কুতুবদিয়ায় ৫ জুয়াড়িকে পিটিয়েছে পুলিশ

কুতুবদিয়া প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের কুতুবদিয়ায় ৫ জুয়াড়িকে হাতে-নাতে ধরে পিটিয়েছে পুলিশ। শুক্রবার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একটি পরিত্যক্ত আবাসিক ভবনে জুয়া খেলার সময় তাদের এ শাস্তি দেয়া হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, হাসপাতালের ওই পরিত্যক্ত ভবনে দীর্ঘ দিন ধরে স্থানীয় লাল ফকির পাড়ার কতিপয় বখাটে যুবক দিন-রাত জুয়ার আসর বসাতো। এতে পথচারী সহ হাসপাতালে আগত রোগী, নার্স অনেকেই বিরম্বনার শিকার হন। এরা মাদকের আসর বসায় বলে একাধিক ব্যক্তি জানান।

বড়গোপ ১ নং ওয়ার্ডের মেম্বার হেলাল উদ্দিন জানান, শুক্রবার বিকাল সাড়ে চারটার দিকে লাল ফকির পাড়ার মৃত কবির আহমদের পুত্র দিদারুল ইসলাম, সিরাজুল ইসলামের পুত্র মো. পারভেজ সহ ৭/৮ জনের একটি গ্রুপ সেখানে জুয়া খেলছিল। খবর পেয়ে তিনি থানায় খবর দিলে থানার এসআই কামরুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ভবনটি ঘিরে ফেলেন।

এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ২/৩  জন পালিয়ে যেতে সক্ষম হলেও ধরা পড়ে ৫ জুয়াড়ি। পুলিশ ৫ জুয়াড়িকে লাঠি পেটা ও কান ধরে ওঠ-বস করিয়ে তাদের ছেড়ে দেন বলেও তিনি জানান।

থানার ওসি অংসা থোয়াই জুয়াড়িদের শায়েস্তা করতে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়ায় জুয়াড়িদের আড্ডায় পরিণত ওই ভবনটি মুক্ত হওয়ায় কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন ইউপি সদস্য।

 




কুতুবদিয়ায় অগ্নিকাণ্ডে বসতবাড়ি পুড়ে ছাই

Ogni

কুতুবদিয়া প্রতিনিধি:
কক্সবাজারের কুতুবদিয়ায় অগ্নিকাণ্ডে অবসর প্রাপ্ত শিক্ষকের বাড়ি পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। বৃস্পতিবার (১৯ জানুয়ারি) কৈয়ারবিল নজর আলী মাতবর পাড়ায় এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বৃহস্পতিবার রাত দেড়টার দিকে ওই পাড়ার বাসন্দা মনোহর খালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসর প্রাপ্ত শিক্ষক হাজী গোলাম কদ্দুছ‘র বসত বাড়িতে হঠাৎ আগুন লাগে। এসময় বাড়ির সবাই ঘুমে ছিল। রান্নাঘর পুড়ে বসত ঘরে আগুন লাগলে তারা টের পান। পরে এলাকাবাসী এসে আগুন নেভানোর চেষ্টা করলেও দেড় ঘণ্টার মধ্যে পুরো বাড়ি ভস্মিভূত হয়ে যায়।

শিক্ষক (অব.) হাজী গোলাম কদ্দুছ জানান, অগ্নিকাণ্ডের বিষয়টি তারা আগে টের পাননি। যে কারণে বাড়ির কোন মালামাল, স্বর্ণ, টাকা, কাপড়-চোপর, তার পেনশনের যাবতীয় কাগজ-পত্র, সার্টিফিকেট কোন কিছুই বের করতে পারেননি। সবই পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। অগ্নিকাণ্ডে অন্তত: ১০ লক্ষ টাকার ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে বলে তিনি জানান।

ওই শিক্ষকের ভাই আলহাজ গোলাম রশীদ বাচ্চু বলেন, অগ্নিকাণ্ডে তার ভাইয়ের পেনশনের মূল্যবান কাগজ-পত্র সহ  পুরো বসতভিটা পুড়ে গেছে। রান্না ঘর থেকে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত বলে জানা গেছে।




কুতুবদিয়ায় বোট নামাতে গিয়ে এক ব্যক্তি নিহত

Nihoto copy

কুতুবদিয়া প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের কুতুবদিয়ায় ডাঙায় থেকে ফিশিং বোট নামাতে গিয়ে দূর্ঘটনায় এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। বুধবার উপজেলা সদর বড়ঘোপ আজম কলোনী এলাকায় এ দূর্ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বুধবার দুপুর ২টার দিকে আজম কলোনীর মৃত আহমদ হোছাইনের পুত্র নাছির উদ্দিনসহ ১০/১২ জন শ্রমিক একই এলাকায় বেড়িবাধের বাইরে ডাঙ্গা থেকে একটি ফিশিং বোট সাগরে নামাচ্ছিল। এ সময় হঠাৎ ছিঁকল ছিঁড়ে গেলে ডঙিল আঘাত করলে নাছির (৫০) প্রচণ্ড আঘাত পান মাথায়। প্রচুর রক্তক্ষরণ হওয়ায় অন্যান্য শ্রমিকরা দ্রুত তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে জরুরী বিভাগে কর্মরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে জানান।

নিহত নাছিরের স্ত্রী, ৩ ছেলে ও ৩ মেয়ে রয়েছে বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় খবর পেয়ে  পুলিশ হাসপাতালে এসে প্রাথমিক সূরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে দাফনের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে বলেও থানার এসআই দীবাকর রায় জানান।




দর্শনীয় স্পটে পরিণত কুতুবদিয়া বায়ু বিদ্যুৎ প্রকল্প

Bayu-2 copy

কুতুবদিয়া প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের কুতুবদিয়ায় দেশের প্রথম পরীক্ষামূলক বায়ু বিদ্যুৎ প্রকল্পে নাম মাত্র বিদ্যুৎ উৎপাদন ও সরবরাহ হলেও এটি এখন বিনোদনের দর্শনীয় স্থানে পরিণত হচ্ছে। সাগর কন্যা দ্বীপ কুতুবদিয়ায় অপার সম্ভাবনাময় পর্যটন সুবিধা সৃষ্টির সুযোগ থাকলেও সরকারী উদ্যোগ না নেয়ায় নিভৃতেই থেকে যাচ্ছে জেলার অন্যতম এ বালুকাময় ২৫ কিলোমিটার জুড়ে সৈকত-সমূদ্র। প্রাকৃতিক সৌন্দর্য আর লবণ, মাছ, শুঁটকি উৎপাদনের কেন্দ্র ছাড়াও পর্যটক আকৃষ্ট করে ব্রিটিশ আমলে নির্মিত ঐতিহাসিক বাতিঘর ও তার ধ্বংসাবশেষ।

এ ছাড়াও নতুন বাতিঘর, উপমহাদেশের প্রখ্যাত সাধক হযরত আব্দুল মালেক শাহ (রহ:) আল কুতুবীর মাযার। আরও রয়েছে যার নামে দ্বীপ কুতুবদিয়া সেই কুতুব আউলিয়ার মাযার, আকবর শাহ‘র মাযার সহ পশ্চিম তীরে রয়েছে স্থানীয় বন বিভাগের উপকূলীয় সবুজ বেষ্টনী প্রকল্পের নয়াভিরাম ঝাউ বাগান। সর্ব শেষ ধুরুং বাজারের পূর্ব পার্শ্বে নির্মিত হয়েছে সরকারী আর্থিক সহায়তায় দেশের অন্যতম গ্রীণ হাউজিং এনার্জি লিমিটেড‘র বাস্তবায়নে সৌর বিদ্যুৎ প্রকল্প। যা দ্বীপে এখন পর্যন্ত সব চেয়ে বেশি সময় বিদ্যুৎ সরবরাহ।

উপজেলার দর্শনীয় স্থান হিসেবে আলী আকবর ডেইল ইউনিয়নে দেশের প্রথম বায়ু বিদ্যুৎ প্রকল্প বাস্তবায়ন হয় ২০০৮ সালে। প্রাথমিক পর্যায়ে ১৪কোটি টাকা ব্যয়ে ১০০০কিলোওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন ক্ষমতা সম্পন্ন পাওয়ার প্লান্ট শুধু নামেই ছিল। ৫০টি পাখার সাহায্যে উৎপাদিত বিদ্যুৎ উপজেলা সদরে সরবরাহ দেয়া সম্ভব হয়নি দূর্ঘটনা, অচল সহ নানা কারণে। শেষ পর্যন্ত এটির উৎপাদন ক্ষমতা অনেকটাই নেমে আসে।

কয়েক বছর বন্ধ থাকার পর সেটি মেরামত করা হয়। পাশাপাশি ২০ টারবাইন সমেত ১০০০ কিলোওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন ক্ষমতা সম্পন্ন আরও একটি প্রকল্প চালু করা হয়। দু‘টো প্লান্টে বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের কল্যাণে আলী আকবর ডেইল ইউনিয়নের কিছু অংশে স্থানীয় বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রের হিসেব অনুযায়ি প্রায় ৩‘শ গ্রাহক মিটার নিয়েছে বলে জানা যায়।

কবি জসীম উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আনিছুর রহমান জানান, বায়ু বিদ্যুতের কোন সুবিধাই পাচ্ছেনা এলাকাবাসি। এটি মূলত, তারা অচল মনে করে। সন্ধ্যায় নাম মাত্র বিদ্যুৎ সরবরাহ দিয়েই দায় সারেন কর্তৃপক্ষ। একই কথা জানালেন আলী আকবর ডেইল ইউপি চেয়ারম্যান উপজেলা আ‘লীগের সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা নুরুচছাফা। সন্ধ্যায় দেড় ঘন্টা বিদ্যুৎ পান বলে তিনি জানান।

অন্যদিকে ভারপ্রাপ্ত আবাসিক প্রকৌশলী সাজ্জাদ ছিদ্দিকী জানালেন ভিন্ন কথা। তিনি বলেন, বায়ু বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করে বাতাসের উপর। নভেম্বরে বাতাস কম থাকায় সরবরাহ কম ছিল। এখন প্রতিদিন সন্ধ্যা থেকে ৫ঘন্টা করে প্রায় ৩‘শ গ্রাহককে বিদ্যুৎ সরবরাহ দেয়া হচ্ছে। দু‘টি প্লান্টে ২০০০ কিলোওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন ক্ষমতা রয়েছে বলেও জানান তিনি।

দ্বীপ আলো করতে নতুন প্রযুক্তির বায়ু বিদ্যুতের সুবিধা কম পেলেও দর্শনীয় বিষয় হয়ে উঠছে সংশ্লিষ্ট এলাকা। সেখানে ছুটির দিনে বেড়াতে আসা অনেকেই মনে করেন মনোরম পরিবেশের কথা।

ইপিআই টেকনিশিয়ান ছৈয়দ কামরুল হাসান, স্থানীয় ব্রাক কর্মী উম্মে খায়রুন নেছা, কুতুবদিয়া সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী আস্সাবরু মিফতাহুল ফারজি জানান, উপজেলার বিশাল বালুকাময় সমূদ্র সৈকত ঘেঁষে দেশের প্রথম স্থাপিত বায়ু বিদ্যুৎ প্রকল্প দেখে তারা মুগ্ধ। প্রকল্প রক্ষাবাঁধ সহ বেড়ানোর সুবিধা অন্য জায়গার চেয়ে উত্তম পরিবেশ রয়েছে এখানে। সূর্যস্নান সহ সাগরের ঢেউ দেখার অপূর্ব জায়গা এটি।

তবে প্রকল্প রক্ষা বাঁধের অনেক স্থানে সিসি ব্লক দেবে গেছে। এগুলো মেরামত করা গেলে স্থানীয় দর্শনার্থী সহ বাহিরের পর্যটকদের আরও আকৃষ্ট করবে বলেও তারা মনে করেন।




কুতুবদিয়ায় বিষপানে মহিলার আত্মহত্যার চেষ্টা

কুতুবদিয়া প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের কুতুবদিয়ায় বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছে ফরিদা (৪০) নামের এক মহিলা। শনিবার দুপুরের দিকে উপজেলা সদর বড়ঘোপ অমজাখালী গ্রামে বিষপানের ঘটনাটি ঘটে।

হাসপাতাল ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, অমজাখালী গ্রামের ফরিদের স্ত্রী ফরিদা স্বামীর সাথে ঝগড়া করে শনিবার ২টার দিকে বাড়িতে রাখা কীটনাশক পান করলে দ্রুত তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হয়।

এসময় তাকে স্টমাক ওয়াশ সহ প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ফরিদার স্বামী দ্বিতীয় বিয়ে করার পায়তারা করায় স্ত্রী বিষপান করেছে বলে প্রতিবেশিরা জানায়।




কুতুবদিয়ায় গলায় ফাঁস লাগিয়ে নববধুর আত্মহত্যা

Death Pic copy

কুতুবদিয়া প্রতিনিধি

কক্সবাজারের কুতুবদিয়ায় গলায় ওড়না পেচিয়ে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে এক নববধু। শনিবার উপজেলার উত্তর ধুরুং চুল্লার পাড়ায় কন্যার পিতার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটেছে। নিহতের স্বামী  আফাজ উল্লাহ জানায়, দু‘মাস আগে উত্তর ধুরুং চুল্লার পাড়ার মৃত আক্তার হোছাইনের মেয়ে জেসমিন আক্তারের (১৮) সাথে তার বিয়ে হলেও আপাতত জেসমিন তার পিত্রালয়ে থাকেন।

শনিবার দুপুরে তারা দু‘জনেই ঘরে ঘুমাচ্ছিল। স্ত্রী পাশের বাড়ির এক মৃত ব্যক্তিকে দেখতে গিয়ে এসে ঘরের ভিমের সাথে ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করে। এসময় স্বামী আফাজ ঘুমিয়ে ছিল বলে জানায়। কিছুক্ষণ পর তার ভাবী ঘরে ঢুকে এ দৃশ্য দেখে ডাকাডাকি করে কয়েকজনে ঝুলন্ত থেকে নামিয়ে হাসপাতালে নিয়ে আসে। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎক জেসমিনকে মৃত বলে জানায়। প্রথমে জেসমিনের ভাই নুরুল কাদের তার বোন স্টোক করেছে বলে চিকিৎসককে জানালে পরে গলায় ফাঁসের দাগের কথা বলায় সে পালিয়ে যায় বলেও হাসপাতাল সূত্র জানায়।

এ দিকে নিহতের স্বামীর নাম প্রথমে আক্তার হোছাইন এবং পরে আফাজ উদ্দিন বলে জানায়। এ ঘটনায় সন্দেহ হলে পুলিশকে খবর দেয়া হয়। থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) অংসা থোয়াই, এসআই দীবাকর রায় জানান, প্রাথমিক সুরতহাল রিপোর্টের পর রবিবার লাশের ময়না তদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হবে  বলেও জানান।




কুতুবদিয়ায় মাথায় গাছ পড়ে দু‘শিশু আহত

Ahoto copy

কুতুবদিয়া প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের কুতুবদিয়ায় গাছ কাটার সময় গাছ মাথায় পড়ে দু‘শিশু গুরুতর আহত হয়েছে। শুক্রবার  দুপুর ১২ টার দিকে উপজেলার উত্তর ধুরুং ফুডার পাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ওই গ্রামের দরিদ্র মহিলা হাছিনা জনৈক জাকের উল্লাহর কাছ থেকে পুকুর পাড়ে ক্রয়কৃত গাছ কাটার জন্য একজন শ্রমিক দেন শুক্রবার দুপুরে। এ সময় শ্রমিক ইছহাক গাছ কেটে নামাতে গেলে হঠাৎ স্থানীয় আবুল কাশেমের মেয়ে মুন্নি (১২) ও আমান উল্লাহর বোবা মেয়ে মেহেরুননেছা (১১) পুকুর পাড়ে গেলে কাটা গাছ তাদের মাথার উপর পড়ে। দু’শিশু জীবন বাচাঁতে পুকুরে ঝাঁপ দিলেও তারা গুরুতর আহত হয়। আহত অবস্থায় দ্রুত তাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

আহত শিশু মুন্নি ধুরুং ছমদিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণি ও বোবা শিশু মেহেরুন নেছা দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রী বলে জানা গেছে।




 কুতুবদিয়ায় পুকুরে ডুবে শিশুর মৃত্যু

Ch copy

কুতুবদিয়া প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের কুতুবদিয়ায় পুকুরে ডুবে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার উপজেলা সদর বড়ঘোপ ইউনিয়নের উত্তর মগডেইল গ্রামে পানি ডুবির ঘটনা ঘটেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও হাসপাতাল সূত্র জানায়, শুক্রবার বিকাল ৩টার দিকে উত্তর মগডেইল গ্রামের আজিজ‘র শিশু পুত্র শামিম (১৫ মাস) সবার অজান্তে পাশের পুকুরে তলীয়ে যায়। পার্শ্ববর্তীরা টের পেয়ে তাকে পুকুর থেকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মো. আব্দুল্লাহ আল হাসান শিশুটিকে মৃত বলে ঘোষনা করেন।




কুতুবদিয়ায় চার দিনব্যাপী তাফসীর মাহফিল শনিবার শুরু

কুতুবদিয়া প্রতিনিধি:

কুতুবদিয়া দক্ষিণ ধুরুংস্থ লাইট হাউস সমাজ উন্নয়ন পরিষদ আয়োজিত ৪ দিনব্যাপী তাফসীরুল কুরআন মাহফিল শনিবার থেকে শুরু হচ্ছে। ধুরুং হাই স্কুল স্টেডিয়ামে মাহফিলের প্রথম দিন শনিবার প্রধান আলোচক থাকবেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন মুফাসসিরে কুরআন বিশিষ্ট টিভি আলোচক আল্লামা সাদিকুর রহমান আল-আজহারী। ২য় বক্তা থাকবেন মাওলানা আবুল ফজল।

দ্বিতীয় দিন রবিবার প্রধান আলোচক থাকবেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন মুফাসসিরে কুরআন আল্লামা নাসির ইকবাল বিন শাফী (ঢাকা)। ২য় বক্তা থাকবেন মাওলানা আবুল কালাম আজাদ। তৃতীয় দিন সোমবার  প্রধান আলোচক থাকবেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্বপন্ন মুফাসসিরে কুরআন আল্লামা আব্দুল্লাহ আল-আমিন (ঢাকা)। ২য় বক্তা থাকবেন মাওলানা মো. ইসমাইল হোসেন কুতুবী এবং চতুর্থ দিন মঙ্গলবার প্রধান আলোচক থাকবেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন মুফাসসিরে কুরআন আল্লামা কামরুল ইসলাম সাঈদ আনসারী (ঢাকা)। ২য় বক্তা থাকবেন মাওলানা শফিউল হক জিহাদী।

লাইট হাউস সমাজ উন্নয়ন পরিষদ আয়োজিত ৪দিনব্যাপি তাফসীরুল কুরআন মাহফিল বাস্তবায়নের লক্ষ্যে  জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে উপস্থিত হয়ে  সকলের সার্বিক সহযোগীতা চেয়েছেন সংগঠনের সভাপতি ডা. সাইয়েদুল মনির।




কুতুবদিয়ায় তিন দিনব্যাপী উন্নয়ন মেলার সফল সমাপ্তি

mela-copy

কুতুবদিয়া প্রতিনিধি:

দেশব্যাপী সরকারের উন্নয়ন সফলতার অংশ হিসেবে কুতুবদিয়ায় ৩দিন ব্যাপী উন্নয়ন মেলার বুধবার সফল সমাপ্তি হয়েছে। উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত বড়ঘোপ ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসা মাঠে সোমবার থেকে মেলা শুরু হয়। উপজেলা চেয়ারম্যান এটিএম নুরুল বশর চৌধুরী উন্নয়ন মেলার উদ্বোধন করেন।

এ সময় বিদায়ী উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা সালেহীন তানভীর গাজী  জেলা পরিষদের নব নির্বাচিত সদস্য মাষ্টার আহমদ উল্লাহ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সৈয়দা মেহেরুননেছাসহ সরকারী দপ্তরের বিভিন্ন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

উন্নয়ন মেলায় সরকারি বিভিন্ন দপ্তর, হাসপাতাল, এনজিও, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ ৩০টি স্টল বরাদ্ধ দেয়া হয়। অংশ গ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে বর্তমান সরকারের বিশেষ বিশেষ উন্নয়ন তুলে ধরা হয়। মেলা শেষে বুধবার অংশ গ্রহণকারী সকল প্রতিষ্ঠানকে শান্তনা পুরস্কার প্রদান করা হয়।

এ সময় উপজেলা চেয়ারম্যান এটিএম নুরুল বশর চৌধুরী, উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা সালেহীন তানভীর গাজী, উপজেলা বিএনপি‘র সভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান জালাল আহমদসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।