রাজাখালীর সেই শিক্ষার্থীর ইন্তেকাল : চুলের নেইমার কাটিং ঠেলে দিল মৃত্যুর কোলে


Neymar--400x250

পেকুয়া প্রতিনিধি :

পেকুয়া উপজেলার রাজাখালী ফৈজুন্নেছা উচ্চ বিদ্যলয়ের ৭ম শ্রেণী ছাত্র সাইফুর ইসলাম (১৭) দীর্ঘ দেড় বছর পূর্বে ব্রেইন স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়। সাইফুর ইসলাম রাজাখালী ইউনিয়নের মিয়া পাড়া এলাকার দুবাই প্রবাসী আবু তালেবের পুত্র।

২০১৪ সালে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপ ফুটবল টুনার্মেন্টের ব্রাজিল সমর্থিত ক্ষুদে ক্রীড়া প্রেমিক ছিল হরিণের মতো চঞ্চল আর বিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্র। বিশ্বকাপের ফুটবল ব্রাজিলে সুদক্ষ খেলোয়াড় নেইমার ছিল সাইফুরের প্রিয় খেলোয়াড়। একদিন সে প্রিয় খেলোয়াড় নেইমারকে অনুসরণ করে চুলের কাটিং দিয়েছিল। কিন্তু সেই চুলের কাটিং-ই তাকে ঠেলে দিল মৃত্যুর কোলে।

জানাযায় চুলের কাটিংকে কেন্দ্র করে বিদ্যালয় শিক্ষকের বেত্রাঘাত আর অমানুসিক নির্যাতনে তার ব্রেইন স্ট্রোক হয়ে যায়। শিক্ষার্থী সাইফুরের ব্রেইন স্ট্রোকের খবর পেয়ে ছুটে যান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শাফায়েত আজিজ রাজু, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মারুফুর রশিদ খান।

তাৎক্ষণিকভাবে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মারুফুর রশিদ খান অসুস্থ শিক্ষার্থীকে চিকিৎসা সহায়তা বাবদ তার মায়ের হাতে তুলে দেন লক্ষাধিক টাকা। উন্নত চিকিৎসার জন্য দেশের বিভিন্ন স্থানে বড় বড় ডাক্তারদের চিকিৎসা সেবা নেওয়ার পরও বিদ্যালয়ে পড়ার সুযোগ হলো না তার।

অবশেষে গত ১৪ মার্চ সোমবার রাত সাড়ে ১০টায় তার নিজ বাড়িতে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে সাইফুর ইসলাম। ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্ন—রাজেউন। পরদিন সকাল ১০টায় জানাজার নামায শেষে সামাজিকভাবে দাফন সম্পন্ন হয়। তার মৃত্যুর খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে বিদ্যালয়ের সহপাঠী ও পরিবার পরিজনদের মাঝে নেমে আসে শোকের ছায়া। এদিকে তার জানাযায় বিদ্যলয়ের পক্ষ থেকে শিক্ষকদের উপস্থিতি না থাকায় দেখা দিয়েছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *