parbattanews bangladesh

সাজেকে চিরকুট লিখে গৃহবধুর আত্নহত্যা

সাজেক প্রতিনিধি:

রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার সাজেকে প্রতিবেশীর অপমান সহ্য করতে না পেরে চিরকুট লিখে আত্নহত্যার পথ বেঁচে নিয়েছে দুই সন্তানের জননী নুরনাহার(৩৫) নামের এক গৃহবধূ।

বৃহস্পতিবার সাজেকের বাঘাইহাট ডোবাইকলোনীর দেলোয়ার হোসেনের স্ত্রী নুরনাহার পার্শ্ববর্তী গ্রাম ডানে ভাইবোনছড়া গ্রামে গিয়ে এই আত্নহত্যার ঘটনা ঘটায়।

এবিষয়ে আত্মহত্যাকারীর স্বামী দেলোয়ার হোসেন বলেন, আমরা আর্থিকভাবে খুবই অসহায়। আমার একটি মেয়ে একটি ছেলে আছে। মেয়েটি বড় হওয়ায় গত এক মাস আগে অর্থ সল্পতার কারণে এলাকাবাসীর সহযোগিতায় বিয়ে দেই। এরপর থেকেই আমার প্রতিবেশী বেলাল ও হবির স্ত্রী আরও অন্যান্যরা আমার পরিবারকে সবসময় কথায় কথায় কটাক্ষ আর অপমান করতে থাকে। গতকাল বুধবার সন্ধ্যার দিকেও হবি ও বেলালের স্ত্রী আমার মেয়ের বিয়ের কথা নিয়ে অপমান করতে থাকে আর আমি তখন বিষয়টি আমাদের ১৬ পরিবারের মুরব্বী হাসান বুড়াকে জানায়।

এরপরদিন(বৃস্পতিবার) সকালে বাসা থেকে আমি বাজারে যায় এর কিছুক্ষণ পর আমি বাজার থেকে বাসায় আসলে কাঠের উপর একটি কাগজ দেখতে পায় এরপর থেকে আমি আমার স্ত্রীকে খুঁজতে থাকি একপর্যায়ে ১টার দিকে ডানে ভাইবোনছড়া গ্রামে লাশের খবর পেয়ে আমি সেখানে ছুটে যায়।

এবিষয়ে সাজেক থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই কামরুজ্জামান বলেন, গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশের খবর পেয়ে আমরা ঘটানাস্থলে যায়। সেখান থেকে বিকাল সাড়ে পাঁচটার দিকে লাশটি উদ্ধার করি। গৃহবধুর লেখা চিরকুটের বিষয়টি আমরা তদন্ত করে দেখব এবং নিহতের পরিবারের সাথে কথা বলে ময়নাতদন্তের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।