image_pdfimage_print

চকরিয়ায় মোটর সাইকেলের ভেতর থেকে সাড়ে ৩ হাজার ইয়াবা উদ্ধার, গ্রেফতার-২

Chakaria Picture () 24-04-2017
চকরিয়া প্রতিনিধি:
চকরিয়ায় অভিনব কৌশলে পাচারকালে পুলিশ মোটর সাইকেলের ভেতর থেকে সাতে তিন হাজার পিস্ ইয়াবা উদ্ধার করেছে। এসময় দুই পাচারকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সোমবার দুপুর একটার দিকে সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার (চকরিয়া সার্কেল) কাজী মতিউল ইসলাম, শিক্ষানবীশ সহকারি পুলিশ সুপার রাইসুল ইসলাম, চকরিয়া থানার ওসি মো.বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী ও ওসি তদন্ত মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে পুলিশের দল বাস টার্মিনালস্থ এসএ পরিবহনে এ অভিযান পরিচালনা করেন।

গ্রেফতারকৃত দুই পাচারকারী হলেন টেকনাফ উপজেলার ডেইঙ্গাকাটা গ্রামের মোহাম্মদ ইলিয়াছের ছেলে মিজানুর রহমান (২০) ও কক্সবাজার শহরের বাহারছড়া এলাকার জাফর আহমদের ছেলে আকতার ফারুক মুন্না (২২)।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, মোটর সাইকেলের ভেতর করে ইয়াবার চালান ঢাকায় পাঠানো হচ্ছে বিষয়টি গোপনে জানতে পেরে সেখানে (চকরিয়া বাসটার্মিনালস্থ এসএ পরিবহন কাউন্টার) এলাকায় আগে থেকে অভিযানে নামেন থানার এসআই কাওছার উদ্দিন চৌধুরী ও এসআই আবদুল খালেকসহ পুলিশের একটিদল।

সোমবার সাড়ে ১২টার দিকে গ্রেফতারকৃত দুই যুবক এসএ পরিবহন নামের কুরিয়ার সার্ভিসে ঢুকে মোটর সাইকেলটি ঢাকায় বুকিং দেয়ার জন্য কাউন্টার ম্যানেজারের সাথে কথা বলছিলেন। ওইসময় এসআই কাওছার চৌধুরী ও এসআই আবদুল খালেক তাদের গতিবিধি লক্ষ্য করেন। এরপর সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার (চকরিয়া সার্কেল) কাজী মতিউল ইসলাম, শিক্ষানবীশ সহকারি পুলিশ সুপার রাইসুল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশের অপর একটিদল পৌঁছে ওই দুই যুবককে গ্রেফতার করেন।

ওসি আরো বলেন, দুই যুবককে গ্রেফতারের পর তাদের স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে ব্যবহৃত মোটর সাইকেলটির পার্টস খুলে ভেতর থেকে ইয়াবা উদ্ধার করা হয় ৩ হাজার ৫১০পিস্ ইয়াবা। এ ঘটনায় পুলিশ বাদি হয়ে দুই পাচারকারী যুবকের বিরুদ্ধে থানায় মাদক আইনের সংশ্লিষ্ট ধারায় একটি মামলা রুজু করা হয়েছে।

চকরিয়ায় ৬ মাসের সাজাপ্রাপ্ত ২ আসামী গ্রেফতার

চকরিয়া প্রতিনিধি:
চকরিয়া থানা পৃথক পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৬ মাসের সাজাপ্রাপ্ত ২ আসামীকে গ্রেফতার করেছে। ধৃত আসামীরা হলেন চকরিয়া পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের বায়তুশ শরফ রোড এলাকার নুর মোহাম্মদের পুত্র রাশেদুল ইসলাম রাসেল (৩২) ও ১নং ওয়ার্ডের আমাইন্যার এলাকার ফজল করিমের পুত্র আবদুল হামিদ (৩০)।

২৪ এপ্রিল (সোমবার) ভোররাত ৩টার দিকে থানার উপপরিদর্শক (এসআই) কাউছার উদ্দিন চৌধুরী ও এএসআই নাজিম উদ্দিনের নেতৃত্বে পুলিশ এ অভিযান চালায়।

চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ধৃত আসামী রাসেল ও হামিদের বিরুদ্ধে বিজ্ঞ আদালতের ৬ মাস করে সাজা পরোয়ানা রয়েছে। সাজা জারি হওয়ার পর থেকে আসামীরা দীর্ঘদিন ধরে পলাতক ছিল।  এছাড়াও তাদের বিরুদ্ধে এলাকায় বিভিন্ন অপরাধে অভিযোগ রয়েছে। ধৃত আসামীদের আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

পেকুয়ায় যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূকে শারীরিক নির্যাতন

পেকুয়া প্রতিনিধি:

পেকুয়ায় যৌতুকের দাবিতে এক গৃহবধুকে শারীরিক নির্যাতন চালিয়েছে স্বামীর পরিবার। সোমবার সকাল ১০টায় উপজেলার সদর ইউনিয়নের সিকদার পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়সূত্রে জানা যায় ওই দিন ওসমান গণির পুত্র মালেশিয়া প্রবাসী মুফিজের স্ত্রী শারমিন আক্তার কলি (১৮) কে তার বাপের বাড়ি থেকে যৌতুক এনে দেওয়ার জন্য ঘরের একটি কক্ষে বেধে ওই গৃহ বধূ কে তার শ্বাশুরি ও দেবর ফরহাদ মিলে শারীরিক নির্যাতন চালায়। এতে ওই গৃহবধূর শরীরে বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে আহত করে।

ওই গৃহবধূর পরিবার বিষয়টি জানতে পারলে তারা এসে উদ্ধার করে পেকুয়া সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

এদিকে কর্তব্যরত ডাক্তার মনির উল্লাহ জানান ওই গৃহবধূর শরীরে আঘাতে চিহ্ন রয়েছে।

জানা যায় ২০১১ সালে ইসলামি শরিয়ত মোতাবেক বারবাকিয়া ইউনিয়নের পাহাড়িয়াখালী এলাকার শাহ আলমের মেয়ে শারমিন আক্তার কলির সাথে পেকুয়া সদর ইউনিয়নের সিকদার পাড়া এলাকার ওসমান গণির পুত্র মুফিজের সাথে প্রেমের সম্পর্কের সুবাধে বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের দাম্পত্য জীবনে এক ছেলে সন্তান জন্ম লাভ করে। তারপরও স্বামী মুফিজ প্রতিনিয়ত যৌতুকের দাবিতে শারমিন আক্তার কলিকে শারীরিক নির্যাতন চালিয়ে আসছে।

এতে সহ্য করে সংসার করলেও স্বামী আরও এক লক্ষ টাকা যৌতুক দাবি করে যৌতুকের টাকা দিতে না পারলে সে আরেকটি বিয়ে করবে বলেও হুমুকি দেয়। শারমিন আক্তার কলি তার দাবিকৃত যৌতুকের টাকা এনে দিতে না পারায় তার স্বামী মুফিজ ৪ বছর আগে শীলখালী ইউনিয়নের জনৈক শিমু নামের এক মেয়েকে বিয়ে করে। সে বিয়ে করে মালেশিয়া চলে যায়।

কলি জানায়, তার স্বামী মুফিজ মালেশিয়া থেকে মাতা ফাতেমা বেগম ও তার ভাই ফরহাদকে দিয়ে প্রতিনিয়ত শারীরিক নির্যাতন চালিয়ে আসছে। আমি প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি। এ ব্যাপারে মামলা করবে বলেও জানান ওই গৃহবধূর পরিবার।

বান্দরবান বিজিবি সেক্টরের ৪র্থ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন

Bandarban BJB pic-24.4
নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান:

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ বিজিবি বান্দরবান সেক্টরের ৪র্থ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে সোমবার শহরের সেক্টর রিয়ার কার্যালয়ে কেক কাঁটা ও প্রতিভোজের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে বান্দরবান রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল যুবায়ের সালেহীন, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ বাইতুল ইজ্জত ট্রেনিং সেন্টারের কমান্ডেন্ট ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সাইফুল ইসলাম, জেলা ও দায়রা জজ লামং, বান্দরবান সেক্টর কমান্ডার কর্নেল শরিফ হোসেন, জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার বণিক, বোমাং রাজা উচ প্রু চৌধুরী, পৌর মেয়র মো. ইসলাম বেবী উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া বান্দরবানের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি ও স্থানিয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

সেক্টর কমান্ডার বলেন, সীমান্ত সুরক্ষা ও আইনশৃখলা পরিস্থি স্বাভাবিক রাখতে বান্দরবান বিজিবি সেক্টরের সদস্যরা নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এ ধারা অব্যহত রাখতে তিনি সবার সহযোগিতা চেয়েছেন।

উল্লেখ্য ২০১৩ সালের এপ্রিলে চট্টগ্রামের সাতকানিয়া বাইতুল ইজ্জত ট্রেনিং সেক্টারে বান্দরবান সেক্টরের যাত্রা শুরু হয়। পরে এই সেক্টরের আওতায় রুমা ও আলীকদম দুটি ব্যাটালিয়নের কার্যক্রমও শুরু হয়। এ সেক্টরের কার্যক্রমের আওতায় ভারত ও মায়ানমার সীমান্তে বিস্তৃত অঞ্চল সুরক্ষায় কাজ করছে বিজিবি।

উখিয়ার দুই ছাত্রদল নেতা ইয়াবাসহ নারায়নঞ্জে আটক

Pic Ukhiya-1 copy

উখিয়া প্রতিনিধি:

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল উখিয়া উপজেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক মো. ইমরান খান ও ছাত্রদল নেতা মো. আলম রোববার ভোর রাতে ঢাকা নারায়নগঞ্জ এলাকায় ৩ হাজার পিস ইয়াবাসহ ডিবি পুলিশের হাতে আটক হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিনের ন্যায় ইয়াবার বৃহত্তর চালান নিয়ে ঢাকায় যাওয়ার জন্য রওনা দেয়। ইয়াবা সিন্ডিকেটের লোকজন গত শুক্রবার থেকে তার বাসায় অবস্থান করে শনিবার সন্ধায় যাত্রীবাহী বাসে করে ঢাকায় যাওয়ার পথে নারায়নগঞ্জ এলাকায় একটি বাড়িতে পৌঁছলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ঢাকাস্থ ডিবি পুলিশের একটি দল তল্লাসি চালিয়ে ৩ হাজার পিস ইয়াবাসহ উখিয়া উপজেলার মৌলভী পাড়া গ্রামের মোবাশ্বরের ছেলে উপজেলা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক ইমরান খান ও একই গ্রামের মো. আবছারের ছেলে মো. আলমকে আটক করলেও চতুর ইয়াবা বন্ধুদের পুলিশ আটক করতে সক্ষম হয়নি।

উল্লেখ্য, আটককৃত ইমরানের পিতা মোবাশ্বের সম্প্রতি ৫০ হাজার পিস ইয়াবাসহ আটক হয়ে দীর্ঘ ৮ মাস কারাভোগ শেষে ঢাকা জেল হাজত থেকে জামিনে মুক্তি পাওয়ার ১ মাসের মাথায় তার ছেলে ছাত্রদল নেতা ইমরান গ্রেফতার হয়।

থানার ওসি মো. আবুল খায়ের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

প্রবল বর্ষণে হেলে পড়েছে পানছড়ি বাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের সীমানা প্রাচীর

BAZAR SCHOOL PIC (1) copy

নিজস্ব প্রতিবেদক, পানছড়ি:

খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার পানছড়ি বাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের সীমানা প্রাচীর হেলে একটি বৈদ্যুতিক খুঁটির সাথে কোন রকম আটকে আছে। যে কোন মুহুর্তে ধসে পড়ে ঘটে যেতে পারে মারাত্মক দুর্ঘটনা। এ নিয়ে শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও পথচারীদের মাঝে বিরাজ করছে চরম আতঙ্ক।

সরেজমিনে দেখা যায়, গত তিন-চার দিনের প্রবল বর্ষণে পানছড়ি বাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের দক্ষিণ দিকের সীমানা প্রাচীরের প্রায় একশত ফুট দেয়াল ধসে হেলে পড়েছে। তাছাড়া বড় বড় ফাটলও রয়েছে।

সকাল ১০টার দিকে বিদ্যালয় প্রধান অলি আহাম্মদ লাল ফিতার বিপদ সংকেত লাগিয়ে জায়গাটি বাঁশের খুঁটি দিয়ে ঘেরাও করে রেখেছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে আসেন পানছড়িতে সদ্য যোগ দেয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আবুল কাশেম ও ৩নং পানছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান মো. নাজির হোসেন।

লামায় জেএসএস’র সন্ত্রাস ও চাঁদাবাজি  অতিষ্ট করে তুলেছে ব্যবসায়ীদের

criminal-400x225

নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান :
বান্দরবানের লামায় জেএসএস’র সশস্ত্র বাহিনীর সন্ত্রাসী কার্যকলাপ ও চাঁদাবাজিতে বেপরোয়া হয়ে উঠায় উপজেলা আইন শৃংঙ্খলা কমিটির সভায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন জনপ্রতিনিধিরা। গত রবিবার লামা উপজেলা আইন শৃংঙ্খলা কমিটির সভায় স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা নিরাপত্তার স্বার্থে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণে প্রশাসন ও সরকারের কাছে জোর দাবি তুলেছেন।

সভায় ফাঁসিয়াখালী ইউপি চেয়ারম্যান জাকির হোসেন মজুমদার বলেন, ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের গয়ালমারায় গত ২০ এপ্রিল ২০/২২ জনের জেএসএস’র সশস্ত্র বাহিনী স্থানীয় ব্যবসায়ী ও ব্যক্তির কাছ থেকে বিভিন্ন অংকের চাঁদা আদায় করেছে। এতে স্থানীয় জনসাধারণ হামলার আতঙ্কে ভুগছে।

লামা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মিন্টু কুমার সেন বলেন, মেরাখোলা এলাকার গরু ব্যবসায়ী আব্দুল মজিদ দীর্ঘদিন ধরে নিখোঁজ রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে সে পাহাড়ী সন্ত্রাসীদের কবলে রয়েছে। লামা ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় পাহাড়ী সন্ত্রাসীদের চাঁদাবাজীর দৌরাত্ম্য দিন দিন বৃদ্ধি পেয়েছে।

সন্ত্রাসীরা তামাক চাষীসহ বিভিন্ন ব্যবসায়ী ও কৃষকদের কৃষি পণ্যের উপর চাঁদাবাজি চালাচ্ছে।

রূপসীপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান ছাচিং প্রু বলেন, জেএসএস সমর্থিত সশস্ত্র বাহিনীর একটি গ্রুপ গত ২০ এপ্রিল নাইক্ষ্যংমুখ বাজারে এসে ব্যবসায়ী ও সাধারণ জনগণের উপর শারীরিক নির্যাতন চালায়। তাদের নির্যাতনে চার জন আহত হন।

ইউপি মেম্বার কায়ওয়ে মুরং আশঙ্কা প্রকাশ করে জানিয়েছেন, সন্ত্রাসীরা যেকোন মুর্হুতে নাইক্ষ্যংমুখ বাজারে হামলা চালিয়ে জান মালের ক্ষতি করতে পারেন।

লামা থানার অফিসার ইনচার্জ আনোয়ার হোসেন জানিয়েছেন, ক্ষতিগ্রস্থ কেউ আইনগত সহায়তা চাইলে পুলিশ যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

আলীকদম জোনের বিদায়ী কমান্ডার লে. কর্ণেল মোহাম্মদ সারোয়ার হোসেন বলেছেন, কোন ক্রমেই পার্বত্য এলাকাকে সন্ত্রাসীদের অভায়রণ্য হতে দেওয়া যাবে না। সকলকে সম্মলিতভাবে কাজ করে সন্ত্রাসীদের র্নিমূল করতে হবে।

নবাগত জোন কমান্ডার লে. কর্ণেল মাহাবুবুর রহমান বলেছেন, আমাদের শান্তি যারা কেড়ে নিতে চায় তাদের কোনক্রমেই ছাড় দেওয়া হবে না। সন্ত্রাসী নির্মূলে সকলের সমন্বিত প্রচেষ্টায় অভিযান অব্যাহত থাকবে।

শান্তিরক্ষা মিশনে পুলিশ উপদেষ্টা হিসেবে যোগ দিলেন দিঘীনালার আমিনুল

18142834_703895983146336_1081264807_n

প্রেস বিজ্ঞপ্তি :
দিঘীনালা সরকারী কলেজের সাবেক ছাত্র মো. আমিনুল হক জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে যোগদান করেছেন। তিনি জাতিসংঘের অধীনে পরিচালিত দক্ষিণ সুদানে শান্তিরক্ষা মিশনে পুলিশ উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন।

দিঘিনালা কলেজ থেকে তিনি ২০০১ সালে বিজ্ঞান বিভাগ হতে ১ম বিভাগে উত্তীর্ণ হয়ে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে  স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রী সম্পন্ন করেন। শিক্ষা জীবন শেষে ২০০৯ সালে বাংলাদেশ পুলিশে উপ-পরিদর্শক পদে যোগদান করেন ।

পেশাগত জীবনে সাফল্যের সাথে দায়িত্ব পালন করে বর্তমানে তিনি দক্ষিণ সুদানে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে পুলিশ উপদেষ্টা হিসেবে যোগদান করেছেন।

জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশন দক্ষিণ সুদানে বর্তমানে বাংলাদেশের ৩৯ জন পুলিশ অফিসার কর্মরত আছেন। বিশ্বব্যাপী পরিচালিত শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশ পুলিশের অংশগ্রহণ বর্তমানে ২য় স্থান দখল করে আছে।

তিনি খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার দিঘীনালা উপজেলার থানাপাড়া নিবাসী রোকেয়া বেগম ও মরহুম ইদু মিয়ার ৩য় সন্তান।

কুতুবদিয়ায় পুকুরে ডুবে শিশুর মৃত্যু

কুতুবদিয়া প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের কুতুবদিয়ায় পুকুরে ডুবে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। সোমবার উপজেলার আলী আকবর ডেইল সন্দীপি পাড়ায় পানি ডুবির ঘটনা ঘটেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও হাসপাতাল সূত্র জানায়, সোমবার দুপুর দেড়টার দিকে সন্দীপি  পাড়ার জসীম উদ্দিনের সাড়ে ৩ বছরের শিশু কন্যা আবিদা তন্বী খেলা করার সময় বাড়ির পাশের পুকুরে ডুবে যায়। খোঁজাখুঁজি করে ওই পুকুর থেকে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক শিশুটি মৃত বলে জানান।

বান্দরবানে দেয়াল ধসে স্কুল ছাত্র নিহত

Bandarban Pic-24.4

নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান:

বান্দরবানে দেয়াল ধসে সাকিব হোসেন ইমন (১৫) নামে এক স্কুল ছাত্র নিহত হয়েছে। সে জিপ চালক মোখলেসুর রহমানের ছেলে এবং পৌর এলাকার সাঙ্গু উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণীর ছাত্র।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, রোববার রাতে অতিরিক্ত বৃষ্টির সময় শহরের কাশেম পাড়া স্কুলের পাশের একটি দেয়াল ধসে পড়ে। এ সময় দেয়াল চাপা পড়ে স্কুল ছাত্র সাকিব হোসেন ইমন গুরুতর আহত হয়। তাকে প্রথমে সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তার অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসক চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ইমনের মৃত্যু হয়।