ইভটিজিং দায়ে এক যুবককে ভ্রাম্যমান আদালতের ২০ হাজার টাকা জরিমানা


চকরিয়া প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের চকরিয়ায় মাদ্রাসা পড়ুয়া এক ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করার দায়ে জাবেদুল ইসলাম (৩২) নামে এক যুবককে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নূরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান।

বৃহস্পতিবার(১৫মার্চ) বিকাল ৪টার সময় উপজেলার লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের ছিকলঘাট স্টেশনে প্রকাশ্যে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এ আদেশ প্রদান করেন। যুবক জাবেদুল ইসলাম ওই ইউনিয়নের উত্তর লক্ষ্যারচর এলাকার মৃত নুরুল ইসলামের পুত্র বলে জানা গেছে।

চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী জানান, উপজেলার কৈয়ারবিল-লক্ষ্যারচর সড়ক দিয়ে আমজাদিয়া রফিকুল উলুম ফাজিল মাদ্রাসা পড়ুয়া এক ছাত্রী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিয়মিত যাওয়া-আসা করার সময় ওই ছাত্রীকে দীর্ঘ দিন ধরে নানা ভঙ্গিমা দেখিয়ে উত্ত্যক্ত করে আসছিল যুবক জাবেদুল ইসলাম। বুধবার সন্ধ্যার দিকে মাদ্রাসা পড়ুয়া ছাত্রীর অভিভাবক যুবককে অভিযুক্ত করে থানায় অভিযোগ করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে থানার এসআই জুয়েল চৌধুরীর নেতৃত্বে সঙ্গীয় পুলিশ নিয়ে লক্ষ্যারচর স্টেশন থেকে তাকে আটক করে। বৃহস্পতিবার বিকালে আটক যুবককে ভ্রাম্যমাণ আদালতে পাঠানো হয়েছে বলে জানান।

এ ব্যাপারে চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্র্রেট নূরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান বলেন, বিকালে লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের ছিকলঘাট স্টেশনে স্থানীয় জনতার সামনে মাদ্রাসা পড়ুয়া এক ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত ও ইভটিজিং করার দায়ে জাবেদুল ইসলাম নামের যুবককে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে স্বাক্ষ্যপ্রমানের ভিত্তিতে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এলাকায় যেন কেউ এ ধরণের আর কোন ঘটনা না ঘটায় এবং জনগণের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে স্থানীয় জনতার সামনে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে এ জরিমানা করা হয় বলেও তিনি জানান।

এ সময় স্থানীয় লক্ষ্যারচর ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা কাইছার, সাবেক চেয়ারম্যান হাজ্বী নুরুল কবির, আমজাদিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ, ইউপি সদস্য আবুল কালাম, লক্ষ্যারচর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বদিউল আলমসহ এলাকার বিভিন্ন ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *