parbattanews bangladesh

৩নং পানছড়ি ইউপির উন্নয়ন কর্মকাণ্ড এখন দৃশ্যমান

পানছড়ি প্রতিনিধি:

উন্নয়ন কর্মকাণ্ড দৃশ্যমান করে জনগনের বাহবা অর্জন করেছে ৩নং পানছড়ি ইউনিয়ন পরিষদ। চেয়ারম্যান মো: নাজির হোসেনের হাত ধরেই পাল্টে যাচ্ছে পানছড়ি বাজারসহ বিভিন্ন এলাকার চেহারা। বাজারের অলি-গলিতে শোভা পাচ্ছে হলদে রঙের লোহার তৈরী প্রায় অর্ধ শতাধিক ডাষ্টবিন। যার কারণে স্পষ্ট ফুটে উঠেছে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার প্রানবন্ত দৃশ্য।

মঙ্গলবার (১১ সেপ্টেম্বর) বেলা ১টায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করে ১নং লোগাং ইউপির প্যানেল চেয়ারম্যান জাপান্যা চাকমা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন প্যানেল চেয়ারম্যান মো: লোকমান হোসেন।

পানছড়ি বাজারের বুক চিরে বয়ে যাওয়া প্রধান সড়কের পাশে ক্লান্ত পথিকের তৃষ্ণা নিবারনে গড়ে তোলা হয়েছে সুপেয় পানি সরবরাহের জলধার “বারিধারা”। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ আবুল হাশেম মায়াবিনী ও মায়াকানন গড়ার পরে “বারিধারা” নামটিও রাখেন তিনি। তাই মুখরোচক গল্পে অনেকেই বলছে বারিধারা স্যারের তৃতীয় সন্তান।

বারিধারার উদ্বোধন শেষেই প্যানেল সোলার, বিদ্যালয়ের কোমলমতি শিক্ষার্থীদের জন্য স্কুল ব্যাগ, সেলাই মেশিন বিতরণ করা হয় ৩নং পানছড়ি ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে। এলজিএসপি ও টিআরকাবিখা প্রকল্পের আওতায় এসব প্রকল্প বাস্তবায়ন হয়েছে বলে জানায়, ইউপি সচিব মো: নজরুল ইসলাম।

এছাড়াও ১ নং লোগাং ইউপির গরীব দুস্থদের মাঝে রিং স্লাব, মাছের পোনা, বিভিন্ন বিদ্যালয়ে বৈদ্যুতিক ফ্যান, লোগাং বাজার আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রীদের মাঝে স্যানিটারি প্যাড বিতরণ করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও প্যানেল চেয়ারম্যান। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ আবুল হাশেম ইউনিয়নগুলোতে সরেজমিনে গিয়ে কাজের গুনগত মান ও বিতরণী অনুষ্ঠানে অংশ নেন।