প্রতিবন্ধী ও ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী কোটা বহাল রাখতে হবে: মেনন


নিজস্ব প্রতিনিধি:

সরকারের কোটা সংস্কার প্রক্রিয়ায় প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির চাকরিতে প্রতিবন্ধী ও ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী কোটা বহাল রাখার দাবি জানিয়েছেন সমাজকল্যাণমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন।

মঙ্গলবার (১৮ সেপ্টেম্বর)  সকালে  রাজধানীর ইস্কাটনে সুইড কমভেনশন সেন্টারে আয়োজিত ‘প্রতিবন্ধী নারী অধিকার বিষয়ক সম্মেলনে’ তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘দেশের প্রায় ১৬ লাখ প্রতিবন্ধীকে পেছনে রেখে জাতি উন্নয়নের শিখরে পৌঁছাতে পারবে না। প্রতিবন্ধীরা আমাদেরই সন্তান। সুতরাং তাদের জন্য আমাদের দায়িত্ব রয়েছে। চলমান কোটা সংস্কার প্রক্রিয়ায় প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির চাকরিতে সব কোটা বিলুপ্তির ক্ষেত্রে অসহায় প্রতিবন্ধী ও ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর জন্য সম্পূর্ণ কোটা তুলে দেয়ার সময় এখনও হয়নি।’

সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় থেকে প্রতিবন্ধীদের জন্য নানা উদ্যোগ প্রসঙ্গে মেনন  বলেন, ‘‘প্রতিবন্ধীদের জন্য সারাদেশে ১০৩টি প্রতিবন্ধী সহায়তা কেন্দ্র করা হয়েছে। হুইল চেয়ার, সাদা ছড়ি অনেকটা বিনামূল্যে বিতরণ করা হচ্ছে। এছাড়া, দেশব্যাপী প্রতিবন্ধীদের জন্য থেরাপি সেন্টার, অটিজম রিসোর্স সেন্টার করা হয়েছে। সাভারে প্রতিবন্ধী ক্রীড়া কমপ্লেক্স নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ঢাকায় ৪টিসহ সারাদেশে মোট ১১টি স্কুল ফর অটিজম  স্থাপন করা হয়েছে। এর পাশাপাশি ৩২টি মোবাইল থেরাপি ভ্যান বর্তমানে ৬৪টি জেলায় চলমান রয়েছে। ঢাকার টঙ্গীতে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের মাধ্যমে ‘মুক্তাপানি’ নামে স্বচ্ছ পানি উৎপাদন করা হচ্ছে। বর্তমানে এই ‘মুক্তাপানি’ লাভজনক অবস্থায় রয়েছে। ‘মুক্তাপানি’ বিক্রির লভ্যাংশের পুরো অর্থ প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের সহায়তায় ব্যয় করা হচ্ছে।”

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা সুলতানা কামাল, প্রতিবন্ধী বিষয়ক চিন্তাবিদ জুলিয়ান ফ্রান্সিস, নিজেরা করি-এর নির্বাহী পরিচালক খুশি কবির, প্রতিবন্ধী উন্নয়ন ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাহমুদা-মিন-আরা, মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন-এর নির্বাহী পরিচালক শাহিন আনাম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *