নানিয়ারচরে পর্যটকদের উপর সন্ত্রাসী হামলা, উদ্ধারে গিয়ে ৮ সেনা সদস্য আহত


নিজস্ব প্রতিনিধি:

নানিয়ারচরে পর্যটকবাহী গাড়িতে ইউপিডিএফ সন্ত্রাসীদের হামলার ঘটনায় উদ্ধার তৎপরতা চালাতে যাওয়া সেনাবাহিনীর গাড়ি গভীর খাদে পড়ে ৮ সেনা ও আনসার সদস্য আহত হয়েছে।

শুক্রবার(১৯শে অক্টোবর) সকাল সাড়ে নয়টায় নানিয়ারচর জোনের অধীন কেংড়াছড়ি এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

আহতদের মধ্যে গুরুতর তিনজনকে হেলিকপ্টারযোগে প্রথমে চট্টগ্রাম সিএমএইচ পরে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। তিনজন হলো, সৈনিক মামুন, সৈনিক মোজাম্মেল ও সৈনিক সাজু।

সূত্রে জানাযায়, শুক্রবার সকাল সাড়ে নয়টায় নানিয়ারচর জোনের অধীন কেংড়াছড়ি এলাকায় সশস্ত্র সন্ত্রাসী সংগঠন ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট ইউপিডিএফ এর সশস্ত্র শাখার নেতা অগ্রসর চাকমার নেতৃত্বে পাঁচ-ছয় জনের একদল সন্ত্রাসী রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি সড়কের কেংড়াছড়ি এলাকায় অবস্থান নেয়। এসময় খাগড়াছড়ি থেকে রাঙামাটি অভিমুখে আসা হানিফ পরিবহনের দু’টি বাস ও দু’টি মাইক্রোর একটি বহর কেংড়াছড়ি এলাকা অতিক্রমকালে সশস্ত্র দলটি গাড়িগুলো থামানোর চেষ্টা চালায়।

এসময় বিষয়টি বুঝতে পেরে গাড়িগুলো না থামিয়ে চলে আসলে সন্ত্রাসীরা গাড়িগুলো লক্ষ্য করে গুলি চালায়। এতে পেছনে থাকা হানিফ বাস (ঢাকা মেট্রো-ব- ১৪-৫৭২৯) এর পেছনের বডিতে তিনটি গুলি লাগলেও কেউ হতাহত হয়নি।

এদিকে এই ঘটনার খবর পেয়ে নানিয়ারচর জোন থেকে একটি টহলদলকে ঘটনাস্থলে পাঠানোর সময় বগাছড়িস্থ বউ বাজার এলাকা অতিক্রমকালে সেনাবাহিনীর গাড়িটি দুর্ঘটনায় কবলিত হয় এতে রাস্তা থেকে প্রায় তিনশো ফুট নিচে পড়ে যায় গাড়িটি

সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জানিয়েছে, পেছনে থাকা বাসটিকে থামানোর সংকেত দেওয়ার পরও সেটি না থামালে সন্ত্রাসীরা গুলি করে। সূত্রটির দাবি, মূলতঃ পর্যটকদের অপহরণ করার জন্যেই সন্ত্রাসীরা গাড়িটি থামানোর চেষ্টা করেছিলো। এই লক্ষ্যেই সন্ত্রাসীরা ভারী অস্ত্র-শস্ত্র নিয়েই রণপ্রস্তুতি নিয়ে রাস্তায় নেমেছিলো। গুলি লাগা বাসটিতে ৩৯জন যাত্রী ছিলো। তারা সকলেই রাজশাহীর একটি ক্রীড়া সংগঠনের পক্ষ থেকে রাঙামাটি সফরে এসেছিলো।

এদিকে পর্যটকবাহী গাড়ির বহরটিকে ঘিলাছড়ি আর্মি ক্যাম্পে এনে তাদের কাছে ঘটনার বিবরন শোনা হয়। পরে তাদেরকে স্কট দিয়ে রাঙামাটির প্রবেশমুখ মানিকছড়ি পর্যন্ত পৌঁছে দেয় সেনাবাহিনী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *