রাজস্থলীতে বন্যহাতির হামলায় একজন গুরুতর আহত

রাজস্থলী প্রতিনিধি:

উপজেলার ২নং গাইন্দ্যা ইউনিয়নের পোয়াইতু পাড়া গ্রামে বন্য হাতির হামলায় একজন প্রতিবন্ধী কৃষক গুরুতর আহত হয়েছে। আহত বোসাঅং মারমা (৩৪)আমছড়া পাড়ার ২নং গাইন্দ্যা ইউনিয়ন এর অংসুইপ্রু মারমার ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শনিবার আনুমানিক ৯টার সময় খামারের কাজকর্ম শেষে বাড়ি ফেরার পথে বন্য হাতির আক্রমনের শিকার হয়।

এসময় ঘটনাস্থলে তার চিৎকার শুনে এলাকাবাসীরা এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে রাজস্থলী সদর হাসপাতালে ভর্তি করানো হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

পরবর্তী তার সুস্থতার কোন খবরাখবর পাওয়া যায়নি। ইদানিং বন্য হাতি পার্বত্য রাজস্থলী চট্টগ্রামের রাঙ্গুনীয়া, কোদালা, ডংনালাসহ বিভিন্ন এলাকায় ক্ষতিসাধন করে জানমালের ক্ষতিতে পরিনত করেছে।




 রাজস্থলীতে নিরাপত্তাবাহিনীর উদ্যোগে মেডিক্যাল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত

রাজস্থলী প্রতিনিধি:

জেলার রাজস্থলী উপজেলার ১নং ঘিলাছড়ি ইউনিয়নের তালুকদার পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে রবিবার (৩ ডিসেম্বর) সকাল ১০টা থেকে টানা ৪ ঘন্টা মেডিক্যাল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়েছে। কাপ্তাই ৫ আরই ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল শেখ মাহামুদুল হাসান পিএসসি এর নির্দেশনায় রাজস্থলী সাব জোন কর্তৃক ব্যবস্থাপনায় এ মেডিক্যাল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়।

ওই মেডিক্যাল ক্যাম্পে দুর দুরান্ত থেকে আগত প্রায় ১৪০জন নারী-পুরুষ রোগীদের চিকিৎসা সেবা প্রদান করেছেন কাপ্তাই ৫ আরই ব্যাটলিয়নের মেডিক্যাল অফিসার ক্যাপ্টেন সৈয়দা তাসনুভা (তানাজ) এএমসি।

চিকিৎসা সেবা নিতে আসা কয়েকজন রোগী বসন্তমনি তঞ্চগ্যা, কুলসুমা বেগম, লানুমে মারমা, মজনু বেগম ও ইমাপ্রু মারমা বলেন, নিরাপত্তাবাহিনীর এ মহৎ উদ্যোগ পার্বত্য অঞ্চলের জন্য অত্যন্ত প্রশংসনীয়, কেননা পার্বত্য এলাকায় হত দরিদ্র, অসহায়, পাহাড়ি, বাঙ্গালীদের চিকিৎসা সেবা নিতে অনেক হিমশিম খেতে হয়। নিরাপত্তাবাহিনী আজ চিকিৎসা সেবা দিয়ে আমাদের এ অঞ্চলের ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী ও বাঙ্গালীদের মধ্যে আনন্দ বিরাজ করছে। আমরা বাংলাদেশ নিরাপত্তাবাহিনী কাপ্তাই ৫ আরই ব্যাটালিয়নের সকল সেনাদের অন্তরস্থল থেকে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি।

নিরাপত্তাবাহিনীর এ ধরনের কর্মকাণ্ড যদি এ পার্বত্য অঞ্চলে অব্যাহত থাকে তাহলে পার্বত্য অঞ্চলে বসবাসরত পাহাড়ি-বাঙ্গালীদের মধ্যে আরো বসবাসের মিলন মেলায় পরিনত হবে। নিরাপত্তাবাহিনীর চিকিৎসা সেবা ও বিনামুল্যে ওষুধ পেয়ে বৃদ্ধ হতে শিশুরা পর্যন্ত মহা খুশি।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, রাজস্থলী সাব জোনের ওয়ারেন্ট অফিসার সোহরাওয়ার্দী, সাবেক ইউপি সদস্য মফিজ আহম্মদ তালুকদার সমাজ সেবক মো. আব্দুল শুক্কুর ও এলাকার স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তি।




সমবায় সমিতির মাধ্যমে যে কোন ছোট কাজকে বড় করা সম্ভব

রাজস্থলী প্রতিনিধি:

উন্নত ও সমৃদ্ধশালী দেশ গঠনে সমবায়ীরা বড় ভূমিকা রেখেছে বলে মন্তব্য করে উপজেলা চেয়ারম্যান উথিনসিন মারমা বলেন, সমবায় সমিতির মাধ্যমে যে কোন ছোট কাজকে বড় করা সম্ভব। ব্যক্তিগত উদ্যোগে যে কাজকে এগিয়ে নেওয়া যায় না সমবায় সমিতির মাধ্যমে সে কাজকে এগিয়ে নেওয়া যায়।

শনিবার (৪ নভেম্বর) সকালে ‘উৎপাদনমুখী সমবায় করি, উন্নত বাংলাদেশ গড়ি’ এ শ্লোগানকে সামনে রেখে রাজস্থলী উপজেলা সমবায় অফিস কর্তৃক আয়োজিত ৪৬তম জাতীয় সমবায় দিবস উপলক্ষ্যে উপজেলা হলরুমে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুশফিকুর রহমানের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অংনুচিং মারমা,  বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা, কর্মচারী, সাংবাদিক, এনজিও প্রতিনিধিগণ।

ইউএনও বলেন পার্বত্য অঞ্চলে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র মৎস্য চাষ, জুম চাষের পাশাপাশি সমবায় সমিতির মাধ্যমে উন্নয়নমুখী কাজ করা গেলে এ অঞ্চলে অর্থনৈতিক উন্নয়ন সম্ভব হবে।

আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা সমবায় অফিসার মঞ্জুরুল আলম। আলোচনা সভার পূর্বে উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গন হতে সভার পূর্বে উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গন হতে একটি র‌্যালি বের হয়। র‌্যালিটি উপজেলার বিভিন্ন দিক প্রদক্ষিণ করে হলরুমে এসে শেষ হয়।




রাজস্থলীতে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

রাজস্থলী প্রতিনিধি:

রাজস্থলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুশফিকুর রহমানের সভাপতিত্বে বুধবার (২৩ অক্টোবার) উপজেলা হল রুমে এক মতবিনিময় ও গণশুনানী অনুষ্ঠিত হয়।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মানজারুল মান্নান। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান উথিনসিন মারমা, ভাইস চেয়ারম্যান অংনুচিং মারমা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ক্রয়সুইউ মারমা এবং জেলা প্রসাশকের সফর সঙ্গী নির্বাহী ম্যাজিসট্রেট এএসএম রিয়াদ হাসান গৌরবসহ বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারী, হেডম্যান, কার্বারী, মেম্বার চেয়ারম্যান সুশীল সমাজের নেতৃত্ববৃন্দ।

জেলা প্রশাসক হলরুমে উন্মুক্ত আলোচনায় সবার কথা মনোযোগ সহকারে শোনেন। পরে তিনি উপজেলার বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড পরিদর্শন এবং ১নং ঘিলাছড়ি ইউপি ভবন, হেডম্যান কার্যালয় ও প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন করে সন্তোষ প্রকাশ করেন।

তিনি বলেন এ উপজেলা একটি শান্তি প্রিয় উপজেলা এখানে কোন প্রকার সম্প্রীতি যাতে নষ্ট না হয় সে বিষয়ে সবাইকে সজাগ থাকতে হবে। উপজেলা প্রশাসন এক সেবামুলক প্রতিষ্ঠান তাই সবাই এখানে সেবা পাবে। আলোচনার পূর্বে জেলা প্রশাসক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় পরিদর্শন করেন।




রাজস্থলীতে বিশ্ব খাদ্য দিবস ও ইদুর নিধন অভিযান উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা

রাজস্থলী প্রতিনিধি:

“অভিবাসনের ভবিষ্যত বদলে দাও খাদ্য নিরাপত্তা ও গ্রামীন উন্নয়নের বিনিয়োগ বাড়াও” এই প্রতিপাদ্যে সারা বিশ্বের মত পার্বত্য জনপদ রাজস্থলীতেও পালিত হয়েছে বিশ্ব খাদ্য দিবস ও ইদুর নিধন অভিযান।

সোমবার (১৬ অক্টোবর) রাজস্থলী উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে উপজেলা হল রুমে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুশফিকুর রহমান এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান উথিনসিন মারমা। বিশেষ অতিথি ছিলেন  উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অংনুচিং মারমা, ডা. রুইহ্লাঅং মারমা,  ২নং গাইন্দ্যা ইউপি চেয়ারম্যান উথান মারমা,  আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক পুচিংমং মারমাসহ বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারী,  সাংবাদিক,  রাজনীতিবিদ, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান ও শিক্ষার্থীবৃন্দ।

সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা হাসিবুল হাসান।

সভায় বক্তরা বলেন, সম্প্রতি সময়ে রোহিঙ্গা সংকটের মত বিশ্বব্যাপী অভিবাসন সমস্যা দিন দিন প্রকট হচ্ছে। যার প্রেক্ষাপটে খাদ্যের ঘাটতি দেখা দিচ্ছে। সংকট মেকাবেলায় বিশ্বব্যাপী খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতে আধুনিক কৃষি প্রযুক্তি দ্রুত ফলনশীল ব্যবহার করে খাদ্য ঘাটতি পূরণের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারন করা হচ্ছে বলে বক্তারা জানান। এর পূর্বে প্রধান অতিথি ইদুর নিধন অভিযান উদ্ভোধন করেন।




রাজস্থলীতে হিন্দু সম্প্রদায়ের দুস্থদের মাঝে সেনাবাহিনীর অনুদান  মাঝে সেনাবাহিনীর অনুদান বিতরণ

 

রাজস্থলী প্রতিনিধি:

শান্তি, সম্প্রীতি ও উন্নয়ন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মুলমন্ত্র এর ধারাবাহিকতায় গতকাল রাজস্থলী উপজেলার ১ নং ঘিলাছড়ি ইউনিয়নের রাজস্থলী শ্রী শ্রী হরি মন্দির প্রাঙ্গনে শারদীয় দূর্গোৎসব উদযাপন উপলক্ষ্যে হিন্দু সম্প্রদায়ের অসহায় হত দরিদ্র দুস্থদের মাঝে নগদ অনুদান বিতরণ করেন রাজস্থলী সেনা ক্যাম্পের ওয়ারেন্ট অফিসার মো. জামাল হোসেন।

এ সময় অন্যান্যর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সার্জেন্ট এনায়েত হোসেন, রাজস্থলী থানা এএসআই (নিরস্ত্র) মো. শামীম আল মামুন, রাজস্থলী প্রেসক্লাব সভাপতি আজগর আলী খান, মন্দির কমিটির সদস্য ধনরাম কর্মকার, রতন সেন, দীপক চৌধুরী, সঞ্জীত চেীধুরী সহ অন্যান্য গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

ওয়ারেন্ট অফিসার জামাল হোসেন বলেন, শারদীয়া দূর্গোৎসব পালনের লক্ষ্যে হিন্দু সম্প্রদায়ের দুস্থদের মাঝে কাপ্তাই ৫ আরই ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল মাহমুদ হাসান (পিএসসি) মহোদয়ের নির্দেশনায় এই অনুদান বিতরণ করা হয়েছে। সেনাবাহিনী পার্বত্য অঞ্চলে শান্তি, সম্প্রীতি, উন্নয়ন, শিক্ষা, সাংস্কৃতিক ও চিকিৎসা সেবায় বিশেষ অবদান রেখেছেন। সম্প্রতি রাজস্থলী সদর হাসপাতালে প্রতিমাস অন্তর অন্তর ধাত্রী বিদ্যা প্রশিক্ষণ দিয়ে আসছেন।

প্রশিক্ষণার্থী  রওশন আরা বেগম বলেন, সেনা বাহিনীর এই প্রশিক্ষণের মাধ্যমে আমরা বাস্তব অভিজ্ঞতা অর্জন করে দুর্গম পার্বত্য অঞ্চলের খেটে খাওয়া দুস্থ নারীদের সন্তান প্রসবে অগ্রনী ভূমিকা রাখি।

 




রাজস্থলীতে এক যোগে ১০ হাজার তাল গাছের বীজ রোপন

রাজস্থলী প্রতিনিধি:

বজ্রপাত ও প্রাকৃতিক দুর্যোগের কবল থেকে মানুষকে রক্ষা করতে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসকের সার্বিক তত্ত্বাবধানে সোমবার রাজস্থলী উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন গ্রাম মহল্লা, পাড়া, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে এক যোগে ১০ হাজার তাল বীজ রোপন করা হয়েছে।

সোমবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০ ঘটিকার সময় উপজেলা পুকুর পাড় সংলগ্ন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুশফিকুর রহমান এর সভাপতিত্বে আনুষ্ঠানিক ভাবে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে উপজেলা চেয়ারম্যান উথিনসিন মারমা এ তাল গাছের বীজ রোপন করেন।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অংনুচিং মারমা, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা হাসিবুল হাসান, বিআরডিবি কর্মকর্তা খন্দকার নুরনবি, একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের সমন্বয়কারী লুনা চাকমা, রাজস্থলী রেঞ্জ কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান, থানা আওয়ামী লীগ সভাপতি উবাচ মারমা, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোজাম্মেল হোসেন, ১নং ঘিলাছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান সুশান্ত প্রশাদ তঞ্চঙ্গ্যা, উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক জ্যোতি ত্রিপুরাসহ বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারী, সাংবাদিক, রাজনীতিবিদ ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিথ ছিলেন।

রাজস্থলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এই প্রতিবেদককে জানান, সম্প্রতি সারা দেশে বজ্র পাতে প্রানহানির সংখ্যা ও পরিবেশ বিপর্যয় বৃদ্ধি পেয়েছে। তাই তাল গাছের বীজ রোপন করে বজ্রপাত হতে মানুষকে রক্ষা করতে সরকার এই কর্মসুচী বাস্তবায়ন করছে। তিনি আরো জানান, বজ্রপাত নিরোধক হিসেবে তাল গাছ রোপন করাটা এখন অনেক যুক্তি সংগত।

এর আগে শনিবার নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে এক প্রস্তুতিমুলক সভায় সরকারী-বেসরকারী বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে তাল গাছের বীজ বিতরণ করা হয়।

এসব তাল গাছের বীজ রাস্তার পাশে, ইউনিয়ন পর্যায়ে সরকারী-বেসরকারী প্রতিষ্ঠান উন্মুক্ত স্থানে রোপন করা হয়েছে। এ মহতি উদ্যোগে সকলে স্বতস্ফুর্তভাবে অংশ গ্রহন করায় রাজস্থলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।




রাজস্থলীতে বর্ষাকালীন ফুটবল এর ফাইনাল সম্পন্ন

রাজস্থলী প্রতিনিধি:

ঝিমিয়ে পড়া ক্রীড়াঙ্গনকে চাঙ্গা করতে রাজস্থলীতে এক সম্প্রীতি বন্ধনে বর্ষাকালীন ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হয়। এতে ২৪টি দল অংশ গ্রহণ করে ও ফাইনাল খেলায় দুটি দল যথাক্রমে রাজস্থলী বাজার একাদশ বনাম খাগড়াছড়ি উষা ক্রীড়া সংগঠনের মধ্যে মুখোমুখি খেলায় ১-১ গোলে ড্র হয়।

খেলা অমিমাংসিত হওয়ায় ট্রাইবেকারে বাজার একাদশ ৪ গোলে খাগড়াছড়ি একাদশকে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় গৌরব অর্জন করে।

অপরদিকে টুর্নামেন্টে কাপ্তাই ৫ আরই ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মাহমুদ হাসান পিএসসি মহোদয়ের পক্ষে রাজস্থলী ক্যাম্পের ওয়ারেন্ট অফিসার জনাব জামাল হোসেনের নেতৃত্বে খেলোয়রদের মধ্যে ৪টি ফুটবল বিতরণ করেন।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান উথিনসিন মারমা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুশফিকুর রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান অংনুচিং মারমা, অফিসার ইনচার্জ মাহবুল আলম, চেয়ারম্যান সুশান্ত প্রসাদ তঞ্চঙ্গ্যা, সার্জেন্ট হুমায়ুন কবির, এমপি প্রতিনিধি সুভাষ চন্দ্র তঞ্চঙ্গ্যা, বাজার কমিটির সভাপতি শেখ আহম্মদ, গাইন্দ্যা ইউপি চেয়ারম্যান উথান মারমা।

এছাড়াও অগনিত দর্শককের উপস্থিতি পুরো আয়োজনকে অত্যন্ত সফল করে তুলেছে।




‘সততা স্টোরে’ মুগ্ধ শিক্ষার্থীরা

রাজস্থলী প্রতিনিধি:

বিদ্যালয়ের একটি কক্ষে সাজিয়ে রাখা হয়েছে বই, খাতা, কলম, পেন্সিল, চকলেট ও নিত্য প্রয়োজনীয় খাবার। কিন্তু সেখানে নেই কোন বিক্রেতা। নেই কোন ক্রেতা। বিদ্যালয়ের একটি কক্ষে অবস্থিত এমন দোকানের ক্রেতা শিক্ষার্থীরাই।

ওই দোকানের নিয়ম হচ্ছে জিনিস কিনে বক্সে টাকা জমা রাখা। আর রেজিস্টার খাতায় লিপিবদ্ধ করে রাখা। নাম রাখা হয়েছে সততা স্টোর। দেশের নানা বিদ্যালয়ে সততা স্টোর নামে এ ধরণের দোকান চালু হয়েছে এর আগে। উদ্দেশ্য শিশু কাল থেকে শিক্ষার্থীদের শুদ্ধাচার চর্চায় আগ্রহী করে তোলা।

এবার রাঙ্গামাটি জেলাধীন রাজস্থলী উপজেলার রাজস্থলী তাইতং পাড়া সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ে চালু করা হয়েছে সততা স্টোর নামে একটি দোকান। সম্প্রতি সরেজমিনে ঘুরেও দেখা গেছে উক্ত বিদ্যালয়ে একটি কক্ষে সাজিয়ে রাখা হয়েছে খাতা, কলম, পেন্সিল ও খাবারসহ নানা প্রয়োজনীয় জিনিস।

স্কুলের শিক্ষার্থীরা যার যার প্রয়োজন মতো জিনিস নিচ্ছে আর একটি খাতায় টাকার পরিমাণ বসিয়ে বাক্সে টাকা জমা দিচ্ছে।

গতকাল রাজস্থলী তাইতং পাড়া সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ে সততা স্টোর উদ্ভোধন করেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অংনুচিং মারমা ও উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সঞ্জয় দেবনাথ, সাংবাদিক চাউচিং মারমা, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের একাডেমিক সুপারভাইজার অসিার বিভিশন চাকমা।

বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী আসমিনা খানম মায়া বলেন, এমন দোকান দেখে সত্যি অবাক হয়েছি। টিফিনের টাকা দিয়ে সে একটি খাতা ও একটি কলম কিনেছে। এমন দোকান দেখে খুবই ভাল লাগছে। এখানে কোন বিক্রেতা নেই। সবাই যার যার পছন্দমত জিনিস কিনে বাক্সে টাকা দিয়ে যাচ্ছে।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা স্নিগ্ধা চাকমা বলেন, দেশের অনেক বিদ্যালয়ে সততা স্টোর চালু হয়েছে। শিক্ষার্থীদের মধ্যে খুব ভাল সাড়া জাগিয়েছে এ কর্মসুচি। ভবিষ্যতে সৎ নাগরিক হয়ে উঠতে এ অভিজ্ঞতা কাজে আসবে তাদের।

সততা স্টোর সম্পর্কে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান বলেন, আমাদের আশা আগামী প্রজন্ম সৎ নাগরিক হয়ে উঠতে সততা স্টোরের শিক্ষা কাজে আসবে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ সরকার শুধু দেশের উন্নয়ন করছে তা নয়। তিনি শিক্ষা ক্ষেত্রেও ব্যাপক পরিবর্তন এনেছেন। শিক্ষা ক্ষেত্রে পরিবর্তনের নতুন প্রকল্প হচ্ছে সততা স্টোর। এর মাধ্যমে ছাত্র ছাত্রীরা হয়ে উঠবে আদর্শবান, নৈতিক এবং ভদ্র আগামীতে এই উপজেলায় অন্যান্য বিদ্যালয় গুলোর মধ্যে সততা স্টোর চালু হবে।




বাঙ্গালহালিয়ায় নিরাপত্তাবাহিনীর উদ্যোগে মত বিনিময় সভা

 

রাজস্থলী প্রতিনিধি:

শান্তি সম্প্রীতি উন্নয়ন এই ধারাকে অব্যাহত রেখে দুর্গম পার্বত্য রাজস্থলী উপজেলার বাঙ্গালহালিয়া সেনা ক্যাম্পের পরিচালনায় কাপ্তাই ৫ আরই ব্যাটালিয়নের উদ্যোগে এক মতবিনিময় সভা বৃহস্পতিবার ১০ টার সময় বাঙ্গালহালিয়া ক্যাম্প কমান্ডার মেজর ফজজুল কবির এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, কাপ্তাই জোন এর উপ-অধিনায়ক ভারপ্রাপ্ত সিও মেজর তানভির আহম্মদ পিএসসি।

এসময় অন্যানের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাঙ্গালহালিয়া ক্যাম্পের সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার এমদাদুল ইসলাম, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান থোয়াইসুইখই মারমা, ৩নং বাঙ্গালহালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান ঞোমং মারমা ও চট্টগ্রাম জেলাধীন কোদালা ইউপি চেয়ারম্যান কাইয়ুম তালুকদার, ২নং রাইখালী ইউপি চেয়ারম্যান সায়মং মারমা, বাঙ্গালহালিয়া কলেজের প্রভাষক উট্টরা ভিক্ষু, সাংবাদিক মো. ইলিয়াস ও রাজস্থলী প্রেসক্লাবের সভাপতি মো. আজগর আলী খান, বাঙ্গালহালিয়া বাজার কমিটির সভাপতি আবু সয়দ তালুকদার, সাধারণ সম্পাদক অরুন সেন, বাঙ্গালহালিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য, সদস্যা হেডম্যান, কার্বারী ও গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

সভায় প্রাধান অতিথি মেজর তানভির আহম্মদ বলেন, বর্তমান সময়ে মায়ানমারের রোহিঙ্গারা এ উপজেলায় অবস্থান করতে পারে। তাদেরকে স্ব-সম্মানে এনে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর মধ্যে সোপর্দ করতে হবে। তাদেরকে শারিরীকভাবে নির্যাতন নিপীড়ন হয়রানি না করার আহবান জানান।

তিনি আরো বলেন, অচেনা অপরিচিত লোক সন্দেহ করা হলে তাদেরকে আইনের আওতায় এনে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে খবর দিতে হবে। সন্ত্রাসী, অস্ত্রধারী ও চাঁদাবাজ যে হোক না কেন তাদেরকে ছাড় দেওয়া যাবে না।

উন্নয়ন মূলক কর্মকাণ্ড ও এলাকার আর্থসামাজিক উন্নয়নে সার্বিক সহযোগিতা করার নিরাপত্তাবাহিনীর পক্ষথেকে আশ্বাস দেন আশ্বাস দেয়া হয়।