সমবায় থেকে সমৃদ্ধশালী রাষ্ট্র গড়ে তুলতে সক্ষম


রোয়াংছড়ি প্রতিনিধি:

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেষ মুজিবুর রহমান এর হাতে গড়া এ সমাবায় সমিতি। জনসাধারণের অর্থনৈতিক ভাবে স্বাবলম্বী করা প্রত্যয় নিয়ে পরিবর্তীতে জাতীয় ভাবে স্বীকৃতি প্রদান করে। সমিতির অন্তর্ভুক্তির মাধ্যমে সকলে স্বচ্ছল হতে পারবে বলে দৃঢ় বিশ্বাস ছিল।

আমরা বিশ্বের দিকে তাকালে দেখতে পায় চীন, রাশিয়া খুব সমৃদ্ধ দেশে পরিণত হয়েছে। সমবায় থেকে সমৃদ্ধশালী রাষ্ট্র গড়ে তুলতে সক্ষম। বর্তমান সরকার দেশে উৎপাদন বৃদ্ধি ও কর্মসংস্থান সৃষ্টির মাধ্যমে ক্ষুধামুক্ত, দারিদ্রমুক্ত, শান্তিপূর্ণ ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশকে গড়তে বদ্ধপরিকর।

শনিবার(৪ নভেম্বর) সকাল ১০টায় বান্দরবানের রোয়াংছড়ি উপজেলায় ৪৬তম জাতীয় সমবায় দিবস উপলক্ষ্যে র‌্যালি শেষে আলোচনা সভায়  বক্তারা এসব কথা বলেন।

শুরুতে উপজেলা সমবায় অধিদপ্তরের সম্মুখে আনুষ্ঠানিক ভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন এবং পরে “উৎপাদনমুখী সমবায় করি, উন্নত বাংলাদেশ গড়ি” এই প্রতিপাদ্যকে শ্লোগান রেখে উপজেলা পরিষদের চত্বর থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়ে প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুরান থানার পাশে এসে শেষ হয়। অতঃপর উপজেলা পরিষদের মিলনায়তে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সমবায় অধিদপ্তর কর্তৃক আলোচনা সভায় মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের কর্মকর্তা মো. শামছুর আলম এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্যবামং মারমা। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এমপি প্রতিনিধি নেইতং বুইতিং বম, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাউসাং মারমা, রোয়াংছড়ি সদর ১নং ইউপির চেয়ারম্যান চহ্লামং মারমা, আলেক্ষ্যং ইউপির চেয়ারম্যান বিশ্বনাথ তঞ্চঙ্গ্যা প্রমুখ।

এসময় সমবায় কর্মকর্তা মো. মাহাবুবুর রহমান এর উপস্থাপনায় আরো বক্তব্য রাখেন শষ্য ফুড সমবায় সমিতি সভানেত্রী অংম্রাচিং মারমা, সদস্য নুথোয়াইপ্রু  মারমা, রোয়াংছড়ি সিএনজি মালিক সমিতি সদস্য ও সাবেক ইউপির মেম্বার জয়ন্ত তঞ্চঙ্গ্যা প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *