পৈত্রিক সম্পদ আত্মসাৎ ও মিথ্যা চাঁদাবাজি মামলায় জড়িয়ে হয়রানির অভিযোগ

 

ramu press cofrnc. pic 25.2

রামু প্রতিনিধি:

রামুতে বড় দুই সহোদরের বিরুদ্ধে পৈত্রিক সম্পত্তি আত্মসাৎ, বসত বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা ও মিথ্যা চাঁদাবাজি মামলা দায়ের ও প্রাণনাশের হুমকী দেয়ার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ছোট দুই সহোদর।

শনিবার বিকাল পাঁচটায় রামু বাইপাস এলাকায় অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, রামু উপজেলার চাকমারকুল ইউনিয়নের মৌলভী ছালেহ আহমদ পাড়ার মৃত সুলতান আহমদের চতুর্থ ছেলে নুরুল আজিম ও পঞ্চম ছেলে শাহনেওয়াজ আলম নুর সোহেল।

লিখিত বক্তব্যে তারা তাদের বড় ভাই নুরুল আলম ও নজিবুল আলমের নানা অপকর্ম তুলে ধরে বলেন, এদের অত্যাচারে তারা এখন দিশেহারা, নিরাপত্তাহীন। তাদের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক হস্তক্ষেপের দাবি জানানো হয়।

লিখিত বক্তব্যে জানানো হয়, ২০০৮ সালে আমাদের বাবা ইন্তেকাল করেন। সেই থেকে আমাদের বড় ভাই নুরুল আলম ও নজিবুল আলম যোগসাজশ করে আমাদের পৈত্রিক সম্পত্তি আত্মসাৎ, আমাদের বসত বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা ও উল্টো আমাদের নামে মিথ্যা চাঁদাবাজি মামলা দায়েরসহ আমাদের প্রতিনিয়ত প্রাণনাশের হুমকী দিয়ে আসছে।

বাবার মৃত্যুর পর থেকে মেঝ ভাই নজিবুল আলম সকল স্থাবর ও অস্থাবর সম্পদ দেখাশোনা করে আসছেন। তাদের বাবা ৪টি মিনি ট্রাক, ৪টি বাস, ১টি প্রাইভেট কার, ১টি স’মিল, কক্সবাজারস্থ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এশিয়া মোটরস, রামু চৌমুহনীস্থ জিয়া মোটরস, কক্সবাজার হাসেমিয়া মাদ্রাসা সংলগ্ন ৪ গণ্ডা জমি, এন আলম ফিলিং স্টেশন সংলগ্ন ২ কানি জমি, কলঘর বাজারস্থ নিজস্ব জমিতে ২টি দোকানসহ আরও অনেক স্থাবর ও অস্থাবর সম্পদ রেখে যান।

এছাড়া ১৯৯৭ সাল থেকে আমাদের ৪র্থ ভাই নুরুল আজিম প্রবাসে বড় ভাই নুরুল আলমের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে চাকরি করে আসছি। কিন্তু সব ভাই এক থাকার অজুহাতে আমাকে (নুরুল আজিম) কোন বেতন দিতেন না। এমনকি আমাদের নামে দেশে জমি ক্রয়ের কথা বলা হতো। অথচ পরে জানতে পারি আমাদের আয়ের অর্থে বড় ভাই নুরুল আলম ও নজিবুল আলম তাদের নামেই জমি ক্রয় করতেন। কলঘর বাজারের পাশে ১৫ গণ্ডা জমি এবং কলঘর এলাকার নুরুল আজিম ও শাহনেওয়াজ এর অর্থায়নে ২০০৫ সাল থেকে চলমান পোল্ট্রি খামারও নজিবুল আলম ও নুরুল আলম জোরপূর্বক ভোগদখল করে রেখেছেন। একারণে তারা বিপুল আর্থিক ক্ষতির সম্মুখিন হয়েছেন।

এছাড়া আমার বাবার রেখে যাওয়া একটি গাড়িও এখন নেই। এসব গাড়ি বিক্রি করে নুরুল আলম ও নজিবুল আলম কক্সবাজার শহরে জমি কিনে বিলাসবহুল বাড়ি বানিয়ে বসবাস করে আসছে। এমনকি আমার পৈত্রিক বাড়িতে থাকা গুরুত্বপূর্ণ আসবাবপত্রও তারা ওইসব বাড়িতে নিয়ে গেছেন। আমরা পিতার উত্তরসুরি হলেও পিতার এসব সম্পদ থেকে আমাদের বঞ্চিত করা হয়েছে।

লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করা হয়েছে, চাকমারকুল এলাকায় আমাদের পৈত্রিক করাত কল (স মিল) রয়েছে। এটিও নজিবুল আলম জোরপূর্বক একাই দখল করে রেখেছেন। সম্প্রতি এ নিয়ে আমি (নুরুল আজিম) বে-আইনী জোরপূর্বকভাবে স্থাবর সম্পত্তি দখলক্রমে স্থাপিত করাত কল পরিচালনার বিরুদ্ধে ভূমির মালিকের পক্ষে উপযুক্ত আইনানুগ প্রতিকার চেয়ে ২২ ফেব্রুয়ারি রামু উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা অভিযোগটি বিধি মোতাবেক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ওসি রামু থানাকে নির্দেশ দিয়েছেন। বর্তমানে নজিবুল আলম আমাদের বঞ্চিত করে করাত কলটি একাই ভোগদখলের চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে।

লিখিত বক্তব্যে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, নুরুল আলম ও নজিবুল আলমের এসব অপকর্ম টের পেয়ে সম্প্রতি নুরুল আজিম ও ছোট ভাই শাহনেওয়াজ আলম নুর সোহেল এসবের প্রতিবাদ জানিয়ে পৈত্রিক সম্পদ দাবি করেন। এতে তারা চরম ক্ষিপ্ত হয়ে কোন সম্পদ দেবে না এবং সম্পদ দাবি করলে উল্টো তাদের হত্যা, মারধর, এবং মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে দেবে বলে হুমকী দেয়।

এরই জের ধরে  ১৪ ফেব্রুয়ারি নজিবুল আলম, নুরুল আলম ও নজিবুল আলমের স্ত্রী নাছরিন সুলতানার নেতৃত্বে একদল অজ্ঞাত সন্ত্রাসী নুরুল আজিম ও শাহনেওয়াজ আলম নুর সোহেলের বসত বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা চালায়। হামলাকারীরা তাদের মারধর করে এবং বাড়ির আসবাবপত্র তছনচ করে ব্যাপক লুটপাট চালায়। এ ঘটনায় নুরুল আজিম বাদি হয়ে  ২২ ফেব্রুয়ারি কক্সবাজার সিনিয়র জুড়িসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেন। যার নং-সিআর ৩৯। মামলাটি বর্তমানে পিবিআইতে তদন্তাধিন রয়েছে।

এদিকে মামলাবাজ ও ভূমিগ্রাসি নজিবুল আলম তার স্ত্রী নাছরিন সুলতানাকে বাদি করে উল্টো নুরুল আজিমকে অভিযুক্ত করে ১৬ ফেব্রুয়ারি কক্সবাজার সিনিয়র জুড়িসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মিথ্যা ও হয়রানিমূলক চাঁদাবাজি মামলা দায়ের করে। মামলা নং-৩৭/২০১৭। মামলা করার পর থেকেও নজিবুল আলম, নুরুল আলম ও তাদের সহযোগিরা তাদের প্রতিনিয়ত প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে। এতে তারা  চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন।

সংবাদ সম্মেলন নুরুল আজিম ও শাহনেওয়াজ আলম নুর সোহেল জানান, তারা কোন অন্যায় আবদার করছেন না। কেবল তাদের পৈত্রিক সম্পদের ন্যায্য অধিকার আদায়সহ তাদের বিরুদ্ধে চলমান ষড়যন্ত্র, মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারে আপামর সাংবাদিক সমাজের মাধ্যমে প্রশাসন, জনপ্রতিনিধিসহ সকলের সদয় আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করছেন। সংবাদ সম্মেলন এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ছাড়া বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।




কর্মসৃজন প্রকল্পের আওতায় জনগুরুত্বপূর্ণ স্থান ময়লা-আবর্জনামুক্ত করা হবে

 

ramu pic cleaning 25.2

রামু প্রতিনিধি:

রামু উপজেলা চেয়ারম্যান রিয়াজ উল আলম বলেছেন, সরকার বেকার জনগোষ্ঠির কর্মসংস্থান সৃষ্টির পাশাপাশি এলাকার পরিষ্কার-পরিচ্ছনতা ও অবকাঠামোগত উন্নয়নে অধিক গুরুত্ব দিচ্ছে। কর্মসৃজন প্রকল্পের আওতায় জনগুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোকে ময়লা-আবর্জনামুক্ত এবং চলাচলের পথসমূহ সংস্কার করা হবে। এজন্য তিনি সংশ্লিষ্ট সরকারী কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধিদের আন্তরিক হওয়ার আহ্বান জানান।

রামু উপজেলার ফতেখাঁরকুল ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে ৪০ দিনের কর্মসৃজন কর্মসূচীর প্রথম দিনে চৌমুহনী স্টেশনে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমের উদ্বোধনকালে রিয়াজ উল আলম এসব কথা বলেন।

শনিবার সকালে রামু চৌমুহনী স্টেশনের পশ্চিম পাশে এ কর্মসূচীর উদ্বোধনকালে ফতেখাঁরকুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফরিদুল আলম, রামু উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নীতিশ বড়ুয়া, চৌমুহনী বণিক সমবায় সমিতিরসহ সভাপতি রুহুল আমিন রকি, ইউপি সদস্য আবুল বশর, মোর্শেদ আলম, সন্তোষ বড়ুয়া, মো. কামাল, লিটন বড়ুয়া লুতু, যুবলীগ নেতা নবীউল হক আরকান উপস্থিত ছিলেন।




রামুতে ইসলামী ছাত্রসমাজের উদ্যোগে বই পাঠ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

ramu pic islami chatrosamaj 24.2.17 (1)

রামু প্রতিনিধি:

আলোকিত সমাজ বিনির্মাণের প্রত্যয়ে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসমাজ রামু রাজারকুল ইউনিয়ন শাখার উদ্যোগে বই পাঠ প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে। শুক্রবার সকাল দশটায় ইউনিয়নের অস্থায়ী কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অংশ নেন। অনুষ্ঠানে প্রতিযোগিতায় বিজয়ী শিক্ষার্থীদের পুরষ্কৃত করা হয়।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন, বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসমাজ কক্সবাজার জেলা সভাপতি হাফেজ মুহাম্মদ আবুল মঞ্জুর। বিশেষ অতিথি ছিলেন, রামু উপজেলা সভাপতি মুহাম্মদ দিদারুল আলম, সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ আতাউল্লাহ।

রাজারকুল ইউনিয়ন সভাপতি মুহাম্মদ আবদুল করিমের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মনজুর বিন মুসার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আলোচনা করেন, খুনিয়াপালং ইউনিয়ন সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, রাজারকুল ইউনিয়ন শাখার অর্থ সম্পাদক মুহাম্মদ নুরুল আলম, পাঠাগার সম্পাদক শফি উল্লাহ, স্কুল প্রতিনিধি মুহাম্মদ আরিফুল ইসলাম প্রমুখ।

প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, হেরার জ্যোতিতে আলোকিত সমাজ বিনির্মানে নতুন প্রজন্মকে ইসলামী শিক্ষা অর্জনে মনোনিবেশ করতে হবে। এ লক্ষে বই পড়া প্রতিযোগিতার এ ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতে হবে।




রামুতে গলায় ফাঁস দিয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যা

রামু প্রতিনিধি:

রামুতে গলায় ফাঁস দিয়ে গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে। রামুর ফতেখাঁরকুল ইউনিয়নের পূর্ব মেরংলোয়া গ্রামের আলী হোসেনের ভাড়া বাসায় বৃহষ্পতিবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) রাত আটটায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত গৃহবধু জাহারা আকতার (২১) টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের নাথ মুরা পাড়া এলাকার রবিউল আলমের স্ত্রী। ঘটনার পর থেকে স্বামী রবিউল আলম পলাতক রয়েছেন।

ওই বাড়িতে থাকা রবিউলের মা চেমন নাহার জানান, তার পুত্রবধূ কেন আত্মহত্যা করেছেন তিনি তা জানেন না। এমনকি স্বামী বা অন্য কারো সাথে তার মনোমালিন্য ছিলো না বলেও দাবি করেন তিনি।

বাড়ির মালিক আলী হোসেনের ভাই ফতেখাঁরকুল ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার মো. কামাল জানান, প্রায় মাসখানেক পূর্বে রবিউল স্ত্রী, মা সহ বাড়িটির একাংশ ভাড়া নেন। কেন রবিউলের স্ত্রী আত্মহত্যা করেছেন তা কেউ জানে না।

খবর পেয়ে রাতে রামু থানা পুলিশের একটি দল ও ফতেখাঁরকুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফরিদুল আলম ঘটনাস্থলে যান। থানার উপ-পরিদর্শন মুকিমুল জানান, হ্নীলা থেকে নিহত গৃহবধূর পরিবারের সদস্যরা আসেন রাত সাড়ে ১২টায়। ওইসময় সকলের উপস্থিতিতে বাড়ির কক্ষের দরজা ভেঙ্গে ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। পরে মৃতদেহ ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়।

এদিকে নিহত গৃহবধূর পরিবারের সদস্যরা এ ঘটনাকে পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড বলে দাবি করে সুষ্ঠু তদন্তের দাবি জানিয়েছে।




রামুতে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের সভা

ramu pic muktijodda 22.2.17
রামু প্রতিনিধি :
রামু উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড এর উদ্যোগে প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (২২ ফেব্রুয়ারি) বিকাল চারটায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

রামু উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড এর আহবায়ক আনছারুল হক ভূট্টোর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড এর সদস্য সচিব সাংবাদিক খালেদ হোসেন টাপু।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন, কক্সবাজার জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড এর সাধারণ সম্পাদক এসএম নুরুল হাকিম নুকি। বিশেষ অতিথি ছিলেন, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান শামীম আহসান ভুলু, হাজ্বী সাহেদ সরওয়ার, পলাশ পাল চৌধুরী, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড এর সহ সভাপতি মোস্তফা কামাল, সাংগঠনিক সম্পাদক এম আলা উদ্দিন, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক নুরুল আজিম, জেলা সদস্য কায়েসুল ইসলাম, সদর উপজেলা সভাপতি হামিদ হাসান, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান যুবলীগ নেতা তারেক আহমদ, রেজাউল করিম রেজা, শহীদুল ইসলাম, রশিদ আহমদ জসিম, নুরুল আমিন, আবু বক্কর ছিদ্দিক, অলক পাল, শংকর বড়ুয়া, সোহাগ চৌধুরী, শাহাদাৎ হোসেন, সাগর শর্মা, হারুন অর রশিদ, মো. মাসুম, অনিক বড়ুয়া প্রমুখ।

সভায় বক্তারা বলেন, বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রী আ,ক,ম মোজাম্মেল হক এবং বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের চেয়ারম্যান হেলাল মোর্শেদ চৌধুরী (বীর উত্তম) এর নেতৃত্বে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের কল্যাণে প্রসংশনীয় অবদান রাখছে। মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের ঠিকানা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড। এ সংগঠনের কার্যক্রম গতিশীল করতে সকল মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের এগিয়ে আসতে হবে।




রামুতে প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ উদযাপিত

ramu pic raly 22.2.17
রামু প্রতিনিধি :
রামুতে প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ উদযাপিত হয়েছে। এ উপলক্ষে রামু উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তরের উদ্যোগে র‌্যালি, আলোচনা সভা এবং ছাত্র-ছাত্রীদের দুধ-ডিম খাওয়ানো হয়েছে।

বুধবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সকালে রামু উপজেলা পরিষদ চত্বর হতে র‌্যালি বের করা হয়। পরে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, রামু উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রিয়াজ উল আলম।

রামু উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. রুপেন চাকমার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শাজাহান আলী ও দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান মো. ইউনুছ ভূট্টো।

সভায় রামু উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারিদের মধ্যে কাজী আকতার হোসেন, জাহাঙ্গীর আলম, কামরুল হাকিম, হাম্মাদ মিয়া, মনতোষ সাহা, সুভাষ দে এবং উপজেলা প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তা, খামারিগণ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে দক্ষিণ মিঠাছড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের দুধ-ডিম খাওয়ানো হয় এবং উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তরে রেজিষ্টার খামারিদের মধ্যে জীবাণুনাশক বিতরণ করা হয়।




রামুতে ফের যাত্রীবাহী বাস উল্টে আহত ৪০

ramu pic bus 21.02

রামু প্রতিনিধি:

রামুতে ফের যাত্রীবাহী বাস উল্টে ৪০জন আহত হয়েছে। রামুর জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়নের রাবার বাগান এলাকায় চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে মঙ্গলবার  ভোরে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

আহতদের রামু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

চিকিৎসকরা জানান, আহতদের মধ্যে অনেকের অবস্থা সংকটাপন্ন। ঢাকা থেকে আসা দুর্ঘটনা কবলিত রিলাক্স (ঢাকামেট্টো ব ১৪-২৩৩৮) নামের বাসটি টেকনাফ যাচ্ছিলো বলে জানা গেছে।

দুর্ঘটনার সাথে সাথেই পার্শ্ববর্তী রাবার বাগান আনসার ক্যাম্পের সদস্যরা গাড়িতে আটকে পড়া যাত্রীদের উদ্ধার কাজ শুরু করে।

পরে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের দমকল কর্মী এবং রামু থানা ও হাইওয়ে পুলিশ সদস্যরা দুর্ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার তৎপরতা চালায়। উদ্ধার তৎপরতা দেখতে ঘটনাস্থলে যান রামু উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. শাজাহান আলি।

দুর্ঘটনায় আহত বাসযাত্রী পুলিশের উপ পরিদর্শক আবদুল হান্নান মিলন জানান, তিনি চট্টগ্রাম থেকে টেকনাফ যাচ্ছিলেন। এখানে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাড়িটি উল্টে যায়। এতে গাড়ির সব যাত্রীই কমবেশি আহত হয়েছেন।

রামু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, এ ঘটনায় আহত ১০ জন যাত্রীকে হাপাতালে নিয়ে আসেন উদ্ধারকর্মিরা। এদের মধ্যে অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় ৮জনকে অন্যত্র রেফার করা হয়েছে। অপর ২জনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এদিকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে আহত অন্যান্য যাত্রীদের সর্বশেষ অবস্থা জানা সম্ভব হয়নি।

উল্লেখ্য গত ১১ ডিসেম্বর রামু উপজেলার রশিদনগর ইউনিয়নের পানিরছড়া গ্যারেজ এলাকায় ইউনিক পরিবহন সার্ভিসের একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে যায়। ওই দুর্ঘটনায় ৪ জন নিহত ও ৩০ জন আহত হয়েছিলেন।




রামু আবু বকর ছিদ্দিক (রা.) ইন্সটিটিউট দাখিল মাদ্রাসায় অমর একুশে উদযাপন

ramu pic abu bakar institut 21.02.17

রামু প্রতিনিধি:

রামু চা বাগান হযরত আবু বকর ছিদ্দিক (রা.) ইন্সটিটিউট দাখিল মাদ্রাসায় যথাযথ মর্যাদায় অমর একুশে ও আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে র‌্যালি, কুইজ প্রতিযোগিতা, ভাষা শহীদদের জন্য বিশেষ মোনাজাত এবং আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

সকাল আটটায় মাদ্রাসা প্রাঙ্গন থেকে শুরু হওয়া র‌্যালিটি চা বাগান স্টেশন সহ গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এতে মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সদস্য, শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা অংশ নেন।

র‌্যালি শেষে মাদ্রাসা মিলনায়তনে সিনিয়র শিক্ষক আবদুল মতলব’র সঞ্চালনায় আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন, মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সহ সভাপতি মাওলানা নুরুল হুদা। এতে পরিচালনা কমিটির সভাপতি আবু তাহের, মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা শুয়াইব, শিক্ষানুরাগি মাস্টার ফখরুদ্দিন টিটু, সাইফুল ইসলাম চৌধুরী, এজাহার মিয়া, নুরুল হোছাইন, রমিজ আহমদ, মো. হাশেম, ওবাইদুল হক, আবদুল মুবিন, শিক্ষকবৃন্দের মধ্যে মাওলানা শহিদুল্লাহ মাওলানা কামাল হোছাইন, সানা উল্লাহ বাবর, রেহেনা আকতার, মুর্শিদা আকতার, রোকসানা আকতার, মুর্শিদা আকতার লাকি, মোমেনা আকতার, শাহিদা খানম ও নুরান মো. শারমিন বক্তব্য রাখেন।

এতে ভাষা শহীদদের জন্য বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করেন মাওলানা নুরুল হুদা। শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করে মাদ্রাসার শিক্ষার্থী হামিদ উল্লাহ।




 রামুতে পরিবহন মোটর শ্রমিক ঐক্য পরিষদের বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত

 

ramu pic 16.02

রামু প্রতিনিধি:

রামু উপজেলা পরিবহন মোটর শ্রমিক ঐক্য পরিষদের বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার সন্ধ্যা সাতটায় রামু চৌমুহনীস্থ কার্যালয়ে আয়োজিত এ সভায় সভাপতিত্ব করেন, রামু উপজেলা পরিবহন মোটর শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সভাপতি আহসান উল্লাহ। এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক শ্রমিক নেতা জালাল আহমদ।

সহ সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমানের সঞ্চালনায় সভায় উপস্থিত ছিলেন, সম্মানিত অতিথিবৃন্দের মধ্যে রামু উপজেলা পিকআপ মালিক সমিতির সভাপতি উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আলী হোসেন, রামু উপজেলা পরিবহন কমিউনিটি পুলিশের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান, কক্সবাজার জেলা সিএনজি-অটোরিক্সা শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ছিদ্দিক আহমদ, রামু উপজেলা পরিবহন মোটর শ্রমিক ঐক্য পরিষদের অর্থ সম্পাদক আলী হোছন, রামু উপজেলা পিকআপ-মিনিট্রাক চালক-শ্রমিক সমিতির সভাপতি হামিদুল হক, সাধারণ সম্পাদক মনজুর আলম, মাইক্রোবাস মালিক সমিতির সভাপতি শাহনুর উদ্দিন বাবু, সেক্রেটারি কাঞ্চন বড়ুয়া, রামু উপজেলা সিএনজি-অটোরিক্সা শ্রমিক সমিতির সভাপতি মো. ছৈয়দ আহমদ সহ পরিবহন মালিক ও শ্রমিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

সভায় রামু চৌমুহনী স্টেশনে যানজট নিরসনে সকলে ঐকবদ্ধ হয়ে কাজ করা এবং উশৃঙ্খল শ্রমিকদের তালিকাভুক্ত করে প্রশাসনকে অবহিত করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।




রামু উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত

ramu pic 10.2

রামু প্রতিনিধি:

রামু উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।শুক্রবার বিকাল তিনটায় রামু চৌমুহনী সরওয়ার প্লাজাস্থ দলীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট সুলতানুল আলম।

রামু উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সোহেল সরওয়ার কাজলের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শামসুল আলম মণ্ডলের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন, রামু উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি হানিফ বিন নজির, মীর কাসেম হেলালী, সুলতান আহমদ চৌধুরী, নুর হোছাইন ও নুরুল ইসলাম বকুল, সাংগঠনিক সম্পাদক ইউনুচ রানা চৌধুরী ও নুরুল হক চৌধুরী, অর্থ সম্পাদক নুরুল ইসলাম সেলিম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মৃনাল বড়ুয়া, সুজন শর্মা, রাজারকুল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি তারেক সরওয়ার, সাধারণ সম্পাদক সরওয়ার কামাল সোহেল, ফতেখাঁরকুল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি ফিরোজ মিয়া, সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহিম, সহ সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক সিকদার, সাংগঠনিক সম্পাদক আকতার কামাল, জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি কামাল বোরহান উদ্দিন শাহান, সাধারণ সম্পাদক হোছন সিকদার, ঈদগড় সভাপতি নুরুল ইসলাম বাঙ্গালী, সাধারণ সম্পাদক নুরুল আলম, কচ্ছপিয়া ইউনিয়ন সভাপতি জাহাঙ্গীর সিকদার, সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহিম, দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউনিয়ন সভাপতি জহুর আলম, সাধারণ সম্পাদক ওসমান গনি, খুনিয়াপালং ইউনিয়ন সভাপতি আবদুল হক কোম্পানী, সাধারণ সম্পাদক বদি উজ্জামান, গর্জনিয়া ইউনিয়ন সভাপতি মো. ইউসুফ, চাকমারকুল সভাপতি শামসুল আলম, সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম ভূট্টো, কাউয়ারখোপ ইউনিয়ন আহ্বায়ক মো. হোছাইন, যুগ্ম আহ্বায়ক নুরুল হক, রশিদনগর সভাপতি বজল আহমদ বাবুল, সাধারণ সম্পাদক শাহীন, আওয়ামী লীগ নেতা সন্তোষ বড়–য়া, সাহেদ সরওয়ার, মোহাম্মদ হোছন প্রমুখ।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এডভোকেট সুলতানুল আলম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশে রুপান্তরের স্বপ্ন এখন বাস্তবায়নের পথে। এজন্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রতিটি নেতাকর্মীকে ঐক্যবদ্ধভাবে বিএনপি-জামাত জোটের ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে হবে। সভায় শনিবার কক্সবাজারে অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি সমাবেশে দলের সকল নেতাকর্মীকে স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশ নেয়ার আহ্বান জানানো হয়।