দ্রুত দেশে ফিরতে শিলং এ রায়ের অপেক্ষায় সাবেক মন্ত্রী সালাহউদ্দিন আহমদ


বিশেষ প্রতিনিধি, কক্সবাজার:

শিলং নির্বাসিত জীবনের ৪র্থ বছরে দ্রুত দেশে ফিরতে মামলার রায়ের অপেক্ষা করছেন বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী সালাহ উদ্দিন আহমদ। আজ থেকে ৩ বছর আগে গুম হওয়ার ৬২ দিন পর এই দিনে ভারতের শিলং রাজ্যে পাওয়া গিয়েছিল বিএনপি জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক মন্ত্রী সালাহউদ্দিন আহমদকে।  ১১ মে তার গুম হওয়া থেকে ফিরে আসার ৪র্থ বছর। আর সেই থেকে সালাহউদ্দিন আহমদ সেখানেই (শিলং) নির্বাসন জীবনযাপন করে আসছেন।

২০১৫ সালের ১১ মে আজকের এই দিনে ভারতের মেঘালয় রাজ্যের শিলং শহরে একটি গাড়ি থেকে নামিয়ে দিয়ে তাকে  মুক্তি দেয়া হয়েছিল। সাবেক মন্ত্রী সালাহউদ্দিন আহমদ ভারতের মেঘালয় রাজ্যের শিলং এ অবস্থান করছেন আজ দীর্ঘ তিন বছর। তিনি বর্তমানে শিলংএ অবস্থানকালে শারীরিকভাবে ভাল আছেন। যদিও চিকিৎসার জন্য দিল্লীতে আসা যাওয়া করেছেন বেশ কয়েকবার। ভারতীয় একটি পাসপোর্ট এ্যাক্ট আইন মামলায় জড়িত হয়ে দীর্ঘ তিন বছর যাবৎ তিনি ভারতের শিলং এ অবস্থান করছেন এবং তিনি সেখানে জামিনে মুক্ত ও খোলা অবস্থায় জীবন যাপন করছেন।

সূত্র আরও জানায়, তিনি বাংলাদেশে আটক পরবর্তী ঘটনার পর এ বিষয় নিয়ে বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের কাটিং, ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়া ও আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত বিভিন্ন প্রমানাদি ভারতের বিচারাধীন আদালতে উপস্থাপন করেছেন। এসব প্রমানাদি দেখে বিচারক ওই মামলা থেকে খালাস দেবেন বলে তিনি আশা প্রকাশ করছেন। তিনি নামাজ, কোরআন হাদিস, পত্র-পত্রিকা ও বই পড়ে মেঘালয়ের শিলং এ নির্বাসিত জীবন কাটাচ্ছেন।

সূত্র মতে, বিগত ২০১৫ সালের ১০ মার্চ রাতে ঢাকার উত্তরার একটি বাসা থেকে একদল সাদা পোশাকধারী লোক, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী পরিচয় দিয়ে বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক মন্ত্রী সালাহউদ্দিন আহমদকে আটক করে। ওই সময় তারা তাকে গামছা দিয়ে চোখ বেঁধে গাড়িতে তুলে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়। পরে দীর্ঘ ৬২ দিন একটি অজ্ঞাত স্থানে আটক রাখার পর, পরবর্তীকালে  ২০১৫ সালের ১১ মে ভারতের মেঘালয়ের শিলং শহরে তিনি উদ্ধার হন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *