মানিকছড়িতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ের আয়োজন বন্ধ

মানিকছড়ি প্রতিনিধি:

মানিকছড়ি উপজেলার তিনটহরীর পূর্বপাড়ার হত-দরিদ্র হাসান আলীর কন্যা আমেনা আক্তার। বয়স ১৬ বছর ১০ মাস। রোববার (৮ অক্টোবর) বিয়ে! বর ও কনের পক্ষে চলছে শেষ কেনাকাটা। এ অবস্থায় বিষয়টি প্রশাসনের নজরে আসলে ৭ অক্টোবর দুপুরে সেখানে ছুঁটে যান ইউএনও মো. আহ্সান উদ্দিন মুরাদ, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মো. কামরুল আলম ও এস আই মো. কামাল হোসেন। তারা সেখানে গিয়ে কন্যার বয়স ১৮বছর পূর্ণ না হওয়ায় বিয়ের আয়োজন বন্ধ করার নির্দেশ দেন।

ফলে বাল্য বিয়ের কবল থেকে রক্ষা পেলো কিশোরী আমেনা আক্তার! প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, নবাগত ইউএনও মো. আহসান উদ্দিন মুরাদ গত ৫ অক্টোবর জনৈক কলেজ ছাত্রীর অমতে বিয়ের আসরে থাকা সালমা আক্তারের বিয়ে বন্ধ করার ৭২ ঘন্টা যেতে না যেতে আবারও ওই এলাকার হত-দরিদ্র পিতা হাসান আলী তার কিশোরী কন্যা আমেনা আক্তারের বিয়ে ঠিক করেন উপজেলার ডাইনছড়ির মো. শাহ আলমের সাথে।

৮ অক্টোবর বিয়ের অনুষ্ঠান। এ উপলক্ষ্যে বর ও কনের পক্ষে চলছে শেষ কেনাকাটা। এমন অবস্থায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আহ্সান উদ্দিন মুরাদ খবর পেয়ে সঙ্গীয় কর্মকর্তাদের সাথে নিয়ে ছুঁটে যান কনের পিত্রালয়ে। সেখানে গিয়ে তিনি কন্যার বয়স জানতে চাইলে মেয়ের মা কহিনুর বেগম জন্মসনদ দেখান।

এতে দেখা যায় আমেনার বয়স ৩.১২.২০০০ ইং। অর্থাৎ বর্তমানে বয়স ১৬ বছর ১০মাস! এ অবস্থায় ইউএনও ওই বিয়ের যাবতীয় আয়োজন বন্ধ করার নির্দেশ দেন এবং বাল্য বিয়ের কূফল সর্ম্পকে অভিভাবকদের অবহিত করেন। পরে বাল্য বিয়ে দেবে না মর্মে মেয়ের মা কহিনুর বেগম মুচলেকা দেন। এ সময় সংশ্লিষ্ট ইউপি সদস্য মো. আশ্রাফসহ গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গরা উপস্থিত ছিলেন।




কনের মত না থাকায় বিয়ে বন্ধ করলো মানিকছড়ি প্রশাসন

মানিকছড়ি প্রতিনিধি:
মানিকছড়ি উপজেলার তিনটহরীস্থ আইডিয়াল স্কুল সংলগ্ন মো. ফজল হকের কন্যা
সালমা আক্তার (১৬) মানিকছড়ি ডিগ্রি কলেজের একাদশ শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের
মেধাবী ছাত্রী। তার অজান্তে ফটিকছড়ির বিবাহিত মো. আবদুল করিম (৪৮) এর
সাথে বিয়ের সব আয়োজন সম্পন্ন করে অভিভাবক। ৫ অক্টোবর দুপুরে অনেকটা ঘরোয়া
পরিবেশে বিয়ের আসরে জোরপূর্বক বসতে হয় সালমাকে। সফরসঙ্গী নিয়ে বর ও কাজী
হাজির। ঘরে চলছে খাওয়া-দাওয়া। এ যখন অবস্থা ঠিক তখনই কনের শেষ চেষ্ঠায়
বিষয়টি প্রশাসনের নজরে আসে।

খবর পেয়ে বেলা ২.৩০ ঘটিকার সময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আহসান উদদিন
মুরাদ, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মো. কামরুল আলম ও  জনপ্রতিনিধি মো. আশ্রাফ
মেম্বার, এস.আই মো. কামাল হোসেন ফোর্স নিয়ে দ্রুত ছুঁটে যান কনের বাড়িতে।

জিজ্ঞাসাবাদে সালমা জানায়, তার অমতেই বিয়ের এ আয়োজন। ফলে ইউএনও
কনের পিতা মো. ফজল হককে এ বিয়ে দেয়ার ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদ করে বলেন
শিক্ষার্থী সালমার পড়া-লেখায় প্রয়োজনীয় সহযোগিতা দেবে প্রশাসন। আর বর মো.
আবদুল করিমকে বলেন, প্রথম স্ত্রীর অনুমতি ব্যতীত ২য় বিয়ে বেআইনি। পরে বর
ও কনে পক্ষ তাদের ভূল স্বীকার করায় বিয়ে বন্ধ করে বরপক্ষের লোকজনকে বের করে
দেন ইউএনও মো. আহসান উদদিন মুরাদ। এতে স্বস্তি প্রকাশ করেন শিক্ষার্থী
সালমা।




মানিকছড়িতে জননী ডায়াগনস্টিক সেন্টারসহ বিভিন্ন ফার্মেসীকে জরিমানা


মানিকছড়ি প্রতিনিধি: মানিকছড়ি বাজারে ভ্রাম্যমাণ আদালতে অভিযান চালিয়ে ৫টি ফার্মেসী ও জননী ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে অর্ধলক্ষাধিক টাকা জরিমানা করেছে। ৩ অক্টোবর মঙ্গলবার সকালে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

জানা যায়, মানিকছড়ি বাজার ও হাসপাতাল গেইটে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী মেজিস্ট্রেট মো. আহসান উদদিন মুরাদ। এ সময় তিনি ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৪৫ ধারায় ৫টি ফার্মেসীকে ৫ হাজার এবং বাজারস্থ একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

উল্লেখ্য যে, দীর্ঘ দিন মানিকছড়ির হাট-বাজারে স্যানিটেশন কিংবা ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান না হওয়ায় মাঝারি ও নিন্মমানের হোটেল গুলোতে নিন্মমানের খাবারের পাশাপাশি যত্রতত্র পরিবেশে রান্না-বান্না হয়ে থাকে। এছাড়া বাসি খাবার, নাস্তা বিক্রি ছিল এখানকার নিত্যচিত্র। আইনের প্রতি বিন্দুমাত্র তোয়াক্কা না করেই হোটেলগুলো পরিচালিত হয়ে আসছিল। এ অভিযানের মধ্য দিয়ে হোটেল মালিকরা সচেতন হবে বলে ভোক্তারা অভিমত ব্যক্ত  করেছেন।




মানিকছড়িতে তিনটহরী ইউনিয়ন ছাত্রদলের পরিচিতি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

মানিকছড়ি প্রতিনিধি:

মানিকছড়ি উপজেলার ৪নং তিনটহরী ইউনিয়ন ছাত্রদলের কমিটির পরিচিত ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার (২৯ সেপ্টেম্বর) বিকাল সাড়ে ৪টার সময় মানিকছড়ি উপজেলার বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ে ৪নং তিনটহরী ইউনিয়ন ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক জহির রায়হান নিরবের সঞ্চলনায় ও সভাপতি মো. আমির হোসেন এর সভাপত্বিতে সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় প্রধান বক্ত্য হিসাবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মহি উদ্দিন কিশোর

সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক এনাম। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মুজিবুল হক বাহার, যুবদলের যুব নেতা মোশারফ হোসেন মেম্বার, উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি মো. জাহাঙ্গীর হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক মনসুর আলী, ওলামাদলের সাংগঠনিক সম্পাদক ইব্রাহীম খলিল আল ফরিদী সহ উপজেলা, বিভিন্ন ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দগণ




শিক্ষক নিয়োগ বাতিলের দাবিতে মানিকছড়িতে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ মিছিল

মানিকছড়ি প্রতিনিধি:

মানিকছড়িতে আজ সকাল ১০টা হইতে ১১টা পর্যন্ত খাগড়ছড়ি চট্টগ্রাম অবরোধ করে উপজেলা আওয়ামী লীগ এর অঙ্গ সংগঠনের কর্মীরা।

তারা দাবি করেন প্রাথমিক বিদ্যালেয়র সহকারী শিক্ষক নিয়োগ সম্পন্ন  অবৈধ ভাবে নিয়োগ করা হয়েছে।মেধা সম্পন্ন শিক্ষক নিয়োগ হয় নাই। অবৈধ ভাবে টাকার বিনিময় এইসব বিএনপি ও জামায়তের লোক নিয়োগ করেছেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী ও সাবেক মানিকছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা পরিষদ সদস্য এমএ জব্বার।

উক্ত বিক্ষোভ মিছিলে বক্তব্য রাখেন মানিকছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি জয়নাল আবেদিন, সাধারন সম্পাদক মো. মাঈন উদ্দিন, যুবলীগ সভাপতি ও ভাইস চেয়ারম্যান তাজুল

ইসলাম বাবুল, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আলমগীর হোসেন আরো বলেন এই প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ বাতিল না হলে দলের সকল সভা সমাবেশ বয়কোট ঘোষনা করেন, এবং পরর্বতীতে হরতাল আবরোধ কঠোর কর্মসূচিসহ জেলাপরিষদ চেয়ারম্যান ও সদস্য কে মানিকছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ একযোগে বয়কট সহকারে তাদেরকে প্রত্যাহারের দাবি জানান।




মানিকছড়িতে যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে, আহত ২৮

মানিকছড়ি প্রতিনিধি:

মানিকছড়ির হেডকোয়াটার এলাকায় বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে ২৮ জন আহত হয়েছেন।স্থানীয়রা জানায়, সকাল ৯ টার সময় চট্রগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা সায়মা পরিবাহন চট্রমেট্রো জ ১১-০০৫৭ খাগড়াছড়ির উদ্দ্যেশে যাত্রী নিয়ে যাওয়ার সময় মানিকছড়ির হেডকোয়াটার এলাকায় পৌছালে বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশের খাদে উল্টে যায়।

এতে বাসের অন্তত ২৮ যাত্রী আহত হয়। আহতদের মাঝে ৫ জনের অবস্থা গুরুত্বর হওয়া তাদেরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্রগ্রাম মেডিকল কলেজ প্রেরণ করা হয়।

আহতদের দেখতে স্থানীয় মেডিকেলে আসেন মানিকছড়ি উপজেলা নিবার্হী অফিসার আহসান উদ্দিন । মানিকছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগ এর সাধারণ সমপাদক মাঈন উদ্দিন ও যুবলীগ এর সহ সভাপতি সামায়ন ফরাজী সামু নিজস্ব অর্থায়নে গুরুতর আহতদের চট্টগ্রাম প্রেরন করেন। আহতদের মাঝে অধিকাংশ স্কুল কলেজের ছাত্র ছাত্রী।আহতদের বাড়ী ফটিকছড়ি, মানিকছড়ি, মাটিরাংগা, বলে জানা যায়।




মানিকছড়িতে ২৩০ পিস ইয়াবাসহ আটক-১

মানিকছড়ি প্রতিনিধি:
মানিকছড়িতে ২৩০ পিস ইয়াবাসহ মো. শামীন হোসেন ওরফে সামির (৩৫)কে শনিবার রাতে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার ১৬ সেপ্টেম্বর রাতে পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অফিসার ইনচার্জ মো. মাইন উদ্দীন খান ও এ.এস.আই (নিঃ) মো. বসির উদ্দীনসহ সঙ্গীয় ফোর্স অভিযান চালিয়ে ২৩০ পিস ইয়াবাসহ মো. শামীন হোসেন ওরফে সামির পিতা-মহি উদ্দীন সাং- চরপাড়া, মাটিরাঙ্গা, খাগড়াছড়িকে আটক করেন।

পরে আটক যুবকের বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা রজু শেষে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। মামলা নং-৩, তারিখ: ১৬.০৯.১৭ খ্রি.।

অফিসার ইনচার্জ মো. মাইন উদ্দী খান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আটক ব্যক্তির বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা দায়ের শেষে আদালতের মাধ্যমে জেল-হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।




মানিকছড়িতে ২৪ রোহিঙ্গাকে আটক করে উখিয়ায় ফেরত

মানিকছড়ি প্রতিনিধি:

মানিকছড়ির পাঞ্জারাম পাড়া ও গুচ্ছগ্রামে এসে আশ্রয় নেওয়া ২৪ রোহিঙ্গা নার-নারী ও শিশুকে বৃহস্পতিবার আটক করে উখিয়ায় শরণার্থী ক্যাম্পে ফেরত পাঠিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সম্প্রতি মায়ানমার রাজ্যের রাখাইনে সহিংসতায় বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গারা বিভিন্ন দিকে ছড়িয়ে পড়ছে মর্মে তথ্য পেয়ে মানিকছড়ি থানা পুলিশ চারিদিকে নজরদারী করে বৃহস্পতিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার পাঞ্জারাম ও গুচ্ছগ্রাম এলাকায় লুকিয়ে থাকা ২৪ রোহিঙ্গা নর- নারী ও শিশুকে আটক করেছে।

এদের মধ্যে ৪ জন মহিলা, ১ জন পুরুষ ও ১৯ শিশু রয়েছে।শিশুরা সকলে ৬-১২ বছর বয়সী।

থানার অফিসার ইনচার্জ মো.মাইন উদ্দীন খান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এসব রোহিঙ্গা নর-নারী ও শিশুদের উদ্ধার করে কক্সবাজার জেলার উখিয়া শরণার্থী ক্যাম্পের উদ্দেশে পুলিশ প্রহরায় পাঠানো হয়েছে। এছাড়া আর কোথাও কোন রোহিঙ্গা লুকিয়ে আছে কিনা খোঁজ নেওয়া হচ্ছে।




মানিকছড়ি থেকে অপহৃত শিশু আনিশাকে উদ্ধার করেছে পুলিশ

মানিকছড়ি প্রতিনিধি:

মানিকছড়ি থেকে অপহরণের ১৫ ঘন্টার মধ্যে শিশু আনিশা(৩)কে চট্টগ্রাম থেকে অপহরণকারীসহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মানিকছড়ি বাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মেসার্স শারমিন ক্লথ স্টোরের মালিক মো. আবদুল হাকিমের ছোট মেয়ে আনিশা আক্তার (৩) গত ১ সেপ্টেম্বর শুক্রবার বিকাল ৫টার পর প্রতিবেশি ভাড়াটিয়া রুমি আক্তার ওরফে আনিশা চকো/ চকলেট কিনে দেয়ার কথা বলে ফুঁসলিয়ে দোকানে নিয়ে পালিয়ে যায়।

সন্ধ্যার পর মেয়ে বাসায় ফিরে না আসায় অভিভাবকরা খুঁজতে বের হয়। রাত ৯টা পর্যন্ত না পেয়ে বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করলে পুলিশ বিষয়টি আমলে নিয়ে তৎপর হয়। প্রথমে সন্দেহভাজন রুমির মাতা, ভাই, বোন, খালাসহ ৬জনকে থানায় ডেকে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

এক পর্যায়ে  রুমি’র মুঠোফোনে কথা হলে আনিশাকে অপহরণের কথা সে স্বীকার করে বলেন, তাকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছে! এ কথা শুনে পুলিশ রুমির প্রকৃত অবস্থান জানার জন্য প্রযুক্তির সহায়তায় মোবাইল ট্রেকিং এর মাধ্যমে অবস্থান নিশ্চিত করেন। পরে রাতেই এসআই গৌতম চন্দ্র দে এর নেতৃত্বে একদল পুলিশ চট্টগ্রামের বায়েজিত থানা পুলিশের সহযোগিতায় বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করে ভোরে এক বাসায় গিয়ে জানতে পারেন যে, গত রাত ৮টার দিকে রুমি ছোট মেয়েটিকে নিয়ে এ বাসায় এলে মালিক মেয়েটির কান্নাকাটি দেখে রুমিকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে বের হয়ে যায়।

পরে পুলিশ সাঁড়াশি অভিযান চালিয়ে সকাল ৮টার দিকে পাশ্ববর্তী বালুছড়া এলাকার সামনে থেকে অপহৃত আনিশাসহ তাকে আটক করে প্রথমে বায়েজিত থানায় এবং পরে মানিকছড়িতে এনে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে নারী ও শিশু অপহরণ মামলা দায়ের করে রবিবার(৩ সেপ্টেম্বর ) সকালে আদালতে প্রেরণ করেন।

থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মাইন উদ্দীন খান জানান, পুলিশ শিশু অপহরণের খবর পেয়ে তৎপর হয় এবং প্রযুক্তির সহযোগিতায় অপহরণকারীর অবস্থান নিশ্চিত হয়ে অভিযান পরিচালনা করে অপহৃতকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।




মানিকছড়িতে বিএনপির ৩৯ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

মানিকছড়ি প্রতিনিধি:
মানিকছড়িতে আলোচনা সভা,দোয়া মাহফিল ও মিষ্টি বিতারনে মধ্যদিয়ে বিএনপির ৩৯ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত হয়েছে। আজ ১ সেপ্টেম্বর শুক্রবার বিকাল ৪ ঘটিকার সময় উপজেলা বিএনপির কার্যালয়ে এ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত হয়।
উপজেলা বিএনপির সভাপতি মো.এম এ করিমের সভাপতিত্বে ও উপজেলা ছাত্রদলের সাধারন সম্পাদক মহি উদ্দিন কিশোর এর সঞ্চালনায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি মো.জাহাঙ্গীর
হোসেন। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসাবে উপস্তিত ছিলেন উপজেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক এনামুল হক।
এতে আরো বক্তব্য রাখেন উপজেলা যুবদলের যুবনেতা মোশারফ হোসেন মেম্বার, প্রধান বক্তা এনামুক হক এনাম বলেন বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার ডাকে ও জেলা বিএনপির সভাপতি ওয়াদুদ ভূঁইয়ার নির্দেশে আগামী যে কোন আন্দোলন সংগ্রামে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থেকে রাজ পথে থাকবো। আগামীতে কোন অগণতান্ত্রিক বাধাকে মেনে নেয়া হবে না।