কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে ইউনিফর্ম বাধ্যতামূলক


কক্সবাজার প্রতিনিধি:

বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজারকে আরও বেশী পর্যটনবান্ধব করতে নানামুখী উদ্যোগ গ্রহণ করছে জেলা প্রশাসন। বিশেষ করে বীচ এলাকার ওয়াটার বাইক, বীচ বাইক চালক, ফটোগ্রাফার, দোকানদার ও কীটকট ব্যবসায়ীদের নির্ধারিত ইউনিফর্ম বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। নির্ধারিত ইউনিফর্ম অনুসরণ না করলে কার্ড বাতিলসহ কঠোর ব্যবস্থা নেয়ারও সিদ্ধান্ত নিয়েছে জেলা প্রশাসন।

কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের পর্যটন ও প্রটোকল শাখা সূত্রে জানা গেছে, ওয়াটার বাইক ‘হলুদ’, বীচ বাইক ‘কমলা’, ফটোগ্রাফার ‘লাল’, দোকানদারও কীটকট ব্যবসায়ীরা ‘নীল’ রঙের পোষাক পরবেন। তাদের প্রত্যেকের জন্য দেয়া হয়েছে আলাদা নাম্বার। নির্ধারিত ইউনিফর্ম ছাড়া বীচ এলাকায় কেউ ব্যবসা করলে তাদের কার্ড বাতিলসহ শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের পর্যটন ও প্রটৌকল শাখার কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুল ইসলাম জয়।

তিনি বলেন, কে পর্যটক, আর কে সেবা প্রদানকারী তা অনেক সময় চেনা সম্ভব হয় না। ফলে হয়রানীর শিকার পর্যটকদের প্রতিকার দেয়া কঠিন হয়ে যায়। বিষয়টি বিবেচনা করে জেলা প্রশাসন প্রত্যেক ব্যবসায়ীকে ইউনিফর্ম বাধ্যতামূলক করেছে।

তিনি জানান, নির্ধারিত পোষাক সমুদ্র সৈকতকে আরও আকর্ষণীয় করবে। পর্যটনশিল্পকে আরও এগিয়ে নিয়ে যাবে। নিয়ম মেনে চলতে তিনি সংশ্লিষ্ট সকলকে অনুরোধ করেছেন।

এদিকে জেলা প্রশাসনের এই সিদ্ধান্তকে সময়োপযোগী মন্তব্য করেছেন কক্সবাজারের সুশীল সমাজ।

কক্সবাজার সোসাইটির সভাপতি কমরেড গিয়াস উদ্দিন বলেন, অনেক দিন পর হলেও জেলা প্রশাসন একটি জনহিতকর উদ্যোগ নিয়েছে। এটি প্রশাসনের চিন্তাশক্তির গভীরতা ও সৃজনশীলতার বহিঃপ্রকাশ। তিনি মনে করেন, এমন নতুন নতুন ভাবনাগুলো কক্সবাজারকে আরও সমৃদ্ধ করবে। বহির্বিশ্বে এগিয়ে নেবে কক্সবাজারের পর্যটন শিল্প।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *