খাগড়াছড়িতে মসজিদ উন্নয়ন ও প্রতিবন্ধী নারীকে খাগড়াছড়ি জোনের আর্থিক অনুদান

নিজস্ব প্রতিবেদক, খাগড়াছড়ি:

মসজিদ উন্নয়ন এবং প্রতিবন্ধী মহিলাকে আর্থিক অনুদান প্রদান করলো খাগড়াছড়ি সদর জোন।

বুধবার পানছড়ি উপজেলার আওতাধীন জিয়ানগর এলাকায় জিয়ানগর বায়তুল জান্নাত জামে মসজিদ এর নির্মাণ/সংস্কার কাজের জন্য আর্থিক অনুদান এবং মোছাঃ আছিয়া খাতুন (স্বামীঃ মৃত হাছান আলী, জিয়ানগর, পানছড়ি, খাগড়াছড়ি)’কে চিকিৎসার জন্য আর্থিক অনুদান প্রদান করেন খাগড়াছড়ি সদর জোন এর জোন কমান্ডার লে. কর্নেল মোহাম্মদ আরাফাত হোসেন, পিএসসি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন মেজর মো. সোহেল আলম, সাব জোন কমান্ডার, পানছড়ি। মসজিদের অনুদানটি গ্রহণ করেন মো. আব্দুস সালাম, সভাপতি, জিয়ানগর বায়তুল জান্নাত জামে মসজিদ এবং চিকিৎসা অনুদান গ্রহণ করেন মোছাঃ আছিয়া খাতুন (প্রতিবন্ধী)।

মো. আব্দুস সালাম ও মোছাঃ আছিয়া খাতুন (৭৮) (প্রতিবন্ধী)অনুদান পেয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং ভবিষ্যতেও বিভিন্ন প্রয়োজনে নিরাপত্তা বাহিনীর সহয়তা কামনা করেন।

এ বিষয়ে খাগড়াছড়ি সদর জোন কমান্ডার লে. কর্নেল মোহাম্মদ আরাফাত হোসেন, পিএসসি এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান নির্মাণ/সংস্কার, চিকিৎসা সহায়তাসহ পাহাড়ি জনসাধারণসহ পাহাড়ে বসবাসরত জনগণের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের পাশাপাশি সকল সম্প্রদায়ের মধ্যে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় খাগড়াছড়ি সদর জোন তথা সেনাবাহিনীর এরূপ উদ্যোগ অব্যাহত থাকবে।

পার্বত্য চট্টগ্রামের অপরাজনীতি থেকে বেরিয়ে আসার আহ্বান: লে. কর্নেল রিদওয়ান

নিজস্ব প্রতিনিধি, রাঙামাটি:

রাঙামাটি জোনের অধিনায়ক লে. কর্নেল রিদওয়ানুল ইসলাম বলেন-পার্বত্য চট্টগ্রামে যে অপরাজনীতি চলছে তা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। সমাজের উন্নয়নে, দেশের স্বার্থে কাজ করতে হবে।

শনিবার (২ ফেব্রুয়ারি) সকালে কাউখালীর ঘাগড়া আর্মি ক্যাম্প প্রাঙ্গণে রাঙামাটি রিজিয়ন কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের বিভিন্ন ব্যাচের প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের মাঝে সনদপত্র বিতরণকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

লে. কর্নেল আরও বলেন-পার্বত্যঞ্চলের সুবিধা বঞ্চিত মানুষদের উন্নয়নে সেনাবাহিনী কাজ করে যাচ্ছে। সেনাবাহিনী ছাড়া আর কেউ করেও না। বাকীরা রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিলে নানা কর্মকাণ্ড পরিচালনা করে।

সেনাবাহিনীর এ কর্মকর্তা জানান- সরকার আমাদের বেতন প্রদান করেন দেশের এবং দেশের মানুষের উন্নয়নে কাজ করার জন্য। দেশের যে কোন সংকটময় মূহুর্তে আমরা প্রস্তুত থাকি এবং নিবেদিত হয়ে কাজ করি।

লে. কর্নেল আরও জানান- শিক্ষার্থীদের এতদিন প্রশিক্ষণ প্রদান করা হতো তিনমাস। আগামীতে এ প্রশিক্ষণ ছয়মাস করা হবে। প্রশিক্ষণ শেষে শিক্ষার্থীদের ইন্টার্নি করার সুযোগ করে দেওয়া হবে।

যারা মেধা তালিকায় প্রথম, দ্বিতীয় এবং তৃতীয় স্থান অধিকার করবে তাদের পুরস্কার প্রদান করা হবে এবং মেধাবীদের চাকরীরও ব্যবস্থা করা হবে বলে লে.কর্নেল রিদওয়ান আশ্বাস প্রদান করেন।

জোনের ক্যাপ্টেন শাহমাদ বিন রাদ’র সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন- কাউখালী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এসএম চৌধুরী, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মিনহাজুর রহমান, ঘাগড়া কলেজের অধ্যক্ষ শ্যামল মিত্র চাকমা, ঘাগড়া ইউপি চেয়ারম্যান জগদীশ চাকমা এবং প্রশিক্ষক মেহেদি হাসান।

প্রশিক্ষণার্থীদের মধ্যে অনুভূতি ব্যক্ত করেন-আব্দুল মালেক এবং জুঁই চাকমা।

আলোচনা শেষে ৫টি ব্যাচের মোট ১০০জন প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের মাঝে সনদপত্র বিতরণ করা হয় বলে প্রশিক্ষক মেহেদি হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

সাজেকে সেনাবাহিনীর বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ওষুধ বিতরণ

সাজেক প্রতিনিধি:

পার্বত্য জেলা রাঙ্গামাটির সাজেকের  বাঘাইহাট গংগারাম বাজার এলাকায় হতদরিদ্র রোগীদের মধ্যে দিনব্যাপী চিকিৎসা সেবা ও বিনামূল্যে ওষুধ বিতরণ করেন বাঘাইহাট ১২বীর সেনাজোন কর্তৃপক্ষ।

বৃহস্পতিবার (২৪জানুয়ারি ) সকাল ৯টায়  গঙ্গারাম বাজার এলাকায় সিনিয়রস’ ক্লাবে পাহাড়ি ও বাঙালিদের মাঝে মেডিকেল ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত হয়। এসময়  শতাধিক পাহাড়ি-বাঙালি রোগীকে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ওষুধ বিতরণ করা হয়।

চিকিৎসা সেবা প্রদান করেন বাঘাইহাট সেনা জোনের আরএমও ক্যাপ্টেন খায়রুল এনাম মো. শাফায়াত জামিল ও মেডিকেল টিমের সদস্যরা।

দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় সেনাবাহিনীর খেলধুলা সামগ্রী বিতরণ

প্রেসবিজ্ঞপ্তি:

খাগড়াছড়ির দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় খেলাধুলার  সামগ্রী বিতরণ করেছে সেনাবাহিনী খাগড়াছড়ি জোন।

বৃহস্পতিবার(১৭ জানুয়ারি) খাগড়াছড়ির সদর উপজেলার ভাইবোনছড়া ইউনিয়নের দুইটি পাড়ায় খেলাধুলা সামগ্রী বিতরণ করেন খাগড়াছড়ি সদর জোন কমান্ডার লে. কর্নেল মোহাম্মদ আরাফাত হোসেন, পিএসসি।

এসময় মুসলিমপাড়ার পক্ষ হতে মো. তাজুল ইসলাম, ভাইবোনছড়া ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য এবং ৬ নং প্রকল্পপাড়ার পক্ষ হতে রিপন চাকমা খাগড়াছড়ি সদর জোনের ভাইবোনছড়া আর্মি ক্যাম্পে এসে এসব সামগ্রী গ্রহণ করেন।

খেলাধুলার সামগ্রী পেয়ে আগত এলাকাবাসী সেনাবাহিনীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে এবং ভবিষ্যতেও বিভিন্ন প্রয়োজনে সেনাবাহিনীর সহায়তা কামনা করেন।

এ বিষয়ে খাগড়াছড়ি সদর জোন কমান্ডার লে. কর্নেল মোহাম্মদ আরাফাত হোসেন পিএসসি’র সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, পাহাড়ে বসবাসরত আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের পাশাপাশি সকল সম্প্রদায়ের মধ্যে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় সেনাবাহিনীর এরূপ উদ্যোগ ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে।

খাগড়াছড়ি জোন সদরে শীতার্তদের মাঝে সেনাবাহিনীর শীতবস্ত্র বিতরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক, খাগড়াছড়ি:

খাগড়াছড়িতে শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। খাগড়াছড়ি জোন সদরে এই শীতবস্ত্র বিতরণ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

মঙ্গলবার (১৫জানুয়ারি) পরিচালিত শীতবস্ত্র কর্মসূচিতে ভিডিপি, হিল আনসার ও স্থানীয় বেসামরিক জনগণসহ মোট ১৫০ জনকে শীতবস্ত বিতরণ করা হয়েছে।

বিতরণ কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খাগড়াছড়ি সদর জোনের জোন কমান্ডার লে. কর্নেল মোহাম্মদ আরাফাত হোসেন, পিএসসি।

কর্মসূচিতে আগত শীতার্ত ব্যক্তিবর্গ শীতবস্ত্র পেয়ে সেনাবাহিনীর প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং ভবিষ্যতেও বিভিন্ন প্রয়োজনে সেনাবাহিনীর সহায়তা কামনা করেন।

এ বিষয়ে খাগড়াছড়ি সদর জোন কমান্ডার লে. কর্নেল মোহাম্মদ আরাফাত হোসেন, পিএসসি বলেন, পাহাড়ে বসবাসরত জনগণের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের পাশাপাশি সকল সম্প্রদায়ের মধ্যে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় সেনাবাহিনীর এরূপ উদ্যোগ ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে।

সাম্প্রদায়িক-সম্প্রীতি ও উন্নয়নের পরেও পাহাড়কে নিয়ে ষড়যন্ত্র থামেনি: মে. জে. এসএম মতিউর রহমান

নিজস্ব প্রতিবেদক, মাটিরাঙ্গা:

পার্বত্য শান্তি চুক্তির মাধ্যমে পার্বত্য চট্টগ্রামে সাম্প্রদায়িক-সম্প্রীতি ও উন্নয়নের পরেও পাহাড়কে নিয়ে ষড়যন্ত্র থামেনি মন্তব্য করে মেজর জেনারেল এসএম মতিউর রহমান বলেন, একটি মহল পার্বত্য চট্টগ্রামকে অশান্ত করার ষড়যন্ত্র করছে। সবুজ পাহাড়কে অশান্ত করার সুযোগ দেয়া হবে না। পাহাড়ের শান্তি রক্ষায় সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে দুর্বৃত্তদের রুখে দেয়ারও আহ্বান জানান তিনি।

বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে মাটিরাঙ্গা জোন সদরে প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের সাথে মতবিনিময়, কম্বল বিতরণ, শিক্ষাবৃত্তি প্রদান ও হুইল চেয়ার বিতরনী অনুষ্ঠানে ২৪ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি এবং চট্টগ্রামের এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল এসএম মতিউর রহমান, এএফডব্লিউসি, পিএসসি এসব কথা বলেন।

তিনি পাহাড়ে সেনাবাহিনীর কর্মতৎপরতার কথা উল্লেখ করে বিগত সময়ের সাথে বর্তমান সময়ের পার্থক্য করে বলেন, বর্তমান সরকারের সময়ে পাহাড়ে প্রতিনিয়িত উন্নয়ন হচ্ছে। আমরা দিন দিন উন্নয়নের মাত্রায় পৌঁছে দিয়েছি। আগামীতে আরো উন্নতি সাধিত হবে।

পার্বত্য শান্তিচুক্তির ধারামতে সেনাবাহিনী পার্বত্য চট্টগ্রামের উন্নয়নে কাজ করছে উল্লেখ করে মেজর জেনারেল এসএম মতিউর রহমান বলেন, যেখানে ঠিকাদার যেতে পারেনি, সেখানে সেনাবাহিনীর ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ কাজ করেছে। সেনাবাহিনী যেকোন প্রয়োজনে মানুষের পাশে ছিল। মানুষের আর্থসামাজিক অবস্থার পরিবর্তন হয়েছে। সকলের প্রচেষ্টায় সদ্য সমাপ্ত নির্বাচন সংঘাত মুক্তভাবে সম্পন্ন হয়েছে উল্লেখ করে তিনি আগামীতেও সবসময় সকলকে ঐক্যবদ্ধ থেকে কাজ করার আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে গুইমারা রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল একেএম সাজেদুল ইসলাম, মাটিরাঙ্গা জোন অধিনায়ক লে. কর্নেল নওরোজ নিকোশিয়ার, লক্ষীছড়ি জোন অধিনায়ক লে. কর্নেল মো. মিজানুর রহমান মিজান, মাটিরাঙ্গা উপজেলা চেয়ারমান মো. তাজুল ইসলাম তাজু, মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিভীষণ কান্তি দাশ, মাটিরাঙ্গা পৌরসভার মেয়র মো. শামছুল হক, মাটিরাঙ্গা সদর ইউপি চেয়ারম্যান হিরনজয় ত্রিপুরা ও মাটিরাঙ্গা উপজেলা কাঠ ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভাপতি মো. রফিকুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

পরে স্থানীয় হতদরিদ্র মানুষের মাঝে কম্বল, গরীব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা বৃত্তি ও পঙ্গুদের মাঝে হুইল চেয়ার বিতরণ এবং জোন কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের সামনে লটকন গাছের চারা রোপন করেন ২৪ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি এবং এরিয়া কমান্ডার চট্টগ্রাম হিসেবে মেজর জেনারেল এসএম মতিউর রহমান।

মহালছড়ির ক্যায়াংঘাটে শীতার্তদের মাঝে সেনাবাহিনীর কম্বল বিতরণ

মহালছড়ি প্রতিনিধি:

খাগড়াছড়ির মহালছড়ি উপজেলার ক্যায়াংঘাটে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ করেছেন মহালছড়ি জোনের সেনাবাহিনী।

মঙ্গলবার(৮ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ১১টায় ক্যায়াংঘাট ইউনিয়নের তবলছড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে মহালছড়ি জোন অধিনায়ক লে. কর্নেল মুহাম্মদ মোসতাক আহমেদ পিএসসি’র উপস্থিতিতে ২ শতাধিক পাহাড়ি ও বাঙালি পরিবারের মাঝে এ কম্বল বিতরণ করা হয়।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন, ক্যায়াংঘাট ইউপি চেয়ারম্যান বিশ্বজিত চাকমা ও ইউপি মেম্বার আলমগীর হোসেনসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গগণ।

কম্বল বিতরণ অনুষ্ঠানে মহালছড়ি জোন অধিনায়ক লে. কর্নেল মুহাম্মদ মোসতাক আহমেদ পিএসসি বলেন, এলাকায় পাহাড়ি-বাঙালি অনেক বৃদ্ধ-বৃদ্ধা ও গরিব লোক আছে যারা অর্থের অভাবে শীতের কাপড় কেনা সম্ভব হয় না। কনকনে শীতে প্রচুর কষ্টের মধ্যে দিন যাপন করতে হয়। এসকল মানুষের কথা চিন্তা করে মহালছড়ি জোনের পক্ষ থেকে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণের কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। মহালছড়ি জোনের আওতাধীন সকল গরিব এলাকার জন্য এ কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা হবে বলে জানান তিনি।

বান্দরবানে শীতার্তদের মাঝে সেনাবাহিনীর শীতবস্ত্র বিতরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান:

বান্দরবান সদর সেনা জোন গরীব অসহায় শিক্ষার্থীদের আর্থিক অনুদান, চিকিৎসা সহায়তা ও শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে।

সোমবার(৭ জানুয়ারি) বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর বান্দরবান সদর সেনা জোনের আয়োজনে জোন কমান্ডারের কার্যালয়ে শিক্ষা-চিকিৎসা সহায়তা ও শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে। এসময় গরীব অসহায় শিক্ষার্থীদের আর্থিক সহায়তা, উন্নত চিকিৎসার জন্য আর্থিক অনুদান ও বান্দরবানের বিভিন্ন এলাকার শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়।

২৬ বীরের জোন কমান্ডার লে. কর্নেল এসএম আব্দুল্লাহ আল-আমিন, জোন উপ-অধিনায়ক মেজর জাহিদুল ইসলাম, জোনাল স্টাফ অফিসার মেজর, মো. আল-জাবির আসিফসহ সেনাবাহিনীর বিভিন্ন পদমর্যাদার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

এসময় জোন কমান্ডার বলেন, সেনাবাহিনী পাহাড়ে বসবাসকারীদের শান্তির লক্ষে দুষ্কৃতি ও সন্ত্রাসীদের দমনের পাশাপাশি বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ করে যাচ্ছে। পাহাড় শান্ত থাকলে আগামীতে উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের গতি আরও বেগমান করা সম্ভব বলে মনে করেন সেনাবাহিনী।

রাঙামাটিতে বিভিন্ন সামাজিক প্রতিষ্ঠানকে সেনাবাহিনীর আর্থিক সহায়তা

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাঙামাটি:

রাঙামাটিতে বিভিন্ন সামাজিক প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তিকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করেছে সেনাবাহিনী।

সোমবার (৭ জানুয়ারি) বিকেল ৩টার দিকে রাঙামাটি রিজিয়ন প্রাঙ্গনে এসব সহায়তা প্রদান করা হয়।

সামাজিক সংগঠন ছদক ক্লাবকে ২৫ হাজার টাকা, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান টিটিসি জামে মসজিদ নির্মাণের জন্য ২০ হাজার টাকা, শ্রাবণ খন্দকার নামের এক ব্যক্তির ছেলের লেখা-পড়া করার জন্য ৬ হাজার টাকা এবং জেলা শহরের ওমদা মিয়া এলাকার রুবেল হোসেন ও তাঁর ছেলের চিকিৎসার জন্য এক লাখ টাকা প্রদান করা হয়। এছাড়া বিরল রোগে আক্রান্ত রুবেল এবং তার ছেলেকে উন্নত চিকিৎসা দেওয়ার জন্য ভারতে পাঠাতে আরও কিছু খবচ বহন করছে সেনাবাহিনী।

এসময় রাঙামাটি রিজিয়ন কমান্ডার রিয়াদ মেহমুদ, রাঙামাটি রিজিয়নের জিএসও-২ (ইস্ট) মেজর সৈয়দ তানভীর সালেহসহ অন্যান্য কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

মেজর সৈয়দ তানভীর বলেন, স্বাধীনতার পর থেকে সেনাবাহিনী পাহাড়ের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। অতীতের সেই ধারাবাহিকতা বজায় রেখে আজকেও জেলার সামাজিক প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তিদের রাঙামাটি রিজিয়নের পক্ষ থেকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।

মহালছড়িতে শিক্ষার্থীদের মাঝে সেনাবাহিনীর শিক্ষা উপকরণ বিতরণ

মহালছড়ি প্রতিনিধি:

খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার মহালছড়ি উপজেলায় মহালছড়ি আর্মি জোনকর্তৃক উপজেলার মাইসছড়ি ইউনিয়নের মহান বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে লেমুছড়ি শান্তিপুর বেসরকারি প্রাথমিক  বিদ্যালয়ের ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণ ও মহালছড়ি জোন কর্তৃক  বিদ্যালয়ের   আসবাবপত্র ও শিক্ষার্থীদের মাঝে বিভিন্ন ধরনের শিক্ষা উপকরণ প্রদান  করে মহালছড়ি আর্মি জোন।

রবিবার (৬ জানুয়ারি) সকাল ১১টার সময় মহালছড়ি উপজেলায় মাইসছড়ি ইউনিয়নে, লেমুছড়ি শান্তিপুর বেসরকারি প্রথমিক   বিদ্যালয়ে ছাত্রছাত্রীদের পড়া লেখা করার সুবিধার্থে  ৫ জোড়া বেঞ্চ ও বিভিন্ন ধরনের শিক্ষা উপকরণ  প্রদান করেন।

বিদ্যালয়টিতে শিক্ষার্থীদের জন্য পর্যাপ্ত পরিমান বেঞ্চ না থাকার কারণে দীর্ঘ দিন যাবৎ শিক্ষার্থীদের শিক্ষা কার্যক্রম ব্যহত হয়ে আসছিল। মহালছড়ি জোনের জোন কমান্ডারের আশ্বাসে ওই বিদ্যালয়টিতে এসব আসবাবপত্র ও শিক্ষা উপকরণ প্রদান করা হয়।

এসময় মহালছড়ি জোনের জোন কমান্ডার লে. কর্নেল মুহাম্মদ মোসতাক আহম্মদ  নিজে  উপস্থিত থেকে লেমুছড়ি শান্তিপুর   বেসরকারি প্রথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের লেখাপড়া করার সুবিধার জন্য এ আসবাবপত্র ও বিভিন্ন ধরনের শিক্ষা সামগ্রী প্রদান করেন।

এসময় তিনি বিদ্যালয়ের কমলমতি ছাত্রছাত্রীদের  লেখাপড়ার খোঁজ খবর নেন। এবং ছাত্রছাত্রীদের সু শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে দেশ গড়ার কাজে নিজেকে আত্মনিয়োগ করার পরামর্শ দেন।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, মাহালছড়ি উপজেলা আওয়ামী লিগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর ইউপি চেয়ারম্যান রতন কুমার শীল,   বিদ্যায়ের প্রধান শিক্ষক নুরুল আমিন, বিদ্যালয়ের সভাপতি রেজাউল করিম, বিদ্যালয়ের দাতা সদস্য আজিবুর রহমান এবং এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিসহ স্থানীয় গণমাধ্যম ব্যক্তিবর্গ।