সরকারি দল লংগদু ঘটনাকে ভিন্ন খাতে প্রভাবিত করার চেষ্টা করছে: আব্দুল্লাহ আল নোমান


নিজস্ব প্রতিবেদক, খাগড়াছড়ি:

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান অভিযোগ করেছেন, সরকার রাঙামাটির লংগদু’র সহিংসতার ঘটনাকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার ষড়যন্ত্র করছে। তিনি এঘটনার জন্য সুষ্ঠ, নিরপেক্ষ, রাজনীতি বহির্ভুত ও বিচার বিভাগীয় তদন্তের দাবি জানিয়ে বলেন, যাতে কোন নিরপরাধ মানুষ এঘটনার অভিযোগে শাস্তি না পায়। তিনি গণগ্রেফতারের নিন্দা জানিয়ে বলেন, উপজাতিদের ঘর-বাড়িতে যেমন অগ্নিসংযোগের ঘটনা কারো কাম্য নয়, তেমনি নয়ন হত্যাকাণ্ডের ঘটনাটাও গ্রহণ যোগ্য নয়।

শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে লংগদু উপজেলা সংঘটিত সম্প্রতি সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে রাঙামাটি জেলা বিএনপির প্রধান কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে নোমান এসব কথা বলেন।

আব্দুল্লাহ আল নোমান অভিযোগ করেন, পার্বত্যাঞ্চলে এ পর্যন্ত ৮জন মোটরসাইল চালককে হত্যা করা হয়েছে। যাদের বিচার আজও হয়নি। পাহাড়ে এ ধরনের ঘটনা বার বার ঘটছে। এসব হত্যাকাণ্ডের পিছনে কি আছে সে বিষয়গুলো ক্ষতিয়ে দেখা দরকার। একই সাথে এসব ঘটনার সঙ্গে জড়িত প্রকৃত দোষীদের সুষ্ঠ তদন্তের মাধ্যমে বিচারের আওতায় আনার আহ্বান জানান তিনি।

এসময় বিএনপির চেয়ারপার্সনের  উপদেষ্টা সুকুমার বড়ুয়া ও সাংগঠনিক সম্পাদক মাহাবুবুর রহমান শামীম, কেন্দ্রীয় কমিটির ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক দীপেন দেওয়ান, কেন্দ্রীয় কমিটির উপজাতীয় বিষয়ক সম্পাদক অব: কর্ণেল মনীষ দেওয়ান, জেলা বিএনপির সভাপতি মো. শাহ আলম, সাধারণ সম্পাদক দীপেন তালুকদার, যুগ্ম সম্পাদক মো. মামুনুর রশিদ মামুন, জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম পনির, জেলা ছাত্র দলের সভাপতি আবু সাদ্দাৎ সায়েমসহ অন্যান্য নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

বিএনপির নির্বাহী কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান মো. আব্দুল্লাহ আল নোমান অভিযোগ করে আরও বলেন, ক্ষমতাসীন রাজনীতিক দল লংগদু ঘটনাটাকে ভিন্ন খাতে প্রভাবিত করার চেষ্টা করছে। উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে বিএনপির নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে। তারা যদি দোষী হয়, তাহলে সেটা বিচার বিভাগের ব্যাপার। কিন্তু তদন্ত না করে কাউকে বিনা কারণে হয়রানি করা যাবেনা।

তিনি আরও বলেন, আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করতে চেয়েছি। রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে নয়। অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য। কিন্তু প্রশাসন আমাদেরকে সেখানে যেতে বাঁধা দিয়েছে। প্রশাসন বলছে পাহাড়ের পরিস্থিতি এখনো স্বাভাবিক নয়। তাহলে ধরে নেওয়া যায়, তারা সেখানের পরিস্থিতি এখনো স্বাভাবিক করতে পারেনি। পরিস্থিতি অস্বাভাবিক কি আছে সেটা জেনে নিরসন করাও দারকার ।

পরে বিএনপির নির্বাহী কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান মো. আব্দুল্লাহ আল নোমান লংগদু ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য নিয়ে আসা ৫লাখ টাকা রাঙামাটি জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের হাতে হস্তান্তর করেন।এ সময় তিনি বলেন, আমরা শুনেছি ক্ষতিগ্রস্তরা নাকি ত্রাণ নিচ্ছে না। এ টাকা যদি ক্ষতিগ্রস্তরা নিতে না চাই, তাহলে সে টাকা ঢাকায় ফেরত যাবে।

image_pdfimage_print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *