চকরিয়ায় মহাসড়কে টমটম ভাংচুর করে চালককে পিটিয়ে গুরুতর আহত


চকরিয়া প্রতিনিধি:

চট্রগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে রোগী নিয়ে টমটম চালিয়ে যাওয়ার সময় গাড়ি ভাংচুর করে ও গাড়ীর চালক মহিউদ্দিন(২৪)কে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে ডুলাহাজারাস্থ মালুমঘাট হাইওয়ে পুলিশের এটিএসআই মাঈনউদ্দিন।

এ সময় এটিএসআই টমটম গাড়ির গ্লাসের সামনে লাঠি দিয়ে আঘাত করলে গ্লাস ভেঙ্গে চোখে আঘাত লাগে ওই চালকের। এ ঘটনায় স্থানীয় জনতা ক্ষুব্ধ হয়ে ডুলাহাজারা স্টেশনের মহাসড়কে ব্যারিকেড সৃষ্টি করলে চট্রগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের প্রায় একঘন্টা ধরে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

পরে চকরিয়া সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার ও স্থানীয় চেয়ারম্যান ঘটনাস্থলে গিয়ে দায়ী ব্যক্তির বিচার ও চিকিৎসা খরচ দেয়ার আশ্বাস দিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

শনিবার (৯ডিসেম্বর) সকাল ১১টার দিকে উপজেলার ডুলাহাজারাস্থ স্টেশন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, চট্রগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে শনিবার (৯ডিসেম্বর) সকাল ১১টার দিকে ডুলাহাজারাস্থ বালুচর নামক এলাকা থেকে একটি টমটম গাড়ি একজন রোগী নিয়ে প্রাইভেট চিকিৎসকের কাছে যায় ডুলাহাজারা স্টেশন এলাকায়।

এ রোগীকে প্রাইভেট ডাক্তারের চেম্বারে পৌঁছে দিয়ে ফেরার পথে মালুমঘাট হাইওয়ে পুলিশ গাড়িটি থামতে বাধ্য করেন। মহাসড়কে টমটম গাড়ি চালানো ক্ষুব্ধ হয়ে হাইওয়ে পুলিশের এটিএসআই মাঈনউদ্দিন টমটমের গ্লাস ভেঙ্গে দিলে ভাঙ্গা গ্লাসের আঘাতে চালকের চোখে ও বেধড়ক পিটিয়ে গুরুতর আহত করা হয়। আহত করার পরও এই পুলিশ কর্মকর্তা টমটম গাড়িটিও সড়কের উপর উল্টে দেন। এ সংবাদ পেয়ে স্থানীয় ও বাজারের আশপাশের জনতা ঘটনাস্থলে পৌঁছে ক্ষুদ্ধ হয়ে উঠেন।

পরে স্থানীয় জনতা মহাসড়কের ডুলাহাজারা স্টেশনে ঘন্টাব্যাপী সড়ক অবরোধ করে যান চলাচল বন্ধ করে দেন। এতে মহাসড়কে দু’পাশে শতাধিক যানবাহন আটকা পড়ে বন্ধ হয়ে যায় যান চলাচল। ঘটনার সংবাদ পেয়ে তাৎক্ষনিক ভাবে চকরিয়া সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) কাজী মো. মতিউল ইসলাম ও চকরিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মিজানুর রহমান ও উপ-পরিদর্শক(এসআই) মো. আবদুল খালেকসহ সঙ্গীয় একদল পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। পুলিশ প্রশাসন ও স্থানীয় চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নুরুল আমিনের হস্তক্ষেপে ঘটনার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ডুলাহাজারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো.  নুরুল আমিন বলেন, ডুলাহাজারা স্টেশন এলাকায় এ ধরণের ঘটনার সংবাদ পেয়ে সাথে সাথে ঘটনাস্থলে পুলিশ কর্মকর্তাসহ আমি এই স্থানে গিয়ে জনতাকে সুষ্ঠ সমাধানের আশ্বাস দিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনি। আহত টমটম চালক মহিন উদ্দিনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে ডুলাহাজারাস্থ মালুমঘাট হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (এস আই)মো. রুহুল আমিনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, জনতা যে ভাবে বিকৃত করে ঘটনা সম্পর্কে যতটুকু বলা হচ্ছে ততটুকু ঘটনাটি হয়নি। এটি শুধুমাত্র একটি অনাকাঙ্খিত ঘটনা। রাস্তা থেকে গাড়ি নিয়ে পালাতে গিয়েই মূলত গাড়ি উল্টে চালক আহত হয়। তারপরও ঘটনার বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দেয়া হয়েছে।

ঘটনাস্থলে যাওয়া চকরিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মিজানুর রহমান এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ঘটনার সংবাদ পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। সড়কের এ ঘটনার বিষয়টি হাইওয়ে পুলিশের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে বলেও তিনি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *