সীমান্ত সুরক্ষার পাশাপাশি বিজিবি আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে কাজ করছে: কজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা


নিজস্ব প্রতিবেদক, মাটিরাঙ্গা:

বিজিবি সীমান্ত সুরক্ষার পাশাপাশি আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে কাজ করছে উল্লেখ করে ভারত প্রত্যাগত শরণার্থী বিষয়ক টাস্কফোর্স চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি বলেছেন, পাহাড়ের সাম্প্রদায়িক-সম্প্রীতি রক্ষায় বিজিবি সমানভাবে অবদান রাখছে। তিনি বলেন, পার্বত্য এলাকার শিক্ষা প্রসারে বিজিবির ভুমিকা প্রশংসনীয়। তিনি বলেন, খাগড়াছড়ির রামগড় থেকেই আজকের বিজিবির গোড়াপত্তন। আর সেকারণেই এখানকার মানুষের সাথে রয়েছে বিজিবির আত্মিক সম্পর্ক। এ সম্পর্ককে আরও নিবিড় করারও আহ্বান জানান তিনি।

রোববার দুপুরের দিকে খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গায় ২৩, বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন-বিজিবি’র ৪২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বর্ণিল এ আয়োজনে বিজিবির গুইমারা সেক্টর কমান্ডার কর্নেল মো. আবদুল্লাহ আল মামুন পিএসসি, মাটিরাঙ্গা জোন অধিনায়ক লে. কর্নেল কাজী শামশের উদ্দিন পিএসসি-জি, ৪০ বিজিবির পলাশপুর জোন অধিনায়ক লে. কর্নেল মো. কামরুল ইসলাম পিএসসি, রামগড় ৪৩ বিজিবি জোন অধিনায়ক লে, কর্নেল মো. নুরুজ্জামান পিএসসি ও মাটিরাঙ্গা উপজেলা চেয়ারম্যান মো. তাজুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে ভারত প্রত্যাগত শরণার্থী বিষয়ক টাস্কফোর্স চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপিসহ আমন্ত্রিত অতিথিগণ অনুষ্ঠানস্থলে পৌঁছলে তাদেরকে ফুল দিয়ে স্বাগত জানান মাটিরাঙ্গার ২৩, বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন-বিজিবি’র যামিনীপাড়া জোন অধিনায়ক লে. কর্নেল মাহমুদুল হক ও যামিনীপাড়া জোনের উপ-অধিনায়ক মেজর রফিকুল ইসলাম। এর পরপরই প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত প্রীতিভোজ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিরা একে একে উপস্থিত হয়ে যামিনীপাড়া জোন অধিনায়ক লে. কর্নেল মাহমুদুল হক-কে ফুল ও উপহার দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।

পরে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ভারত প্রত্যাগত শরণার্থী বিষয়ক টাস্কফোর্স চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি যামিনীপাড়া জোন অধিনায়ক লে. কর্নেল মাহমুদুল হক পিএসসিসহ অন্যদের সাথে নিয়ে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর কেক কাটেন। পরে অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিগণ পলাশপুর জোন আয়োজিত প্রীতিভোজে অংশগ্রহণ করেন।

বর্ণিল এ অনুষ্ঠানে গুইমারা রিজিয়িনের বিএম মেজর আশিকুর রহমান, বড়নাল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আলী আকবর, তাইন্দং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবীর, মাটিরাঙ্গা ফরেস্ট রেঞ্জার মো. মোশাররফ হোসেন  ছাড়াও পলাশপুর জোনের আওতাধীন বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি, বিভিন্ন মসজিদের ইমাম ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিগন অংশগ্রহণ করেন।

দিবসটি উপলক্ষে যামিনীপাড়া জোন সদরকে বর্ণিল সাজে সজ্জিত করা ছাড়াও আয়োজন করা হয়েছেন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের এমনটাই জানিয়েছেন যামিনীপাড়া জোনের উপ-অধিনায়ক মেজর রফিকুল ইসলাম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *