পেকুয়ায় বসতবাড়ি ভাংচুর, অসহায় পরিবার জিম্মি


পেকুয়া প্রতিনিধি:

পেকুয়ার সদর ইউনিয়নের মিঠাবেপারী পাড়া এলাকায় অসহায় পরিবারের বসতবাড়ি ভাংচুর করেছে দুর্বৃত্তরা। এসময় ওই পরিবারকে জিম্মি করে রাখতে ব্যবহৃত টয়লেটটি গুড়িয়ে দেওয়ার পাশাপাশি ভোগদখলীয় গাছও কেটে নিয়েছে তারা।

বৃহস্পতিবার (২নভেম্বর) সকালে এ ঘটনা ঘটে। জিম্মি পরিবারের পক্ষে মৃত বদিউল আলমের স্ত্রী মোর্শিদা বেগম বলেন, স্বামী মারা যাওয়ার পর পৈত্রিক সূত্রে প্রাপ্ত জমিতে আমি ছেলে সন্তান নিয়ে বসবাস করে আসছি। এছাড়াও সীমানা সংলগ্ন মাথায় পৈত্রিকভাবে প্রাপ্ত খাস জমিতে গাছপালা স্থীতিসহ টয়লেট ব্যবহার করছিলাম। স্বামী মারা যাওয়ায় ওই জমির উপর লোলপ দৃষ্টি পড়ে অপর ভাই ফরিদ আলম গংয়ের। দীর্ঘদিন ধরে তারা জমি দখলসহ গাছপালা কেটে নেওয়ার চেষ্টা করে আসছিল। যার কারণে চকরিয়া আদালতে একটি মামলা দায়ের করি। যার মামলা নং-৮১০/১৭।

এদিকে মামলা চলমান অবস্থায় ফরিদ আলমের পুত্র মো. শুক্কুর, মো. বাচ্ছু, মো. আচ্ছু ও মো. নাসির বসতবাড়ি ভাংচুর করে টয়লেট গুড়িয়ে দেওয়ার পাশাপাশি চলাচল রাস্তায় ঘেরা দিয়ে আমাদের জিম্মি করে রাখে। এর প্রতিবাদ করায় রোপিত গাছ সন্ত্রাসী কায়দায় কেটে নিয়েছে তারা। এমনকি আমার পুত্র আবুল বশরকে বৃহস্পতিবার গাড়ি চাঁপা দিয়ে প্রাণে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে। তাদের ধারাবাহিক হুমকিতে তিনমাস ধরে বসতবাড়ি ছাড়া হয়েছে সে। আমি এই বিষয়ে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

এদিকে এসব অভিযোগ অস্বীকার মো. শুক্কুর বলেন, টয়লেট স্থীতি জমিটি আমরা পাবো। তাই ঘেরা দিয়েছি। আমরা বসতবাড়ি ভাংচুর করিনি। গাছ আমাদের তাই কেটে নিয়েছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *