চিকিৎসা শেষে ঘরে ফিরলেন ৩নং পানছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান

পানছড়ি প্রতিনিধি:

৮ জানুয়ারি সন্ধ্যায় অজ্ঞাতানামা সন্ত্রাসীদের গুলিতে গুরুতর আহত হওয়া ৩নং পানছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান ও যুবলীগ সম্পাদক মো. নাজির হোসেন চিকিৎসা শেষে ঘরে ফিরেছেন।

দীর্ঘ ১১দিন চট্টগ্রাম সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে শনিবার (১৯শে জানুয়ারি) বিকেলে ফিরেছেন নিজ বাড়ি পানছড়িতে।

মোটর সাইকেলের বিশাল বহর চেয়ারম্যানকে স্বাগত জানিয়ে পানছড়িতে নিয়ে আসেন। এ সময় শত শত লোক রাস্তার দু’পাশে দাড়িয়ে তাকে শুভেচ্ছা জানায়। সন্ধ্যায় নিজ বাড়িতে পৌঁছার সাথে সাথে তাকে দেখতে তাঁর বাড়িতে মানুষের ভিড় লেগে যায়। এ সময় উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও বিভিন্ন সহযোগী সংগঠনসহ এলাকার পুরুষ-মহিলারা তাকে এক নজর দেখতে ছুটে আসে।

এ সময়  তিনি জানান, আমি সকলের দোয়ায় বেঁচে আছি বর্তমানে কিছুটা সুস্থ বোধ করছি। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন।

প্রসঙ্গত,  ৮ই জানুয়ারি সন্ধ্যা ৭টার দিকে পানছড়ি বাজারের হাদিসের চা দোকানের সামনে অজ্ঞাত সন্ত্রাসীরা তাকে গুলি করে পালিয়ে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক খাগড়াছড়ি জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন। অবস্থার অবনতি হলে জেলা সদর হাসপাতাল থেকে তাকে চট্টগ্রামের সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ)-এ প্রেরণ করা হয়। এই ঘটনার প্রতিবাদে পুরো জেলাব্যাপী নামে নিন্দার ঝড়।

পানছড়িতে বিষপানে বৃদ্ধের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক, পানছড়ি:

পানছড়িতে পারিবারিক কলহের জের ধরে বিষ পান করে আব্দুল মান্নান নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। সে ৫নং উল্টাছড়ি ইউপির মধ্যনগর গ্রামের মৃত নৈয়ম উদ্দিন এর ছেলে।

বৃহস্পতিবার (১৭ জানুয়ারি) বেলা সাড়ে ১২টায় মধ্যনগর এলাকায় দুই ছড়ার মুখে এলাকাবাসী মৃত ব্যক্তিটির লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, আব্দুল মান্নান মধ্যনগর এলাকার চা দোকানদার, তার ৪ ছেলে ও ১ মেয়ের সংসার। সে রবিবার বাড়ি থেকে ঝগড়া করে বের হয়ে মঙ্গলবার ফিরে আসে। পকেটের টাকা ও টর্চলাইট রেখে পূণরায় বের হয়। পরিবারের লোকজন অনেক খুঁজাখুজি করে, অবশেষে বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে এলাকাবাসী বন থেকে লাকড়ি ও ঘাস আনতে গেলে লাশ দেখতে পায়, এলাকাবাসী থানা পুলিশকে খবর দিলে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এলাকাবাসীর ধারণা পরিবারে কলহের জের ধরেই আব্দুল মান্নান বিষপান করে আত্মহত্যা করেছে।

নিহতের মেয়ে মিনারা জানায়, বৃহস্পতিবার মধ্যনগর এলাকার বাসিন্দা খাদিজা জঙ্গলে গরুর ঘাষ কাটতে গিয়ে আমার বাবার মরদেহ দেখে খবর দিলে আমরা তা জানতে পারি।

পানছড়ি থানার পুলিশ পরিদর্শক মোহাম্মদ নুরুল আলম জানান, ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে এসেছে এবং ময়না তদন্তের জন্য তা খাগড়াছড়ি পাঠানো হবে।

পানছড়িতে ৮ হাজার ৭শত ৩২ শিশুকে খাওয়ানো হবে ভিটামিন “এ” প্লাস  ক্যাপসুল

পানছড়ি প্রতিনিধি:

পানছড়ি উপজেলার ৫টি ইউপির ৮ হাজার ৭শত ৩২ শিশুকে খাওয়ানো হবে  ভিটামিন “এ” প্লাস  ক্যাপসুল(২য় রাউন্ড )। শনিবার (১৯ জানুয়ারি) এ কার্যক্রম শুরু হবে।

এ উপলক্ষে (১৬ জানুয়ারি) বুধবার সকাল ১০টা থেকে পানছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য  কমপ্লেক্সে অবহিতকরণ ও পরিকল্পনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সনজীব ত্রিপুরার সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ তোহিদুল ইসলাম। এবারে অত্র উপজেলায়  ৬-১১ মাস বয়সী শিশুর লক্ষ্যমাত্রা ১৩২১ এবং ১২-৫৯ মাস বয়সী ৭৪১১ জন বলে জানা গেছে।

এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পানছড়ি থানার পুলিশ পরিদর্শক মোহাম্মদ নুরুল আলম, মেডিকেল অফিসার ডা. মো. আরিফুর রহমান, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা সুজিত মিত্র চাকমা ও পানছড়ি উপজেলা প্রেসক্লাবের সম্পাদক শাহজাহান কবির সাজু।

নাজির হোসেনকে গুলির প্রতিবাদে দীঘিনালায় যুবলীগের বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ

দীঘিনালা প্রতিনিধি:

খাগড়াছড়ির পানছড়ি সদর ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নাজির মাহমুদের উপর হামলার ঘটনায় ইউপিডিএফকে(প্রসীত) দায়ী করে, ঘটনায় জড়িত সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে দীঘিনালা উপজেলা আওয়ামী যুবলীগ।

বুধবার(৯ জানুয়ারি) সকালে দীঘিনালা উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয় থেকে বিক্ষোভ মিছিলটি শুরু হয়ে বাস টার্মিনাল এবং উপজেলা কমপ্লেক্স থানা বাজার প্রদক্ষিণ করে উপজেলা বঙ্গবন্ধু চত্বরে সমাবেশে মিলিত হয়।

সমাবেশে উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মো: মোজাফফর হোসেনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো: আলমগীর হোসেন এবং সাংগঠনিক সম্পাদক নয়ন দাশ প্রমুখ।

প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা পানছড়ি সদর ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নাজির মাহমুদের উপর হামলার ঘটনায় ইউপিডিএফকে(প্রসীত) দায়ী করে, ঘটনায় জড়িত সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার(৮ জানুয়ারি) সন্ধ্যা ৭টার দিকে পানছড়ি বাজারের দুর্বৃত্তদের  গুলিতে ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. নাজির হোসেন গুরুতর আহত হয়। তাকে প্রথমে খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে ও পরে চট্টগ্রাম সিএমএইচ-এ প্রেরণ করা হয়।

নাজির হোসেনকে গুলি করার প্রতিবাদে পানছাড়িতে বিক্ষোভ

পানছড়ি প্রতিনিধি:

খাগড়াছড়ি জেলার পানছড়িতে ইউপি চেয়ারম্যান ও যুবলীগ সম্পাদক মো: নাজির হোসেনকে দুর্বৃত্তরা গুলিকরে আহত করার ঘটনায় বিক্ষোভ মিছিল, সমাবেশ ও মানববন্ধন করেছে বিভিন্ন সংগঠন।

বুধবার (৯ জানুয়ারি) সকাল ১০টা থেকে বিভিন্ন সংগঠনের ব্যানারে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলটি প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে মুক্তিযোদ্ধা স্কয়ারে এসে সমাবেশ করে। এতে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মো: বাহার মিয়া, সম্পাদক জয়নাথ দেব, সাংগঠনিক সম্পাদক মো: আবু তাহের, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক নূর মোহাম্মদ, আইন বিষয়ক সম্পাদক মো: নাছির ও ছাত্রলীগ সভাপতি শ্রীকান্ত দেব মানিক।

অপরদিকে পানছড়ি সিএনজি সমিতি এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে মানববন্ধন করেছে। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সমিতির সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন মায়া। এ সময় সমিতির আমজাদ হোসেন, নবী হোসেন, মো: মোসলেম, মো: ইব্রাহীমসহ সকল সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য ৮ জানুয়ারি মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে পানছড়ি বাজারস্থ হাদিসের চায়ের দোকানের সামনে দূর্বৃত্তরা ইউপি চেয়ারম্যান মো: নাজির হোসেনকে গুলি করে গুরুতর আহত করে। বর্তমানে তিনি চট্টগ্রাম সিএমএইচ’এ চিকিৎসাধীন আছেন।

এ ব্যাপারে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সূত্রে জানা যায়, তারা মাঠে কাজ করছেন। তবে গোপনীয়তার স্বার্থে এখনো কিছু বলতে রাজি হননি তারা।

পানছড়িতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে ইউপি চেয়ারম্যান নাজির হোসেন আহত

নিজস্ব প্রতিবেদক, পানছড়ি, খাগড়াছড়ি:

খাগড়াছড়ির পানছড়ি উপজেলা সদরে সন্ত্রাসীদের গুলিতে ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. নাজির হোসেন গুরুতর আহত হয়েছে। তাকে খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মঙ্গলবার (৮ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনার পর পরই বিক্ষুব্ধ লোকজন পানছড়ি সদরের বেশ কয়েকটি বাড়ি ঘরে হামলার অভিযোগ উঠেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়,মঙ্গলবার সন্ধ্যা আনুমানিক ৭টার দিকে পানছড়ি বাজারের প্রধান সড়কে হাদিস মিয়ার চা দোকানে বন্ধুদের সাথে চা পান করার সময় অজ্ঞাতনামা দূর্বৃত্তরা গুলি চালিয়ে পালিয়ে যায়। তার বাম হাত ও পিঠে গুলি লাগে। এটি ছররা গুলি বলে ধারণা করা হচ্ছে। গুরুতর আহত নাজির হোসেনকে পানছড়ি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

পানছড়ি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা: সুমেন চাকমা জানান, তার প্রেসার অনেক কমে গেছে। ভিতরে বুলেট রয়েছে তাই উন্নতর চিকিৎসার জন্য সদরে প্রেরণ করা হয়েছে।

খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাক্তার নয়ন ময় ত্রিপুরা জানান, আহত নাজির হোসেন শংকামুক্ত।

এদিকে ঘটনার প্রতিবাদে তাৎক্ষনিকভাবে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে বিক্ষুদ্ধ জনতা। এসময় বিক্ষোভকারি কয়েকজন টিএন্ডটিতে দুটি বাড়ির ঘেরাও বেড়া ভাংচুর করে। তবে সেনাবাহিনী, পুলিশসহ আইন শৃংখলাবাহিনীর সদস্যরা মাঠে নামলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

এ ব্যাপারে পানছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মো: বাহার মিয়া জানান, অজ্ঞাতনামা সন্ত্রাসীরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে। আমরা এখনো কাউকে সন্দেহ করছি না। তবে সন্ত্রাসীদের খুঁজে বের করার চেষ্টা করছি।

খাগড়াছড়ি জেলা যুবলীগ সভাপতি যতন কুমার ত্রিপুরা এবং সাধারণ সম্পাদক কেএম ইসমাইল হোসেন এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। তারা দোষীদের অবিলম্বে গ্রেফতার করার দাবি জানিয়েছেন।

পানছড়ি থানার পুলিশ পরিদর্শক মোহাম্মদ নুরুল আলম জানান, কে বা কাহারা এ ঘটনা ঘটাতে পারে তা আমরা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এখনো কেউ কোন অভিযোগ নিয়ে থানায় আসেনি বলেও তিনি জানান।

পানছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত  কর্মকর্তা (ওসি) মো. নুরুল আলম জানান, ইউপি চেয়ারম্যান মো. নাজির হোসেন সন্ধ্যায় পানছড়ি বাজারে হাদিসের চা দোকানে চা খেতে যান। এ সময় সন্ত্রাসীরা তাকে গুলি করে হত্যা করার চেষ্টা করে। কে বা কারা এই ঘটনা ঘটিয়েছে তা এখনো জানা যায়নি। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

ইউপিডিএফ এর খাগড়াছড়ি জেলা সংগঠক মাইকেল চাকমা এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, এটি সরকারি দলের অভ্যন্তরীন কোন্দলের কারণে ঘটে থাকতে পারে।

পানছড়িতে শেষ হলো শীতকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতা

পানছড়ি প্রতিনিধি:

পানছড়ি উপজেলায় জাতীয় স্কুল ও মাদ্রাসার ৪৮তম শীতকালীন ক্রীড়া সমাপ্ত হয়েছে।

পানছড়ি উপজেলা পরিষদ মাঠে দু’দিন ব্যাপী এই আয়োজনের শেষ দিন ৬ জানুয়ারি রবিবারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে পুরষ্কার বিতরণ করেন উপজেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মো: লোকমান হোসেন।

এতে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম।

উক্ত ক্রীড়ায় ক্রিকেটে পানছড়ি বাজার উচ্চ বিদ্যালয়, ভলিবলে লোগাং উচ্চ বিদ্যালয়, ব্যাডমিন্টন একক-দ্বৈতে পানছড়ি মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় ও এ্যাথলেটিকসে মধ্যনগর মাদ্রাসা চ্যাম্পিয়ন হয়।

পুরষ্কার বিতরণীতে বিশেষ অতিথি হিসেবে মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা অরূপ চাকমা, ৩নং পানছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান মো: নাজির হোসেন, ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান কবির সাজু ছাড়াও আরও ছিলেন বিদ্যালয় শিক্ষক দীলিপ কুমার দাস, নিউটন চাকমা, বিরতি চাকমা ও হোসনে আরা বেগম প্রমুখ।

পানছড়িতে মাঠ দখলে নৌকা : এলাকা ছাড়া বিএনপি

সাজাহান কবির সাজু, প্রতিনিধি, পানছড়ি (খাগড়াছড়ি) :

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে খাগড়াছড়ি জেলার পানছড়ির মাঠ দখলে নিয়েছে নৌকার সমর্থকরা। নির্বাচনী প্রচারণার শেষ বেলাতে বৃহষ্পতিবার বিকাল ৩টা থেকে হাজারো নেতা-কর্মী জড়ো হয়ে নৌকার সমর্থনে বিশাল মিছিল বের করে। মিছিলটি উপজেলার প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। আ’লীগের প্রবীন নেতা-কর্মীদের দাবী, এবারের মতো সু-সংগঠিত দল আগে আর কখনো চোখে পড়েনি। পুরুষ-মহিলাদের স্বত:ষ্ফুর্ত উপস্থিতি দলের নেতা-কর্মীরা আরো চাঙ্গা হয়েছে।

আ’লীগের মিছিল ও গণসংযোগে এসে নেতা-কর্মীদের সাথে নৌকার পক্ষে ভোট চাইলেন আ’লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির অন্যতম সদস্য ও সাবেক ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির উপ-ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক ভবেশ্বর রোয়াজা নিকি ও কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরার একান্ত সহকারী খগেন ত্রিপুরা।

এদিকে প্রতিদিন বিভিন্ন দলের নেতা-কর্মীদের আ’লীগে যোগ দেয়া অব্যাহত রয়েছে। জাকের পার্টি নৌকা প্রতীকের সাথে একাত্মতা ঘোষণা করে ইতিমধ্যে কাজ করতে মাঠে নেমেছে। আ’লীগ সভাপতি মো: বাহার মিয়া, সম্পাদক জয়নাথ দেব, সাংগঠনিক সম্পাদক মো: আবু তাহের, যুবলীগ সম্পাদক মো: নাজির হোসেন, ছাত্রলীগ সভাপতি শ্রীকান্ত দেব মানিক, সম্পাদক জহিরুল আমিন রুবেল জানান, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখতে পানছড়ির নেতা-কর্মীরা অনেক সু-সংগঠিত।

এদিকে আ’লীগ দলীয় কার্যালয়ও ইসলামপুর যুবলীগ কার্যালয় ভাংচুরের ঘটনায় পর পর দুই মামলায় বিএনপির নেতাকর্মীরা এলাকা ছাড়া। ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী শহীদুল ইসলাম ভূইয়ার পক্ষে গণসংযোগ, প্রচারণা বা কোন ধরণের মাইকিং এর মধ্যে শোনা যায়নি।

উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি মো: বেলাল হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক মো: সিরাজুল ইসলাম জেল হাজতে থাকায় উপজেলা বিএনপির নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সমন্বয়ক যুবদলের সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন জানান, বিএনপির নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে করা মামলাগুলো আসলে সাজানো নাটক। আ’লীগ নিজেরাই এ ঘটনা ঘটিয়ে মামলা করে বিএনপিকে মাঠ ছাড়া করেছে। এ ধরণের ঘটনা ঘটতে পারে সন্দেহে সহকারী রির্টানিং অফিসার বরাবরে বিএনপির পক্ষ থেকে একখানা অবগতিপত্রও দেয়া হয়েছে বলে জানান।

পানছড়ি পিসিপি কার্যালয় থেকে এলজি ও ৩ রাউন্ড গুলিসহ আটক-৯

ooo

স্টাফ রিপোর্টার:

খাগড়াছড়ি জেলার পানছড়ি উপজেলাস্থ পিসিপি (পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ) কার্যালয়ে যৌথ বাহিনীর অভিযানে একটি এলজি ও ৩ রাউন্ড গুলিসহ ৯ জনকে আটক করা হয়েছে।

আটককৃতরা পানছড়ি উপজেলা পিসিপি সভাপতি হিমেল চাকমা, কলেজ শাখা পিসিপি সভাপতি এডিসন চাকমা, দপ্তর সম্পাদক সাধন চাকমা, বড় কলক এলাকার জীতেন্দ্র চাকমার ছেলে কল্যাণ জ্যোতি চাকমা, একই এলাকার সুগন্ধা চাকমার ছেলে সুপ্রিয় চাকমা, দুদুকছড়ার ভ’বন চন্দ্র চাকমার ছেলে সুবিরণ চাকমা, যুবনাশ্ব পাড়ার বিজয় চাকমার ছেলে রমেশ চাকমা, পূজগাং এলাকার সম্মুলাল চাকমার ছেলে সোহেল চাকমা ও মাচ্ছ্যাছড়ির শ্যামল কান্তি চাকমার ছেলে দিদল চাকমা।

বৃহষ্পতিবার সকাল ১১টায় এই অভিযানের নেতৃত্ব দেয় ৩ বিজিবি লোগাং জোনের সহকারী পরিচালক রহমত আলী ও পানছড়ি সাব জোনের সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার মো: ওয়াহিদুজ্জামান।


এ সংক্রান্ত আরো খবর:


পানছড়িস্থ লোগাং জোন অধিনায়ক লে: কর্ণেল আহসান আজিজ (পিএসসি) জানায়, পানছড়ি কলেজ গেইট এলাকায় পিসিপি কার্যালয়ে কয়েকজন অস্ত্রধারী গোপন বৈঠকে বসেছে খবরের ভিত্তিতে যৌথ বাহিনী এ অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে। আটককৃতদের অস্ত্র ও গুলিসহ পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে।

পানছড়ি থানার দায়িত্বরত অফিসার এসআই মো: ইয়াছিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানায়, এ ব্যাপারে অস্ত্র আইনের ১৯(ক)-চ ধারায় অস্ত্র আইনে একটি মামলা হয়। পানছড়ি থানার মামলা নং-৬।

এদিকে পার্বত্য নাগরিক পরিষদের সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার আলকাস আল মামুন ভুঁইয়া এ ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় পার্বত্যনিউজকে বলেন, যে সব সংগঠন অবৈধ অস্ত্র নিয়ে পার্টি অফিসে মিটিং করে সে ধরনের সংগঠনের বৈধ রাজনীতি করার অধিকার নেই। এদের বিরুদ্ধে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে শক্ত ভূমিকা নেয়ার দাবী জানাচ্ছি। পার্বত্য চট্টগ্রামে এসব সন্ত্রাসী সংগঠন ও অফিসের নামে তাদের আস্তানা নিষিদ্ধ করারও জোর দাবী জানান তিনি।

এদিকে পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ পিসিপি খাগড়াছড়ি জেলা শাখা এক বিবৃতিতে তাঁরা অবিলম্বে আটক নেতা-কর্মীদের নিঃশর্ত মুক্তি ও তাদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার, অন্যায় ধরপাকড় ও ন্যায়সঙ্গত গণতান্ত্রিক আন্দোলন দমনের ষড়যন্ত্র বন্ধের দাবি জানান।

পানছড়ি নালকাটা বৌদ্ধ বিহারের উপাধ্যক্ষ আনন্দ পাল থের’র পরলোক গমন

শোক সংবাদ

স্টাফ রিপোর্টার:

খাগড়াছড়ি জেলার পানছড়ি উপজেলার নালকাটা আম্রকানন জনকল্যাণ বৌদ্ধ বিহারের উপাধ্যক্ষ আনন্দ পাল থের বার্ধক্য জনিত কারণে সোমবার রাত ১২.৫২ টায় ইহলোক ত্যাগ করে পরলোকে গমন করেছেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৮ বছর। ভিক্ষুত্ব জীবনে তিনি ১২বছর বর্ষাবাসে অতিবাহিত করেন। জেলার মহালছড়ি উপজেলার লিমুছড়ি গ্রামে তার জন্ম। গৃহ জীবনে তার নাম ছিল হৃদয় রঞ্জন চাকমা।

এ উপলক্ষে মঙ্গলবার বেলা ১টায় পার্বত্য ভিক্ষু সংঘ বাংলাদেশ কর্তৃক বিহার প্রাঙ্গনে এক শোক সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন ভান্তে সুমনা মহাথের। বিশেষ অতিথি ছিলেন উ. সুরিয়া মহাথের, শাসনা প্রিয় মহাথের, নন্দপ্রিয় থের ও জিতানন্দ থের।

এ সময় প্রধান আলোচক ছিলেন ড. দীপংকর থের, আদিরত্ন ভিক্ষু, নালাকাটা বিহারাধ্যক্ষ লোক জ্যোতি ভিক্ষু। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন পানছড়ি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সর্বোত্তম চাকমা, ৪নং লতিবান ইউপি চেয়ারম্যান শান্তিজীবন চাকমা, বিহার সভাপতি রসিক মোহন চাকমা।

এদিকে নালকাটা আ¤্রকানন জনকল্যাণ বৌদ্ধ বিহারের উপাধ্যক্ষ আনন্দ পাল থের’র মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন পানছড়ি প্রেস ক্লাব সভাপতি এস চাঙমা সত্যজিৎ। আজ তাকে পেটিকাবদ্ধ করা হয় এবং আগামী ৪মার্চ প্রয়াতের অন্তোষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন করার সিদ্ধাস্ত গ্রহণ করা হয়।