১৫ কিশোরকে যৌন নিগ্রহের অভিযোগে গয়ায় আটক বৌদ্ধ সন্ন্যাসী


আন্তর্জাতিক ডেস্ক, পার্বত্যনিউজ:
কিশোরদের যৌন নিগ্রহের অভিযোগ উঠল এক বৌদ্ধ সন্ন্যাসীর বিরুদ্ধে। অভিযোগ, বুদ্ধগয়ায় তাঁর প্রতিষ্ঠানে অসম থেকে পড়তে আসা ১৫টি কিশোরকে তিনি যৌন নিগ্রহ করেছেন। পুলিশ ওই বৌদ্ধ সন্ন্যাসীকে আটক করেছে। চলছে জিজ্ঞাসাবাদ।

গয়া জেলার এসপি (শহর) অনিল কুমার জানিয়েছেন, বুদ্ধগয়ায় মস্তিপুর গ্রামে ওই বৌদ্ধ সন্ন্যাসীর একটি প্রতিষ্ঠান রয়েছে। যার নাম- ‘প্রসন্ন জ্যোতি বুদ্ধিস্ট স্কুল অ্যান্ড মেডিটেশন সেন্টার’। ওই স্কুলে পড়াশোনার পাশাপাশি ধ্যানের শিক্ষাও দেওয়া হয়। অসমের কার্বি আংলং জেলার ১৫টি কিশোর বুদ্ধগয়ায় এসে ওই স্কুলে ভর্তি হয়। পরে পুলিশ খবর পায়, অসমের ওই ১৫টি কিশোরকে নিয়মিত যৌন নিগ্রহ করতেন ওই বৌদ্ধ সন্ন্যাসী।

গয়া পুলিশ সূত্রে খবর, আটক করার পর ওই বৌদ্ধ সন্ন্যাসীকে এখন জিজ্ঞাসাবাদ করছেন গয়ার ডেপুটি পুলিশ সুপার (শহর) রাজকুমার শাহ। কিশোরগুলিকে জিজ্ঞাসাবাদ করছেন স্থানীয় থানার স্টেশন হাউস অফিসার (এসএইচও)।

গয়া পুলিশের এসপি (শহর) অনিল কুমার বলেছেন, ”আগামী কাল (শুক্রবার) ১৫টি কিশোরকে নিয়ে যাওয়া হবে জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে। তাদের বক্তব্য নথিভুক্ত হয়েছে। তাদের ডাক্তারি পরীক্ষানিরীক্ষাও করা হবে। সেই পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতেই মামলা দায়ের করা হবে আটক বৌদ্ধ সন্ন্যাসীর বিরুদ্ধে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *