টইটং ৬নং ওয়ার্ডের উপ-নির্বাচনে জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের দাবি প্রার্থীদের


পেকুয়া প্রতিনিধি:

পেকুয়া উপজেলার সীমান্তবর্তি টইটং ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের উপ-নির্বাচন ১৬ এপ্রিল। আর এ উপ-নির্বাচনে জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের জন্য প্রার্থীরা সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কাছে জোর দাবি জানিয়েছেন।

টইটং ইউনিয়ন পাহাড় বেষ্টিত ও চট্টগ্রাম জেলার সীমান্ত এলাকা হওয়ায় বহিরাগত সন্ত্রাসীরা বিভিন্ন অপরাধ সংগঠিত করে সহজে পালিয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা করছে প্রার্থীরা। বিগত ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ও উপজেলা আ’লীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক শহীদুল ইসলাম সাবেক চেয়ারম্যানকে নির্বাচনের ২ দিন আগে অপহরণ করে নির্বাচনের দিন রাতে ছেড়ে দেয়।

বর্তমান ওই ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়াতে বহিরাগত সন্ত্রাসীরা এলাকায় ব্যাপক আনাগুনা করতে দেখা যাচ্ছে। এতে প্রার্থীরা চরম হতাশায় ভোগছেন। এমনকি প্রার্থীরা যথাযথ উপনির্বাচনে ভোট ডাকাতিসহ নানা ধরণের ভীতিকর পরিস্থিতির আশঙ্কা করে বুধবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহাবুবউল করিমের কাছে ওই উপনির্বাচনে জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দেওয়ার দাবি জানিয়ে ওই ওয়ার্ডের টিউবওয়েল প্রতীকের মেম্বার পদপ্রার্থী শাহাদত হোছাইন লিখিত আবেদন করেছেন।

লিখিত আবেদনে তিনি উল্লেখ করেছেন, ওই প্রার্থীকে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর জন্য হুমকি ধমকি দিচ্ছে স্থানীয় চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে। এমনকি টিউবওয়েল প্রতীক সমর্থিত ভোটারদেরকে নানা ভাবে হুমকি ধমকি দিয়ে যাচ্ছে। তাদের মনের মত প্রিসাইডিং অফিসার ও পোলিং অফিসার নিয়োগ দেওয়ার জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

সুষ্ঠ নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে তদন্ত সাপেক্ষে টইটং ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের উপনির্বাচনে ভোট কেন্দ্রে একজন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ও অতিরিক্ত পুলিশ বাহিনী দেওয়া না হলে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা করছেন। সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে ওই আবেদনের অনুলিপি প্রেরণ করেছেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা মাহাবুবউল করিমের সাথে যোগাযোগ করার জন্য ওনার ব্যবহৃত মোবাইল নাম্বারে কল দিলেও কল রিসিভ না করায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

image_pdfimage_print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *