জেএসএস’র নেতা ও বাঘাইছড়ি উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান সুদর্শন চাকমাকে প্রধান আসামী করে সংগঠনটির ২১ নেতা-কর্মীকে প্রধান আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *