ভূমি কমিশন কার্যকর হলে পার্বত্যাঞ্চলের উন্নয়ন ত্বরাণ্বিত হবে- ড. গওহর রিজভী

15126179_10154231557082725_1107378645_o

নিজস্ব প্রতিনিধি:

প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ক উপদেষ্টা প্রফেসর ড. গওহর রিজভী বলেছেন, কিছুদিন আগে পার্লামেন্টে ল্যান্ড কমিশন আইন পাশ হয়েছে, আমি আশা করি দ্রুত কার্যকর হবে। এতে বিরোধ মিটিয়ে এই অঞ্চলের উন্নয়ন ত্বরাণ্বিত হবে।

গওহর রিজভী মঙ্গলবার রাঙামাটি জেলার সাজেকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ডিজিটাল স্কুল নির্মাণ প্রকল্প উদ্বোধন শেষে একথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, যখন কোনো দেশ এগিয়ে যায় তখন দেশে সকল অঞ্চলকে এগিয়ে নিতে হয়। তা না হলে উন্নয়ন সম্পূর্ণ হয় না। সেকারণেই পার্বত্য চট্টগ্রামের উন্নয়ন জরুরী।

গওহর রিজভী বলেন, আমি পার্বত্য চট্টগ্রামে প্রায়ই আসি। যখন আমার বয়স ১২ বছর তখন থেকে আসা যাওয়া শুরু করেছি। তখন যে যে পার্বত্য চট্টগ্রাম দেখেছি তার চেয়ে এখন অনেক পরিবর্তন দেখি। চারিদিকে অনেক উন্নয়ন দেখি। কিন্তু আমাদের আরো জোর দিতে হবে।

এই ডিজিটাল স্কুলকে একটি অসাধারণ উদ্যোগ আখ্যা দিয়ে তিনি আরো বলেন, এখানকার বাচ্চাদের শিক্ষা ও নিউট্রিশনের উপর জোর দিতে হবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন সেনাবাহিনীর চট্টগ্রাম ডিভিশনের জিওসি মেজর জেনারেল জাহাঙ্গীর কবির তালুকদারএডব্লিউসি, পিএসসি, খাগড়াছড়ি জেলার সাংসদ কুজেন্দ্রলাল ত্রিপুরা এমপি, রাঙ্গামাটির সংরক্ষিত মহিলা সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনু এমপি, পার্বত্য চট্টগ্রাম মন্ত্রানালয়ের সচিব নববিক্রম কিশোর ত্রিপুরা এনডিসি, রাঙামাটি সেনা রিজিয়নের কমাণ্ডার ব্রি. জে. সানাউল হক পিএসসি, গুইমরারা সেনা রিজিয়নের কমান্ডার ব্রি. জে. মুহম্মদ কামরুজ্জামান এনডিসি. পিএসসি, খাগড়াছড়ি সেনা রিজিয়নের কমান্ডার ব্রি. জে. স ম আহবুব উল আলম এসজিপি, পিএসসি,  সাবেক পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার, রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বৃষকেতু চাকমা প্রমুখ।

15152410_10154231556882725_1608894274_o

উল্লেখ্য, প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি এবং স্বগোত্রীয় সংস্কৃতিতে সমৃদ্ধ সাজেক ছিল লোক চক্ষুর অন্তরালে লুকায়িত এক অপরূপ জনপদ। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় তা হয়ে উঠেছে পর্যটনের এক অসীম সমাহার। যথাক্রমে ২০১৩ এবং ২০১৪ সালে প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির সাজেক রুইলুই পাড়া পরিদর্শনের ফলে অত্র এলাকা হয়ে উঠেছে স্বচ্ছল, উন্নত জীবনমান সম্পন্ন এবং আকর্ষণীয় পর্যটন কেন্দ্র।

সব কিছুতে পূর্ণতা আসলেও পর্যাপ্ত শিক্ষকের অভাবে শিক্ষার আলো থেকে বঞ্চিত হচ্ছিল সাজেকের শিশুরা। অতঃপর দেড় শতাধিক স্কুল ও গ্রন্থাগার পরিচালনার মাধ্যমে প্রায় দেড় লক্ষাধিক উপজাতি ও বাঙালীকে শিক্ষার আলো বিতরণে পারঙ্গম খাগড়াছড়ি সেনা রিজিয়নের কমান্ডার ব্রি. জে. স ম আহবুব উল আলম এসজিপি, পিএসসি স্বপ্রণোদিত উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রীর ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের অংশ হিসাবে শুরু করেন ডিজিটাল স্কুল নির্মাণের কাজ।

আগস্ট ২০১৬ মাসে পার্বত্য চট্টগ্রাম মন্ত্রণালয়ের সচিব নববিক্রম কিশোর ত্রিপুরা, এনডিসি ডিজিটাল স্কুল প্রোগ্রাম এবং বহুমাত্রিক সচেতনতা কেন্দ্রের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন। সার্বিক কর্মকাণ্ড শেষে ২২ নভেম্বর সাজেকের রুইলুই পাড়ায় ডিজিটাল স্কুল প্রোগ্রাম এবং বহুমত্রিক সচেতনতা কেন্দ্রের শুভ উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ক উপদেষ্টা গওহর রিজভী।

15182611_10154231557312725_1305575181_o

এই প্রজেক্টের মাধ্যমে বিদ্যুৎ চাহিদা পুরণের জন্য সৌর বিদ্যুতের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ফিঙ্গার প্রিন্টের সাহায্যে শিক্ষার্থীদের হাজিরা গণণার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। পার্বত্য জেলা পরিষদ রাঙামাটির অর্থায়নে শিক্ষার্থীদের ইউনিফর্মের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এই স্থাপনা ও সুবিধাদি ব্যবহার করে এলাকার বয়স্ক লোকের জন্য নির্মল বিনোদন এবং বহুমুখী সচেতনতা কার্যক্রম পরিচালিত হবে। এই প্রোগ্রামের আওতায় যেসকল কার্যক্রম পরিচালিত হবে তার মধ্যে রয়েছেঃ কৃষি গবেষণা কেন্দ্র থেকে সকল চাষাবাদ পদ্ধতি, পাহাড়ে নিরাপদ পানি সংরক্ষণের উপায়, স্বাস্থ্য সচেতনতা, বৃক্ষরোপন ও পরিবশে বান্ধব চাষাবাদ, মৎস ফলজ চাষ ও পশু পালন, ম্যালেরিয়া প্রতিরোধ, উদ্যোক্তা তৈরি ইত্যাদি।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে খাগড়াছড়ি রিজিয়নের পক্ষে থেকে স্কুলের ছাত্রছাত্রীদের মাঝে দেড় শতাধিক স্কুল ব্যাগ, বই ও লেখার সামগ্রী বিতরণ করা হয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে খাগড়াছড়ি রিজিয়ন কমাণ্ডার পার্বত্যাঞ্চলের শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও অবকাঠামোগত উন্নয় চিত্র তুলে ধরেন।

এই পাইলট প্রকল্পটির পদ্ধতি অনুসরণ করে ভবিষ্যতে দূর্গম ও গহীন অরণ্যে শিক্ষক বিহীন এলাকায় শিক্ষার আলো বিচ্ছুরণে সফলতা লাভ করবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন  উপস্থিত সরকারী প্রতিনিধিবৃন্দ।

রামুতে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহ পালিত

ramu pic 2

নিজস্ব প্রতিনিধি:

‘মান সম্মত শিক্ষা, জাতির প্রতিজ্ঞা’ এ শ্লোগানে রামুতে জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ ২০১৬ পালিত হয়েছে। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের উদ্যোগে এ উপলক্ষে র‌্যালি, মিনা মেলা, শিক্ষক সমাবেশ, কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

গতকাল মঙ্গলবার সকালে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আয়োজিত কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, রামু উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রিয়াজ উল আলম।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. ছালামত উল্লাহর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সেলিনা কাজী, রামু উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আলী হোসেন, অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষা কর্মকর্তা মাহমুদুল হক, উপজেলা সহকারি শিক্ষা কর্মকর্তা সেলিমগীর হোসেন, শিবলু দাশ, একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের উপজেলা সমন্বয়কারি সুপানন্দ বড়ুয়া, রামু কেন্দ্রিয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী সেলিম, জোয়ারিয়ানালা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আমজাদ হোসেন প্রমূখ।

এর আগে সকাল দশটায় জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ ২০১৬ উপলক্ষ্যে একটি র‌্যালি বের করা হয়।

জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহ উপলক্ষে খাগড়াছড়িতে শিক্ষা উপকরণ মেলা

pic 10-02-2

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি:

মানসম্মত শিক্ষা, জাতির প্রতিজ্ঞা এই শ্লোগানকে ধারণ করে প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহ উদযাপন উপলক্ষে খাগড়াছড়িতে দিনব্যাপী শিক্ষা উপকরণ মেলা, মিনা চলচ্চিত্র প্রদর্শনী, র‌্যালি, আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার সকালে খাগড়াছড়ি মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে এই মেলার উদ্বোধন করেন পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মামুন কবির, বেলা রানী দাশ, উপজেলা শিক্ষা অফিসার আব্দুল লতিফসহ খাগড়াছড়ি মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও বিভিন্ন উপজেলার শিক্ষা অফিসারবৃন্দ। এছাড়া বিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থীরা মেলায় অংশগ্রহণ করেন।

আয়োজিত দিনব্যাপী শিক্ষা উপকরণ মেলায় উপজেলার ৯টি বিদ্যালয় অংশগ্রহণ করে। মেলায় উপকরণ প্রদর্শনীতে প্রথম নির্বাচিত হয়ে পুরস্কার অর্জন করেছে মাটিরাঙ্গা উপজেলার ব্যাল্ল্যাছড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

লক্ষ্মীছড়িতে জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ উদযাপন

&cUePURZn

স্টাফ রিপোর্টার:

খাগড়াছড়ি জেলার লক্ষ্মীছড়ি উপজেলায় ২ দিনব্যাপি আয়োজিত জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ উদযাপন উপলক্ষে র‌্যালি, আলোচনা সভা, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, পুরস্কার ও সনদপত্র বিতরণ করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ শওকত ওসমান।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান সুপার জ্যোতি চাকমা। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অংগ্য প্রু মারমা। স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো. আকবর আলি।

মঙ্গলবার সমাপনী দিনে স্টল পরিদর্শন, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার ও কৃতি শিক্ষার্থীদেরর মাঝে সনদ পত্র বিতরণ করা হয়।

অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার মো. শাহাদাত হোসেন।

প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহ উপলক্ষে বাঘাইছড়িতে শিক্ষামেলা

20160209-114614_e001

বাঘাইছড়ি প্রতিনিধি:

প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহ উদযাপন উপলক্ষে বাঘাইছড়িতে দিনব্যাপী শিক্ষা র‌্যালি, শিক্ষামেলা, মিনা প্রদর্শণী, চলচ্চিত্র প্রদর্শনী ও আলোচনা সবার আয়োজন করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকার ১০টায় আনুষ্ঠানিকভাবে এই মেলার উদ্বোধন করা হয়

কাচালং মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. নুরুল ইসলাম এর সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাঘাইছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মুফিদুল আলম।

বাঘাইছড়ি উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস আয়োজিত, প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান এর সভাপতিত্বে অনষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বাঘাইছড়ি উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সুমিতা চাকমা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আলী হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় প্রধান অতিথি মো. মুফিদুল আলম বর্তমান সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয় ও মানসম্মত শিক্ষা প্রদানের উপর গুরুতারোপ করেন। আয়োজিত দিনব্যাপী শিক্ষামেলায় উপজেলার ৯টি বিদ্যালয় অংশগ্রহণ করে। মেলায় প্রথম পুরস্কার অর্জন করেছেন কাচালং মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ উপলক্ষে কাউখালীতে কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা

Kawkahli News pic-2

কাউখালী প্রতিনিধি:

কাউখালীতে জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ উপলক্ষে জিপিএ-৫ প্রাপ্ত ৪১ জন শিক্ষার্থীকে সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। এই উপলক্ষে সোমবার দুপুর ১২টায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের উদ্যোগে র‌্যালি, আলোনা সভা, কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা ও শিক্ষা মেলার আয়োজন করে।

কাউখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার আফিয়া আখতারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান চৌচামং চৌধুরী।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ভাইস চেয়ারম্যান মংসুইউ চৌধুরী, এ্যানি চাকমা। এতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নারী সদস্য নিংবাইউ মারমা, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা পরিনয় চাকমা, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নাজমুল হক, বিআরডিবি কর্মকর্তা অলি উল্লাহ খান, কাউখালী মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক উসিচিং মারমা প্রমূখ।

সভায় বক্তারা বলেন, শুধু প্রাইভেট নয় শ্রেণিকক্ষে পাঠদানে মনোযোগী হতে হবে শিক্ষকদের। শিক্ষার্থীদের মেধাবী হিসাবে গড়ে তুলতে হলে অভিভাবকদেরও সচেতনতা বাড়াতে হবে। তবেই জাতি সমৃদ্ধ সুনাগরিক তৈরি করতে পারবে। বক্তারা বলেন, শিক্ষার বুনিয়াদ প্রাথমিক শিক্ষা। শিক্ষার্থীদের প্রতিযোগী মানসিকতায় গড়ে তুলতে শিক্ষক ও অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জনান।

সভা শেষে ২০১৫ সালে অনুষ্ঠিত উপজেলার ৬৩ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জিপিএ-৫ প্রাপ্ত ৪১ জন শিক্ষার্থীর মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। সভায় অস্বচ্ছল কৃতি শিক্ষার্থীদের উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে আর্থিক সহায়তা প্রদানের ঘোষণা দেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আফিয়া আখতার।

মহালছড়িতে জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহের সমাপনী

Mahalchari education day 1 Pic 08-02-2016

মহালছড়ি প্রতিনিধি:

খাগড়াছড়ির মহালছড়ি উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগ আয়োজিত জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহের সমাপনী দিনে শিক্ষামেলা, শিক্ষক সমাবেশ, কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপজেলার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় শিক্ষামেলা উদ্বোধন করেন মহালছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান বিমল কান্তি চাকমা।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, মহালছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ ইলিয়াস মিয়া, উপজেলা প্রাথমিক ভারপ্রাপ্ত শিক্ষা অফিসার আ ন ম মাসুম হোসেন, সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার প্রনব চাকমা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কাকলী খীসা, মহালছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রতন কুমার শীল, মহালছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ সেমায়ূন কবির চৌধুরী, উপজেলা প্রাথমিক রিসোর্ট অফিসার জসিম উদ্দিন, উপজেলাধীন সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকগণ। এ মেলায় উপজেলার সকল প্রাথমিক বিদ্যালয় সমূহের বিভিন্ন ধরণের শিক্ষনীয় বিষয় নিয়ে স্টল বসানো হয়।

বিকাল সাড়ে ৩ টায় টাউন হলে আলোচনা সভা, কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা, পুরস্কার বিতরণ, শিক্ষার্থী ও শিক্ষক-শিক্ষিকাদের পরিবেশনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

উল্লেখ্য, এবারে মহালছড়ি উপজেলায় প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় ৪৭ জন জিপিএ ৫ পেয়েছে। এদের প্রত্যেককে সংবর্ধনা ও পুরস্কার প্রদান করা হয়।

মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষা চালুর দাবিতে মহালছড়িতে পিসিপি’র সমাবেশ

PCP news 08-02-2016

মহালছড়ি প্রতিনিধি:

সকল জাতিসত্ত্বা সমূহের স্ব স্ব মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষা চালুসহ বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ (পিসিপি) এর শিক্ষা সংক্রান্ত ৫ দফা বাস্তবায়নের দাবিতে খাগড়াছড়ি জেলার মহালছড়িতে পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ মহালছড়ি থানা শাখা র‌্যালি ও সমাবেশ করেছে। সোমবার সকাল সাড়ে ১১ টায় মহালছড়ি কলেজ এলাকার ২৪ মাইল থেকে র‌্যালি শুরু হয়ে বাসস্টেশন ঘুরে বাবুপাড়ায় এসে সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।

সমাবেশে পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ মহালছড়ি থানা শাখার সহ-সভাপতি মেনন চাকমার সঞ্চালনায় পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ মহালছড়ি থানা শাখার সভাপতি সুমন্ত চাকমার সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক সুনীল ত্রিপুরা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম মহালছড়ি উপজেলা শাখার সভাপতি হৃদয় বিন্দু চাকমা, পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ মহালছড়ি থানা শাখার দপ্তর সম্পাদক সুমন চাকমা প্রমূখ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, বাংলাদেশ একটি বহুজাতি ও ভাষাভাষীর দেশ। এ দেশে বাঙালী ব্যতীত ৪৫টির অধিক জাতি বসবাস করছে। এ সকল জাতিসমূহের মধ্যে নিজস্ব ভাষা, সংস্কৃতি এবং গৌরবময় ইতিহাস ও ঐতিহ্য রয়েছে। বাংলা ভাষা ও বাঙালী সংস্কৃতির আধিপত্যের কারণে এসব জাতিসমূহের ভাষা ও সংস্কৃতি হারিয়ে যেতে বসেছে। সরকার সংখ্যালঘু জাতির ভাষার বিকাশ ও শ্রীবৃদ্ধির প্রতিশ্রুতি দিলেও বাস্তবে এ ধরনের কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি।

বক্তারা আরও বলেন, সরকার ২০১০ সালের জাতীয় শিক্ষানীতি প্রনয়নের মাধ্যমে এদেশের জাতিসমূহের মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষাদানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। কিন্তু এখন পর্যন্ত সরকার কোন কিছুই বাস্তবায়ন করেনি।

বক্তারা অবিলম্বে মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষা নিশ্চিতসহ পিসিপি’র শিক্ষা সংক্রান্ত ৫ দফা বাস্তবায়নের দাবি জানান। অবিলম্বে রাঙামাটি থেকে মেডিকেল কলেজ ও বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যায় কার্যক্রম স্থগিত করার দাবি জানান ও পার্বত্য চট্টগ্রামে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রনালয়ের অগণতান্ত্রিক ১১টি নির্দেশনা প্রত্যাহারের দাবি জানান।

উল্লেখ্য পিসিপি শিক্ষা সংক্রান্ত ৫ দফ দাবি হলো, পার্বত্য চট্টগ্রামে সকল জাতিসত্তার মাতৃভাষার মাধ্যমে প্রাথমিক শিক্ষার অধিকার নিশ্চিত করতে হবে, স্কুল, কলেজের পাঠ্যপুস্তকে জাতিসত্তার প্রতি অবমাননাকর বক্তব্য বাদ দিতে হবে, পাহাড়ী জাতিসত্তার বীরত্বব্যঞ্জক কাহিনী এবং সঠিক সংগ্রামী ইতিহাস স্কুল, কলেজের পাঠ্যক্রমে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে, বাংলাদেশে সকল জাতিসত্তার সংক্ষিপ্ত সঠিক তথ্য সম্বলিত পরিচিতিমূলক রচনা বাংলাদেশের জাতীয় শিক্ষাক্রমে অন্তর্ভূক্ত করতে হবে এবং পার্বত্য কোটা বাতিল করে পাহাড়ী বিশেষ কোটা চালু করতে হবে।

নাইক্ষ্যংছড়িতে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহ পালন

Capture

নাইক্ষ্যংছড়ি প্রতিনিধি:

‘মানসম্মত শিক্ষা, জাতির প্রতিজ্ঞা’ এই প্রতিপাদ্যকে গুরুত্ব দিয়ে সারাদেশের মতো বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়িতেও উদযাপন করা হয়েছে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহ। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় উপজেলা মিলনায়তনে বর্ণাঢ্য র‌্যালি ও আলোচনা সভার মাধ্যমে এ দিবসটি পালিত হয়।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগ কর্তৃক আয়োজিত বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও সরকারি-বেসরকারি কর্মকর্তাদের স্বতস্ফূর্ত অংশ গ্রহণে র‌্যালিটি উপজেলা সদরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে উপজেলা পরিষদ হলরুমে গিয়ে আলোচনা সভায় মিলিত হয়।

সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদ সদস্য ক্যাউচিং চাক, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. কামাল উদ্দিন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু শাফায়াৎ মুহম্মদ শাহেদুল ইসলাম, উপজেলা শিক্ষা অফিসার আবু আহমেদ, মাধ্যমিক শিক্ষা দপ্তরের একাডেমিক সুপারভাইজার ওবাইদুল হক, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য সচিব মো. ইমরান।

অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন উপজেলা সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আশীষ কুমার আচার্য্য ও বর্ডার গার্ড সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মুহাম্মদ নুরুল বাশার।

মানিকছড়িতে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহ পালিত

Primary

মানিকছড়ি প্রতিনিধি:

মানিকছড়িতে জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ উপলক্ষ্যে বর্ণাঢ্য র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় উপজেলা পরিষদের সামনে থেকে ছোট ছোট শিশুদের হাতে প্লেকার্ড, মাথায় টুপি, মুখে শ্লোগানের মধ্যদিয়ে র‌্যালিটি উপজেলার প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। র‌্যালিতে নেতৃত্ব দেন উপজেলা শিক্ষা অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) শুভাশীষ বড়ুয়া।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের আয়োজনে উক্ত কর্মসূচীতে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান ম্রাগ্য মারমা।

বিশেষ অতিথি ছিলেন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভারপ্রাপ্ত ইউএনও মো. দিদারুল আলম, আ’লীগ নেতা এম ই আজাদ চৌধুরী বাবুল, যুবলীগ নেতা মো. জাহেদুল আলম মাসুদ, মো. সামায়ন ফরাজী সামু, শিক্ষক সমিতির সভাপতি ক্যজ মারমা, সেক্রেটারী মো. ফরিদ আহম্মদসহ বিভিন্ন স্কুলের প্রধান ও সহকারি শিক্ষকগণ।

এদিকে প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহ উপলক্ষ্যে সকাল ১০টার পূর্বেই শত শত ক্ষুদে শিক্ষার্থী রাজবাড়ী মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এসে জমায়েত হয়। পরে তারা উৎসুক মুখে বিভিন্ন সাজে সজ্জিত হয়ে বর্ণাঢ্য র‌্যালিতে অংশ নেয়। র‌্যালি শেষে স্কুল মাঠে আয়োজিত অনুষ্ঠানে অংশ নেয় শিশুরা।

উল্লেখ্য, জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ উপলক্ষ্যে ২০১৫ শিক্ষাবর্ষে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপানী পরীক্ষায় জিপিএ-৫ প্রাপ্তদের সংবর্ধনা ও পুরস্কার প্রদান করা হয়।