থানচিতে নৌকা ডুবে একজন নিখোঁজ

থানচি প্রতিনিধি:

থানচি থেকে নাফাখুম যাওয়ার পথে বড় ইয়াংরে চং এ নৌকা ডুবে এক শ্রমিক নিখোঁজ হয়েছে। রবিবার দুপুর ২টায় থানচি থেকে তিন্দু গ্রোপিং পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নির্মানাধীণ ভবনের নির্মাণ সামগ্রী রড নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। বিকাল ৩টায় বড় ইয়াংরে নামক স্থানে পৌছলে নদীতে পানির শ্রোত অতিরিক্ত বয়ে যাওয়ায় নৌকা ডুবে যায়।

ঘটনাস্থলে এক নির্মাণ শ্রমিক নিখোঁজ হন।নিখোঁজ শ্রমিককে পুলিশ ও বিজিবি উদ্ধারের চেষ্টা চালাচ্ছে। তিন্দু গ্রোপিং পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবন নির্মাণের ঠিকাদার  এলজিইডি ৪র্থ শ্রেণির কর্মচারী মোহাম্মদ রোকন মিঞা জানান, নিখোঁজ শ্রমিকের বাড়ি নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায়।




থানচিতে মং শৈ ম্রই এর কুশপুত্তলিকা দাহ ও অবাঞ্চিত ঘোষণা

থানচি প্রতিনিধি:

বিএনপি বান্দরবান জেলা সভাপতি সাচিংপ্রু জেরীর নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় নেতাদের নির্দেশক্রমে সম্প্রতি থানচিতে সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন অভিযানের উপজেলা বিএনপি সাধারণ সম্পাদক মং শৈ ম্রই মারমা সংগঠনক সম্পর্কে ফেসবুক, সামাজিক মাধ্যমে বিভিন্ন অপপ্রচার চালিয়েছিল।

তাকে দলীয় শৃঙ্ক্ষলা ভঙ্গের অভিযোগে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ও কেন্দ্রীয়  যুব দলের উপজাতী বিষয়ক সম্পাদক পদ থেকে বহিস্কারের সুপারিশ ও মংশৈ ম্রই মারমা’র কুশপুত্তলিকা আগুনে পুরিয়ে  থানচিতে তাকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করা হয়েছে ।

এই উপলক্ষ্যে উপজেলা বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় বলিপাড়া বাজার প্রাঙ্গনে তিন শতাধিক নেতাকর্মীর অংশ গ্রহনের মধ্য দিয়ে এক বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা আয়োজন করে।

বিএনপির সহ-সভাপতি ক্যসাউ মারমার সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সভায় সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও বিএনপি সভাপতি খামলাই ম্রো প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন । অন্যান্যর মধ্যে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন সহ-সভাপতি নসরাং ত্রিপুরা, সদর ইউনিয়ন সভাপতি আবু নোমান, ছাত্র দলের সভাপতি জওয়াইপ্রু মারমা, যুব দলের সভাপতি লাপ্রা ত্রিপুরা, বিএনপি সদস্য মংএনু মারমা, উচমং মারমা, মংসাগ্য মারমা, মংসিংহাইন মারমা, শৈবাথোয়াই মারমা, আনিচান্দ ত্রিপুরা, লালপিয়াম বম, মালা বম প্রমূখ ।




থানচিতে বিএনপি’র সদস্য সংগ্রহ অনুষ্ঠান সম্পন্ন: সাবেক সাংসদ সাচিংপ্রু জেরী

থানচি প্রতিনিধি:

সাবেক সাংসদ ও বান্দরবান জেলা বিএনপি’র সভাপতি সাচিংপ্রু জেরী বলেন, ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে ধানের শীষের জন্য কাজ করুন। অতীত ভুলে সামনে এগোনো আমাদের লক্ষ্য।

তিনি আরও বলেন, সরকার সারা দেশের জনগণের উন্নয়নের নামে মানুষের সাথে ধোকাবাজি ছাড়া কিছু করেছেনা। সরকার দেশ পরিচালনায় ব্যর্থতা কাঁধে নিয়ে জনগণের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে। দেশনেত্রী ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার হাতকে শক্তিশালী করার প্রত্যয়ে একযোগে কাজ করার আহ্বানও জানান তিনি।

থানচি উপজেলার ৪টি ইউনিয়ন ও ৩৬টি ওয়ার্ডে ৫ হাজার সদস্য ফরম বিতরণ ও জমার মধ্য দিয়ে রবিবার সকাল ১০টায় স্থানীয় পর্যটন মোটেল থানচি কুটির ময়দানে বিএনপি’র সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন অভিযান সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথা বলেন।

উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান খামলাই ম্রোর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন সাবেক জেলা পরিষদের সদস্য লুসাইমং, জেলা বিএনপি’র অর্থ সম্পাদক চিংসাপ্রু কেসি,  রোয়াংছড়ি উপজেলা বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক মংচিংসা মারমা, এ্যাডভোকেট মাংদুই ম্রো, থানচি উপজেলা বিএনপ’র সহ-সভাপতি ক্যসাউ মারমা, নসরাং ত্রিপুরা, লাপ্রাত ত্রিপুরা, রাম্বু ত্রিপুরা, যুবদলের সভাপতি মংসিংহাই মারমা, মংপ্রুশে মারমা, উহ্লামং মারমা, উবামং মারমা, মংএনু মারমা, অংসাথুই হেডম্যান, হাবরু হেডম্যান, চথোয়াইউ মারমা, বিজয় ত্রিপুরা, জয়প্রু মারমা, আবু নোমান, বিনয় ত্রিপুরা, আনিচাঁন্দ ত্রিপুরা প্রমূখ।

সভা শেষে উপস্থিত ৫ হাজার নেতাকর্মী ও সমর্থকদের মাঝে বিএনপি’র সদস্য ফরম প্রদান করা হয় এবং সদস্য ফরমে স্বাক্ষর করে জমা দেয় কর্মীরা।




থানচিতে মোরা ও প্রবল বর্ষণে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মধ্যে সহায়তা প্রদান করলেন বিএনকেএস

থানচি প্রতিনিধি:

১৩ জুন প্রবল বর্ষণ ও পাহাড় ধসের ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে সহায়তা দিল স্থানীয় এনজিও বিএনকেএস । সকাল ১০টায় তিন্দু ইউনিয়ন পরিষদ সভা কক্ষে এ সহায়তা প্রদান করা হয় । এ উপলক্ষ্যে দাতা সংস্থা একশনএইড বাংলাদেশ এর সহযোগীতায় এনজিও সংস্থা বিএনকেএস এর উদ্যোগে এক আলোচনা সভার  আয়োজন করেন।

সভায় নারী নেত্রী ও ইউপি সদস্য থুইসাংমা খিয়াং এর সভাপতিত্বে ইউপি চেয়ারম্যান মংপ্রুঅং মারমা প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

সভা শেষে তিন্দু ইউনিয়নের ৯৪ টি হত দরিদ্র পরিবারের মাঝে দুই স্তরের স্থানীয় এনজিও সংস্থা বিএনকেএস, দাতা সংস্থা একশনএইড বাংলাদেশ এর সহযোগীতায় সম্পূর্ণ ক্ষতিগ্রস্ত ৪০ পরিবারকে ৯ হাজার টাকা, মাঝারি ক্ষতিগ্রস্ত ৫৪ পরিবারকে ৪ হাজার টাকা করে সহায়তা প্রদান করেন।

এসময় প্রেসক্লাবের সভাপতি অনুপম মারমা, সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম শহীদ, তিন্দু ক্যাম্প কমান্ডার সোবেদা আবু সামাদ, বিএনকেএস এর প্রোগ্রাম ম্যানেজার প্রেসল চাকমা, ইউপি মেম্বার বিল্লাস ত্রিপুরা, চাইসিংমং মারমা, সুজন ত্রিপুরা প্রমূখ বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ।




থানচিতে ফায়ার সার্ভিস স্টেশন উদ্বোধন

নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান:

বান্দরবানের দুর্গম থানচি উপজেলায় ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের উদ্বোধন করা হয়েছে। শনিবার সকালে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের ২ কোটি ৫০ হাজার টাকা অর্থায়নে ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের উদ্বোধন করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন বলিপাড়া ৩৩ বিজিবি’র অধিনায়ক লে. কর্ণেল মো. হাবিবুল হাসান, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ তানভীর আজম ছিদ্দিকী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলী হোসেন, জেলা পরিষদের সদস্য লক্ষীপদ দাশ, থোয়াইহ্লামং মারমা, সদস্য ফিলিপ ত্রিপুরা, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড বান্দরবান ইউনিটের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আবদুল আজিজ, উপজেলা চেয়ারম্যান ক্যহ্লাচিং মারমা, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ জাহাঙ্গির আলম প্রমুখ।

অনুষ্ঠান শেষে ১৩ জুন পাহাড় ধ্বসে ক্ষতিগ্রস্ত ৩১৫ হত দরিদ্র পরিবারের মধ্যে বিএনকেএস ও এইডশান এইড বাংলাদেশ সহযোগীতায় ৮৭ পরিবারকে ৯ হাজার টাকা এবং ২২৮ পরিবারকে ৪ হাজার টাকা আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়।

বীর বাহাদুর বলেন, শান্তি চুক্তির সুফল হচ্ছে পার্বত্য এলাকার উন্নয়ন। পাহাড়ে মানুষ যত শান্তিতে বসবাস করবে তত অর্থনৈতিক উন্নয়ন, শিক্ষা, রাস্তা-ঘাট ও অবকাঠামোর উন্নয়ন হবে।

পরে ২৫ লক্ষ টাকা ব্যয়ের উপজেলা পরিষদ ভবন সংস্কার, ৪৫ লক্ষ টাকা ব্যায়ের থানচি উপজেলা রেস্ট হাউজের উদ্বোধন করেন।




পার্বত্য এলাকায় উন্নয়নের জোয়ার বয়ে যাচ্ছে: পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী

থানচি প্রতিনিধি:

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বলেন, ১৯৯৭ সালে ২রা ডিসেম্বর চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছিল বলেই আজ পার্বত্য এলাকার উন্নয়নের জোয়ার বয়ে যাচ্ছে। এ ধারা অব্যাহত রাখতে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি।

শনিবার সকাল ১০টায় থানচি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় অডিটরিয়াম হলে দাতা সংস্থা একশন এইড বাংলাদেশ সহযোগিতা এনজিও সংস্থা বিএনকেএস আয়োজনের  গত ১৩ জুন হতে অতিবৃষ্টি ও পাহাড় ধ্বসে ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে আর্থিক সহায়তা প্রদান ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় তিনি সম্পূর্ণ ক্ষতিগ্রস্ত ৩১৫ হত দরিদ্র পরিবারের মাঝে দুই স্তরের স্থানীয় এনজিও সংস্থা বিএনকেএস, দাতা সংস্থা একশনএইড বাংলাদেশ সহযোগিতায় সম্পূর্ণ ক্ষতিগ্রস্ত ৮৭ পরিবারকে ৯ হাজার টাকা, মাঝারি ক্ষতিগ্রস্ত ২২৮ পরিবারকে ৪ হাজার টাকা করে সহায়তা প্রদান করেন।

সভা শেষে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের অর্থায়নের উপজেলা সদরের ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের ২কোটি ৫০হাজার টাকা ব্যয়ের  ভবন নির্মাণ, ২৫ লক্ষ টাকা ব্যয়ের উপজেলা পরিষদ ভবন সংস্কার, ৪৫লক্ষ টাকা ব্যয়ের  থানচি উপজেলা রেস্ট হাউজ নির্মাণ উদ্বোধন করেন।

এ সময় বলিপাড়া ৩৩ বিজিবি’র সিও লে. কর্ণেল মো. হাবিবুল হাসান পিএসসি, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ তানভীর আজম ছিদ্দিকী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলী হোসেন, পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য লক্ষীপদ দাশ, সদস্য থোয়াইহ্লামং মারমা, সদস্য ফিলিপ ত্রিপুরা, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড বান্দরবান ইউনিটের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আবদুল আজিজ, উপজেলা চেয়ারম্যান ক্যহ্লাচিং মারমা, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ জাহাঙ্গির আলম, দাতা সংস্থা একশনএইড বাংলাদেশ কান্ট্রি ডিরেক্টর ফারাহ্ কবীর, স্থানীয় এনজিও সংস্থা বিএনকেএস এর নির্বাহী পরিচালক হ্লাসিংনু মারমাসহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।




পার্বত্য প্রতিমন্ত্রীর আগমনে থানচিতে ব্যাপক প্রস্তুতি 

থানচি প্রতিনিধি:

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ও বান্দরবানের সাংসদ বীর বাহাদুর (উশেসিং) এর আগমন উপলক্ষ্যে নতুন করে সাজানো হয়েছে থানচি উপজেলাকে। আগামি ২২ জুলাই সকাল ৯.৪০টা থানচি উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গনে উপস্থিত হবেন।

এ উপলক্ষ্যে উপজেলা পরিষদ, প্রশাসন যৌথ উদ্যোগে কঠোর নিরাপত্তা বেস্টনি, সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীরা অগমনকে শুভেচ্ছা অভিনন্দন জানাতে সাংগু সেতু শেষ অংশে ও বাস স্টেশন সংলগ্ন এলাকা গেইট নির্মাণ কাজ চলছে।

তিনি সরকারি উন্নয়ন তহবিল হতে নব নির্মিত ও বাস্তবায়িত বেশ কয়েকটি প্রকল্পের উদ্বোধন ও নতুন প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন করে জনসাধারণ ব্যবহারের উপযোগী করে তুলবেন। প্রকল্পের থানচি কলেজ ভবন, ফাইয়ার সার্ভিস স্টেশন ভবন, উপজেলা নির্বাহী অফিসারের বাস ভবন, ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন ও উপজেলা পরিষদের পুরনো ভবন নবায়ন ও সংস্কারের উদ্বোধন করবেন। এছাড়াও স্থানীয় দরিদ্র লোকদের মাঝে মানবিক সহায়তা প্রদান ও বেশ কয়েকটি সোলার প্যানেল বিতরণ করবেন।

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী  বীর বাহাদুর (উশৈসিং) এমপির আগমন উপলক্ষ্যে নব নির্মিত ভবন, রাস্তা ইত্যাদিতে নতুন রুপে সাজানো হয়েছে। উপজেলা পরিষদ, প্রশাসন ও সংশ্লিষ্টরা ইতিমধ্যে আইন শৃঙ্খলা নিরাপত্তা বেস্টনিসহ সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর (উশৈসিং) এমপি এর সাথে জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, পার্বত্য উন্নয়ন বোর্ড এর নির্বাহী প্রকৌশলী, জেলা পরিষদ নির্বাহী প্রকৌশলী ও শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলীগণ সাথে থাকবেন বলেও আশা করছেন।

উপজেলা চেয়ারম্যান ক্যহ্লাচিং মারমা জানান, থানচিবাসীদের প্রাণ প্রিয় নেতা পার্বত্য বীরকে আমাদের অফুরন্ত ভালবাসা শ্রদ্ধা নিবেদনের মাধ্যমে বরণ করা এবং নিরাপত্তা বেস্টনিসহ সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে।




জীবন নগরে নতুন পর্যটন কেন্দ্র উদ্বোধন করলেন ডিসি

থানচি প্রতিনিধি:

বান্দরবানে থানচি, রুমা ও  লামা উপজেলার ত্রি-সীমান্তে জীবন নগর নামক স্থানে নতুন পর্যটন কেন্দ্র উদ্বোধন করেন বান্দরবানের জেলা প্রশাসক দিলিপ কুমার বণিক।

শনিবার বিকাল ৪টায় উদ্বোধনের মাধ্যমে পর্যটন কেন্দ্রটির নতুন সূচনা করা হলো। পর্যটন কেন্দ্রটির নামকরণ করা হয়েছে ’নীল দিগন্ত’। থানচি উপজেলা প্রশাসন ও পরিষদের যৌথ উদ্যোগে এই পর্যটন কেন্দ্রটি নির্মিত হয়েছে।

উদ্বোধনের সময় জেলা প্রশাসক দিলিপ কুমার বণিক ছাড়াও অফিস প্রোগ্রামার ফরিদুল আলম, ম্যাজিস্ট্রেট সর্ব বিদ্যা, মিকি মারমা, উপজেলা চেয়ারম্যান ক্যহ্লাচিং মারমা, নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ জাহাঙ্গির আলম, ভাইস চেয়ারম্যান চসাথোয়াই মারমা, বান্দরবান প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও পূর্বকোণ প্রতিনিধি মিনারুল হক উপস্থিত ছিলেন।

সংশ্লিষ্টরা জানান, পার্বত্য অঞ্চলে পর্যটক যে হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে, তাই পর্যটকদের উৎসাহিত করার জন্য থাকা খাওয়ার সুবিধাসহ সরকারের পক্ষে অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা সৃষ্টির লক্ষ্যে উপজেলা প্রশাসন কাজ করে যাচ্ছে।




ভারী বর্ষণে বান্দরবানের থানচি-আলিকদম সড়কে যোগাযোগ বিছিন্ন 

থানচি প্রতিনিধি:

গত কয়েকদিন ধরে টানা ভারী বর্ষণে ও পাহাড়ি ঢলে বান্দরবানের থানচি-আলিকদম সড়কে যোগাযোগ বিছিন্ন রয়েছে। আলিকদম থেকে ৫ কিলোমিটার হতে ১৫ কিলোমিটার পর্যন্ত ছোট বড় ২২টি স্থানের রাস্তায় কার্পেটিং ও রিটার্নিং ওয়াল্ড ভেঙ্গে সড়কে মূল অংশসহ বিভিন্ন স্থানে ক্ষত বিক্ষত হয়ে সাধারণ ও ভারী যান চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে।

এ দিকে  ২২ কিলো থেকে ৩১ কিলো পর্যন্ত  ১৯ স্থানে সড়কের উপর থেকে পাহাড় ধ্বসে  এবং বড় গাছ   পড়ে  মাটি চাপা পড়ে অধিকাংশ সড়কে ব্লক হওয়া ভারী ও হালকা যান চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়েছে।

বর্তমানে সড়কটি ক্ষত বিক্ষত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। পর্যটন স্পট ও শিল্প  খ্যাত ডিম পাহাড় নামক স্থানে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত  থেকে আসার থানচি ও আলিকদমের অনেক পর্যটন পিপাসুরা অপেক্ষমান রয়েছে।

থানচি হয়ে আলিকদম, লামা, চকরিয়া ও কক্সবাজারের সাথে সড়ক যোগাযোগ বিছিন্ন ও সাময়িকভাবে অসুবিধার কারণে স্থানীয় পাহাড়ে লোকজন পায়ে হাটা ছাড়া উপায় থাকছে না।

স্থানীয় প্রশাসন সাময়িকভাবে যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়েছে। সড়কে যান চলাচলের উপযোগী করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি  জানিয়েছে স্থানীয়রা।




থানচিতে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের ঢেউটিন, নগদ টাকা বিতরণ

থানচি প্রতিনিধি:

থানচিতে ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রনালয়ের বরাদ্ধে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের ঢেউটিন ও নগদ টাকা বিতরণ করা হয়েছে।

২৪ জুন (শনিবার) উপজেলার তিন্দু ইউনিয়নের অংথোয়াইপ্রু কারবারী পাড়ায় এক ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ২০ উপজাতির বাড়িঘর ভষ্মীভুত হয়। তাদের ক্ষতির পরিমান নির্ণয়ের পর উপজেলা প্রশাসন হতে ত্রাণ সমাগ্রী বিতরণ করেন। অগ্নিকাণ্ডের ৭ম দিনে শুক্রবার বিকাল ৪টায় জনসেবা কেন্দ্রে  ( গোলঘর) ক্ষতিগ্রস্ত ২০ পরিবারকে ১ বান করে ২০ বান ঢেউ টিন, ৩ হাজার টাকা করে নগদ ৬০ হাজার টাকা বিতরণ  করা হয়।

বিতরণের সময়  উপজেলা  চেয়ারম্যান  উ,ক্যহ্লাচিং মারমা, বান্দরবান জেলা পরিষদের সদস্য ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক থোয়াইহ্লামং মারমা, শ্রমিক লীগের সাবেক সভাপতি রতন মারমা, অংথোয়াইপ্রু পাড়ার প্রধান নিথোয়াইউ কারবারী উপস্থিত ছিলেন,

সাংবাদিকদের  উপজেলা চেয়ারম্যান  ক্যহ্লাচিং মারমা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ও স্থানীয় সাংসদ বীর বাহাদুরের সার্বক ব্যবস্থাপনায় ত্রাণ সমাগ্রী বিতরণ করা হয়েছে ।