সীমান্ত সুরক্ষাসহ পাহাড়ের মানুষের জন্য কাজ করছে বিজিবি: কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা


নিজস্ব প্রতিবেদক, মাটিরাঙ্গা/গুইমারা প্রতিনিধি:

সীমান্ত সুরক্ষাসহ সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে বিজিবি পাহাড়ের মানুষের জন্য নিরলসভাবে কাজ করছে মন্তব্য করে ভারত প্রত্যাগত উপজাতীয় শরনার্থী প্রত্যাবাসন ও পুনর্বাসন এবং আভ্যন্তরীন উদ্বাস্তু নির্দিষ্টকরণ সম্পর্কিত টাস্কফোর্স চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি বলেছেন, বিজিবি জনগণের আস্থা অর্জনে সক্ষম হয়েছে। বিজিবি-কে শক্তিশালী ও আধুনিকায়নে বর্তমান সরকার কাজ করে যাচ্ছে। পার্বত্য চট্টগ্রামের রামগড়ে বিজিবির গোড়াপত্তন হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিজিবির সাথে খাগড়াছড়ি তথা পাহাড়ের মানুষের আত্মিক সম্পর্ক দীর্ঘদিনের। এ সম্পর্ককে আরো নিবিড় করারও আহ্বান জানান তিনি।

বুধবার(২০ডিসেম্বর) দুপুরের দিকে খাগড়াছড়ির গুইমারা বিজিবি সেক্টর সদর দপ্তরে বিজিবি দিবস ও বর্ডার গার্ড হাসপাতালের দ্বিতীয় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী  উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

এর আগে আমন্ত্রিত অতিথিদের সাথে নিয়ে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর কেক কাটেন ভারত প্রত্যাগত উপজাতীয় শরনার্থী প্রত্যাবাসন ও পুনর্বাসন এবং আভ্যন্তরীন উদ্বাস্তু নির্দিষ্টকরণ সম্পর্কিত টাস্কফোর্স চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি।

এসময় গুইমারা রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. কামরুজ্জামান, এনডিসি. পিএসসি. জি, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী, বিজিবির গুইমারা সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল মো. আবদুল্লাহ আল মামুন পিএসসি, খাগড়াছড়ির জেলা প্রশাসক মো. রাশেদুল ইসলাম, গুইমারা বিজিবি হাসপাতালের অধিনায়ক লে. কর্ণেল মো. আবদুল ওয়াহাব এমডি, সিন্ধুকছড়ি জোন অধিনায়ক লে. কর্ণেল রুবায়েত মাহমুদ হাসিব পিএসসি, মাটিরাঙ্গা জোন অধিনায়ক লে. কর্ণেল কাজী মো. শামশের উদ্দিন পিএসসি. জি, খাগড়াছড়ির পুলিশ সুপার মো. আলী আহমেদ খান, বিজিবির গুইমারা সেক্টরের জিটুআই মেজর মো. হামিদ উর রহমান টিই, গুইমারা সেনা রিজিয়নের জিটুআই মেজর মো. আশিকুর রহমান ও গুইমারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার পঙ্কজ বড়ুয়াসহ সামরিক-বেসামরিক কর্মকর্তা, নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে আমন্ত্রিত অতিথিগণ একে একে অনুষ্ঠানস্থলে পৌঁছলে তাদেরকে স্বাগত জানান গুইমারা বিজিবি হাসপাতালের অধিনায়ক লে. কর্ণেল মো. আবদুল ওয়াহাব এমডি ও গুইমারা সেক্টরের জিটুআই মেজর হামিদ-উর-রহমান।

এদিকে বিজিবি দিবস ও বর্ডার গার্ড হাসপাতালের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে সেক্টর সদর দপ্তরকে সাজানো হয় বর্ণিল সাজে। নানা রঙের পতাকায় সজ্জিত গুইমারা সেক্টর সদর দপ্তরে ছিল যেন উৎসবের আমেজ।

প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে বিজিবি সদস্য ও তাদের পরিবারের সদস্যদের চিত্তবিনোদনের জন্য সেখানে আয়োজন করা হয়েছে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের। বিজিবির নিজস্ব শিল্পী ছাড়াও জেলা ও জেলার বাইরের শিল্পীরা অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করবেন বলে জানিয়েছেন গুইমারা সেক্টরের জিটুআই মেজর হামিদ উর রহমান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *