সোমবার ভোর থেকে পৌর কর্মচারিদের দু’দিনের কর্মবিরতি

নিজস্ব প্রতিবেদেক, বান্দরবান
সরকারি কোষাগার থেকে পেনশন এবং বেতন-ভাতা প্রদানের দাবিতে বান্দরবান পৌরসভার কর্মচারীরা ১৫ জানুয়ারি সোমবার ভোর ৬টা থেকে দু’দিনের কর্মবিরতিতে যাচ্ছে। বাংলাদেশ পৌরসভা সার্ভিস এসোসিয়েশন কর্মসূচির ডাক দিয়েছে। দেশের ৩২৭টি পৌরসভায় একযোগে কর্মবিরতি কর্মসূচি চলবে।

সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি মোহাম্মদ আবদুল আলিম মোল্যা স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, কর্মসূচি চলাকালে আগামী ১৬ জানুয়ারি সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত পানি সরবরাহ কার্যক্রম ছাড়া সব ধরনের সেবা বন্ধ রাখা হবে।




পাথর উত্তোলনের দায়ে ৩ জনপ্রতিনিধিকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান:

বান্দরবানের থানচিতে শনিবার ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে পাহাড়ের বিভিন্ন ঝিরি ও ছড়া খাল থেকে অবৈধভাবে পাথর উত্তোলনের দায়ে ৭জন শ্রমিককে আটক ও এ কাজে জড়িত থাকার অভিযোগে ৩জন জনপ্রতিনিধিকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

অভিযুক্ত জনপ্রতিনিধিরা হলেন, থানচি উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান চষাথোয়াই মারমা, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান খামলাই ম্রো ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান উবামং মারমা। পরে মুচলেখা দিয়ে ৭ শ্রমিককে মুক্তি দেয় ভ্রাম্যমান আদালত। বিপুল পরিমান পাথর আইনশৃঙ্খলা বাহিনী হেফাজতে নেয়।

স্থানীয় প্রশাসন সূত্র জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে থানচি উপজেলার বলিপাড়া ইউনিয়নের পাইক্ষ্যং এবং থানচি মৌজায় ঝিরি ও ছড়া খাল থেকে অবৈধভাবে পাথর উত্তোলন খবর পেয়ে থানচি উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহাঙ্গীর আলম ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালায়। এসময় দুটি মৌজায় পাথর উত্তোলনের দায়ে ৭জন শ্রমিককে আটক করে। শ্রমিকদের তথ্য অনুযায়ী তিনজন জনপ্রতিনিধিকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। পরে মুচলেখা দিয়ে শ্রমিকদের মুক্তি দেয়া হয়।




পাথর দস্যুতার কবলে লামা বন বিভাগের মাতামুহুরী রেঞ্জ

আলীকদম প্রতিনিধি:

পাথর দস্যুতার কবলে পড়েছে লামা বন বিভাগের মাতামুহুরী রেঞ্জের সংরক্ষিত বনাঞ্চল। পাথর দস্যুরা এখন বেপরোয়া। স্থানীয় জনগোষ্ঠী ও বন বিভাগের বাধা উপেক্ষা করে চলছে রাতে দিনে পাথর উত্তোলন। এ নিয়ে স্থানীয় বাসিন্দারা অবিলম্বে রিজার্ভ ফরেস্ট থেকে পাথর উত্তোলন বন্ধের দাবিতে প্রধান বন সংরক্ষকের কাছে স্মারকলিপি পাঠিয়েছেন। এছাড়াও অন্যান্য প্রশাসনিক দপ্তরে অভিযুক্তদের নামের তালিকা দিয়ে অভিযোগ করেছেন।

প্রধান বন সংরক্ষকের কাছে দেওয়া স্মারকলিপিতে বলা হয়, বান্দরবান জেলার আলীকদমে মাতামুহুরী রেঞ্জের সংরক্ষিত বনভূমির ওপর দিয়ে ৩৭৬ কোটি টাকা ব্যয়ে আলীকদম-কুরুকপাতা-পোয়ামুহুরী সড়ক নির্মাণ কাজ চলছে। এ বনাঞ্চলটি লামা বন বিভাগের আওতাভূক্ত। ১ লক্ষ ৩ হাজার একর আয়তনের বিশাল এ সংরক্ষিত বনাঞ্চলের খাল ও ঝিরি থেকে অবৈধ ভাবে লাখ লাখ ঘনফুট পাথর উত্তোলনের চেষ্টা চলছে।

আলীকদম উপজেলা নির্বাহী অফিসার(ইউএনও) মোহাম্মদ নায়িরুজ্জামান বলেন, বর্তমানে আলীকদম উপজেলায় কোন ঝিরি-খাল থেকে পাথর উত্তোলনের সরকারি অনুমতি নেই। আমার দপ্তর থেকে অবৈধ পাথর উত্তোলন বন্ধে গত ২ জানুয়ারি একটি পত্র দেওয়া হয়েছে সংশ্লিষ্ট সকল দপ্তরে।

অভিযোগকারী পারাও ম্রো বলেন, বর্তমানে মাতামুহুরী রিজার্ভের ঠাণ্ডারঝিরি, ধুমচিখাল, বুঝিখাল, তুলাতলী, বাগানঝিরি, মহেশখালীঝিরি, ক্রাইক্ষ্যংকলারঝিরি, বলিরঝিরি, কালাইয়ারছড়া, কচুরছড়া, লাম্বু, বাম্বু ও ফুইট্টারঝিরি থেকে নির্বিচারে পাথর আহরণ করা হচ্ছে। এসব পাথর উত্তোলন ও পরিবহন কাজে আলীকদমের আবুমং মার্মা, জামাল ওরফে বাইট্টা জামাল, ইউনুচ, আবুলকালাম ঠিকাদার, শুভরঞ্জন, নাছির, ইলিয়াছ, মংচিংথোয়াই ও অংহ্লাচিংএবংচট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার আব্দুর রহিম জড়িত।

স্মারকলিপিতে দাবি করা হয়, আব্দুর পাথর উত্তোলনের কাজে জড়িত শ্রমিক এবং ব্যবসায়ীরা একটি সরকারি সংস্থার মদতপুষ্ট।

অভিযুক্ত আবু মংমার্মা বলেন, আমি রিজার্ভের বেশ কয়েকটি ঝিরি থেকে পাথর উত্তোলনের অনুমতি চেয়ে জেলা প্রশাসকের কাছে আবেদন করেছি। প্রশাসন তদন্তের মাধ্যমে পাথর উত্তোলনের অনুমতি দিলেই আমি পাথর তুলবো। অপরদিকে, আবুল কালাম ঠিকাদার বলেন, আমি রিজার্ভের বাইরে থেকে নানান উপায়ে পাথর সংগ্রহ করছি। এসব পাথর সরকারি কাজে ব্যবহার হবে।

উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান কাইন থপ ম্রো বলেন, নির্বিচারে পাথর উত্তোলন করার কারণে এলাকার পরিবেশ-প্রকৃতির ক্ষতির আশঙ্কা আছে। স্থানীয় বাসিন্দারা এসব নিয়ে স্মারক লিপি ও অভিযোগ পেশ করায় আমাকে একটি সংস্থার লোকজন গত সপ্তাহে ডেকে নিয়ে হুমকী ও নাজেহাল করেছেন। এখন কোথাও অভিযোগ করার উল্টো অভিযোগকারীরাই হয়রানীর শিকার হচ্ছে।

মাতামুহুরী রেঞ্জের ভারপ্রাপ্ত রেঞ্জ কর্মকর্তা খন্দকার সামসুল হুদা বলেন, বিভিন্ন ঝিরি ও খাল থেকে পাথর উত্তোলনের খবর পাওয়া যাচ্ছে। পাথর শ্রমিক ও পাচারকারী চক্রের বিরুদ্ধে বনকর্মীরা রাতদিন কাজ করে যাচ্ছে। হাতেনাতে পাথর শ্রমিক, ব্যবসায়ী কিংবা পরিবহনে জড়িত গাড়ি পেলেই বনআইনে মামলা দেওয়া হবে।

লামা বিভাগীয় বন কর্মকর্তা কামাল উদ্দিন আহমেদ বলেন, বনআইন ১৯২৭ মতে পাথর হচ্ছে বনজ সম্পদ। বন বিভাগের অনুমতি ছাড়া যারা পাথর উত্তোলন করছে তাদেরকে হাতেনাতে ধরা গেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কোনো ভাবেই সংরিক্ষত বনভূমি থেকে পাথর উত্তোলন করতে দিবে না বনবিভাগ।




বান্দরবানে কালের কণ্ঠ’র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত

নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান:

কেক কাটা ও আলোচনা সভার মধ্য দিয়ে বান্দরবানে দৈনিক কালের কণ্ঠ’র অষ্টম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত হয়েছে।

বুধবার(১০ জানুয়ারি) পৌর মিলনায়তনে শুভসংঘ, বান্দরবান জেলা শাখার আয়োজনে বাংলাদেশের সংবাদপত্র ও সাম্প্রতিক চ্যালেঞ্জ সমূহ শীর্ষক আলোচনা সভার প্রধান অতিথি ছিলেন পৌরসভার মেয়র মোহাম্মদ ইসলাম বেবী।

বান্দরবান প্রেসক্লাবের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বাচ্চুর সভাপতিত্বে মাসিক চিম্বুক সম্পাদক মোহাম্মদ বাদশা মিয়া, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার (বাসস) প্রতিনিধি এনামুল হক কাশেমী, বান্দরবান পৌরসভার সচিব তৌহিদুল ইসলাম বিশেষ অতিথি ছিলেন। অনুষ্ঠানে স্বাগত ভাষণ দেন বান্দরবানে কালের কণ্ঠ’র স্টাফ রিপোর্টার মনিরুল ইসলাম মনু।

আলোচনা সভা শেষে জন্মদিনের কেক কাটেন প্রধান অতিথি মেয়র মোহাম্মদ ইসলাম বেবী। অনুষ্ঠানে বক্তারা কালের কণ্ঠ’র অগ্রযাত্রা ও মঙ্গল কামনা করেন।

তারা বলেন, প্রগতিশীল দৈনিক কালের কণ্ঠ ইতিমধ্যেই পাঠক প্রিয়তা অর্জন করেছে। অগ্রসর পাঠকের দৈনিক কালের কণ্ঠ সমাজের সকল ভালো কাজের সঙ্গে থাকবে। সরকারের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলেও প্রত্যাশা করেন বক্তারা।




লামায় কোয়ান্টামে বিনামূল্যে স্বাস্থ্য সেবা

নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান:

বান্দরবানের লামা উপজেলায় কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশন’র উদ্যোগে ২৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে অসহায় ও দরিদ্রদের বিনামুল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ প্রদান করা হয়েছে। শুত্রুবার(৫জানুয়ারি) উপজেলার সরই ইউনিয়নের দুর্গম পাহাড়ি বধিছড়াস্থ কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের শাফিয়ান মিলনায়তনে সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত প্রায় ছয় হাজার রোগীকে চিকিৎসা সেবা দেয়া হয়।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন প্রফেসর ও বিজ্ঞানী ড. এম শমশের আলী। এ সময় কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান শহীদ আল্ বোখারী (গুরুজি)সহ প্রতিষ্ঠানটির পরিচালকসহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপাস্থিত ছিলেন।

সূত্র জানায়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর প্যালিয়েটিভ কেয়ার’র বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. নিজাম উদ্দিনের নেতৃত্বে ঢাকা ও চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ১০৪জন চিকিৎসক স্ব্যাস্থ্য সেবায় অংশ নেয়। মেডিসিন, হৃদরোগ, দন্ত, চর্ম, শিশু, সার্জারি, চক্ষু, নাক-কান-গলা, অর্থোপেডিক্স, স্ত্রী ও প্রসূতি বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক আগত রোগীদের নানা রোগের চিকিৎসা সেবা দেন।




বান্দরবানের মটর সাইকেল চালক নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান:

বান্দরবানের থানছি সড়কের জীপ গাড়ির ধাক্কায় মটর সাইকেল চালক ছাত্র মতিন তংচঙ্গ্যা(২৩) নিহত হয়েছেন।

শুক্রবার(৫জানুয়ারি) বান্দরবান থেকে পর্যটন স্পট নীলগিরিতে যাওয়ার পথে ৫০৫৬নং জীপ গাড়ির ধাক্কায় সড়ক থেকে ছিটকে পড়ে। সে বান্দরবান সদর উপজেলা রেছা থলি পাড়া স্বর্ণ কুমার তংচঙ্গ্যার ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, নীলগিরিতে বেড়ানোর কথা বলে বাসা থেকে মটর সাইকেল নিয়ে তিন বন্ধু বের হয়। সকালে নীলগিরি পাশ্ববর্তী এলাকার যাত্রীবাহী জীপ গাড়ি ধাক্কায় মতিন ঘটনার স্থলে নিহত হয়েছে বলে সদর থানার পুলিশের এসআইশাহ আলম সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।




বান্দরবানে বৌদ্ধ ভিক্ষুর শেষকৃত্য

নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান:

বান্দরবানের রোয়াংছড়ি উপজেলার নাচালংপাড়া বৌদ্ধ বিহারের প্রয়াত বৌদ্ধ ভিক্ষু (ভান্তে)উ নাইন্দা সারার শেষকৃত্য অনুষ্ঠান শুক্রবার(৫জানুয়ারি) করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে তার মরদেহ বৌদ্ধ বিহার থেকে মাঠে আনা হয়। ঐতিহ্যবাহী প্রয়াত ভান্তের মঙ্গল কামনায় ভগবান বুদ্ধের উদ্দেশ্যে দুই দিনব্যাপী উৎসর্গ নৃত্য পরিবেশন করেন স্থানীয় যুবকরা।

বান্দরবান জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্যশৈহ্লাসহ বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী হাজার হাজার নারী পুরুষ শেষকৃত্য অনুষ্ঠানে যোগ দেয়।




বান্দরবানে বিএনপির গণতন্ত্র হত্যা দিবসে পুলিশের লাঠিচার্জ, আটক ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান:

বান্দরবানে বিএনপিকে গণতন্ত্র হত্যা দিবসের কর্মসূচিতে মিছিল-সমাবেশ করতে দেয়নি পুলিশ। সকালে দলীয় কার্যালয় থেকে কেন্দ্রীয় কর্মসূচি পালনে জেলা বিএনপির সভানেত্রী মাম্যাচিং ও সিনিয়ার সহ-সভাপতি অধ্যাপক ওসমান গণির নেতৃত্বে কালো পতাকা হাতে নেতাকর্মীরা শহরের মাদ্রাসা শপিং কমপ্লেক্সের সামনে আসলে বাধা দেয় পুলিশ।

পরে সেখানে সড়কে বসে কালো পতাকা হাতে প্রতিবাদ জানান নেতাকর্মীরা। সড়কে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির কারণে পুলিশের সাথে নেতাকর্মীরা বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ে। পুলিশের বাধা উপেক্ষা করে তারা সমাবেশ করতে চাইলে পুলিশ লাঠিচার্জ করে নেতাকর্মীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

ঘটনাস্থল থেকে জেলা ছাত্রদলের সভাপতি সাবিকুর রহমান জুয়েল, কলেজ ছাত্রদল সভাপতি মোরশেদ ওমর রাশেদ এবং সদস্য মো. রাসেলকে পুলিশ আটক করে। পরে কয়েক দফা নেতা কর্মীরা মিছিল করার চেষ্টা করেও পুলিশের তৎপরতায় তা ব্যর্থ হয়।

পরে এক সংবাদ সম্মেলনে ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই আটক নেতাকর্মীদের নিঃশর্তে মুক্তি না দিলে কঠোর আন্দোলনের হুমকি দেন বিএনপি নেতারা।

তবে পুলিশ বলছে, বিনা অনুমতি ও নিষেধ সত্ত্বেও কর্মসূচি পালনের চেষ্টা করলে পুলিশ বাঁধা দেয়।

সূত্র জানায়,  বিএনপির তিন নেতাকে আটকের পর  সকাল সাড়ে ১১টায় শহরের ফুড প্যালেস রেস্টুরেন্টে জেলা বিএনপির সভাপতি ম্যাম্যা চিংয়ের সভাপতিত্বে এক সংবাদ সম্মেলন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি অধ্যাপক মো. ওসমান গনি ও সাধারণ সম্পাদক মো. জাবেদ রেজা।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি নেতারা অভিযোগ করে বলেন, বিএনপির শান্তিপূর্ণ মিছিল ও সমাবেশে পুলিশ লাঠিচার্জ করে তিন নেতাকর্মীকে আটক করে নিয়ে গেছে। আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আটক নেতাকর্মীদের নিঃশর্তে মুক্তি না দিলে তারা কঠোর আন্দোলন যাবেন।

বান্দরবান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. গোলাম সরোয়ার বলেন, বিনা অনুমতি ও পুলিশের নিষেধ অমান্য করে তারা কর্মসূচি পালনের চেষ্টা করে। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে তাদের তিন নেতাকর্মীকে আটক করে আইনি প্রক্রিয়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অন্যদিকে জুমার নামাজের পর থেকে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা কর্মীরা খণ্ড খণ্ড মিছিল করছে। বিকালে বঙ্গবন্ধু মুক্তমঞ্চে গণতন্ত্র রক্ষা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা করা হবে বলেও জানা গেছে।




বান্দরবানে ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান:

নানা আয়োজনে বান্দরবানে ছাত্রলীগের ৭০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে দিনের শুরুতে দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। পরে স্থানীয় রাজার মাঠ থেকে শোভাযাত্রা শুরু করে শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে বঙ্গবন্ধু মুক্তমঞ্চে শেষ হয়। ব্যানার ও প্লাকার্ড নিয়ে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ও এর অঙ্গ সংঠনের নেতাকর্মীরা শোভাযাত্রায় অংশ নেয়। পরে আলোচনা সভা ও কেক কাটা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি। তিনি বলেন, ১৯৪৮ সালের ৪ঠা জানুয়ারি জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। দীর্ঘ পথ চলায় এই সংগঠনের রয়েছে অনেক সুনাম। বায়ান্নের ভাষা আন্দোলন, যুক্তফ্রন্ট নির্বাচন, ছয় দফা আন্দোলন, ৬৯ গণঅভুখ্যান, ৭১ সালে স্বাধীনতা মুক্তিযুদ্ধ, ১৯৮৩ সালের শিক্ষা আন্দোলন ও  স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনসহ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে ছাত্রলীগ। এছাড়া বিভিন্ন সময়ের প্রাকৃতিক দূর্যোগ বন্যা, পাহাড় ধস ও রোহিঙ্গাদের সাহায্যে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে প্রশংসা কুড়িয়েছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

তিনি বলেন, আগামী জাতীয় নির্বাচনে নৌকার পক্ষে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের অক্লান্ত পরিশ্রম করে জয় নিশ্চিত করতে হবে। ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীর ত্যাগের মাধ্যমে যেমন দেশ স্বাধীন হয়েছিল তেমনি তাদের হাত ধরে  বাস্তবায়ন হবে রুপকল্প ২০৪১।

এসময় জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. শফিকুর রহমান, সহ-সভাপতি একেএম জাহাঙ্গীর, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইসলাম বেবী, আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য কাজল কান্তি দাশ, জেলা পরিষদের সদস্য লক্ষীপদ দাস, মোজাম্মেল হক বাহাদুর, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি অমল কান্তি দাশ, সাধারণ সম্পাদক সামশুল ইসলাম, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি কাউছার সোহাগ, সাধারণ সম্পাদক জনি সুশীল, কলেজ ছাত্রলীগের আহ্বায়ক নাজমুল হোসেন বাবলু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।




বান্দরবানে শুরু হয়েছে আন্তর্জাতিক ক্বেরাত প্রতিযোগিতা

নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান:

বান্দরবানে শুরু হয়েছে ২দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক ক্বেরাত মাহফিল ও শানে রেসালত সম্মেলন। মঙ্গলবার শহরে কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠে বান্দরবান জেলা আ-ইম্মা ও উলামা পরিষদের উদ্যোগে দেশি বিদেশি আলেম ও ক্বারীদের নিয়ে সম্মেলন শুরু হয়। সম্মেলনে জেলার বিভিন্ন মাদ্রাসার ছাত্ররা ক্বেরাত প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছে।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার রায়। এসময় মিশরের ক্বারী শায়খ রাফআত হোসাইন, পাকিস্তানের ক্বারী শায়খ ইব্রাহিম কাছি, তান্জানিয়ার ক্বারী শায়খ রেজা আইয়ুব, ইরানের হামেদ শাকের নেজাদ, ভারতের ক্বারী শায়খ মুহাম্মদ আলী খাঁন ও ক্বারী শায়খ ইউনুস আলী এবং পটিয়ার ক্বারী আমদুল হক।

দ্বিতীয়দিন ওয়াজ করবেন আল্লামা মোস্তফা নুরী, মুফতি সাইফুল ইসলাম বিন মুজাদ্দেদী, মাওলানা আলাউদ্দিন ইমামী, মাওলানা ক্বারী নুরুল আমিন, মাওলানা আবদুর রহমান হোসাইনী এবং মাওলানা আজিজুল হক।