সঠিক দিকনির্দেশনা পেলে তরুণরা জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান হবে


প্রতিনিধি প্রতিনিধি:

রামু উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. শাজাহান আলি বলেছেন, তরুন বয়সে যারা সঠিক দিকনির্দেশনা পাবে তারাই জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান হয়ে আগামীতে দেশ পরিচালনা করবে। এজন্য তরুণদের বেশি করে শিক্ষা, সামাজিক, ক্রীড়া, সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত করতে হবে। উগ্রবাদ-সহিংসতা ও মাদক প্রতিরোধ, বাল্য বিয়ে বন্ধ করে তরুণদের সুন্দর আগামী সৃষ্টি করা প্রতিটি নাগরিকের দায়িত্ব।

ইউএনও মো. শাজাহান আলি সোমবার (১১ ডিসেম্বর) বিকাল তিনটায় রামু উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে “তরুণ আলো” প্রকল্পের অগ্রগতি অবহিতকরণ ও স্টকহোল্ডারদের সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

সভায় জানানো হয়, জাতীয় পর্যায়ে বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ডেভেলপমেন্ট কমিউনিটি সেন্টার-কোডেক ‘মানুষের জন্য’ফাউন্ডেশনের সহায়তায় কক্সবাজার জেলার সদর, রামু এবং পেকুয়া উপজেলায় “তরুণ আলো’ নামক প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। এপ্রকল্পের মূল লক্ষ্য হচ্ছে, বিকল্প গঠনমূলক কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ততার মাধ্যমে বাংলাদেশের তরুণদের উগ্রবাদ ও ধ্বংসাত্মক কর্মকাণ্ড থেকে দূরে রাখা। ইতিমধ্যে প্রকল্পের কার্যক্রম মাঠ পর্যায়ে বাস্তবায়নের কাজ অনেকদূর এগিয়েছে।

কোডেক তরুণ আলো প্রকল্পের সমন্বয়কারী মো. হেলাল উদ্দিনের পরিচালনায় সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন রামু কলেজের অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) আবদুল হক, উপজেলা মাধ্যমিক একাডেমিক সুপারভাইজার মোহাম্মদ তৈয়ব, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আনজুমান আরা, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা শিরিন ইসলাম, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মো. মাহবুবুর রহমান, রামু খিজারী আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক (ভারপ্রাপ্ত) মফিজুল ইসলাম, আলহাজ্জ ফজল আম্বিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আমানুল হক, সূর্যের হাসি ক্লিনিকের ব্যবস্থাপক খন্দকার দেলোয়ার হোসেন, মেরংলোয়া রহমানিয়া মাদ্রাসার সুপার মুহম্মদ রফিক, প্রজ্ঞামিত্র বন বিহারের অধ্যক্ষ সারমিত্র থের প্রমুখ।

সভায় রামু বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ, উপজেলার বিভিন্ন প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্কুল, মাদ্রাসার শিক্ষক, পরিচালনা কমিটির সদস্য, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *