সবাইকে কান্নায় ভাসালেন পেকুয়ার বিদায়ী ইউএনও মারুফুর রশিদ খান


pekua-u-no-ferull-copy

পেকুয়া প্রতিনিধি:

পেকুয়ায় ইউএনও’র বিদায় ও বরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার বিকালে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা পরিষদ ও উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে উপজেলা ইউপি চেয়ারম্যান এসোসিয়েশনের সভাপতি ও শীলখালী ইউপির চেয়ারম্যান নুরুল হোছাইনের সভাপতিত্বে ও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান মঞ্জুর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পেকুয়া উপজেলা চেয়ারম্যান শাফায়েত আজিজ রাজু। এতে বিদায়ী অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন  উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: মারুফুর রশিদ খান। বরেণ্য অতিথি ছিলেন নবাগত উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা জয়নাল আবদীন। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান লুৎফা হায়দার রনি, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ইদ্রিস বাদশা, সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাজনীন ফারজানা লাভলী, কুতুবদিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সালেহ তানবীর গাজী, পেকুয়া থানার ওসি জিয়ান মোহাম্মদ মোস্তাফিজ ভুইয়া, জেলা আ’লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য এডভোকেট কামাল হোছাইন, জেলা আ’লীগের সদস্য এসএম গিয়াস উদ্দিন, জিএম আবুল কাসেম, উম্মে কুলছুম মিনু, উপজেলা আ’লীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) শাহনেওয়াজ চৌং বিটু, সাধারণ সম্পাদক আবুল কাসেম, পেকুয়া জিএমসি ইনস্টিটিউশনের সাবেক প্রধান শিক্ষক এএমএম শাহজাহান,  উপজেলা প্রকৌশলী জাহেদুল ইসলাম চৌং, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মাহাফুজুর রহমান, প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা হাসান মুরাদ চৌং, কৃষি কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান, সমবায় কর্মকর্তা ওসমান গণি, প্রকল্প কর্মকর্তা সুভ্রাত প্রমূখ।

সভায় বক্তারা বলেন, ইউএনও মারুফ ছিলেন সততার মডেল। তিনি দায়িত্ব পালনকালে পেকুয়ার আনাচে কানাচে অক্লান্ত পরিশ্রম করে উন্নয়নে ভরপূর করেছেন। তিনি সরকারী বরাদ্দের দিকে চেয়ে থাকেননি, যেভাবে হোক উন্নয়ন করেছেন। বর্তমান পেকুয়ার রাস্তাঘাটে ইউএনও মারুফের নাম সুদুর প্রসারীত। তিনি দায়িত্ব পালনকালে দলমত নির্বিশেষে সকলের কাছে গ্রহনযোগ্য একজন সৎ অফিসার ছিলেন। তিনি দু বছর এক মাস দায়িত্বে থাকা অবস্থায় কোন মানুষ হয়রানি হয়নি সবসময় সেবা দিয়ে মানুষের কাতারে গিয়ে সাধারণ জনগণের মনে স্থান করে নিয়েছেন।

এদিকে বিদায়ী ইউএনও মারুফুর রশিদ খান বক্তব্য প্রদানের শুরতে হু হু করে কেঁদে দেন। তিনি আবেগঘন মুহুর্তে উপস্থিত সকলের দোয়া ও ভালোবাসার প্রতিদান দিতে না পারার জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করেন এবং করুন আবেগ ঘন অবস্থা নিয়ে যেখানে যান না কেন পেকুয়ার মানুষের জন্য মন কাঁদবে বলে উচ্চারণ করার সাথে উপস্থিত সকলেই কেঁদে দেন।

অপরদিকে নবাগত ইউএনও দলমত সকলের সহযোগিতা কামনা  করেন এবং মারুফুর রশিদ খানের অসমাপ্ত কাজ সম্পন্ন করবেন বলে আশা ব্যক্ত করেন।

এছাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান শাফায়েত আজিজ রাজু  ইউএনও মারুফুর রশিদ খানের স্মৃতি চারণ করতে গিয়ে অশ্রু আর ধরে রাখতে না পেরে তিনিও হু হু করে কেদে দেন। তিনি বলেন, বিদায়ী ইউএনও পেকুয়া থেকে বদলী হয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব হয়েছেন। তাকে আমরা আজীবন তার কৃতির জন্য স্মরণ রাখব।

অনুষ্ঠান শেষে উপজেলা পরিষদ ও ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে বিদায়ী ইউএনও মারুফুর রশিদ খান এবং নবাগত ইউএনও জয়নাল আবদীনকে সম্মাননা স্মারক ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠান শুরু হওয়ার আগে নবাগত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জয়নাল আবদীন কক্সবাজার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে উপস্থিত হয়ে পেকুয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হিসাবে যোগদান করেন। পরে পেকুয়া উপজেলা পরিষদে এসে বিদায়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মারুফুর রশিদ খানের কাছ থেকে দায়িত্বভার বুঝে নেন।

image_pdfimage_print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *