রামোসকে নিষিদ্ধের পিটিশনে ৫ লক্ষাধিক মানুষের সই


পার্বত্যনিউজ ডেস্ক:

ভয়ঙ্কর কৌশলে মিশরীয় তারকা মোহাম্মদ সালাহকে ইনজুরির মুখে ফেলে দেয়ায় রিয়াল মাদ্রিদ ডিফেন্ডার সার্জিও রামোসের শাস্তির জন্য কয়েকদিন ধরে অনলাইনে সোচ্চার সালাহভক্তরা।

এমনকি সোমবার (২৮ মে) ফিফা ও উয়েফার কাছে রামোসের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারির জন্য অনলাইনে পিটিশন শুরু করেন একজন নাইজেরিয়ান সাংবাদিক। আবদুল হাকেমের করা ওই পিটিশনে দু’দিনে প্রায় ৫ লাখ মানুষ সই করে একাত্মতা প্রকাশ করেছেন।

শনিবার (২৬ মে) চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে লিভারপুলকে ৩-১ গোলে হারিয়ে টানা তৃতীয়বার শিরোপা জেতে রিয়াল মাদ্রিদ। ম্যাচের ৩৩ মিনিটে রামোসের কড়া ট্যাকেলে কাঁধে চোট পেয়ে মাঠ ছাড়তে বাধ্য হন সালাহ।

এদিকে এই ইনজুরির দরুন বিশ্বকাপে তার খেলা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে। নিজেদের সেরা খেলোয়াড়কে হারিয়ে প্রচণ্ড ক্ষেপেছেন মিসরের সমর্থকরা। ইচ্ছাকৃতভাবে রামোস ওই ফাউল করেছেন বলে মনে করছেন সালাহভক্তরা।

পিটিশনে বলা হয়েছে, সার্জিও রামোস ইচ্ছাকৃতভাবে সালাহর হাত তার বাহুর মধ্যে নিয়ে টেনে ফেলে দিয়েছিল। যার কারণে তার কাঁধের হাড় সরে গেছে। এ জন্য ম্যাচের বাকি সময় না খেলেই সালাহকে মাঠ থেকে উঠে যেতে হয়। বিশ্বকাপও হয়তো মিস করতে যাচ্ছেন তিনি।

এ ছাড়া লিভারপুলের খেলোয়াড়রা রামোসকে তেমন কোনো আক্রমণ করেনি। তবু রেফারি সাদিও মানেকে হলুদ কার্ড দেখিয়েছেন, যা তার প্রাপ্য নয়।

আবদুল হাকেম আবেদনে আরও বলেন, রামোস ভবিষ্যতের খেলোয়াড়দের ভালো কিছু শিক্ষা দিচ্ছেন না। তাই উয়েফা আর ফিফা’র উচিত তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া, যাতে ভবিষ্যতে কেউ আর এ ধরনের কাজ করার সাহস না পান।’

সূত্র- যুগান্তর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *