কাভার্ড ভ্যান ছিনতাই ও চালককে মারধরের অভিযোগে সেই উপজাতী দুই পুলিশ সদস্য সাময়িক বরখাস্ত

POLIC20160126144103

নাইক্ষ্যংছড়ি প্রতিনিধি:

বাইশারী-ঈদগড় সড়কের করলিয়ামুরা নামক স্থানে রাবার ভর্তি কাভার্ড ভ্যান ছিনতাই ও চালককে মারধরের অভিযোগে অবশেষে সেই উপজাতী দুই পুলিশ সদস্য নায়েক শান্তি লাল চাকমা ও কনস্টেবল অনুপম চাকমাকে ঈদগড় ক্যাম্প থেকে প্রত্যাহার এবং সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

বিষয়টি নিয়ে রামু থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল মজিদ জানান, তদন্তপুর্বক উক্ত দুই পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে এবং ক্যাম্প থেকে প্রত্যাহার ও সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

ঈদগড় পুলিশ ক্যাম্প ইনচার্জ আবুল হাসেম জানান, দুই পুলিশ সদস্য বিনা অনুমতিতে উক্ত স্থানে গিয়ে এধরনের ঘটনা ঘটিয়েছে। তবে তিনি ছিনতাইয়ের বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, তারা মদ পান করে চালককে মারধর করছিলো। ইতিমধ্যে তাদের প্রত্যাহার ও চট্রগ্রাম রেঞ্জ রিজার্ভ ফোর্স (আর আর এফ) এ ক্লোজড করা হয়েছে।

ফলোআপ

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার ২৮ জানুয়ারি বাইশারী ঈদগড় সড়কে রাবার ভর্তি কাভার্ড ভ্যান নিয়ে যাওয়ার সময় রাত আনুমানিক ৮ টা ৩০ মিনিটের সময় সাদা পোশাকে দুই পুলিশ সদস্য কাভার্ড ভ্যান চালক মো. হানিফ ও হেলপারকে গাড়ি থেকে নামিয়ে মারধর এবং ১০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়।

সে সময় চালক ও হেলপারের আর্তচিৎকারে লোকজন এগিয়ে এসে দুই পুলিশ সদস্য শান্তি লাল চাকমা ও অনুপম চাকমাকে আটক করে এবং ৪ লিটার বাংলা চোলাই মদ ও উদ্ধার করে জনতা।

ঘটনাটি পার্শ্ববর্তী বাইশারী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ আনিছুর রহমানকে মোবাইল ফোনে জানালে তিনি দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশ সদস্যদ্বয়কে তাদের হেফাজতে নিয়ে ঈদগড় পুলিশ ক্যাম্প ইনচার্জ আবুল হাসেমকে হস্তান্তর করার সময় পুলিশ সদস্য অনুপম চাকমা বাইশারী তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ আনিছুর রহমানের উপর চড়াও হলে জনতা গণধোলাই দিয়ে ঈদগড় পুলিশের নিকট হস্তান্তর করে।

কাভার্ড ভ্যান থামিয়ে ছিনতাইকালে দুই উপজাতীয় পুলিশ সদস্যকে জনতা কর্তৃক গণধোলাই

ছিনতাই

আব্দুল হামিদ, বাইশারী প্রতিনিধি:

বাইশারী-ঈদগড় সড়কে রাবার ভর্তি কাভার্ড ভ্যান থামিয়ে ছিনতাইকালে দুই পুলিশ সদস্যকে জনতা কর্তৃক গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে ২৮ জানুয়ারী রাত আনুমানিক ৮টা ৩০মিনিটের সময় রামু উপজেলার ঈদগড় ইউনিয়নের করলিয়ামুরা রাস্তার মাথা নামক স্থানে।

স্থানীয় লোকজন জানান,বাইশারী থেকে সন্ধা ৭টার দিকে রাবার ভর্তি একটি কাভার্ড ভ্যান সড়ক দিয়ে যাওয়ার পথে ঈদগড় পুলিশ ক্যাম্পের দুই সদস্য নায়েক শান্তি লাল চাকমা ও অপরজন কনেষ্টবল অনুপম চাকমা যার নং (১০৪), লাঠি হাতে কাভার্ড ভ্যান নাম্বার চট্র মেট্রো-ড-১৬৯১ থামিয়ে ছিনতাই ও ড্রাইভারকে মারধর করার সময় শোরগোল চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে উদ্ধারের সময় তারা জনতাকে উল্টো লাঠি দিয়ে আঘাত করলে জনতা কর্তৃক গণধোলাই দিয়ে আটক করে।

কাভার্ড ভ্যান ড্রাইভার মো:রফিক জানান, সড়ক দিয়ে যাওয়ার পথে হঠাৎ মটর সাইকেল নিয়ে দুই ব্যক্তি তার গাড়ির গতিরোধ করে একজন গাড়ির ভিতরে উঠে আমাকে নিচে নামিয়ে টাকা পয়সা ছিনিয়ে নেওয়ার পর মারধর শুরু করে।

ঐসময় পার্শ¦বর্তী এলাকার লোকজন বাইশারী তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ আনিছুর রহমানকে খবর দিলে দ্রুত সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে গিয়ে দুই পুলিশ সদস্যকে উদ্ধার করে এবং তাদের হাতে থাকা লাঠি ও কোমরে থাকা ৪ লিটার বাংলা চোলাই মদ জব্দ করে। জিজ্ঞাসাবাদে তারা উভয়ে নিজেকে পুলিশ সদস্য বলে পরিচয় দেয়।

ঐমুহুর্তে ঘটনাটি ঈদগড় পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ আবুল হাসেমকে মোবাইল ফোনে জানালে তাদেরকে ঘটনাস্থল থেকে আটক করে ক্যাম্পে নিয়ে যায়।

এবিষয়ে ঈদগড় পুলিশ ক্যাম্প ইনচার্জ আবুল হাসেম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সাংবাদিকদের জানান, দুই পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট পুলিশ আইনে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তিনি আরো বলেন,উক্ত দুই পুলিশ সদস্য অনুমতিবিহীন উক্ত স্থানে গিয়ে এঘটনা ঘটিয়েছে।

এবিষয়ে বাইশারী তদন্ত কেন্দ্রের আনিছুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তাদের তিনি ঘটনাস্থল থেকে লাঠি ও মদের বোতলসহ উদ্ধার করে।

এবিষয়ে রামু থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল মজিদের নিকট মুটোফোনে জানতে চাইলে তিনি ঘটনাটি শুনেছেন বলে নিশ্চিত করেন এবং সরেজমিনে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেন।

বিষয়টি মুঠোফোনে চট্রগ্রাম রেঞ্জ রিজার্ভ ফোর্স কমান্ন্টডেন্ট এর নিকট জানতে চাইলে তিনি আইনগত ব্যবস্থা নিবেন বলে জানান।

খাগড়াছড়িতে ছিনতাইকারীর হামলায় আহত উপজাতি যুবক

10256042_599745003455372_713203035588522418_n
 স্টাফ রিপোর্টার:
খাগড়াছড়িতে ছিনতাইকারীর কবলে পড়ে রক্তাক্ত হয়েছে জীবন চাকমা (২৮) নামে এক উপজাতি যুবক। বেদম মারধর চালিয়ে ছিনতাইকারী ছিনিয়ে নেয় পাহাড়ি যুবকের সাথে থাকা মুঠোফোনসহ ৫ হাজার টাকা। শনিবার রাত আনুমানিক সাড়ে ৯টার দিকে জেলা সদরের মোহাম্মদপুর এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে।

ছিনতাইয়ের কবলে পড়া জীবন চাকমার অভিযোগ, বাতায়ন দেওয়ানের নামে একজনের মোটর সাইকেল বাড়ীতে পৌছিয়ে দেয়ার জন্য রওনা হলে মোহাম্মদপুরস্থ মোড়ে কলেজ গেইট এলাকার আবুল বশরের ছেলে কাশেম আলী তাকে কথা আছে বলে মোহাম্মদপুর এলাকায় নিয়ে যায়। সেখানে তাকে বেদম মারধোর করে মোবাইল সেট ও নগদ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে নেয়া হয়।  জীবন চাকমা জেলা সদরের ভূপেন্দ্র লাল চাকমার ছেলে ও খাগড়াছড়ি পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি বলে নিজের পরিচয় দেন।

এই বিষয়ে সদর থানায় ডিউটিরত এস আই মোজাহের হোসেন পার্বত্যনিউজে বলেন, এই ধরনের কোন ঘটনা চোখে পড়েনি, কেউ কোন অভিযোগও করেনি, অভিযোগ এলে তা খতিয়ে দেখা হবে।