পার্বত্য জেলার মাধ্যমিক স্কুল হস্তান্তর চুক্তি সোমবার

maushi

পার্বত্যনিউজ ডেস্ক:

পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তির (শান্তি চুক্তি) আলোকে তিন পার্বত্য জেলার মাধ্যমিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসমূহ পরিচালনার দায়িত্ব পাচ্ছে স্থানীয় জেলা পরিষদ। এজন্য তিন পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানদের সঙ্গে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হতে যাচ্ছে।

তিন পার্বত্য জেলার মাধ্যমিক শিক্ষা কার্যক্রম বর্তমানে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে পরিচালিত হয়ে আসছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে চুক্তির পর রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি ও বান্দরবান জেলার মাধ্যমিক শিক্ষা কার্যক্রম নিজ নিজ জেলা পরিষদের আওতায় পরিচালিত হবে।

বিগত মহাজোট সরকারের আমলে সরকারের বিভিন্ন বিভাগ তিন পার্বত্য জেলার কাছে হস্তান্তর করা শুরু হয়। শান্তিচুক্তির পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়নে সরকারি বিভিন্ন দফতরের আলাদা বিভাগ হস্তান্তর অব্যাহত রয়েছে।

শেখ হাসিনার সরকার দ্বিতীয় মেয়াদে দায়িত্ব নেওয়ার পর পার্বত্য বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর পার্বত্য চুক্তির বিষয়গুলো বাস্তবায়নের উদ্যোগ নেন। বীর বাহাদুর সম্প্রতি বলেন, পিছিয়ে থাকা পার্বত্য চট্টগ্রামের মানুষের জন্য মাধ্যমিক শিক্ষার এ চুক্তি শিক্ষাক্ষেত্রে আম‍ূল পরিবর্তন আনবে। পার্বত্য জেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো স্থানীয় প্রশাসনের নিয়ন্ত্রণ ও ব্যবস্থাপনায় দেওয়া হলে সেখানকার শিক্ষা ব্যবস্থায় ইতিবাচক অগ্রগতি হবে বলে মনে করেন বীর বাহাদুর।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক জাতীয় কমিটির সঙ্গে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির চুক্তি, পার্বত্য জেলা পরিষদ আইনসমূহের ২২ ও ২৩ নম্বর ধারা এবং প্রথম তফসিল অনুযায়ী মাধ্যমিক শিক্ষা কার্যক্রম হস্তান্তর হচ্ছে।

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের (মাউশি) তথ্যমতে, তিন পার্বত্য জেলায় বর্তমানে ২৭৯টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় আছে। এর মধ্যে ১৮টি সরকারি এবং ২৬১টি বেসরকারি। বেসরকারিগুলোর মধ্যে ১৫৪টি এমপিওভুক্ত।

রোববার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব সহিদুল ইসলাম বলেন, চুক্তির ফলে মাধ্যমিক শিক্ষা সংশ্লিষ্ট জেলা পরিষদের নিয়ন্ত্রণে চলে যাবে।

মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানান, তিন জেলার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান স্থানীয় প্রশাসনের ব্যবস্থাপনায় আসলে এখানকার শিক্ষকরাই নিজ নিজ জেলায় চাকরির সুযোগ পাবেন। তবে স্কুলের বই বিতরণ, পাবলিক পরীক্ষা গ্রহণ, শিক্ষক-কর্মচারীর বেতন-ভাতা শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনেই পরিচালিত হবে।

রোববার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সোমাবার বেলা তিনটায় সচিবালয়ে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈ সিং উপস্থিত থাকবেন।

সূত্র: বাংলানিউজ২৪.কম, ক্যাটাগরি: অন্যমিডিয়া