মাউন্টেন বাইক প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন ঢাকার আলাল উদ্দিন

Bandarban pic-26.3
নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান:
পার্বত্য চট্টগ্রামে পর্যটন শিল্পের বিকাশে সাজেক-নীলগিরি ২৫০ কিলোমিটার ট্যুর ডি সিএইচটি মাউন্টেন বাইক প্রতিযোগিতা বান্দরবানে শেষ হয়েছে। স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ এ্যাডভেঞ্চার ক্লাব যৌথভাবে এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করে।

২৪ মার্চ থেকে তিন দিনব্যাপী প্রতিযোগিতা খাগড়াছড়ির সাজেক হয়ে বান্দরবানের নীলগিরি পর্যন্ত ২৫০ কি.মি. পথ পাড়ি দেয় সাইক্লিস্টরা। এবারের প্রতিযোগিতায় নারীসহ দেশের ৪২ জন সাইক্লিস্ট অংশ গ্রহণ করেন।

রোববার বিকেলে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর বান্দরবান জেলা স্টেডিয়ামে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার ও পদক তুলে দেন।

প্রতিযোগিতায় ৯ ঘণ্টা ৪২ মিনিটি ৩৩ সেকেন্ড ব্যায় করে প্রথম হন ঢাকার আলাল উদ্দিন,  তার হাতে ৮০ হাজার টাকার প্রাইজ মানি তুলে দেন প্রধান অতিথি। ৯ ঘণ্টা ৫৯ মিনিটি ২২ সেকেন্ড ব্যয় করে ২য় স্থান অর্জন করেন একই জেলার আব্দুল্লাহ দ্রুব এবং ১০ ঘণ্টা ১৪ মিনিট ১৪ সেকেন্ড ব্যয় করেন ঢাকার মেহেদি হাসান।

প্রতিযোগিতায় বেস্ট ডিফেন্ডার নির্বাচিত হন মেহেদি হাসান এবং বেস্ট প্রাইমার নির্বাচিত হন আলাউদ্দিন।

এসময় পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ক্যশৈহ্লা, জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার বণিক, পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায়, পৌর মেয়র ইসলাম বেবী, অ্যাডভেঞ্জার ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমানসহ প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।




 আলীকদম প্রেসক্লাব থেকে পতাকা নামিয়ে বখাটে যুবকের ফেসবুকে স্টাটাস

আলীকদম প্রতিনিধি:

মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে আলীকদম প্রেসক্লাবে উত্তোলন করা জাতীয় পতাকা নামিয়ে ফেললেন স্থানীয় এক বখাটে যুবক। করিৎকর্মা এ বখাটে স্থানীয় প্রেসমিডিয়াকে বিতর্কিত করতে রবিবার দুপুরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ‘প্রেসক্লাবে পতাকা উত্তোলন করা হয় নাই‘ মর্মে স্টাটাস দেয়।

প্রেসক্লাব সভাপতি জানান, ২৬ মার্চ ভোর ছয়টার দিকে প্রেসক্লাবে যথারীতি জাতীয় পতাকা তোলা হয়। কিন্তু দুপুরে স্থানীয় নুরুল আলম নামে এক যুবক তার ফেসবুক স্টাটাসে জানায় যে, ‘আলীকদম প্রেসক্লাবে জাতীয় পতাকা তোলা হয় নাই’।

প্রেসক্লাব সভাপতি মমতাজ উদ্দিন আহমদ অভিযোগ করেন, ফেসবুকে স্টাটাস দেয়া যুবক নুরুল আলম পানবাজার উপজাতীয় পল্লীতে অগ্নিসংযোগের অন্যতম হোতা। সম্প্রতি এ ঘটনা নিয়ে স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম তদন্ত শুরু করায় সে ক্ষিপ্ত হয়ে প্রেসক্লাবের পতাকা নামিয়ে ফেলে ফেসবুকে স্টাটাস দেয়। যাতে প্রেসক্লাবকে বিতর্কিত করা যায়। পতাকা নামিয়ে ফেলার বিষয়ে প্রেসক্লাব থেকে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট লিখিত অভিযোগের প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত নুরুল আলমকে রবিবার সন্ধ্যায় কয়েকবার ফোন করা হলেও সে ফোন রিসিভ করেনি।




জাতির পিতার চেতনায় একাত্তরের ন্যায় উদ্বুদ্ধ হয়ে জঙ্গি প্রতিরোধ করতে হবে

26-03-2017 (1) copy

নাইক্ষ্যংছড়ি প্রতিনিধি:

নাইক্ষ্যংছড়িতে যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপন হয়েছে ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস। উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আয়োজিত নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দিনভর দিবসটিকে শ্রদ্ধার সাথে উদযাপন করা হয়। সকাল ৫.৫১মিনিটে ৩১বার তোপধ্বনির পর স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার এসএম সরওয়ার কামালের নেতৃত্বে উপজেলা প্রশাসন, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হামিদা চৌধুরীর নেতৃত্বে উপজেলা পরিষদ, থানা অফিসার ইনচার্জ এএইচ তৌহিদ কবিরের নেতৃত্বে বাংলাদেশ পুলিশ, সভাপতি রাজা মিয়ার নেতৃত্বে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, আহ্বায়ক ক্যউচিং চাক ও সদস্য সচিব মো. ইমরান মেম্বারের নেতৃত্বে উপজেলা আওয়ামী লীগ, সভাপতি নুরুল আলম কোম্পানী ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ কামাল উদ্দিনের নেতৃত্বে উপজেলা বিএনপি, সভাপতি শামীম ইকবাল চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক আবুল বশর নয়নের নেতৃত্বে প্রেসক্লাব, সভাপতি বদুর উল্লাহ ও উবাচিং মার্মার নেতৃত্বে উপজেলা ছাত্রলীগ, ছালেহ আহমদ সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়, মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়, মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

পরে সকাল ৭.৪৫মিনিটে ছালেহ আহমদ সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আনুষ্ঠানিক ভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন উপজেলা চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও থানা অফিসার ইনচার্জ। এরপর ধারাবাহিক ভাবে ক্রীড়া অনুষ্ঠান, পুরষ্কার বিতরণ ও বীর মুক্তযোদ্ধাদের সংবর্ধণা দেওয়া হয়।

উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে ‘সুখী সমৃদ্ধ বাংলাদেশ শীর্ষক’ আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে উপজেলা নির্বাহী অফিসার এসএম সরওয়ার কামাল বলেন, আমাদের স্বাধীনতাকে ধারণ করতে হবে আমাদের হৃদয়ে, চেতনায় এবং আমাদের কন্ঠে। প্রতিটি আচরণে থাকবে স্বাধীনতা এবং মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা। বর্তমানে আমরা মধ্যম আয়ের দেশের দিকে অনেক দূর এগিয়ে এসেছি। তাই আমাদের দায়িত্ব কর্তব্য অনেক বেশি।

তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু কণ্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের দেশকে সামনের দিকে যখন এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন ঠিক সেই মূহুর্তে দেশকে পিছনের দিকে টানার জন্য নানা রকম ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। জঙ্গি হামলায় নাইক্ষ্যংছড়ি বাইশারীর নাম জড়িয়ে যাচ্ছে। স্বাধীনতা দিবসে জাতির পিতার চেতনায় আমাদের উদ্বুদ্ধ হতে হবে, সোনার বাংলা গঠনের জন্য প্রশাসনের পাশাপাশি সর্বস্তরের জনসাধারণকে জঙ্গি প্রতিরোধ এবং জঙ্গি লালনকারীদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে উঠার আহ্বান জানান তিনি।

উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও শহীদদের স্মরণ করে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, বাঙ্গালী জাতি ঐক্যবদ্ধ থাকার কারণে স্বাধীনতা লাভ করেছে বাংলাদেশ। কিন্তু স্বাধীনতার ৪৬ বছর পর  এ দেশকে ব্যার্থ রাষ্ট্র হিসেবে পরিচিত করে তোলার জন্য জঙ্গি হামলা থেকে শুরু করে বিভিন্ন ষড়যন্ত্র চলছে। সর্বস্তরের জনগণকে সেই একাত্তরের ন্যায় জঙ্গি তৎপরতার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়ে প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানান তিনি।

 আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য ক্যউচিং চাক, থানা অফিসার ইনচার্জ এএইচ তৌহিদ কবির, উপজেলা স্বাস্থ্য ও প. প. কর্মকর্তা ডা. মোশারফ হোসেন, উপজেলা শিক্ষা অফিসার আবু আহমদ, এমপি প্রতিনিধি আলহাজ্ব খায়রুল বাশার, হাজী এমএ কালাম ডিগ্রি কলেজ উপাধ্যক্ষ বশিরুল আলম, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা অধ্যাপক মো. শফি উল্লাহ, যুগ্ম আহ্বায়ক তসলিম ইকবাল চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার রাজা মিয়া, আওয়ামী লীগ নেতা ডা. সিরাজুল হক, ডা. মোহাম্মদ ইসমাইল। বক্তব্য রাখেন স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি আবদুস সাত্তার, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ছালামত উল্লাহ প্রমুখ।




লামায় দম্পত্তি খুনের ঘটনায় দুইজন আটক

Lama pic-26.3
নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান
বান্দরবানের লামার ফাঁসিয়াখালীতে উপজাতি দম্পত্তি ক্যাহ্লাচিং মার্মা খুনের ঘটনায় সন্দেহভাজন পিতা-পুত্রকে আটক করা হয়েছে। আটককৃতরা হলেন পার্শ্ববর্তী বাশঁখাইল্লা ঝিরি নতুন মুসলিম পাড়ার মৃত আমির হামজার ছেলে আব্দুল মালেক (৪৫) ও তার পুত্র আলী হোসেন (২৭)।

বান্দরবান পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় খুনের ঘটনায় তদন্ত কর্মকর্তাকে সহায়তা করার জন্য ৭ সদস্য কমিটি গঠন করা করেছেন বলে জানাগেছে। নিহতের বড় ছেলে উহ্লামং মার্মা (৫০) বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামী করে রবিবার লামা থানায় মামলা দায়ের করেন।

এদিকে নিহতের বাড়ি থেকে হত্যার কাজে ব্যবহৃত ছুরি উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতের পরিবারের লোকজন হত্যার কাজে ব্যবহৃত ছুরিটি ধুয়ে পারিবারিককাজে ব্যবহার করছিল বলে তারা পুলিশকে জানিয়েছে।

নিহতের ছেলে উহ্লামং মার্মা জানিয়েছেন, ময়নাতন্ত শেষে দুইজনের লাশ ধর্মীয় নিয়ম অনুসরণ করে রবিবার পারিবারিক শশ্মানে নিহতের দাহ করা হয়েছে।

তদন্ত কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক মাহাবুর জানিয়েছেন, হত্যাকান্ডের ধরন দেখে ধারণা করা হচ্ছে এটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড। সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে হত্যা কান্ডের কারণ ও আসামীদের ধরতে চেষ্টা করা হচ্ছে।

লামা থানার অফিসার ইনচার্জ আনোয়ার হোসেন জানিয়েছেন, সন্দেহভাজন ২ আসামীকে আদালতে চালান দেয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য শনিবার ভোর রাতের নিজ বাসায় সাবেক ইউপি মেম্বার উপজাতি দম্পত্তি ক্যাহ্লাচিং মার্মা (৭০) ও তার স্ত্রী চিংহ্লামে মার্মা (৬৫) খুন করা হয়।




বাইশারীতে যথাযোগ্য মর্যাদায় স্বাধীনতা দিবস উদযাপন

26 copy

বাইশারী প্রতিনিধি:

বান্দরবানের বাইশারীতে যথাযোগ্য রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় বিজয় দিবস উদযাপন করা হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে সকাল ৮টা ৩০মিনিটে স্থানীয় শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন বাইশারী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আলম কোম্পানীর নেতৃত্বে পরিষদ বর্গ, বাইশারী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম বাহাদুরের নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠন, সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, বাইশারী উচ্চ বিদ্যালয়, বাইশারী শাহ নুরুদ্দীন দাখিল মাদ্রাসা, বাইশারী মডেল কে.জি স্কুল, বাইশারী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন ও বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ।

মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে সকাল ৯টার সময় স্থানীয় আওয়ামী লীগ দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, বাইশারী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে বাইশারী হাইস্কুল মাঠে সম্মিলিতভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ডিসপ্লে অনুষ্ঠান ও খেলাধুলা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

বিকাল ৩ ঘটিকার সময় বাইশারী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের উদ্যোগে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের উপর পরিষদ মাঠে এক আলোচনা সভা ও ক্রিড়া, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুরষ্কার বিতরণের আয়োজন করা হয়েছে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাইশারী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ কৃঞ্চ কুমার দাস। যুবলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক এনকে রাশেদেও পরিচালনায় পবিত্র কোরআন ও ত্রিপিটক পাঠের মধ্য দিয়ে শুরু হওয়া অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাইশারী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা জালাল আহাম্মদ।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বান্দরবান জেলা আওয়ামী লীগের কার্য নির্বাহী সদস্য ও বাইশারী ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলম, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম বাহাদুর, সাধারণ সম্পাদক মংথোয়াইলা মার্মা, বাইশারী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলহাজ্ব কামাল হোছাইন, নারিচ বুনিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মংহ্লায়েই মার্মা, করলিয়ামুরা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জাফর আলম, যুবলীগ সভাপতি মোহাম্মদ আবুল কালাম, সাধারণ সম্পাদক নুরুল আলম, স্বেচ্ছা সেবকলীগ সভাপতি বাবুল হোসেন, আওয়ামী লীগ নেতা মৌলানা আব্দুর রহিম, ইউপি সদস্য আব্দুর রহিম, আবু তাহের, আনোয়ার সাদেক, মহিলা সদস্যা সাবেকুন্নাহার, সেলিনা আক্তার বেবী, সমাজ সেবক হাজী নুরুন্নবী প্রমুখ।

আলোচনা সভা শেষে ক্রিড়া ও সাংস্কৃতি অনুষ্ঠানে বিজয় অর্জনকারীদের মাঝে পুরষ্কার বিতরণ করা হয়।




বান্দরবানে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠির এক দম্পতিকে গলা কেটে হত্যা

17505984_10211370929964256_1577948259_n copy

নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান :

বান্দরবানের লামায় ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠির এক দম্পতিকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। শনিবার ভোর রাতে উপজেলার ফাসিয়াখালি ইউনিয়নের ইয়াংছা এলাকার ছোটপাড়ায় নিজ বাড়ীতে এই ঘটনা ঘটে। লামা থানার ওসি আনোয়ার হোসেন এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

নিহতরা হলেন সাবেক মেম্বার ক্ল্যা হ্লা চিং মারমা (৭৫), চিং হ্লা নী মারমা (৫০)। স্থানীয়রা ধারণা করছে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে এই হত্যাকান্ড ঘটতে পারে।

নিহতের মেয়ে মাঅং মার্মা (৪২) বলেন, বাবা-মা দুইজন নিজেদের বাড়িতে একা থাকত। সকালে তাদেরকে রান্না করে দিতে এসে দেখি আমার বাবা মায়ের রক্তাক্ত লাশ বিছানায় পড়ে আছে। আমার চিৎকারে আশপাশের লোকজন সবাই ছুটে আসে।

নিহতের ছেলে মংক্যাহ্লা বলেন, ঘরের আলমারি, সিন্দুক, বক্সের তালা খোলা রয়েছে। সারা ঘর এলামেলো ও জিনিসপত্র গুলো ছড়ানো ছিটানো রয়েছে।

পাড়া কারবারী অংশৈ প্রু মার্মা বলেন, ক্যাহ্লাচিং মার্মা সাবেক মেম্বার। তার জায়গা জমি ও অনেক সম্পত্তি রয়েছে। পাড়ার সবার সাথে তার সম্পর্ক ভাল ছিল।

ঘটনা জানাজানির পর পর লামার ইয়াংছা ক্যাম্পের সেনাবাহিনীর একটি টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

ফাসিয়াখালি ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার আপ্রুচিং মারমা বলেন, আমি সকালে ওনাদের (নিহত দম্পতির) ছেলের কাছ থেকে খবর পাই। খবর পেয়ে পুলিশকে জানাই।

লামা থানার ওসি আনোয়ার হোসেন জানান, এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে আমরা এলাকায় পুলিশ পাঠিয়েছি।




রোয়াংছড়িতে গণহত্যা দিবস পালিত

Rowamgchari pic 25.03

রোয়াংছড়ি প্রনিতিধি :

বান্দরবানে রোয়াংছড়ি উপজেলায় আওয়ামী লীগের উদ্যোগে সারা দেশের ন্যায় ২৫শে মার্চকে আন্তর্জাতিক গণহত্যা দিবস হিসেবে স্বীকৃতি প্রদান করা হোক এ স্লোগানকে সামনে রেখে দিবসটি উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‌্যালি ও আলোচনা সভা রোয়াংছড়ি বাজারস্থ মাল্টিপারপাস প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিত গণহত্যা দিবসের আলোচনা সভায় উপজেলায় আওয়ামী লীগের সভাপতি ও দৈনিক যুগান্তর প্রতিনিধি চহ্লামং মারমার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রোয়াংছড়ি উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যন ও বান্দরবান জেলার আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হ্লাথোয়াইহ্রী মারমা।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও এমপির প্রতিনিধি নেইতংবইতিং বম।

সভায় বক্তারা বলেন গণহত্যা দিবস একটি ঐতিহাসিক দিবস। এ দিবসটি আন্তর্জাতিক দিবস হিসেবে স্বীকৃতি চাই। ঐতিহাসিক এ দিনটি হাজার হাজার মানুষের রক্তে মিশিয়ে আছে। ২৫শে মার্চ রাতে গণহত্যাকারীদের সুষ্ঠ বিচার হওয়ার প্রয়োজন বলেও মনে করেন বক্তারা।

এ সময় দিবসটি উপলক্ষে উপজেলা, ইউনিয়ন এবং ওয়ার্ড থেকে আওয়ামী লীগ সহযোগী সংগঠনে নেতা কর্মীরা অংশগ্রহণ করেন।




রামগড়ে গণহত্যা দিবস পালিত

20170325_111536 copy

রামগড় প্রতিনিধি:

যথাযোগ্য  মর্যাদায়  রামগড়ে  পালিত হয়েছে ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস। উপজেলা প্রশাসন দিবসটি উপলক্ষে এক আলোচনা সভার আয়োজন করে। উপজেলা অডিটোরিয়ামে সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায়  সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী  অফিসার মো. আল মামুন মিয়া।

এতে বক্তব্য দেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান  আব্দুল  কাদের, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার  মো. মফিজুর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতা ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান কাজী নুরুল আলম, রামগড় থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মাইন  উদ্দিন খান, সাংবাদিক মো., নিজাম উদ্দিন লাভলু, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা শাহ আলম প্রমুখ।

সমাজ উন্নয়ন প্রকল্পের উপজেলা কর্মকর্তা মো. মতিউর রহমানের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায়  সহকারী কমিশনার (ভূমি) তামান্না নাসরিন উর্মিসহ বিভিন্ন বিভাগের সরকারী কর্মকর্তা, মুক্তিযোদ্ধা, রাজনৈতিক ব্যক্তি, স্কুলের ছাত্র ছাত্রী ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ  উপস্থিত ছিলেন।




লামায় বিচারের নামে চাঁদাবাজির অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান:

বান্দরবানের লামা উপজেলার রুপসীপাড়া ইউপি সদস্য ও দুজন আওয়ামী লীগের নেতার বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে চাঁদাবাজির অভিযোগ করেছেন মো. ইউছুপ (৩৩) নামে ভাড়ায় চালিত এক মোটরসাইকেল চালক।

সূত্র জানায়, লামা উপজেলার রুপসীপাড়া ইউনিয়নের চিংকুমপাড়া হতে বুধবার প্রেমিকের হাত ধরে এক কিশোরী পালিয়ে যাবার সময় রাতে অংহ্লাপাড়া থেকে নিরাপত্তাবাহিনী উদ্ধার করে। উদ্ধারের পর মেয়েটিকে পিতা মাতার নিকট পৌঁছে দেওয়ার জন্য স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিদের দায়িত্ব দেয় নিরাপত্তা বাহিনী।

বিচারের নামে গন্যমান্য ব্যক্তিগণ মারধর করে রাতে প্রেমিক যুবক মো. রুবেলকে জিম্মি করে ১৪ হাজার টাকার চুক্তি হয়। রাতে ১০ হাজার টাকা উৎকোচ নিয়ে রুবেলকে ছেড়ে দিলেও ভাড়াই চালিত মো. ইউছুপের মোটরসাইকেল আটকে রাখে। বৃহষ্পতিবার বিকালে মো. ইউছুপ ৪ হাজার টাকা দিয়ে মোটরসাইকেল ছাড়িয়ে নেয়। এসময় অভিযুক্ত কয়েকজন তাকে মারধর করে। পরে সে হাসপাতালে ভর্তি হয়।

২৩ মার্চ রুপসীপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. শহিদুল ইসলাম বেপারী, সাধারণ সম্পাদক মো. সাখাওয়াতুল ইসলাম, স্থানীয় মো. সেলিম পিসি ও ৬নং ওয়ার্ড মেম্বার মো. আবুল হোসেনকে চাঁদাবাজি ও মারধরের অভিযোগ করে নির্বাহী অফিসারের নিকট অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগে জানা যায়, তার মোটরসাইকেল আটকে রেখে ৪ হাজার টাকা চাঁদা আদায় করা হয়েছে। বৃহষ্পতিবার বিকালে উল্লেখিত ৪জনের সামনে সেলিম পিসির হাতে নগদ ৪ হাজার টাকা প্রদান করলে তারা মোটরসাইকেলটি ছেড়ে দেয়।

মো. ইউছুপ বলেন, মারধর ও চাঁদার টাকা নেয়ার বিষয়ে বিচার চেয়ে আমি অভিযোগ করেছি। আমি ভয়ে গরু বন্ধক দিয়ে চাঁদার ৪ হাজার টাকা দিয়েছি।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ছাচিং প্রু মার্মা বলেন, জিম্মি করে চাঁদা আদায়ের বিষয়টি দুঃখজনক। আমি এখন বান্দরবানে। টাকা ফেরত দিতে আবুল মেম্বারকে বলেছি।

লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার খিন ওয়ান নু বলেন, অভিযোগটি তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।




লামায় বখাটের লালসার শিকার ৪ বছরের শিশু

শিশু ধর্ষণ

নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান:

বান্দরবানের লামায় মো. আল-আমিন নামের এক বখাটে কিশোরের লালসার শিকার হয়েছে ৪ বছরের এক শিশু। বুধবার দিবাগত রাতে মুমূর্ষ অবস্থায় শিশুটিকে লামা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান তার অভিভাবকরা।

এ সময় চিকিৎসকরা শিশুটির অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। বখাটে আল আমিন লামা পৌরসভার ছাগলখাইয়া এলাকার মো. ইসমাইলের ছেলে।

ধর্ষিত শিশুর অভিভাবকরা জানান, তার পার্শ্ববর্তী বাসার মো. ইসমাইলের ছেলে মো. আল আমিন (১৪) শিশুটিকে খেলার কথা বলে তাদের বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ করে। এতে প্রচুর রক্তক্ষরণ হতে দেখে লামা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন শিশুর অভিভাবকরা। ঘটনা শুনে বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন লামা উপজেলা ও পৌর কমিটির নেতৃবৃন্দরা শিশুটির বাড়িতে যায় এবং শিশুটির খোঁজখবর নেয়। দোষীদের দ্রুত গ্রেফতার করতে প্রশাসনকে অনুরোধ করেন।

 ডা. শফিউর রহমান মজুমদার বলেন, ধর্ষণজনিত রোগী হওয়ার কারণে শিশুটিকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।

 লামা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, ঘটনাটি বিভিন্ন মাধ্যমে শুনেছি। তবে কেউ এখন পর্যন্ত অভিযোগ দায়ের করেনি। অভিযোগ পেলেই আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।