মানিকছড়িতে ২০ পিস ইয়াবাসহ মহিলা আটক

মানিকছড়ি প্রতিনিধি:

মানিকছড়ির বড়ডলুতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ২০ পিস ইয়াবাসহ নুর নাহার বেগম (৪০) নামে এক মহিলাকে আটক করেছে পুলিশ।

মানিকছড়ি থানার এএসআই কামাল মিয়া জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মানিকছড়ির বড়ডলু রফিক মিয়ার দোকানের সামনে থেকে নুর নাহার বেগম (৪০) কে আটক করা হয়। পরে তার দেহ তল্লাশি করে বিশেষভাবে লুকিয়ে রাখা ২০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। এঘটনায় আটকৃত ব্যক্তির বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।




মানিকছড়িতে জমে উঠেছে ঈদের বাজার

মানিকছড়ি প্রতিনিধি:

ঈদ যতই ঘনিয়ে আসছে মানিকছড়িতে ঈদ মার্কেট ততই জমে উঠছে৷ এই বছর রমজানের প্রথম সপ্তাহ থেকেই বাজারে কেনাকাটার ধুম পড়ে যায়, তবে মাঝে মাঝে বৃষ্টি হওয়াতে কিছুটা বিড়ম্বনাও দেখা দিয়েছে৷

রমজান এর শুরু থেকেই ঈদের কেনাকাটা শুরু হলেও রমজানের মাঝামাঝি সময় মার্কেট ও ফুটপাতের দোকানগুলোতে ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। এবার ঈদে নতুনকালেকশন রাখতে দোকানীরা যেমন ব্যস্ত তেমনি পছন্দের কালেকশনটি সবার আগে লুফে নিতে ব্যস্ত হয়ে উঠেছে ক্রেতারা।

মানিকছড়ি বাজার ঘুরে দেখা যায়, বাজারের চমক গার্মেন্টস, বিসমিল্লাহ গার্মেন্টস, সানজিদা গার্মেন্টস, বৈশাখী গার্মেন্টস, আইরিন গ্যালারী হাউজ, জেন্টস পার্ক, আনোয়ারা ফ্যাশন হাউজ, অনামিকা স্টোর, সোহাগ কসমেটিকস হাউজসহ ফুটপাতের দোকানগুলোতেও কেনাকাটার জন্য মানুষের ছিল উপচে পড়া ভিড়।

এসব ক্রেতাদের মধ্যে মধ্য বয়সী ক্রেতাদের সমাগম ছিল বেশি। তবে পুরুষের চাইতেনারী ক্রেতার সংখ্যা বেশি। দূর-দূরান্ত থেকে ছোট বড় ছেলে মেয়েদের সংঙ্গে নিয়ে বাবা-মা, ভাই-বোন, শ্রমিক, মজুর, কৃষক ও বিভিন্ন পেশাজীবীর মানুষ এসেছেন সেমাই, চিনি, পোশাক পরিচ্ছদসহ প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কেনার জন্য।

বর্তমানে বাজারের সব ধরণের দোকানে বেচাকেনা পুরোদমে চলছে এবং ধীরে ধীরে অবস্থা আরও ভালোর দিকে এগুচ্ছে বলে ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন।




আশ্রয় কেন্দ্রে নিরাপত্তাবাহিনীর বস্ত্র বিতরণ

গুইমারা প্রতিনিধি:

গত দু’সপ্তাহ ধরে টানা বর্ষণে খাগড়াছড়ির মানিকছড়ি উপজেলার বিভিন্ন পাহাড়ে ভাঙন দেখা দেয়ায় প্রশাসনের তাৎক্ষনিক ব্যবস্থায় দু’টি আশ্রয় কেন্দ্রে প্রায় ২৫ পরিবার আশ্রয় নিয়েছে। আশ্রিতদের মাঝে উপজেলা প্রশাসন চাউল ও নগদ অর্থ প্রদানের পাশাপাশি বিকালে নিরাপত্তাবাহিনীর পক্ষ থেকে একটি কেন্দ্রের ৯ পবিরাবের ৩০জনের মাঝে কাপড় বিতরণ করা হয়েছে।

টানা বর্ষণে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে পাহাড় ভাঙ্গার আশঙ্কায় শুক্রবার সকাল থেকে উপজেলা প্রশাসন মাঠে নেমেছে। উপজেলা সদরসহ বিভিন্ন এলাকায় পাহাড়ের পাদদেশে বসবাসরত নাগরিকদের নিরাপদ স্থানে দ্রুত সরে যেতে প্রশাসনের মাইকিংয়ের পাশাপাশি নিরাপত্তা বাহিনীর তৎপরতায় বিকাল নাগাদ দু’ছড়ি পাড়া ও মুসলিম পাড়ার দু’টি আশ্রয় কেন্দ্রে ২৫ পরিবার আশ্রয় নিলেও দু’ছড়ি পাড়ার আশ্রয় কেন্দ্রে থেকে ইতোমধ্যে অনেকে নিজ নিজ বাড়িতে ফিরে গেছে। ফলে সদরের মুসলিমপাড়া কেন্দ্রে আশ্রিত ৯ পরিবারের ৩০ জনের মাঝে শনিবার বিকাল ৩টায় সিন্দুকছড়ি জোনের উদ্যোগে কাপড় বিতরণ করা হয়।

বিতরণকালে সিন্দুকছড়ি জোনের ক্যাপ্টেন মো. তৌহিদুল ইসলাম, ইউপি চেয়ারম্যান মো. শফিকুর রহমান ফারুক, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. আবদুল জব্বার, ইউপি সদস্য মো. কামাল হোসেন ও ইউপি সচিব মো. মোশারফ হোসেন মজনুসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. আবদুল জব্বার জানান, আশ্রিতদের পবিরাব প্রতি দৈনিক ৫ কেজি চাউল, নগদ টাকা ও ইফতার সামগ্রী বিতরণ করা হচ্ছে।




মানিকছড়িতে বজ্রপাতে তিনজন আহত

 

মানিকছড়ি প্রতিনিধি:

মানিকছড়ি উপজেলার বিভিন্ন স্থানে বজ্রপাতে তিনজন আহত হয়েছে।

মানিকছড়ি উপজেলার পান্নাবিল, লেমুয়া ও গাড়িটানায় মঙ্গলবার সকাল ১০টার সময় বজ্রপাতের ঘটনা ঘটে।

বজ্রপাতে আহত পান্নাবিলের মিশু দাস(১৭) পিতা সুবির দাশ, লেমুয়ায় আরিচা বেগম(৩৫) স্বামী আহসান উল্লাহ, গাড়িটানাতে পুষ্প রানী দে (৩৫) স্বামী কানু।

আহত তিনজনকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে আনলে কর্তব্যরত ডাক্তার আহতদের মধ্যে মিশু দাস গুরুতর আহত বলে জানান।




মানিকছড়িতে মাল বোঝাই ট্রাক আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিলো উপজাতি সন্ত্রাসীরা

18985280_922016531272002_1530658917_n copy

মানিকছড়ি প্রতিনিধি:

মানিকছড়ি উপজেলার জামতলার পিছলাতলায় বুধবার দুপুর ১ টার সময় কাঁঠাল ভর্তি একটি ট্রাক পুড়িয়ে দিলো উপজাতি সন্ত্রাসীরা।

মারিশা, দিঘীনাল, মহলছড়ির পর উপজাতি সন্ত্রাসীরা চাঁদার দাবিতে মানিকছড়িতেও আগুন দিয়ে মালবাহী ট্রাক পুড়িয়ে দেয়।

ট্রাক ড্রাইবার মো. শফিক জানান, জামতলা থেকে কাঁঠাল লোড করে চট্রগ্রামের উদ্দেশ্যে রওনা হয়ে পিছলাতলা আসলে রাস্তায় একটি টমটম দাঁড়িয়ে থাকতে দেখি। টমটমটিকে ওভারট্যাক করতে গেলে দুই তিনজন উপজাতি সন্ত্রাসীরা গাড়ির সামনের গ্লাসে লাঠি দিয়ে আঘাত করে, আমি সাথে সাথে গাড়ি ব্রেক করি তারপর কোন কিছু বুঝার আগেই তারা আমাদেরকে মারধর করে ও গাড়িতে অকটেন ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেয়।

মানিকছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাইন উদ্দিন খান জানান, আমরা ঘটনা স্থলে গিয়েছি মামলার প্রক্রিয়া চলছে।




মানিকছড়িতে ট্রলির চাপায় একজন নিহত

Nihoto copy

মানিকছড়ি প্রতিনিধি:

মানিকছড়ি উপজেলার তিনটহরী শিবিরে ট্রলি চাপায় আব্দুর রহমান (৩০) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। নিহত আব্দুর রহমান, পিতাঃ আব্দুল বারেক সর্দ্দার এর বাড়ি মানিকছড়ি উপজেলার খাড়িছড়ায়।

সোমবার সকাল ৮ টার দিকে আব্দুর রহমান তিনটহরী বাজারের খাগড়াছড়ি-চট্রগ্রাম  সড়কের পাশে দাড়িয়ে ছিলো। এসময়  একটি ট্রলি  সড়ক দিয়ে যাওয়ার সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে অাব্দুর রহমানকে চাপা দেয়। ঘটনার সাথে সাথে ট্রলি চালক পালিয়ে যান।

স্থানীয়রা ঘটনাস্থল থেকে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে মানিকছড়ি মেডিকেল হাসপাতালে আনলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত্ ঘোষণা করেন।

মানিকছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাইন উদ্দিন খান জানান,আমরা ট্রলিটি আটক করেছি চালককে গ্রেপ্তারের চেষ্টাও চলছে।

 




মানিকছড়িতে মাহে রমজানকে স্বাগত জানিয়ে র‌্যালি

FB_IMG_14957653551043452
মানিকছড়ি প্রতিনিধি:

পবিত্র মাহে রমজানকে স্বাগত জানিয়ে মানিকছড়িতে বর্ণ্যাঢ্য র‌্যালি করেছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশসহ আহলে সুন্নত জামায়েত, ইসলামী যুব আন্দোলন, ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন ও ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন। শুক্রবার বাদে  আছর উপজেলা বাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ প্রাঙ্গণ হতে র‌্যালিটি বের হয়ে উপজেলা সদর বাজারের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে উপজেলা প্রেস ক্লাব প্রাঙ্গনে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ উক্ত উপজেলা সভাপতি মু. জামাল উদ্দিন মৃধা নেতৃত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মাওলানা ফরিদ উদ্দিন দা. বা. পরিচালক তিনটহরী মহিউস্ সুন্নাহ মাদ্রাসা। বিশেষ অতিথি হিসাবে আরো বক্তব্য রাখেন মাওলানা আল আমিন সাধারন সম্পাদক ইসলামী আন্দোলন উপজেলা শাখা, মু. মুজিবুর রহমান সভাপতি- ইশা ছাত্র আন্দোলন  উপজেলা শাখা, মু. দেলোয়ার হোসেন সহ-সভাপতি ইশা ছাত্র আন্দোলন জেলা শাখা।

মাওলানা মহিউদ্দিন বিন সুরুজ আহ্বায়ক ইসলামী যুব আন্দোল উপজেলা শাখা। মাওলানা বশির উদ্দিন সাধারন সম্পাদক ইশা ছাত্র আন্দোলন হাটহাজারী শাখা, বক্তারা মাহে রমজানের পবিত্রতা রক্ষার্থে বিভিন্ন দাবি তুলে ধরেন। তার মাঝে দিনের বেলায় হোটেল রেস্তোরাঁ বন্ধ এবং সকল অশ্লীল কাজ থেকে বিরত থাকা, ২৪ ঘণ্টা নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করা ও দ্রব্যমূল্য সহনীয় পর্যায়ে রাখা।




মানিকছড়িতে ফলদ বাগান কেটে জ্বালিয়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা

18470739_905463439593978_754686924_n

মানিকছড়ি প্রতিনিধি:

মানিকছড়ির নির্ঝণ জনপদ চাইল্যাচরে সৃজিত বাগানের বার্ষিক চাঁদা পেতে দেরি হওয়ায় ফলদ বাগান কেটে সাবার করে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা! শুক্রবার(১২মে) দিবাগত রাতের কোন এক সময় এক দল সশস্ত্র সন্ত্রাসী এসে ‘ম্যাক এগ্রোফার্মে তিন শতাধিক ফলদ লিচু,কাঁঠাল গাছ কেটে এবং জ্বালিয়ে মাটির সাথে মিশিয়ে দিয়েছে।

এ ঘটনায় বাগান কর্তৃপক্ষ সন্ত্রাসীদের দায়ী করে থানায় জিডি করেছে। পুলিশ ঘটনাটি খতিয়ে দেখছে। ম্যাক এগ্রোফার্ম ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মানিকছড়ি উপজেলার ২২৪ নং কুমারী মৌজার নির্ঝর জনপদ চাইল্যাচরের ২৫০ একর ভূমিতে মো. জয়নাল আবেদীন সেলিম নামক এক ব্যক্তি দীর্ঘ এক যুগ পূর্বে আম,কাঁঠাল ও লিচুসহ নানা ফল- ফলাদির গাছ সৃজন করে।

গত কয়েক বছর ধরে ওইসব গাছে ফল আসতে শুরু করে। নির্ঝণ জনপদের কারণে ওই এলাকায় উপজাতি সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা প্রতিনিয়ত বসবাসরত বাঙ্গালী পরিবার ও বাগান মালিকদের নিকট থেকে প্রভাবখাটিয়ে বাগান প্রতি বার্ষিক টেক্স(চাঁদা) ধার্য্য করে আদায় করে আসছিল।

চলতি বছর ওইসব বাগানের মালিকরা অনেকে এখনো ধার্য্যকৃত টাকা পরিশোধ করেনি। যার ফলে সম্প্রতি বিভিন্ন বাগানে সন্ত্রাসীর প্রভাব বিস্তার করে চাঁদা আদায়ের জোর তৎপরতা শুরু করেন। এরই অংশ হিসেবে গত ১২ মে দিবাগত রাতে ম্যাক এগ্রোফার্মের ফলদ বাগানে এসে ৭০টি লিচু গাছ কেটে তাতে আগুন ধরিয়ে দেয় এবং ৩ শত কাঁঠাল গাছ কেটে সাবার করে পালিয়ে যায় এবং কাঁঠালগুলো পাশ্ববর্তী লেকে কেটে টুকরো টুকরো করে ফেলে চলে যায়।

18518633_905463449593977_1420334400_n

এছাড়া দুর্বৃত্তদের দেয়া আগুনে শত একর ভূমির সৃজিত গাছ জ্বলে নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে! খবর পেয়ে বাগান মালিক শনিবার সরজমিনে আসে এবং থানা পুলিশকে অবহিত করলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে সত্যতা খুঁজে পায়। পরে রাতে বাগান ম্যানাজার সৈয়দ মোহাম্মদ আলী থানায় উপস্থিত হয়ে অজ্ঞাতনামা দুর্বৃত্তদের দায়ী করে একটি সাধারণ ডায়রী রজু করেন। জিডি নং ৪৪৫/১৭ তারিখঃ- ১৩.০৫.১৭ খ্রি.।

তিনি এ ঘটনায় ৭ লক্ষ টাকার অধিক ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে বলে দাবী করেন। এ ব্যাপারে সরজমিনে যাওয়া থানার এ.এস.আই মো. কামাল মিয়া ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এটি নিঃসন্দেহে ঘৃর্ণিত কাজ। এ ঘটনা যারা ঘটিয়েছে তাদেরকে অবশ্যই তদন্তের মাধ্যমে আইনের আওতায় আনা হবে।




মানিকছড়িতে রেড ক্রিসেন্ট দিবস উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‌্যালি

17 copy

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি:

খাগড়াছড়ির মানিকছড়ি উপজেলায় ৮ মে বিশ্ব রেড ক্রিসেন্ট দিবস উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ দিবসটি মানিকছড়ি ইউনিট খাগড়াছড়ি ব্রাঞ্চ আয়োজন করে। র‌্যালিটি উপজেলা চত্ত্বর হয়ে খাগড়াছড়ি-চট্রগ্রাম সড়ক প্রদক্ষিণ করে আমতলা হয়ে উপজেলা চত্ত্বরে এসে শেষ হয়ে উপজেলা চত্ত্বরে সংক্ষিপ্ত আলোচলা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, আজীবন সদস্য ও উপজেলা চেয়ারম্যান ম্রাগ্য মারমা, আজীবন সদস্য ও জেলা পরিষদের সদস্য এমএ জব্বার, আজীবন সদস্য মংশেপ্রু মারমা, সজল বরণ সেন, নিংপ্রু মারমা, শামসুল হক ভূঁইয়া, যুব রেড ক্রিসেন্টের যুব প্রধান চিংওয়ামং মারমা মিন্টু প্রমুখ।

এসময় আলোচনা সভায় বক্তারা মহাত্মা জীন্ হেনরী ডুনান্ট রেড ক্রস ও রেড ক্রিসেন্ট আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাতার জীবনী গুলো তুলে ধরেন এবং তার অনুসরণ করলে পৃথিবীর কোন হিংসা নিন্দা থাকবেনা এবং আর্তমানবতার কল্যাণে স্বেচ্ছায় কাজ করতে আগ্রহ বাড়বে।




বেপরোয়া গতির মোটর সাইকেলে দুই সহোদরের মৃত্যু

18221737_898427053630950_2831549106911580740_n
মানিকছড়ি প্রতিনিধি : মানিকছড়ির তুলাবিল গ্রামের যুবক মো. শাহাজালাল (৩২)  একজন অদক্ষ মোটর সাইকেল চালক। তারপরও প্রতিনিয়ত শত কিলোমিটার গতিতে সে মোটর সাইকেল চালাতে প্রছন্দ করে। গত ৫ বছরে কয়েক ডজন যাত্রী পঙ্গুসহ অর্ধশত দূর্ঘটনা সে ঘটিয়েছে। তারপরও বেপরোয়া গতি ছাড়া মোটর সাইকেল যেন চলেই না!

সর্বশেষ ১ মে সকালে জেঠা মো. মোক্তার হোসেন(৭০) ও পিতা মো. মীর হোসেন(৬৫)কে নিয়ে ব্যক্তিগত কাজে ফেনীর ছাগলনাইয়া যায়। বিকাল সোয়া ৪টায় ফেরার পথে হেয়াঁকো বাজারের অদূরে(কড়ই বাগান) মোটরসাইকেল-মাইক্রেবাসের মূখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে। এতে ঘটনাস্থলে চালকের জেঠা এবং চমেক হাসপাতালে চালকের পিতার মৃত্যু ঘটে! গুরুত্বর আহত চালক মো. শাহাজালাল চিকিৎসাধীন। এ ঘটনায় গ্রামের শোকের মাতম।

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার তুলাবিল গ্রামের মৃত্যু আম্বর আলীর ছেলে মো. মোক্তার হোসেন(৭০) ও মো. মীর হোসেন (৬৫)। মো. মোক্তার হোসেন এর সংসারে ৫ ছেলে, ২ মেয়ে এবং  পিতা মো. মীর হোসেন এর একমাত্র ছেলে মো. শাহাজালাল (বিবাহিত)।

১ মে সোমবার সকালে পিতা মো. মীর হোসেন এবং জেঠা মো. মোক্তার হোসেনকে সাথে নিয়ে তারা ব্যক্তিগত কাজে ফেনীর ছাগলনাইয়া যায়। সেখানে কাজ-কর্ম শেষে বিকালে বাড়ী ফেরার পথে হেঁয়াকো বাজারের অদূরে(পশ্চিমে) রামগড়-ফেনী সড়কে মাইক্রোবাস ও মোটরসাইকেলের মূখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে। এতে মোটরসাইকেলটি দুমড়ে-মুচরে যায় এবং ঘটনাস্থলে মো. মোক্তার হোসেন এর মৃত্যু ঘটে। মূমুর্ষ অবস্থায় চালক মো. শাহাজালাল ও পিতা মীর হোসেনকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে পুলিশের সহযোগিতায় চমেক হামপাতালে প্রেরণ করলে সন্ধ্যায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মীর হোসেন এর মৃত্যু ঘটে। অপর দিকে চালক মো. শাহাজালাল এখনো মৃত্যুশয্যায়।

এ ঘটনায় নিহতদের গ্রামে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।