সাবেক সেনা কর্মকর্তা তানভির মাহমুদকে বাঁচাতে এগিয়ে আসুন


aj

আফরিন জামান লীনা :
তানভির মাহমুদ। ঝিনাইদহ ক্যাডেট কলেজের ৩৩ তম ব্যাচের একজন অত্যন্ত মেধাবী ছেলে। ২০০২ এ এইচ এস সি পাস করার পরে বিএমএ ২০০২-২০০৫ এ যোগদান করেন। দেশের অতন্দ্র প্রহরী হিসাবে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে ২০১০ পর্যন্ত দেশের সেবায় নিয়োজিত ছিলেন মানুষটা।

২০১০ এ ধরা পড়ে- একটু একটু করেই তার ভেতরে দানা বেঁধেছে মরণ ব্যাধি অসুখ। অকেজো করে দিয়েছে তার শরীরের এক জোড়া গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গকে। দুটি কিডনিই নষ্ট হয়ে গেছে মাহমুদের। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মেডিকেল বোর্ডে বাতিল হয়ে যায় মাহমুদের সদস্যপদ। মাহমুদ অবসরে যান।

২০১০- ২০১৬ গত ছয়টি বছর এই মরণ ব্যাধির সাথে দিনের পরে দিন যুদ্ধ করে যাচ্ছেন তানভির মাহমুদ। প্রতি সপ্তাহে একাধিক ডায়ালোসিসে বেচেঁ আছে তার জীবন প্রদীপ। প্রতি মুহুর্তে তার হাতে বেঁধে দেয়া ঘড়ির কাঁটার টিক টক আওয়াজ তাকে জানান দিচ্ছে এই বুঝি আওয়াজ থেমে গেল আর সেই সাথে তোমার জীবনের প্রদীপও। উফ! কি দুর্বিসহ যন্ত্রণা। একজন মানুষের কাছে এর থেকে বড় যন্ত্রণা আর কিছুতে আছে বলে আমার জানা নেই। দুর্দান্ত হ্যান্ডবল খেলা এই ছেলেটার স্বভাব সুলভ আচরণের জন্যে অনেকেই তার জন্য কাদঁছে।

মাহমুদ এখন বেঁচে থাকার জন্য যুদ্ধ করছে থাইল্যান্ডের বামরুনগ্রাদ হসপিটালে।ওখানকার ডাক্তাররা জানিয়েছেন মাহমুদকে বাঁচাতে হলে নভেম্বর মাসের ভেতরে কিডনি ট্রান্সপারেন্ট করতে হবে।অনেকেই প্রশ্ন করতে পারেন, অপারেশনটা কেন বাংলাদেশে হচ্ছে না? তাদের জন্য বলি, বাংলাদেশে নেফ্রোলজি চিকিৎসার অপশন ফার্স্ট ব্লাডে এসে থেমে গেছে। ফার্স্ট ব্লাড বলতে (বাবা, মা, ভাই, বোন)। আর কিডনি যিনি দান করবেন তাকে অবশ্যই ৫০ এর নিচে বয়স হওয়া লাগবে। মাহমুদ তার বাবা মায়ের একমাত্র সন্তান। তার বাবা-মায়ের বয়স ৫০ এর উর্ধে।

তাই একমাত্র সন্তানকে ধুকে ধুকে মৃত্যুর কোলে ঢুলে পড়তে দেখেও তাকে একটা কিডনি দিতে পারছেন না মাহমুদের বাবা মা। আর যেহেতু সেকেন্ড ব্লাডের রিলেশনের কিডনি ডোনেট করার পরে তা ট্রান্সপারেন্ট করার অপশন বাংলাদেশে অত ভালো হয় না তাই মাহমুদকে থাইল্যান্ডের পরামর্শ দিয়েছেন বাংলাদেশের ডাক্তাররা।কিন্তু এই চিকিৎসার ব্যায়ভার বহন করা দীর্ঘসময় ধরে এই অসুখের সাথে যুদ্ধ করা মাহমুদের জন্য এখন এই শেষ মুহুর্তে আর একা সম্ভব নয়।

aaj-1

৭০ লক্ষ টাকা খরচ হবে মাহমুদের এই চিকিৎসায়।হাসপাতালের বেডে শুয়ে এখনো মহান সৃষ্টি কর্তার কাছে আর কিছুদিন এই পৃথিবীতে বেঁচে থাকার আবেদন করে যাচ্ছে আমাদের দেশ রক্ষার এই সাবেক অতন্দ্র প্রহরী। তার এই বেঁচে থাকার ইচ্ছার আরেকটা স্বপ্ন জ্বল জ্বল করে জ্বলছে তার দু’চোখে। আর সেই স্বপ্নের মাসটা এই নভেম্বর। যেই নভেম্বরের তাগদা দিচ্ছে প্রতি মুহুর্তে তার ঘড়ির কাঁটার টিকটিকি আওয়াজ।

আর সেই নভেম্বরই পৃথিবীর আলোর মুখ দেখতে যাচ্ছে মাহমুদের স্ত্রীর গর্ভে বেড়ে ওঠা মাহমুদের প্রথম সন্তান। লেখাটা যখন লিখছি তখনো হাত কেঁপে উঠছে। গতকাল আমার মেজর বন্ধু যখন কথাগুলো বলছিল তখন সে বলেছিল, লীনা আমার বুকটা পুড়ে যাচ্ছেরে!

মাহমুদের এই বিপুল পরিমাণ অর্থের যোগান দিতে মাঠে নেমেছে মাহমুদের সহপাঠী ক্যাডেটরা। একজন অনাগত শিশুকে জন্ম নিয়ে, তার বাবার কোলে উঠে বাবা ডাক শোনার তৃপ্তিময় সুখের এই স্বাদ নিতে মাহমুদের পাসে আমরাও কি আসতে পারি না।যে মানুষটা একদিন আমার দেশ, আমার জাতিকে বাচাঁনোর জন্য বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সদস্য হয়েছিলেন। হয়েছিলেন আমার দেশের অতন্দ্র প্রহরী। আজ তার সন্তানকে জন্ম নিয়ে তার বাবার কোলে আসার অধিকারের নিশ্চয়তা কি আমরা সবাই মিলে মাহমুদকে দিতে পারি না?

আমরা দেশে বিদেশে লক্ষ কোটি বাঙালী । আসুন সবাই মিলে মাহমুদের সন্তানকে এই পৃথিবীতে এসে তার বাবার আদর পাওয়ার অধিকারটুকু এনে দেই।মহান রাব্বুল আল আমিন প্রতিটা ভালো কাজে আমাদের সাথে থাকেন।একবার ভেবে দেখেন আমাকে বলা মাহমুদের কথাগুলি। ‍”… Diseases are blessings from him. Please keep praying…. And also pray so that no one is ever suffered in these disease ….”।

মাহমুদের সন্তানকে এই পৃথিবীতে এসে তার বাবার স্নেহ পাইয়ে দেবার অধিকার আর মাহমুদকে এই সুন্দর পৃথিবীতে বাঁচিয়ে রাখার জন্য সৃষ্টি কর্তার কাছে আরো কিছুদিন ধার করে আনার জন্য মাহমুদের সহপাঠী ঝিনাইদহ ক্যাডেট কলেজের এক্স ক্যাডেটদের সাথে আমি ও আছি।আপনারাও আসবেন কি?

মহান করুণাময় সবসময় ভালো কাজের প্রশংসা করেন।এবং তাদেরকে অালিঙ্গন করে নেন যারা এই কাজে যুক্ত থাকেন। মাহমুদকে এই পৃথিবীতে আর কিছুদিন বেঁচে থেকে তার সন্তানের মুখ দেখার সুযোগ করে দেবার এই মহতি উদ্যোগে আমাদের সবার সাথে আপনাদের অংশগ্রহণ করার ঠিকানা নিচে দেওয়া হলো।

  1.  AC NAME: Mr.Hasan MD Tanvir Mahmud,
    Account No- 2251473777001(saving),City Bank Ltd, Gulshan Avenue Branch, Dhaka
    SWIFT NO: CIBLBDDH
    bKash account: 01848382050 (merchant account);please use reference 1792
    DBBL (Rocket) mobile money: Samia Jahan (ac no: 19310333350), Gulshan Branch
    দেশের বাইরে থেকে paypal কিংবা ডেবিট/ক্রেডিট কার্ড দিয়ে পাঠাতে পারবেন নিমোক্ত লিংক দিয়ে: http://www.ankurintl.org/test/tanvir_mahmud.html
  2. দেশের বাইরে আপনারা যোগাযোগ করতে পারেন নিম্নোক্তদের সাথে:
    USA: Fahad (JCC, 33) : +14094544725
    UK: Reza (JCC, 33) : +447886481355
    Canada and Dubai: Sina (JCC, 33) : +16472215032
    Australia: Junayed (JCC, 31) : +61412687550
  3. দেশের ভিতরে:
    Major Faisal (01717458373); Farhan (01833181961); Ahammad (01786505553).

4 thoughts on “সাবেক সেনা কর্মকর্তা তানভির মাহমুদকে বাঁচাতে এগিয়ে আসুন

  1. According to my knowledge, All the expenses of Mr. Tanvir will bear BD Army……..

    But…… ?

    I can’t get it clear…..

  2. India ra jodi tader armyr jonno 1tk korey prottek jon thaika nitey parey ,tahole amra o ki pari na onar jibon bachatey 1taka korey ditey….?
    Govt : k bola hok jatey prottek jon thaika 1taka koira niye oner chikitsha kora hoy…!

  3. India ra jodi tader armyr jonno 1tk korey prottek jon thaika nitey parey ,tahole amra o ki pari na onar jibon bachatey 1taka korey ditey….?
    Govt : k bola hok jatey prottek jon thaika 1taka koira niye oner chikitsha kora hoy…!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *