আ’লীগ রাজনীতি করে সাধারণ মানুষের জন্য: এমপি কমল

রামু প্রতিনিধি:

কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল বলেছেন, শীত এলে গরীব মানুষের কষ্ট বেড়ে যায়, অনেকেই শীতের প্রয়োজনীয় কাপড় কিনতে না পারায় তাদের কষ্ট বাড়ে। এই অসহায় শীতার্ত মানুষের কষ্ট নিবারণে শেখ হাসিনার সরকার পাশে রয়েছে। তিনি বলেন, কক্সবাজার সদর ও রামু উপজেলার সাধারণ মানুষ যখনই কষ্টের মুখোমুখি হয় তখনই আমরা সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়াই। আমরা রাজনীতি করি সাধারণ মানুষের জন্য।

সোমবার (১৫জানুয়ারি) বিকালে কক্সবাজার সদর উপজেলার বৃহত্তর ঈদগাঁহ এলাকার চৌফলদণ্ডী, পোকখালী, জালালাবাদ, ইসলামাবাদ, ঈদগাঁও ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ ও শীতার্ত মানুষের মাঝে দুইহাজার কম্বল বিতরণ করেন সাংসদ সাইমুম সরওয়ার কমল। এ সময় তিনি সমাজের বিত্তবান মানুষদের শীতার্তদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান।

কম্বল বিতরণ কালে উপস্থিত ছিলেন, কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা জাফর আলম চৌধুরী, প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা ফরিদ আহমদ মাষ্টার, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ফরিদুল আলম চেয়ারম্যান, হুমায়ুন তাহের চৌধুরী হিমু, কক্সবাজার জেলা যুবলীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক হুমায়ুন কবির চৌধুরী হিমু, ঈদগাঁহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও কক্সবাজার জেলা পরিষদ সদস্য সোহেল জাহান চৌধুরী, ইসলামাবাদ আওয়ামী লীগের সভাপতি নুর ছিদ্দিক চেয়ারম্যান, ইসলামপুর আওয়ামী লীগের সভাপতি মঞ্জুর আলম চেয়ারম্যান, জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফিরোজ উদ্দিন খোকা, ঈদগাঁহ সাংগঠনিক ছাত্রলীগের সভাপতি রাশেদ উদ্দিন রাশেল, সাধারণ সম্পাদক আবু হেনা বিশাদ প্রমুখ।




রামুর ঐতিহ্যবাহী কেন্দ্রীয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের নির্বাচন সম্পন্ন

রামু প্রতিনিধি:

রামুর ঐতিহ্যবাহী কেন্দ্রীয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। এতে সভাপতি পদে শিক্ষানুরাগী সদস্য নূরুল আলম সভাপতি এবং সহ-সভাপতি পদে মহিলা শিক্ষানুরাগী সদস্য আকতার জাহান বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

রবিবার (১৪ জানুয়ারি) বিকাল তিনটায় বিদ্যালয় মিলনায়তনে কমিটি গঠন উপলক্ষে আয়োজিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, রামু উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আনজুমান আরা বেগম। তিনি বলেন, এলাকার সব শ্রেণি-পেশার মানুষের সহযোগিতা ছাড়া কখনো একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সফলভাবে এগিয়ে যেতে পারে না। এজন্য বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির মাধ্যমে সরকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এগিয়ে নেয়ার প্রচেষ্টা চালাচ্ছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এগিয়ে যাওয়া মানে এলাকার শিশুরা এগিয়ে যাওয়া। আর শিশুরা এগিয়ে গেলেই দেশ এগিয়ে যাবে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, রামু উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. সেলিম  হোসেন ও বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের বিদায়ী কমিটির সভাপতি নুরুল হক চৌধুরী।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদ (এসএমসি) এর নব গঠিত কমিটির সভাপতি বিশিষ্ট ব্যবসায়ী নূরুল আলম, সাধারণ সম্পাদক ও বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মুহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী সেলিম, সহ-সভাপতি আকতার জাহান, অভিভাবক সদস্য রাশেদুল ইসলাম ও আকতার কামাল, মহিলা অভিভাবক সদস্য রাশেদা বেগম ও রোখসানা মমতাজ, ইউপি সদস্য আবুল বশর, উচ্চ বিদ্যালয় প্রতিনিধি আলহাজ¦ ফজল আম্বিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা দ্বিপান্বিতা বড়–য়া, শিক্ষক প্রতিনিধি রামু কেন্দ্রীয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক তাজু উদ্দিন।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে মাস্টার মোহাম্মদ আলী, সাংবাদিক সোয়েব সাঈদ, মহিলা ইউপি সদস্য সাবেকুন নাহার, আওয়ামী লীগ নেতা শেখ জুনাইদ বিপ্লব, ব্যবসায়ী জুবাইর আহমদ  ভূট্টো, ব্যবসায়ী মিজানুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

এতে সভাপতি পদে  শিক্ষানুরাগী সদস্য নূরুল আলম, সহ-সভাপতি পদে মহিলা শিক্ষানুরাগী সদস্য আকতার জাহান বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় জয়লাভ করেন। এরআগে সভাপতি পদে ইউপি সদস্য আবুল বশর ও নূরুল আলম প্রার্থী হন। এরমধ্যে ইউপি সদস্য আবুল বশর নিজের প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে নূরুল আলমকে সমর্থন জানান। একইভাবে সহ-সভাপতি পদে আকতার জাহানকে সমর্থন জানিয়ে প্রার্থীতা প্রত্যাহার করেন, অপর প্রার্থী আকতার কামাল। ফলে দুটি পদে উভয়ে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হন।

নির্বাচন পরিচালনা করেন, রামু উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. সেলিমগীর হোসেন। অনুষ্ঠানে বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকবৃন্দ এবং এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।




৩দিন ধরে নিখোঁজ স্কুল ছাত্র মেহেদী হাসান: খোঁজ মিলেনি ৪ মাস আগে নিখোঁজ হওয়া বড় ভাইয়ের

রামু প্রতিনিধি:

৩দিন ধরে নিখোঁজ রয়েছে ৮বছর বয়সী শিশু দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র মেহেদী হাসান। চারমাস আগে নিখোঁজ হয়েছিলো তার  বড় ভাই আবু বক্কর ছিদ্দিক (১৪)। নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার আদর্শ গ্রাম এলাকায় নানার বাড়িতে বেড়াতে এসে এভাবে একে একে নিখোঁজ হয়েছে তারা। নিখোঁজ দুই সহোদর পার্বত্য বান্দরবানের বালাঘাটা এলাকার রিক্সাচালক মো. রফিক ও গৃহিনী আমিনা বেগমের ছেলে। দুই সন্তানের সন্ধান না পেয়ে বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েছেন শিশুদুটির বাবা-মা ও স্বজনরা।

এদের মা আমিনা বেগম জানান, সম্প্রতি তিনি নাইক্ষ্যংছড়ি আদর্শ গ্রামে বাপের বাড়িতে বেড়াতে আসেন। গত রবিবার (৭ জানুয়ারি) সকাল থেকে তার সাথে আসা ছোট ছেলে মেহেদী হাসান নিখোঁজ হয়ে যায়। পাড়া-প্রতিবেশী ও স্বজনদের বাড়িতে খোঁজাখুঁজি করেও মেহেদী হাসানের সন্ধান মিলেনি। মেহেদী হাসান বান্দরবানের বালাঘাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র। নিখোঁজ হওয়ার সময় মেহেদী হাসানের পরনে ছিলো একটি শীতের গেঞ্জি ও জিনসের কোয়ার্টার প্যান্ট। সে চট্টগ্রামের আঞ্চলিক ভাষায় কথা বলে।

আমিনা বেগম আরো জানান, এ ঘটনার চারমাস আগে বাপের বাড়িতে এভাবে বেড়াতে এলে নিখোঁজ হন বড় ছেলে আবু বক্কর ছিদ্দিক। কাঠ মিস্ত্রীর সহকারী হিসেবে কাজ করতো ছিদ্দিক। নিখোঁজ হওয়ার চারমাসেও সন্ধান মিলেনি তার। পরপর দুই ছেলে নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায় পরিবারটিতে নেমে এসেছে শোকাবহ ও আবেগঘন পরিবেশ। এ নিয়ে এলাকাজুড়ে চলছে উদ্বেগ্ন-উৎকন্ঠা।

নিখোঁজ শিশু মেহেদী হাসান ও আবু বক্কর ছিদ্দিকের সন্ধান পেলে যোগাযোগ করার অনুরোধ জানিয়েছেন পরিবারের সদস্যরা। যোগাযোগ: মোবাইল ফোন নাম্বার ০১৮২০৪২৪৭৬৭ এবং ০১৮৫৪৪৩১০৫৩। জানা গেছে, রিক্সাচালক মো. রফিক ও গৃহিনী আমিনা বেগমের চার ছেলে রয়েছে।




রামুতে অজ্ঞাত ব্যক্তির গলিত মৃতদেহ উদ্ধার

রামু প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের রামুতে অজ্ঞাত ব্যক্তির গলিত মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৯ জানুয়ারি) বিকাল চারটার দিকে উপজেলার কচ্ছপিয়া ইউনিয়নের শহর আলীর চর মন্তারঘোনা এলাকা থেকে মৃতদেহটি উদ্ধার করে পুলিশ। উদ্ধার হওয়া মৃতদেহটি পুরুষের। তবে গলিত হওয়ায় বয়স ও পরিচয় মিলেনি।

জানা গেছে, ওই এলাকায় একটি নির্জন পাহাড়ের উপর মৃতদেহটি দেখতে পান স্থানীয় জান্নাত আরা নামের এক নারী। পরে তিনি এলাকাবাসীর মাধ্যমে পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করেন।

গর্জনিয়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আরিফ মৃতদেহ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এখনো মৃতদেহের পরিচয় পাওয়া যায়নি।




রামুর ধলিরছড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটি সম্পন্ন

 

রামু প্রতিনিধি:

রামু উপজেলা রশিদনগর ইউনিয়নের ১৮ ধলিরছড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। নির্বাচনে সাবেক ছাত্রনেতা মিজানুল করিম সভাপতি এবং সাদমা সাদিয়া সহ সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন।

এতে সভাপতি পদে মমতাজ বেগম এবং সহ সভাপতি পদে নুরুল আলম প্রার্থী থাকলেও তারা তাদের প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে নেন। একারণে মিজানুল করিম সভাপতি পদে এবং সাদমা সাদিয়া সহ সভাপতি পদে বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় নির্বাচিত হন।

সোমবার (৮ জানুয়ারি) বেলা ১২টায় বিদ্যালয় মিলনাতয়নে এ উপলক্ষে আয়োজিত সভায় উপস্থিত ছিলেন, রামু উপজেলা সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আবু নোমান মো. আবদুল্লাহ, বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ নজরুল ইসলাম, জোয়ারিয়ানালা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আমজাদ হোসেন, ধলিরছড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ওয়াসিম উদ্দিন সিদ্দিকী, নাদেরুজ্জামান উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক এস বিকাশ শর্মা পালন, সাবেক মেম্বার বদিউল আলম, আবদুস ছালাম সওদাগর, খালেদ আজম, গোলাম কাদের ছিদ্দিকীসহ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকবৃন্দ ও এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।




পর্যটন শিল্প ও তথ্য প্রযুক্তির প্রসারে ইংরেজি ভাষায় দক্ষতা অর্জন করতে হবে

রামু প্রতিনিধি:

রামুতে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হলো গ্লোবাল ইংলিশ অলিম্পিয়াড়। উপজেলার ৮টি মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শতাধিক শিক্ষার্থী এতে অংশ নেন। শুক্রবার (৫ জানুয়ারি) রামু কলেজ মিলনায়তনে বেলা দুইটায় এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে সেবামূলক ইংরেজি ভাষা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গ্লোবাল ইংলিশ লার্ণিং সেন্টার। অনুষ্ঠানে দুটি পর্বে ছিলো, ইংরেজি ভাষায় বিতর্ক ও সাধারণ জ্ঞান (কুইজ) প্রতিযোগিতা।

পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, রামু কেবল দেশে নয়, আন্তর্জাতিক অঙ্গনে পরিচিত নাম। রামুতে পর্যটনের অবারিত সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে এবং তথ্য প্রযুক্তির প্রসার ঘটনাতে হলে এখানকার জনগোষ্ঠীকে ইংরেজি ভাষায় দক্ষতা অর্জন করতে হবে। ইংলিশ ল্যাংগুয়েজ ক্লাব রামুতে ইংরেজি ভাষায় দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য স্বেচ্ছাসেবার মাধ্যমে এ উদ্যোগ চালিয়ে যাচ্ছে। বিদ্যালয়ে শিক্ষকরা যা করতে পারছে না, এ ক্লাবের সদস্যরা সে দায়িত্ব পালনে এগিয়ে এসেছে। একারণে উদ্যোগটি প্রশংসার দাবি রাখে।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, গ্লোবাল ইংলিশ অলিম্পিয়াড় এর সমন্বয়কারী মো. শাহেদুল ইসলাম রায়হান। বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও শিক্ষানুরাগি ইউনুচ রানার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, রামু কলেজের সহকারী অধ্যাপক নিজামুল হক।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, মুক্তিযোদ্ধা মোজাফ্ফর আহমদ, রামু খিজারী আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মফিজুল ইসলাম, কাউয়ারখোপ হাকিম রকিমা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কিশোর বড়ুয়া, বাঁকখালী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সৈয়দ নজরুল ইসলাম, লেখক এম সুলতান আহমদ মনিরী, রামু কলেজের শিক্ষক মানসী বড়ুয়া, চৌমুহনী বণিক সমবায় সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক সজল বড়ুয়া, কাউয়ারখোপ ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমদ, দৈনিক সমকাল এর রামু প্রতিনিধি খালেদ শহীদ, দৈনিক আমাদের সময় এর রামু প্রতিনিধি সোয়েব সাঈদ, উপজেলা যুব উন্নয়ন অফিসের ক্রেডিট সুপারভাজাইর শামীমুল ইসলাম, কাউয়ারখোপ হাকিম রকিমা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক মোহাম্মদ আবদুল্লাহ প্রমুখ।

মাহবুবা আকতার সুইটির অনুষ্ঠানে গ্লোবাল ইংলিশ লার্ণিং সেন্টার এর সভাপতি মো. আবুল কাশেম, সহ-সভাপতি শফিউল্লাহ কাউছার, গ্লোবাল ইংলিশ লার্ণিং সেন্টারের সহকারী সমন্বয়কারী মো. ইব্রাহিম, ওরালকক্স ল্যাংগুয়েজ ক্লাবের সভাপতি নুরুল আজিম, কক্সবাজার বর্ডার গার্ড পাবলিক স্কুলের শিক্ষিকা আনোয়ারা বেগম, শিক্ষার্থী ফাতেমাতুজ জোহরা রানী।

সাধারণ জ্ঞান (কুইজ) প্রতিযোগিতায় উপজেলার ৮টি মাধ্যমিক স্কুলের ছাত্র-ছাত্রী অংশ নেয়। এদের মধ্যে আলহাজ্ব ফজল আম্বিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের তানভীন আহমেদ তানিয়া প্রথম, রামু উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের সাদিয়া সুলতানা রিফা দ্বিতীয় এবং কাউয়ারখোপ হাকিম রকিমা উচ্চ বিদ্যালয়ের মিল্কী ধর তৃতীয় স্থান অর্জন করে।

অনুষ্ঠানে “একটি দেশের উন্নয়নের প্রধান অন্তরায় দুর্ণীতি” বিষয়ক সংসদীয় পদ্ধতির পদ্ধতির বিতর্ক প্রতিযোগিতায় অংশ নেন, গ্লোবাল ইংলিশ লার্ণিং সেন্টারের ৬জন ছাত্র-ছাত্রী। প্রতিযোগিতায় বিরোধী দল বিজয়ী হন। এতে সরকারি দলের পক্ষে শাহনিবরাজ (দলনেতা), মোস্তাক মিয়া, তাসমিন আকতার লিজা, বিরোধী দলের পক্ষে সারাওয়াত মুনির সাকিফা (দলনেতা), মীজা আসিফ ও শরিফুল ইসলাম হৃদয় অংশ নেন। এতে স্পীকার ছিলেন, শফিউল্লাহ কাউছার। এতে বিচারক ছিলেন, অধ্যাপক নিজামুল হক, কবি এম সুলতান আহমদ মনিরী ও সৈয়দ নজরুল ইসলাম।

গ্লোবাল ইংলিশ লার্ণিং সেন্টার এর সভাপতি মো. আবুল কাশেম জানিয়েছেন, ছাত্র-ছাত্রীদের পাশাপাশি সব পেশার মানুষকে ইংরেজি শিক্ষায় দক্ষ ও সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তোলা এ সংগঠনের প্রধান উদ্দেশ্য উদ্দেশ্য। অলাভজনক এ উদ্যোগে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত একঝাঁক শিক্ষার্থী নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। যাদের প্রচেষ্টায় এ অনুষ্ঠান সফলভাবে আয়োজন সম্ভব হয়েছে।

অনুষ্ঠানে সংগঠনের উপদেষ্টা, সদস্য এবং ইংলিশ ল্যাংগুয়েজ ক্লাবের উদ্যোগে উপজেলার ৮টি মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অনুষ্ঠিত সাধারণ জ্ঞান (কুইজ) প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।




হোটেল-মোটেল জোনে বেহাল সড়ক: দুর্ভোগে পর্যটক

রামু প্রতিনিধি:

পর্যটন নগরীর প্রাণ হোটেল-মোটেল জোন। কিন্তু এখানকার সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা নাজুক থাকায় পর্যটকরা দিনদিন হোটেল-মোটেল জোন বিমুখ হচ্ছে। কয়েকদিনের আকস্মিক বৃষ্টিপাতের কারণে হোটেল-মোটেল জোনের অনেক সড়ক যানবাহন ও পথচারিদের চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। ফলে ইংরেজি নববর্ষের ভরা মৌসুমে পর্যটক না পেয়ে এখানের অনেক হোটেল মালিক ও অন্যান্য ব্যবসায়ীরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন।

কক্সবাজারের কলাতলীর ব্যস্ততম হোটেল-মোটেল জোনে বুধবার সরেজমিন দেখা গেছে, অনেক সড়কে পানি আর কাঁদা একাকার হয়ে গেছে। এসব সড়কে পর্যটক আসা দূরের কথা, স্থানীয়রাও চলাচলে দুর্ভোগ পোহাচ্ছে। আর এখানকার অনেক হোটেল গত কয়েকদিন ধরে পর্যটক শূণ্য। কেবল যোগাযোগ ব্যবস্থা নয়, পয়ঃনিষ্কাশন,পর্যাপ্ত নিরাপত্তা, অসামাজিক কার্যকলাপ সহ হোটেল-মোটেল জোনে সমস্যা-সংকট প্রকট হচ্ছে।

মোহাম্মদীয় গেস্ট হাউস ও সেন্টমার্টিন রিসোর্ট এর পাশ্ববর্তী জলপরী সড়কে কাঁদায় আটকে যাচ্ছিলো ছোট যানবাহন। পথচারিদেরও চলাচল করতে হচ্ছে কাঁদা মাড়িয়ে। কাঁদাময় এ সড়ক দেখেই এখানকার কোন হোটেলে আসেনি পর্যটকরা।

এসড়কের পাশে থাকা আরএম গেস্ট হাউসের মালিক এমএম নুরুচছাফা জানালেন, তারা নিজেরাও কয়েকদিন এ সড়কে চলাচল করতে গিয়ে চরম দুর্ভোগের শিকার হচ্ছে। ভর মৌসুম থাকার পরও তাই এ কদিন পর্যটকের দেখা মেলেনি হোটেলটিতে। তিনি সড়কটি অবিলম্বে সংস্কার করার জন্য জেলা প্রশাসন সহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন।




বিনামূল্যে ৩৫ কোটি বই বিতরণ

রামু প্রতিনিধি:

কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল বলেছেন, বিনামূল্যে ৩৫ কোটি বই বিতরণ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বরেকর্ড গড়েছেন। শিক্ষার জন্য সরকারের আন্তরিক প্রচেষ্টার ফলেই প্রতিবছর এভাবে বিনামূল্যে বছরের প্রথমদিন শিক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দেয়া সম্ভব হচ্ছে। কেবল বই বিতরণ নয়, আওয়ামী লীগ সরকার শিক্ষার মান বৃদ্ধির পাশাপাশি অবহেলিত জনসাধারণকে শিক্ষার আওতায় নিয়ে এসেছে। অচিরেই বাঙ্গালী জাতি নিরক্ষরতার অভিশাপ থেকে মুক্তি পাবে।

সাংসদ কমল সোমবার (১ জানুয়ারি) কক্সবাজার খুরুশকুল এবং ঈদগাওতে ৮টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বই বিতরণ উৎসবে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। ইংরেজি নববর্ষের প্রথম দিন নতুন বই পেয়ে উচ্ছ্বসিত হয়েছে এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কোমলমতি শিক্ষার্থীরা।

সাংসদ সাইমুম সরওয়ার কমল সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত এসব এলাকার দক্ষিণ খুরুশকুল উচ্চ বিদ্যালয়, খুরুশকুল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, খুরুশকুল উচ্চ বিদ্যালয়, চৌফলদণ্ডী সাগরমনি উচ্চ বিদ্যালয়, পশ্চিম চৌফলদণ্ডী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চৌফলদণ্ডী উচ্চ বিদ্যালয়, ঈদগাহ মডেল হাই স্কুল, ঈদগাহ কেজি স্কুলে বই বিতরণ উৎসবে যোগদান করেন।

এসব অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নোমান হোসেন, সদর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার সেলিম উদ্দীন, সদর উপজেলা উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শেখ আহমদ চৌধুরী, খুরুশকুল ইউপি চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন, চৌফলদণ্ডী ইউপি চেয়ারম্যান ওয়াজ করিম বাবুল, জালালাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান ইমরুল রাশেদ, ঈদগাহ ইউপি চেয়ারম্যান ছৈয়দ আলম প্রমুখ।

এসব অনুষ্ঠানে সংশ্লিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহের পরিচালনা পর্ষদের সদস্য, শিক্ষক, এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ এবং শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

এমপি আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল রাতে রামুর দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউনিয়নের পালপাড়া হিন্দু মন্দির এবং কক্সবাজার শহরের শংকরমঠ মিশনের ধর্মীয় সভায় যোগদান করে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন।




শিক্ষার সুষ্ঠ পরিবেশ ও মান রক্ষায় সরকারের পাশাপাশি সবাইকে আন্তরিক হতে হবে

রামু প্রতিনিধি:

রামুতে ইংরেজি নববর্ষের প্রথম দিনে বিভিন্ন মাধ্যমিক ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের নতুন বই বিতরণ করা হয়েছে। এ উপলক্ষে বই উৎসব আয়োজন করে বিভিন্ন বিদ্যালয়। বই উৎসব ঘিরে কচিকাঁচা শিক্ষার্থীদের পদচারনায় মুখরিত হয়ে উঠে বিদ্যালয়ের আঙ্গিনা।

সোমবার সকালে রামুর অন্যতম নারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রামু উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ে বই উৎসবে ছাত্রীদের হাতে নতুন বই বিতরণ করেন, রামু উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. শাজাহান আলি। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, শিক্ষা কোন পণ্য নয়, শিক্ষা সবার অধিকার। এজন্য সরকার শিক্ষাকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়েছে। অতীতের মতো এখন আর বই কিনতে হয়না। আবার বই পাওয়া নিয়ে ঝামেলাও নেই। শিক্ষার সুষ্ঠ পরিবেশ ও মান রক্ষায় সরকার যেমন আন্তরিক, তেমনি শিক্ষক-অভিভাবক, এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীদেরও আন্তরিক হতে হবে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আনজুমান আরা বেগম, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের একাডেমিক সুপারভাইজার মোহাম্মদ তৈয়ব, কক্সবাজার জেলা পরিষদ সদস্য এবং বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য আওয়ামী লীগ নেতা শামসুল আলম মণ্ডল, বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য গিয়াস উদ্দিন কোম্পানী ও ইউনুছ রানা চৌধুরী, শিক্ষক প্রতিনিধি খোরশেদ আলম।

বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মো. জয়নাল আবেদীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক মোতাহেরা বেগম, শিক্ষক আঙ্গুর বালা দাশ, লাভলী বড়ুয়া, সুমথ বড়ুয়া, রনজিত কুমার দে, লুৎফুন্নেছা প্রমুখ।




বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ নিরস্ত্র বাঙ্গালী জাতিকে স্বশস্ত্র বাহিনীর চেয়ে অদম্য করে তুলেছিলো

রামু প্রতিনিধি:

বন ও পরিবেশ মন্ত্রণালয়ের সাবেক মন্ত্রী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ এমপি বলেছেন, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণের মাধ্যমেই বিশ্বের বুকে স্বাধীন বাংলাদেশের জন্ম হয়েছিলো। এ ভাষণের মাধ্যমে নিরস্ত্র বাঙ্গালী জাতি স্বশস্ত্র বাহিনীর চেয়ে অদম্য হয়ে উঠেছিলো। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের এ ভাষণ ইউনেস্কো কর্তৃক আন্তর্জাতিক প্রামাণ্যচিত্র হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। এ অর্জন বাঙ্গালী জাতির জন্য স্মরণীয় ও গৌরবের বিষয়। এ ভাষণের আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি দেশকে এগিয়ে নিতে প্রেরণা যোগাবে।

ড. হাছান মাহমুদ রামুতে ৭ দিনব্যাপী মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলার ৬ষ্ঠ দিনের স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার জনগণের সরকার। জনগণই আবার এ সরকারকে নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতায় আনবে। সরকার বিদ্যুৎহীন এলাকায় বিদ্যুৎ দিয়েছে। বয়স্ক ভাতা, শিক্ষার্থীদের উপ-বৃত্তি, প্রতিবন্ধি ভাতা, গর্ভকালীন ভাতা সহ জনগণকে সব ধরনের সহায়তা দিয়ে আওয়ামী লীগ সরকার অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে।

বিএনপির সমালোচনা করে সাবেক মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, যারা ক্ষমতায় গিয়ে নিজেদের আখের গোছায় জনগণ তাদের অতীতে প্রত্যাখান করেছে, আগামীতে করবে। তিনি জ্বালাও-পোড়াও বাদ দিয়ে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে দলের কর্মসূচি পালন এবং সাংবিধানিক নিয়মে আগামী নির্বাচনে অংশ নেয়ার জন্য বিএনপি চেয়ারপার্সনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

শনিবার (৩০ ডিসেম্বর) রাতে বিজয় মঞ্চে আয়োজিত স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, রামু মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা উদযাপন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি। স্বাগত বক্তব্য রাখেন, রামু মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা উদযাপন পরিষদের মহাসচিব, রামু উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রিয়াজ উল আলম।

রামু উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক নীতিশ বড়ুয়ার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কক্সবাজার জেলার সহ-সভাপতি ও বিজয় মেলা উদযাপন পরিষদের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা জাফর আলম চৌধুরী, কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মুসরাত জাহান মুন্নী, মাস্টার ফরিদ আহমদ, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সাধারণ সম্পাদক তপন মল্লিক, আওয়ামী লীগ নেতা সৈয়দ মো. আবদু শুক্কুর, যুবলীগ নেতা পলক বড়ুয়া আপ্পু, নবীউল হক আরকান, সাংসদ কমলের একান্ত সচিব ও জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা মিজানুর রহমান, উপজেলা যুবলীগে স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহ সম্পাদক আবু বক্কর ছিদ্দিক, রামু উপজেলা বঙ্গবন্ধু সৈনিকলীগ সভাপতি মিজানুল হক রাজা, ফতেখাঁরকুল ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি আজিজুল হক, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা সাদ্দাম হোসেন ও মোহাম্মদ নোমান, বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদের সভাপতি একরামুল হাসান ইয়াছিন প্রমুখ।

রাতে বিজয় মঞ্চে কক্সবাজার ও রামুর সাংস্কৃতিক সংগঠনের পরিবেশনায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়।

উল্লেখ্য মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলায় প্রতিদিনের অনুষ্ঠানে ছিলো, বীর মুক্তিযোদ্ধা, জাতীয় ও স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের স্মৃতিচারণ, মুক্তিযোদ্ধা সম্মাননা, আবৃত্তি, গান, নাটক। এছাড়াও মেলায় দেশি-বিদেশি পন্যের শতাধিক স্টল রয়েছে।