কক্সবাজার শহরে বন্দুকযুদ্ধে ইয়াবা কারবারী নিহত 

বিশেষ প্রতিনিধি, কক্সবাজার:

কক্সবাজার শহরে বন্দুকযুদ্ধে দেলোয়ার হোসেন নামে এক ইয়াবা ব্যবসায়ী নিহত হয়েছে।

মঙ্গলবার ভোরে পুলিশ তার গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে। ওই সময় অস্ত্র, তাজা কার্তুজ ও ইয়াবা উদ্ধার করে বলেও জানায় পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, ইয়াবা ব্যবসায়ীদের দুইপক্ষের ভাগবাটোয়া নিয়ে নিজেদের মধ্যে গোলাগুলি হয়েছে। এতে একজনের মৃত্যু হয়েছে। মৃত ব্যক্তির নাম দেলোয়ার হোসেন (৩৮)। তিনি শহরের বাস টার্মিনালের লারপাড়া এলাকার গোলাম হোসেন ওরফে গুল হোসেনের ছেলে বলে জানাগেছে।

বন্দুকযুদ্ধে টেকনাফে এক মাদক কারবারী নিহত

বিশেষ  প্রতিনিধি, কক্সবাজার:

বন্দুকযুদ্ধে টেকনাফে এক মাদক কারবারী নিহত হয়েছে। ১০ মার্চ গভীর রাতে পুলিশের সাথে কথিত বন্দুকযুদ্ধে ওই মাদক পাচারকারী আব্দুর রহমান নিহত হয়েছে বলে জানাগেছে।

নিহত মাদক পাচারকারী টেকনাফ উপজেলা হোয়াইক্যং ইউনিয়ন মহেশখালীয়া পাড়া এলাকার শাহ আলমের পুত্র আব্দুর রহমান(২৩)।

জানা যায়, রবিবার (১০ মার্চ) গভীর রাতে হোয়াইক্যং ইউনিয়ন সাতঘরিয়া পাড়া শিয়াইল্লা পাহাড় সংলগ্ন এলাকায় মাদক পাচারে জড়িত অপরাধী চক্রের সাথে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনাস্থল তল্লাশী করে ওইএলাকার শাহ আলমের পুত্র আব্দুর রহমান(২৩), ৩ হাজার ইয়াবা, ১টি দেশীয় তৈরি এলজি, ৩ রাউন্ড তাজা কার্তুজ, ৬ রাউন্ড গুলির খোসা উদ্ধার করেছে পুলিশ।

উখিয়ায় পাহাড় চাপায় শ্রমিক নিহত

 

উখিয়া প্রতিনিধি:

উখিয়ার হলদিয়াপালং ইউনিয়নের পাতাবাড়ী বালুছড়া কাটালিয়া এলাকায় পাহাড় কেটে ডাম্পার যোগে মাটি পাচার করার সময় পাহাড় সংলগ্ন বসতবাড়ীর দেয়াল ভেঙ্গে হাছান আলী (২৩) নামক এক শ্রমিক নিহত হয়েছে। সোমবার সকাল ৮ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনাস্থল ও এলাকার লোকজনের সাথে কথা বলে জানা যায়, ইউনিয়নের পাতাবাড়ী গ্রামের এলাকার চিহ্নিত ভুমিদস্যুরা সোমবার সকালে কাটালিয়া এলাকায় পাহাড় কাটার সময় হামিদুল হকের বসতবাড়ীর দেয়াল ভেঙ্গে মাটি চাপা পড়ে ইউনিয়নের জাইল্যাপাড়া গ্রামের হাছিম আলীর ছেলে মো. হাসান আলী (২২) নামের এক শ্রমিক গুরুতর আহত হয়।

এসময় পাহাড় খেকোরা আহতকে উদ্ধার করে দ্রুত কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন বলে জানা যায়।

ভুক্তভোগী ছৈয়দা বেগম জানান, নুর মোহাম্মদ, বদি আলম ও খুরশেদ আলম আমি ও আমার পরিবারকে মারধরের ভয়ভীতি প্রদর্শন করে পাহাড় কেটে ডাম্পার যোগে মাটি পাচার করে বসতবাড়ীটি ভেঙ্গে বিলীন করে প্রায় লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি করেছে। তিনি আরো বলেন, তাদের বিরুদ্ধে থানা বা আদালতের আশ্রয় নিলে তাদেরকে শ্রমিক হত্যারমত ঘটনা ঘটিয়ে হত্যা করা হবে মর্মে হুমকি ধমকি দিয়ে থাকে।

স্থানীয় সচেতন মহলরা বলেন, এভাবে আর কত লাশ পড়লে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের ঘুম ভাঙ্গবে এবং পাহাড় কাটা বন্ধ হবে? উখিয়া রেঞ্জ কর্মকর্তা তারিকুর রহমান জানান, পাহাড় কাটার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত আছে এবং থাকবে।

উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আবুল খায়ের ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন এবং পাহাড় কাটার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও তিনি জানান।

উখিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় মটর সাইকেল আরোহী নিহত, আহত-২

উখিয়া প্রতিনিধি:

উখিয়ার কোটবাজার সোনার পাড়া সড়কে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় মটর সাইকেল আরোহী তারেক (২৪) নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে বন্ধু শাহাব উদ্দিন (২৩) ও সুজন (২২)।

আহতদেরকে কোটবাজার একটি ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। নিহত যুবক হলদিয়াপালং ইউনিয়নের রুমখাঁ মাতব্বর পাড়া গ্রামের আবু তাহের মিস্ত্রির ছেলে।

মঙ্গলবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। ঘাতক এনজিও সংস্থার ব্যবহৃত হায়েস গাড়িটি দ্রুত পালিয়ে যাওয়ায় এখনো আটক করতে পারেনি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, রুমখাঁ মাতব্বর পাড়া গ্রামের মৃত ছলামতের পুত্র শাহাব উদ্দিন, মাহমুদুল হক প্রকাশ মাতু’র পুত্র সুজন ও আবু তাহের মিস্ত্রির ছেলে তারেক জালিয়াপালং ইউনিয়নের লম্বরী পাড়া গ্রামে এক আত্মীয়ের বাসায় বেড়াতে যান। সন্ধ্যায় মটর সাইকেল নিয়ে ফেরার পথে কোটবাজার-সোনার পাড়া সড়কের লম্বরী পাড়ার রাস্তার মাথায় দ্রুত গামী কক্সবাজারমূখী এনজিও কর্মকর্তা বাহী একটি হায়েস মাইক্রো মটর সাইকেলকে সামনাসামনি চাপা দিলে মটর সাইকেল চালক তারেক ঘটনাস্থলে নিহত হন। অপর দু’বন্ধু গুরুতর আহত হয়। স্থানীয় জনগণ দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদেরকে হাসপাতালে নিয়ে আসে। কর্তব্যরত ডাক্তার তারেককে মৃত্যু ঘোষণা করেন। আহতদেরকে ভর্তি করা হয়েছে।

এদিকে দুর্ঘটনায় নিহতের পরিবার ও আত্মীয়স্বজনরা এনজিও কর্মকর্তা বাহী ঘাতক হায়েস মাইক্রো বাসের চালকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

নাগরিক সমাজের নেতৃবৃন্দরা বলেন, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ১০৬টি আন্তর্জাতিক ও দেশীয় এনজিও সংস্থার হাজার হাজার যানবাহন বেপরোয়া গতিতে না চালানোর দাবি জানিয়েছেন। কক্সবাজারে অবস্থান না করে এসব এনজিও বাহী গাড়ি ক্যাম্প ভিত্তিক এলাকায় অবস্থান করার জন্য সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের নিকট হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

প্রত্যেক্ষদর্শী অনেকে জানান, এনজিও কর্মকর্তা বাহী হায়েস মাইক্রো বাসটি দ্রুত সোনার পাড়া রোড দিয়ে কক্সবাজারে যাচ্ছিল। ড্রাইভার বেপরোয়া ভাবে মটর সাইকেল আরোহীদেরকে চাপা দিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়।

উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আবুল খায়ের দুর্ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ঘাতক এনজিও কর্মকর্তা বাহী হায়েস মাইক্রো বাসটি সনাক্ত করার চেষ্টা চালিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

মানিকছড়িতে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে নিহত-১, আহত-১

মানিকছড়ি প্রতিনিধি:

মানিকছড়িতে নবনির্মিত রেস্টুরেন্ট ‘কাঠগোলাপে’ সাজ-সজ্জা করতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ঘটনাস্থলে নির্মাণ শ্রমিক সুজন মিয়া(২৪) নিহত ও শ্রমিক মো. রুবেল মিয়া(২০)গুরুত্বর আহত হয়েছে। সোমবার (৪ ফেব্রুয়ারি) বিকালে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও হাসপাতাল ষূত্রে জানা গেছে, মানিকছড়ি উপজেলার টাউন হল সংলগ্ন ভূইঁয়া মার্কেটে নবনির্মিত রেস্টুরেন্ট‘কাঠ গোলাপ’এর উদ্বোধন আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি। ফলে দোকান নির্মাণ শেষে উদ্বোধনকে ঘিরে সাজ-সজ্জা চলছিল। সোমবার বিকাল পৌনে ৫টার দিকে নির্মাণ শ্রমিক সুজন মিয়া (২৪) ও মো. রুবেল মিয়া(২০) দোকানের সামনে চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি সড়কের পাশ্বে গাছে উঠে ঝাড়বাতি সংযোগ দিতে গিয়ে অসাবধানতা ৩৩ কেভি লাইনে সংযোগ তার লেগে যায়। এতে ঘটনাস্থলে শ্রমিক দু’জন মাটিতে লুটিয়ে পড়ে এবং সুমন মিয়া(২৪) নিহত হয়। অপর শ্রমিক মো. রুবেল মিয়া(২৫) গুরুত্বর আহত।

পথচারী ও অন্য নির্মাণ শ্রমিকরা দু’জনকে উদ্ধার করে উপজেলা হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সুমন মিয়া(২৪ কে মৃত্যু ঘোষণা করেন এবং অপর শ্রমিক  মো. রুবেল মিয়া(২৫)কে চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করেন। খবর পেয়ে মানিকছড়ি থনা পুলিশ হাসপাতালে ছুঁটে আসেন এবং সরজমিন পরিদর্শন করে নিহত শ্রমিকের লাশ পুলিশ হেফাজতে নেন।

উল্লেখ্য যে অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সুবেদার(আর.আই) মরহুম আবদুল মতিন ভূইঁয়ার সেজ ছেলে ও আবুল খায়ের লিমিটেড কোম্পানীর প্রধান হিসাব রক্ষক মো. মাসুম ভূইঁয়া সম্প্রতি ঠিকাদার নিযুক্ত করে বাড়ি নির্মাণ করছিল। বাড়ির সামনে দোকান প্লটে আধুনিক সাজে একটি রেস্টুরেন্ট‘কাঠ গোলাপ’ নির্মাণ করেন। যা আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি উদ্বোধন হওয়ার কথা। সে লক্ষে ওই ভবণের নির্মাণ শ্রমিকরা ৪ ফেব্রুয়ারি দোকানের সামনে লাইটিং এর কাজ করছে। বিকালে সড়কের পাশ্বে গাছে উঠে ঝাড়বাতি সংযোগ দিতে গিয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর পর অন্য শ্রমিকরা আত্মগোপন করায় নিহত ও আহত শ্রমিকের বিস্তারিত ঠিকানা জানা যায়নি। তবে নিহত সুজন নোয়াখালি এবং আহত রুবেল চট্টগ্রামের আনোয়ারার বাসিন্দা। থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ রশীদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, দুঘটনার খবর পেয়ে সরজমিনে ওসি তদন্তসহ পুলিশ পাঠানো হয়েছে। লাশ পুলিশ হেফাজতে রয়েছে এবং পরবর্তী করণীয় চলছে।

কাপ্তাইয়ে দুর্বৃত্তের গুলিতে ইউপিডিএফ (গণতান্ত্রিক)’র এরিয়া কমান্ডারসহ নিহত-২

নিজস্ব প্রতিনিধি, রাঙামাটি:

রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলায় দুর্বৃত্তের গুলিতে দু’ব্যক্তি নিহত হয়েছে। সোমবার ( ৪ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৪টার দিকে উপজেলার চন্দ্রঘোনা থানার অধীন দুর্গম রাইখালী ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তিরা হলেন, রাইখালী ইউনিয়নের বটতল গ্রামের থইলাসিন মারমার ছেলে মংছিনু মারমা (৪০) এবং  একই ইউনিয়নের নারায়নগিরি পাড়ার আরব আলীর ছেলে মো. জাহিদ (৩৭)। মংছিনু আঞ্চলিক সংগঠন ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিক দলের রাইখালী ইউনিয়নের এরিয়া কমান্ডার।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, একদল অস্ত্রধারী দুর্বৃত্ত দুর্গম রাইখালী ইউনিয়নের কারিগর পাড়ায় ভালুকিয়া সড়কের পাশে একটি দোকানে অবস্থান করা মংছিনুকে লক্ষ্য করে ব্রাশ ফায়ার করলে ঘটনাস্থলে মংছিনু এবং জাহিদ নামে  দু’ব্যক্তি মারা যায়।  ঘটনার পর আইন শৃঙ্খলা বাহিনী পুরো এলাকা ঘিরে রেখেছে।  তবে কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে এখনো তা জানা যায়নি।

চন্দ্রঘোনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আশরাফ উদ্দীন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ওই দু’ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করতে পুলিশ ঘটনাস্থলে রওনা হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে ফিরলে বিস্তারিত জানা যাবে।

মাটিরাঙ্গায় বাসের চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক, মাটিরাঙ্গা:

খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গায় যাত্রীবাহী বাসের চাকায় পিস্ট হয়ে কালা মারমা (৪০) নামে এক মোটর সাইকেল আরোহী নিহত। এঘটনায় নিহাল ত্রিপুরা নামে অপর একজন গুরুতর আহত হয়েছে।

মঙ্গলবার রাত সোয়া ৮টার দিকে খাগড়াছড়ি-চট্টগ্রাম আঞ্চলিক সড়কের মাটিরাঙ্গার বাইল্যাছড়ি মাদ্রাসার সামনে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত কালা মারমা মাটিরাঙ্গা পৌর যুবলীগের সদস্য এবং বাইল্যাছড়ি ১নাং রাবার বাগান এলাকার মৃত: মথু মারমার ছেলে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার রাত সোয়া ৮টার দিকে চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা খাগড়াছড়িগামী দ্রুতগতি সম্পন্ন যাত্রীবাহী বাস (চট্টমেট্টো-ঘ-১১- ০৫-০০১৫) মাটিরাঙ্গা থেকে আসা মোটর সাইকেলকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই মোটর সাইকেল চালক কালা মারমা নিহত হয়। এ ঘটনায় মোটর সাইকেল আরোহী নিহাল ত্রিপুরা গুরুতর আহত হয়।

গুরুতর আহত নিহাল ত্রিপুরার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে মাটিরাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে।

মাটিরাঙ্গা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সৈয়দ মো. জাকির হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘাতক বাসটিকে আটক করা গেলেও চালক-হেলপার পলাতক রয়েছে।

চকরিয়ায় বিদ্যুতের খুঁটির চাঁপায় শ্রমিক নিহত

চকরিয়া প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের চকরিয়ায় বিদ্যুতের খুঁটির চাঁপায় মতিউর রহমান (৩২) নামে এক শ্রমিক নিহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (২২ জানুয়ারি) সকাল ১০টার দিকে উপজেলার পূর্ব বড় ভেওলা ইউনিয়নের লাল ব্রিজ নামক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত মতিউর পাবনা জেলার ভাঙ্গুরা থানার মন্ডপিস ইউনিয়নের মল্লিক চক এলাকার ছিদ্দিক আহমদের ছেলে।

নিহতের সহকর্মী শহিদুল ইসলাম বলেন, সকালে পল্লী বিদ্যুতের লাইন সম্প্রসারণের কাজ করছিল কয়েক জন শ্রমিক। পাঁচ জন শ্রমিক বিদ্যুতের একটি খুঁটি কাঁধে নিয়ে ট্রলি গাড়িতে উঠানোর সময় খুঁটির ওজন সহ্য করতে না পেরে অপর চার জন শ্রমিক সটকে পড়লেও মতিউর সরতে পারেনি।

এসময় খুঁটি চাপায় গুরুতর আহত হয় মতিউর। স্থানীয় লোকজন তাকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উপ-সহকারী চিকিৎসক মো. নাজিম উদ্দিন বলেন, গুরুতর আহত অবস্থায় মতিউরকে হাসপাতালে আনার পর সে মারা যায়।

এ ব্যাপারে চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে মতিউর নামে নিহত এক শ্রমিকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এ নিয়ে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা রুজু করা হয়েছে।

মহেশখালীতে আব্বাস বাহিনীর হামলায় পান চাষি নিহত

মহেশখালী প্রতিনিধি:

মহেশখালী উপজেলার ছোট মহেশখালী দক্ষিণ কুল গ্রামে জেটাতো ভাইয়ের দায়ের কোপে আব্দুল কাদের নামে এক পান চাষি খুন হয়েছে।

মঙ্গলবার(২২ জানুয়ারি) ভোরে আব্দুল কাদের চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়।

ঘটনার সুত্র মতে, ছোট মহেশখালী দক্ষিণ কুল গ্রামের মৃত জোনাব আলীর পুত্র মো. ইউনুস প্রকাশ বাদশার সাথে তাঁর ভাই ইদ্রিসের পারিবারিক বিরোধ চলে আসছিল।

সোমবার (২১ জানুয়ারি)সকালে  মহিলাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে বাদশাপুত্র আরিফুল প্রকাশ আব্বাস ডাকাত তাঁর অপরাপর সহযোগীদের নিয়ে নিহতের বাড়ির পাশে সন্ধ্যায় অবস্থান করে। ইদ্রিসের পুত্র  আব্দুল কাদের ও অপর ভাইপুত্র আজিজুল হক পানের বরজ থেকে পানের ভার নিয়ে পাহাড় থেকে বাড়ি পৌঁছার পূর্ব মুহুর্তে পরিকল্পিতভাবে আক্রমণ করে। ৮/১০জন দা দিয়ে কাদের ও আজিজ কে মাথায়, পিঠে, কোমরে-সহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে ক্ষতবিক্ষত করে রাস্তায় ফেলে চলে যায়।

স্থানীয় লোকজন দ্রুত তাদের প্রথমে মহেশখালী পরে কক্সবাজার রেফার  করে ওখানে অবস্থার অবনতি হওয়ায়  আব্দুল কাদেরকে চমেক হাসপাতালে রেফার করে।

মঙ্গলবার ভোরে (২২জানুয়ারি)  ৫টায় আব্দুল কাদের মারা যান।

মহেশখালী থানার ওসি প্রভাষ চন্দ্র ধর জানান, হামলার ঘটনায় নিহতের বিষয়টি গুরুত্বসহকারে নিয়ে অপরাধীদের ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

টেকনাফে বন্দুকযুদ্ধে তালিকাভুক্ত মাদক কারবারী নিহত

কক্সবাজার প্রতিনিধি:

টেকনাফে বিজিবির মাদক বিরোধী অভিযানে বন্দুক যুদ্ধের ঘটনায় আহত মাদক ব্যবসায়ী মুছু(৩৫) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে। এ অভিযানে ইয়াবা ও অস্ত্র উদ্ধার করেছে বিজিবি।

টেকনাফ ২বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল আছাদুদ-জামান চৌধুরী জানান, রবিবার (২০ জানুয়ারি) ভোররাত ২টায় টেকনাফ ২বিজিবি ব্যাটালিয়নে কর্মরত নায়েক হাবিল উদ্দিনের নেতৃত্বে বিজিবি-পুলিশের পৃথক দু’টি টহল দল ইয়াবাসহ আটক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের তালিকাভূক্ত মাদক ব্যবসায়ী পৌর এলাকার উত্তর জালিয়া পাড়ার মৃত জাকির হোসেনের পুত্র মোস্তাক আহমদ মুছুকে নিয়ে তাঁর আস্তানায় অভিযানে গেলে তাঁর গ্রুপের লোকজন পুলিশ-বিজিবিকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করে। এতে বিজিবির সদস্য সিপাহী আব্দুল আউয়াল (২৪), ল্যান্সনায়েক আব্দুল আলিম (২৮) ও পুলিশ সদস্য আল আমিন (২১) আহত হলে পুলিশ-বিজিবি পাল্টা গুলিবর্ষণ করে।

কিছুক্ষণ পর পরিস্থিতি শান্ত হলে ঘটনাস্থল তল্লাশি করে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় মুছুসহ ১০ হাজার ইয়াবা, ১টি আগ্নেয়াস্ত্র ও খোসা উদ্ধার করে। মুছুকে টেকনাফ উপজেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে রেফার করেন। পরে তাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

টেকনাফ ২বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক, এই মাদক বিরোধী অভিযান ও বন্দুকযুদ্ধ এবং চিকিৎসাধীন অবস্থায় মাদক ব্যবসায়ীর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন।