চট্টগ্রাম পুলিশ লাইন্সকে ২ উইকেটে হারিয়ে কক্সবাজার স্কুল জয়ী

Khagrachari pic-25-02-2017 copy

নিজস্ব প্রতিবেদক,খাগড়াছড়ি:

শনিবার খাগড়াছড়ি স্টেডিয়ামে প্রাইম ব্যাংক ইয়ং টাইগার জাতীয় স্কুল ক্রিকেট প্রতিযোগিতার ২য় রাউন্ডের খেলায় চট্টগ্রাম পুলিশ লাইন্স স্কুলকে ২ উইকেটে হারিয়ে বিজয়ী হয়েছে কক্সবাজার স্কুল। ম্যান অফ দা ম্যাচ হয় কক্সবাজারের আবু বকর।

খেলা শেষে ম্যান অফ দা ম্যাচ আবু বকরের হাতে ট্রফি তুলে দেন খাগড়াছড়ি জেলা ক্রীড়া সংস্থার যুগ্ম-সম্পাদক আজহার হীরা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা ক্রীড়া সংস্থার কার্য নির্বাহী কমিটির সদস্য বৈরী মিত্র চাকমা, মুজাহিদ চৌধুরী বাবু, মমিনুল হকসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

দিনের শুরুতে টসে জিতে ব্যাটিং এর সিদ্ধান্ত নেয় চট্টগ্রাম। কক্সবাজার স্কুলের বোলিং তোপের মুখে প্রথম ১৬ ওভারেই ৩ উইকেট হারায় চট্টগ্রাম পুলিশ লাইন্স স্কুল। পরবর্তীতে চট্টগ্রামের শাহাদাৎ হোসেন দীপুর ব্যাটিং দৃঢ়তায় ৪৫.৪ ওভারে ১৬৩ রান সংগ্রহ করে চট্টগ্রাম। দলের পক্ষে ৬৬ বলে সর্বোচ্চ ৬০ রান করে এবং বোলিং-এ  দুটি উইকেট পায় শাহাদাৎ। জবাবে ব্যাট করতে নেমে চট্টগ্রামের নিয়ন্ত্রিত বোলিং এ মাত্র ৪২ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে চাপের মুখে পরে কক্সবাজার স্কুল।

পরে কক্সবাজারের অধিনায়ক আবু বকরের অপরাজিত ৬৯ রানের লম্বা ইনিংসে জয়ের দেখা পায় কক্সবাজার। কক্সবাজার ৪৮.২ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৬৪ রান সংগ্রহ করে ২ উইকেটে জয় পায়।

কক্সবাজারের অধিনায়ক আবু বকর ১১১ বলে ৬৯ রান এবং বল হাতে ৪ উইকেট পেয়ে ম্যান অফ দা ম্যাচ হয়। খেলা পরিচালনা করেন খাগড়াছড়ির জেলা ক্রীড়া সংস্থার নির্বাহী সদস্য ও অ্যাম্পায়ার সুমন মল্লিক এবং রাজিব চাকমা মনি। ২৮ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার খাগড়াছড়ি স্টেডিয়ামে সেমি ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হবে।




মাটিরাঙ্গার সাব্বির জাতীয় শিশু পুরষ্কার প্রতিযোগিতা বিভাগীয় পর্যায় সেরা 

23.02.2017_Matiranga NEWS Pic

নিজস্ব প্রতিবেদক, মাটিরাঙ্গা :

মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় আয়োজিত ‘জাতীয় শিশু পুরষ্কার প্রতিযোগিতা ২০১৭’ এ ১০০ মিটার দৌঁড় প্রতিযোগিতায় বিভাগীয় পর্যায়ে প্রথম স্থান অধিকার করেছে মাটিরাঙ্গা মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণির ছাত্র মো. সাব্বির হোসেন।

সে খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা পৌরশহরের কাজীপাড়ার গার্মেন্ট শ্রমিক মমতাজ বেগমের ছেলে। বিভাগীয় পর্যায়ের এ প্রতিযোগিতায় চট্টগ্রাম বিভাগের ৮টি জেলার প্রথম স্থান অর্জনকারী অংশগ্রহণকারীদের পেছনে ফেলে সে প্রথম স্থান অধিকার করার মধ্য দিয়ে জাতীয় পর্যায়ে কোয়ালিফাই করে। বিভাগীয় পর্যায়ে প্রথম স্থান অর্জন করায় চট্টগ্রামের বিভাগীয় কমিশনার মোহাম্মদ রুহুল আমিন তার হাতে সনদ ও প্রাইজবন্ড তুলে দেন। দেশের তৃণমূল পর্যায়ে শিশুদের সৃজনশীলতা, মেধা ও মনন অন্বেষণে প্রতিবছর দেশব্যাপী ‘জাতীয় শিশু পুরষ্কার প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়ে থাকে।

প্রসঙ্গত, মাটিরাঙ্গা মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণির ছাত্র মো. সাব্বির হোসেন বিভাগীয় পর্যায়ে সেরা হয়ে খাগড়াছড়ির জন্য সাফল্য বয়ে আনলো। সে খাগড়াছড়ির হয়ে জাতীয় পর্যায়ে প্রতিনিধিত্ব করবে। তার এ সাফল্যে উৎফুল্ল তার হত-দরিদ্র পরিবারসহ মাটিরাঙ্গা মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও তার সহপাঠিরা। বিভাগীয় পর্যায়ে সাফল্যের জন্য সে মাটিরাঙ্গা মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আবদুল মালেকসহ শিক্ষক-সহপাঠিদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছে মো. সাব্বির হোসেন।

জাতীয় পর্যায়ে সে সাফল্যের ধারাবাহিকতা বজায় রাখবে এমন প্রত্যাশা করে মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিএম মশিউর রহমান বলেন, জাতীয় পর্যায়ে সাফল্যের জন্য সম্ভব সবকিছুই করা হবে এ ক্ষুদে দৌঁড়বিদের জন্য।

উল্লেখ্য, মাটিরাঙ্গা মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণীর ছাত্র মো. সাব্বির হোসেন আন্ত: প্রাথমিক বিদ্যালয় ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় উচ্চ লাফে বিভাগীয় পর্যায়ে তৃতীয় স্থান অধিকার করে।




চট্টগ্রাম জেলা দল ১৮৬ রানের বিশাল ব্যবধানে রাঙ্গামাটি জেলা চ্যাম্পিয়ন স্কুলকে হারিয়েছে

Khagrachari Pic 03(1)

নিজস্ব প্রতিবেদক, খাগড়াছড়ি:
প্রাইম ব্যাংক ইয়াং টাইগার ন্যাশনাল  স্কুল ক্রিকেট চট্টগ্রাম অঞ্চলের প্রথম রাউন্ডের খেলা বুধবার খাগড়াছড়ি ষ্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

নক আউট পদ্ধতির প্রথম রাউন্ডের বুধবারের খেলায় চট্টগ্রাম জেলা চ্যাম্পিয়ন দল ১৮৬ রানের বিশাল ব্যবধানে রাঙ্গামাটি জেলা চ্যাম্পিয়ন দলকে  হারিয়েছে।

সকালে টসে জিতে চট্টগ্রাম জেলা চ্যাম্পিয়ন দল, চট্টগ্রাম পুলিশ লাইন ইনষ্টিটিউট ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে খেলায় সব ক’টি ইউকেট হারিয়ে ২৪২ রান সংগ্রহ করে। চট্টগ্রাম জেলা দলের ইসমাইল হোসেন অনিক ৯১, শাহাদাত হোসেন ৫৩ রান সংগ্রহ করে।

জবাবে রাঙ্গামাটি জেলা দল, রাঙ্গামাটি শহীদ আব্দুল আলী একাডেমী স্কুল খেলতে নেমে ১৮.৩ ওভারে ৫৬ রানে অল আউট হয়ে যায়। চট্টগ্রাম জেলা দলের সাহেদ ২৬ রানে ৪ ইউকেট ও ইসমাইল হোসেন অনিক ২ ইউকেট লাভ করে। রাঙ্গামাটির মনির ৪৯ রানে ৩ ইউকেট, আজিম ৫০ রানে ২ ইউকেট লাভ করে।

এর আগে সকালে খাগড়াছড়ি  জেলা ক্রীড়া সংস্থার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আজহার হীরা টুর্নামেন্টর উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে খাগড়াছড়ি প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আবু তাহের মুহাম্মদ, জেলা ক্রীড়া সংস্থার নির্বাহী সদস্য মুমিনুল হক, মুজাহিদ বাবু, কংক দেওয়ান উপস্থিত ছিলেন।

খেলা পরিচালনা করেন আম্পায়ার জীবন দেওয়ান ও সুমন মল্লিক।




পানছড়ির লোগাংয়ে ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ

16923938_662965527239382_1365341999_n

নিজস্ব প্রতিবেদক, পানছড়ি :

মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে খাগড়াছড়ি জেলার পানছড়ি উপজেলার ১নং লোগাং ইউপি’র উদ্যেগে ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল ১১টায় উপজেলার লোগাং বাজার আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় হল রুমে এসব সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

ইউপি’র আওতাধীন ২টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ৫টি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ২টি স্থানীয় ক্লাবকে ৯ সেট ফুটবল জার্সি ও ফুটবল, ১১ সেট ভলিবল ও ৬টি হ্যান্ডবল বিতরণ করা হয়। পানছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান সর্বোত্তম চাকমা প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এসব সামগ্রী বিতরণ করেন। এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদ হোসেন ছিদ্দিক। অতিথিরা এই ধরনের একটি মহতী উদ্যেগের জন্য চেয়ারম্যানকে সাধুবাদ জানান।

হাতিমারা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধান সুজিত চাকমা, দুধুকছড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বিপাস চাকমা, লোগাং বাজার সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধান আবদুল খালেক ভূইয়া এ প্রতিবদেককে জানান, লোগাং ইউপি চেয়ারম্যান শিক্ষানুরাগী, ক্রীড়াপ্রেমী আর উদার মনের মানুষ। জনপ্রতিনিধিদের এসব মহতী কাজে এগিয়ে এলে শিক্ষার্থীরা পড়ালেখা ও খেলাধুলায় দ্বিগুণ উৎসাহ পাবে। লোগাং ইউপি চেয়ারম্যান প্রত্যুত্তর চাকমা জানান, এসব সামগ্রী ইউপির সকল প্রতিষ্ঠানে ধারাবাহিকভাবে বিতরণ অব্যাহত রাখার ব্যাপারে তিনি সব সময় আন্তরিক।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন পানছড়ি উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আশেকুর রহমান, উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান কবির সাজু, লোগাং বাজার আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মিহির চাকমাসহ স্থানীয় ইউপি সদস্য/সদস্যরা।




৩২ বিজিবির আয়োজনে পানছড়ির দুর্গম এলাকায় ক্রীড়া অনুষ্ঠান সম্পন্ন

32 BGB PIC

নিজস্ব প্রতিবেদক, পানছড়ি :
খাগড়াছড়ি জেলার পানছড়ি উপজেলার ভারত সীমান্তবর্তী দুর্গম প্রত্যন্ত এলাকায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও স্থানীয় গ্রামবাসীদের নিয়ে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার সকাল ১১টা থেকে শুরু হওয়া এই প্রাণবন্ত অনুষ্ঠানটির আয়োজক ছিল খাগড়াছড়িস্থ ৩২ বিজিবি। প্রত্যন্ত এলাকার বিনোদন বঞ্চিত স্থানীয় এলাকাবাসী বিভিন্ন ক্রীড়ায় অংশ নেয় এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করে।

পানছড়ি উপজেলা থেকে প্রায় ১৮ কিলোমিটার দূরে লোগাং ইউনিয়নের ৩২বিজিবি’র আওতাধীন ডাইন চন্দ্র বাড়ি বিজিবি ক্যাম্পের উদ্যোগে দিনব্যাপী চলে এ আয়োজন। এলাকাবাসীর সাথে খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করতে প্রধান অতিথি হয়ে উপস্থিত ছিলেন খাগড়াছড়ি’র সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল মতিউর রহমান।

এ সময় অতিথি হয়ে আরো উপস্থিত ছিলেন ৩২ বিজিবির জোন অধিনায়ক লে. কর্ণেল রাহাত নেওয়াজ ও জিএসওটু মেজর আহসান হাবিব। অতিথিদের পাশাপাশি স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠান হয়ে উঠে বেশ উপভোগ্য।




আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় আফ্রিদির

53249af2d10b0-33 (1)

স্পোর্টস ডেস্ক:

হুট করেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিলেন শহিদ খান আফ্রিদি। এতো শেষ হলো পাকিস্তান ক্রিকেটের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলোয়াড়ের ২১ বছরের জমকালো আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার। তবে ক্লাব পর্যায়ে ক্রিকেট চালিয়ে যাবেন বলেও জানালেন তিনি।

২০১০ সালে টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নেন ৩৬ বছর বয়সী এ তারকা। এর পাঁচ বছর বাদে ২০১৫ বিশ্বকাপের পর ওয়ানডে থেকে অবসর নেন বুমবুম আফ্রিদি। খেলা চালিয়ে যাচ্ছিলেন শুধু টি-টোয়েন্টিতে। গত বছর পর্যন্তও পাকিস্তান টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক ছিলেন তিনি। কিন্তু ভারতের অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাকিস্তানের ব্যর্থতার পর নেতৃত্ব ছাড়েন আফ্রিদি।

এরপর আর দলে ফিরতে পারেননি। এরই মধ্যে অবসর নিয়ে কয়েকবার নাটকের জন্ম দিয়েছেন। কিন্তু চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত নেননি। পাকিস্তান দলে ফেরার ব্যাপারে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ ছিলেন তিনি। তবে এবার হুট করেই আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট থেকেও অবসর নিয়ে ফেললেন তিনি।

পাকিস্তান সুপার লীগে (পিএসএল) পেশোয়ার জালমির আইকন খেলোয়াড় আফ্রিদি। রোববার করাচি কিংসের বিপক্ষে দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলেন। করাচির ১৭৫ রান তাড়া করতে নেমে আফ্রিদি আট নম্বরে ব্যাটে নেমে ৫ ছক্কা ও ৩ চারে ২৮ বলে খেলেন ৫৪ রানের ইনিংস। তবে তারপরও তার দল হেরে যায় ৯ রানে। দুর্দান্ত ওই ইনিংস খেলে ফিরেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিলেন ইতিহাসের অন্যতম সেরা এ অলরাউন্ডার।

বলেন, ‘আমি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বলছি। আমি সবসময় আমার ভক্তদের জন্য ক্রিকেট খেলি। লীগে সামনে আরও দুই বছর খেলা চালিয়ে যাবো। তবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানালাম। এখন আমার কাছে আমার ফাউন্ডেশনটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ।’




ক্রীড়া ও সংস্কৃতি শারীরিক ও মানসিক বিকাশে সহায়ক: ব্রি. জে. মীর মুশফিকুর রহমান

 

Khagrachari Pic 04 (6) copy

নিজস্ব প্রতিবেদক, খাগড়াছড়ি:

ক্রীড়া ও সংস্কৃতি শারীরিক ও মানসিক বিকাশে সহায়ক। তাই প্রত্যেক শিক্ষার্থীর সাধারণ শিক্ষার পাশাপাশি খেলাধুলা করা প্রয়োজন।

বৃহস্পতিবার বিকালে স্থানীয় সেনানিবাস মাঠে খাগড়াছড়ি ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড    কলেজ(কেসিপিএসসি) আন্ত: বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ২০৩ পদাতিক ডিভিশন খাগড়াছড়ি সেনা রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মীর মুশফিকুর রহমান এ কথা বলেন।

মীর মুশফিকুর রহমান বলেন, খাগড়াছড়ি সম্ভাবনার অঞ্চল। এ জন্যে শান্তির বাতাবরণ সৃষ্টি করতে হবে। মানুষে-মানুষে সম্প্রীতির ভাব গড়ে তুলে এ অঞ্চলকে আরও সমৃদ্ধশালী করতে হবে। এ জন্যে সকলকে এক যোগে কাজ করতে হবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, খাগড়াছড়ি সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. আব্দুস সবুর খান, কেসিপিএসসির অধ্যক্ষ লে. কর্ণেল মনিরুজ্জামান, সদর জোন কমান্ডার লে. কর্ণেল সোহাগ.। অতিথি খাগড়াছড়ি সরকারী কলেজের  সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. সুধীন কুমার চাকমা, বোধিসত্ত্ব দেওয়ান ও কেসিপিএসসির গভর্নিং বডির সদস্য প্রবীন সাংবাদিক তরুন ভট্টাচার্য্য।

বর্ণাঢ্য আয়োজন আর আনুষ্ঠানিকতায় অনুষ্ঠিত বার্ষিক এ ক্রীড়া প্রতিযোগিতার অন্যতম আকর্ষণ ছিল বর্ণিল পোশাকে বৈচিত্রমণ্ডিত উপজাতীয়দের নৃত্য-গীত।

বিভিন্ন ইভেন্টে প্রায় ৪শ প্রতিযোগী অংশ গ্রহণ করে। ২০১৭ সালের সেরা প্রতিযোগী হওয়ার যোগ্যতা লাভ করেন ইকবাল হোসেন ও রীয়া রোয়াজা।




খাড়াছড়িতে আন্ত: ব্যাটালিয়ন হ্যান্ডবল প্রতিযোগিতায় কাপ্তাই চ্যাম্পিয়ান

dav

নিজস্ব প্রতিবেদক, খাগড়াছড়ি:

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ব্যাটালিয়নের চট্রগ্রাম দক্ষিণ-পূর্ব রিজিয়নের আন্ত: ব্যাটালিয়ন হ্যান্ডবল প্রতিযোগিতার ফাইনাল খেলায় কাপ্তাই ১৯ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়ান হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকালে খাগড়াছড়ি ৩২ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ব্যাটালিয়নের মাঠে অনুষ্ঠিত চূড়ান্ত খেলা চট্রগ্রাম ৮ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশকে ৩৩-২৮ গোলে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ান হওয়ার গৌরব অর্জন করে। সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন চট্টগ্রাম ৮ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের সদস্য মাসুদ রানা।

খাগড়াছড়ি বিজিবি সেক্টর কামান্ডার কর্ণেল মো. মতিউর রহমান প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ দলের মাঝে ট্রফি তুলে দেন।

এসময় খাগড়াছড়ি ৩২ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের অধিনায়ক লে. কর্ণেল রাহাত নেওয়াজ, পিএসসি ও উপ-অধিনায়ক মেজর সৈয়দ আনসার মোহাম্মদ কাওছার, পিএসসি উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, ১২ ফেব্রুয়ারি খাগড়াছড়ি ৩২ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনায় চট্রগ্রাম দক্ষিণ-পূর্ব রিজিয়নের আন্ত: ব্যাটালিয়ন হ্যান্ডবল প্রতিযোগিতা শুরু হয়। খেলায় মোট ২০ টি বিজিবি ব্যাটালিয়ন দল অংশ গ্রহণ করে।




চকরিয়া বর্ণমালা একাডেমিতে তিনদিন ব্যাপী ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উদ্বোধন

Chakaria Picture 15-02-2017

চকরিয়া প্রতিনিধি :
চকরিয়ায় শিশু বান্ধব একমাত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বর্ণমালা একাডেমিতে তিনদিন ব্যাপী ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হয়েছে। বুধবার সকাল দশটায় থানার সামনে কক্সবাজার সহকারি পুলিশ সুপার (চকরিয়ার সার্কেল) মতিউল ইসলাম উদ্বোধন করেন।

এদিন জাতীয় সংগীত পরিবেশনার সময় অতিথিরা জাতীয় পতাকা ও বিভিন্ন ইভেন্টের পতাকা উত্তোলন করা করে। বর্ণমালা একাডেমির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান জেলা আওয়ামীলীগ সদস্য আমিনুর রশিদ দুলালের সভাপতিত্বে ও শিক্ষক সিরাজুল গণি ছোটনের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাহেদুল ইসলাম।

বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) দিদারুল ইসলাম, থানার ওসি (তদন্ত) কামরুল আজম, উপজেলা শিক্ষা অফিসার খোরশিদুল আলম চৌধুরী, বর্ণমালা একাডেমির অধ্যক্ষ নুরুল হোছাইন ও উপাধ্যক্ষ সরওয়ার উদ্দিন।

এসময় প্রধান অতিথি বলেন, বর্ণমালা একাডেমি একটি ব্যতিক্রম ধর্মী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। মহান মুক্তিযুদ্ধের ও ৫২ এর চেতনায় গড়ে উঠা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি। তাছাড়া চকরিয়ায় শিশু বান্ধব কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নেই। বিগত সময়ে এ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা ফলাফল ভালো করেছে।




 কাপ্তাইয়ে মাসব্যাপী ক্রিকেট খেলোয়াড়দের মধ্যে সনদ বিতরণ

titu 1 copy

কাপ্তাই প্রতিনিধিঃ

রাঙ্গামাটি জেলা ক্রীড়া অফিসের উদ্যোগে কাপ্তাই উপজেলা কর্ণফুলী স্টেডিয়াম মাঠে রোববার বিকাল ৪টায় মাসব্যাপী ক্রিকেট প্রশিক্ষণ  সমাপনী ও সনদপত্র বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়।

রাঙ্গামাটি জেলা ক্রিকেট অফিসার স্বপন কিশোর চাকমার সভাপতিত্বে সনদপত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদ সদস্য প্রকৌশলী থোয়াইচিং মং মারমা।

বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান সুব্রত বিকাশ তংচঙ্গ্যা, উপজেলা ক্রীড়া যুগ্ম সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান বিপ্লব মারমা, সাংবাদিক কবির হোসেন, প্রশিক্ষক মাহাবুব হাসান বাবু, শিক্ষক নুর নবী, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি এম. নুর উদ্দিন সুমন, সম্পাদক এআর লিমনসহ বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ।

কোচার মাহাবুব বলেন, উপজেলার ৭টি স্কুলের ৩০জন প্রশিক্ষণার্থী মাসব্যাপী  এ খেলায় অংশগ্রহণ করে।