সরকারের ধারাবাহিকতার ফলে অর্থনৈতিকভাবে দেশ আজ এগিয়ে যাচ্ছে


 

মানিকছড়ি প্রতিনিধি:

চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান রবিবার সরকারি সফরে মানিকছড়ি উপজেলায় বিভিন্ন দপ্তর পরিদর্শন, প্রকল্প উদ্বোধন ও মুক্তিযোদ্ধা সংবর্ধনা সভায় বলেন, বর্তমান সরকারের ধারাবাহিকতায় অর্থনৈতিকভাবে দেশ যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে, তাতে আমরা প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত ২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের এবং ৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশ হিসেবে বিশ্বে স্বীকৃতি লাভের যে ঘোষণা রয়েছে তার আগেই এদেশ সেলক্ষ্যে পৌঁছবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তিনি আরো বলেন, বর্তমান সরকার মুক্তিযোদ্ধাদের জীবনমান উন্নয়নে অনেক আন্তরিক বিধায় বাংলার সূর্য সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধারা আজ সর্বত্র সন্মানিত।

বিভাগীয় কমিশনারের পূর্ব কর্মস্থল মানিকছড়ি উপজেলায় সরকারি সফরকে ঘিরে গত কয়েক দিন ধরে উপজেলা প্রশাসন তৎপর ছিল। উপজেলা পরিষদ চত্বর, ভবন, সর্বত্রই ছিল ‘সাজ সাজ রব’, রং-বেরং এর বেলুন, পতাকায় পুরো পরিষদ চত্বরকে রাঙিয়ে তোলা হয়েছিল। ১৭ ডিসেম্বর সকাল সাড়ে ১০টায় বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান ও তার সহধর্মীনিকে বরণ করতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আহসান উদ্দীন মুরাদ ও উপজেলা চেয়ারম্যান ম্রাগ্র মারমার নেতৃত্বে জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দসহ সরকারি সকল দপ্তরের প্রধানরা উপজেলার প্রবেশদ্বার নয়া বাজারস্থ ফরেন চেকপোস্ট সংলগ্ন রেস্টহাউজে অবস্থান নেন। সেখানে বিভাগীয় কমিশনারকে ফুলেল শুভেচ্ছায় বরণ করা হয়।

পরে তিনি উপজেলা পরিষদ চত্বরে আসেন এবং তার পুরাতন কর্মস্থল ঘুরে দেখেন। এ সময় তিনি কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধিদের সাথে কুশল বিনিময় করেন এবং আয়োজনের জন্য সবাইকে ধন্যবাদ জানান।

পরে তিনি ১নং মানিকছড়ি ইউনিয়ন পরিষদ পরিদর্শনে যান। সেখানে পরিষদ চেয়ারম্যান মো. শফিকুর রহমান ফারুক ও ইউপি সদস্যরা তাকে ফুলেল তৈরি নৌকা প্রতিকের একটি মালা দিয়ে তাকে বরণ করে নেন প্রধান অতিথিকে।

উপজেলা প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক আবদুল মান্নান সঞ্চালিত এবং ইউপি চেয়ারম্যান  মো. শফিকুর রহমান ফারুক এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সংবর্ধনা সভায় প্রধান অতিথি বিভাগীয় কমিশনার  বলেন, বর্তমান সরকারের ধারাবাহিকতায় অর্থনৈতিকভাবে দেশ যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে, তাতে আমরা প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত ২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের এবং ৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশ হিসেবে বিশ্বে স্বীকৃতি লাভের যে ঘোষণা রয়েছে তার আগেই এদেশ সেলক্ষ্যে পৌঁছবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তিনি আরো বলেন, বর্তমান সরকার মুক্তিযোদ্ধাদের জীবনমান উন্নয়নে অনেক আন্তরিক বিধায় বাংলার সূর্য সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধারা আজ সর্বত্র সন্মানিত।

বক্তব্য শেষে প্রধান অতিথি মুক্তিযোদ্ধাদের পক্ষে কমান্ডার মো. সফিউল আলম চৌধুরীর হাতে সন্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেন। সভা শেষে ইউপি চেয়ারম্যান মো. শফিকুর রহমান ফারুক পরিষদের পক্ষ থেকে প্রধান অতিথিকে একটি সন্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করেন।

পরে তিনি খাগড়াছড়ি জেলায় যাওয়ার পথে উপজেলা গচ্ছাবিলস্থ চৌধুরী পাড়ায় দেশের প্রথম নির্মিত ইকো-পার্ক যাত্রী ছাউনি উদ্বোধন করেন। প্রধান অতিথির বিভিন্ন দপ্তর পরিদর্শন, প্রকল্প উদ্বোধন ও সংবর্ধনা সভায় অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. জিয়া উদ্দীন সুমন, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগ নেতা এমএ. রাজ্জাক, জেলা পরিষদ সদস্য ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান এমএ. জব্বার, ভাইস চেয়ারম্যান রাহেলা আক্তার, অফিসার ইনচার্জ মো. মাইন উদ্দীন খান, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. সফিউল আলম চৌধুরী, উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি ও তিনটহরী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আতিউল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও যোগ্যাছোলা ইউপি চেয়ারম্যান মো. জয়নাল আবেদীন, তিনটহরী ইউপি চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম বাবুল, বাটনাতলী ইউপি চেয়ারম্যান মো. শহিদুল ইসলাম মোহন, মানিকছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান মো. শফিকুর রহমান ফারুক, সদর ইউপি প্যানেল চেয়ারম্যান মো. ইদ্রিস ইসলাম বাচ্চুসহ উপজেলার সকল দপ্তর প্রধান, সাংবাদিক, শিক্ষক প্রমুখ।

উল্লেখ্য: বর্তমান চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান, ২০০১ সালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসেবে মানিকছড়িতে দায়িত্ব পালন করেছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *