খাগড়াছড়িতে বৃদ্ধি পেয়েছে বরবটি চাষ


খাগড়াছড়ি, প্রতিনিধি:

কম খরচে অধিক লাভবান হওয়ায় খাগড়াছড়িতে বরবটি চাষ বৃদ্ধি পেয়েছে। সবজি হিসেবে বরবটির ব্যাপক চাহিদা থাকায় বাজারে ভালো দাম পাওয়া যায় । আধুনিক পদ্ধতি ও উন্নত মানের বীজ বপনের মাত্র পয়ত্রিশ থেকে চল্লিশ দিনের মধ্যে ফলন আসে। কম সময়ে ফলন পাওয়া ও বাজারে এর চাহিদা থাকায় খাগড়াছড়ির প্রায় প্রতিটি উপজেলাতে বাড়ছে বরবটির চাষ।

খাগড়াছড়ি সদরের ভাইবোন ছড়া ও পানছড়ি উপজেলার কয়েকটি এলাকা ঘুরে দেখা গেছে বেশ কয়েকটি বড়বড় বরবটির প্লট।

সঠিক পরিচর্যা ও সময় মতো বীজ বপন করলে প্রতি একর জমি থেকে সাত থেকে আট টন বরবটি পাওয়া যায়। বরবটি চাষে সার, বীজ, অন্যান্য ব্যবস্থাপনা সহ ধাপেধাপে একর প্রতি খরচ পরে ৫০ /৬০ হাজার টাকা। বিক্রি আসে প্রায় তিন থেকে সাড়ে তিন লাখ টাকা।

কুঁড়াদিয়া ছড়া এলাকার কৃষক রেন্টু চাকমা জানান, গতবছর তিনি চল্লিশ শতক জমিতে বরবটি চাষ করেছিলেন। সমস্ত ব্যয় শেষে এক লাখ টাকা লাভ হয়েছে। এবারো তিনি একই জায়গায় বরবটি চাষ করছেন।

পানছড়ি বাজারের সার ও বীজ ব্যবসায়ী মো. দুলাল মিয়া জানান, গত বছরের তুলনায় এবার বরবটি বীজ বিক্রি হয়েছে অনেক বেশি। প্রতি একর জমিতে বরবটি বীজ লাগে ৫ কেজি।
এবছর তিনি প্রায় ২০০ কেজি বীজ বিক্রি করেছেন।

মোজাইক ভাইরাস বরবটির প্রধান রোগ। জাপ পোকা এ রোগের বাহন। এছাড়াও বরবটির পাতা খেকে পোকা ও ফল ছিদ্রকারী পোকার আক্রমন দেখা যায়। পোকার আক্রমনের সাথে সাথেই ব্যবস্থা নিলে ভালো ফসল পাওয়া যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *