বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষনের আর্ন্তজাতিক স্বীকৃতি রামু উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বর্ণাঢ্য আনন্দ শোভাযাত্রা


রামু প্রতিনিধি:

স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ ইউনেস্কোর

‘মেমোরি অব দ্য ওয়ার্ল্ড ইন্টারন্যাশনাল রেজিস্টার’ এ অর্ন্তভুক্তির মাধ্যমে বিশ্ব ঐতিহ্য হিসেবে স্বীকৃতি অর্জন করায় রামুতে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বর্ণাঢ্য আনন্দ শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শোভাযাত্রা ছাড়াও আয়োজন করা হয় আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, প্রতিযোগিতা ও প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শণের।

শনিবার (২৫ নভেম্বর) সকাল ১০টায় রামু উপজেলা পরিষদ চত্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ এবং সমবেত কন্ঠে জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে শুরু হয় অনুষ্ঠান।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. শাহজাহান আলি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণ ইউনেস্কো কর্তৃক আন্তর্জাতিক প্রামাণ্যচিত্র হিসেবে স্বীকৃতি অর্জন বাঙ্গালী জাতির জন্য স্মরণীয় ও গৌরবের বিষয়। এ ভাষণের মাধ্যমে সোনার বাংলাদেশ অর্জনের পথ সুগম হয়েছিলো। আর এখন এ ভাষণের আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি দেশকে এগিয়ে নিতে প্রেরণা যোগাবে। তাই এ অর্জন বাংলাদেশের প্রতিটি মানুষের কাছে আনন্দের বার্তা নিয়ে এসেছে।

অনুষ্ঠানে রামু উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান আলী হোসেন, রামু থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এম লিয়াকত আলী, ওসি (তদন্ত) মিজানুর রহমান, বিজিবি রামু সদর সেক্টরের মেজর সিরাজুল ইসলাম, ৫০ বিজিবি’র সহকারী পরিচালক নুরুল ইসলাম, উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প কর্মকর্তা ডা. আবদুল মান্নান, রাজারকুল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মুফিজুর রহমান, সাবেক উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নুরুল হক, সাবেক ডেপুটি কমান্ডার রনধীর বড়ুয়া, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আনজুমান আরা বেগম, উপজেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা আবু নোমান মো. আবদুল্লাহ ও সেলিমগীর হোসেন, জেলা মৎস্যজীবীলীগ নেতা আনছারুল হক ভূট্টো, সাংবাদিক সোয়েব সাঈদ, খালেদ হোসেন টাপু প্রমুখ।

উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে বের হওয়া বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা রামু চৌমুহনীসহ বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। শোভাযাত্রায় মুক্তিযোদ্ধা, জনপ্রতিনিধি ও রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ, সরকারি-কর্মকর্তা-কর্মচারি, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক-শিক্ষার্থী, সাংস্কৃতিক কর্মী, এনজিও, স্কাউটস দল, পুলিশ এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সুসজ্জিত বাদক দলসহ সর্বস্তরের জনতা স্বতস্ফুর্তভাবে অংশ নেয়। অনুষ্ঠানের শেষ পর্বে “ওরা ১১ জন” সিনেমা প্রদর্শন করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *