লামা রূপসীপাড়ায় ৪ বারের নির্বাচিত মহিলা মেম্বারকে পিটিয়ে গুরুতর জখম


চকরিয়া প্রতিনিধি:

সরকারি দলের নাম ভাঙ্গিয়ে লামা রূপসীপাড়া ইউনিয়নের ৪, ৫ ও ৬নং ওয়ার্ডের ৪ বারের নির্বাচিত ও দীর্ঘ ২৫ বছরের মহিলা মেম্বার (এমইউপি) রোকিয়া বারি (৫০) ও তার স্বামী সাবেক এমইউপি আবদুল বারি (৬০)কে পিটিয়ে গুরুতর জখম করেছে সন্ত্রাসীরা। আহত মহিলা মেম্বারকে উদ্ধার করে প্রথমে লামা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক চমেক হাসপাতালে রেফার করেন। প্রতিমধ্যে তাকে চকরিয়া ইউনিক হাসপাতালে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে উন্নত চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।  গতকাল ১৫ ডিসেম্বর সকাল ৮টার দিকে উপজেলার রূপসীপাড়া বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

চকরিয়া প্রেসক্লাবে কর্মরত সাংবাদিকদের কাছে আহত পরিবারের সদস্যরা অভিযোগ করে বলেন, একই এলাকার একটি সংঘবদ্ধ জবর দখলকারী সন্ত্রাসী চক্র দীর্ঘদিন ধরে ক্ষমতাসীন দলের নাম ভাঙ্গিয়ে চলমান দায়িত্বসহ দীর্ঘ ২৫ বছরের এমইউপি রোকেয়া বেগমের জমি জবর দখলে নেওয়ার এবং তার একমাত্র সন্ত্রান মরজুরুল হাসান রফিক (২২)কে অপহরণ করে হত্যা করার ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছে।

এমনকি দখলবাজরা বিগত ১৮ বছর পূর্বে জনৈক সিরাজ আহমদকে ফরিদপুর জেলায় আত্মগোপনে রেখে মহিলা মেম্বার পক্ষকে অপহরণসহ বিভিন্ন মামলা দিয়ে হয়রাণী করে। পরে অপহরণ হয়নি মর্মে প্রশাসন ও স্থানীয়দের মাঝে বিষয়টি খোলাসা হয়।

সর্বশেষ ১৫ ডিসেম্বর সকাল ৮টার দিকে জমি জবর দখলে নিতে কথিত অপহৃত সিরাজের সন্ত্রাসী পুত্র রাসেল, তাদের পক্ষের আবুল বাসার, বাচ্চু, মহিলা লাঠিয়াল শাহনাজ পারভিন, লিজা বেগম, রুমা বেগমসহ ১৫/২০জনের বাহিনী অতর্কিতভাবে মহিলা মেম্বারের বাড়িতে ঢোকে হামলা ও লুটপাট চালায়। এক পর্যায়ে মহিলা মেম্বার রোকিয়া বারি ও তার স্বামী প্যারালাইসি রোগি আবদুল বারিকে পিটিয়ে জখম করে এবং সন্তানকে হত্যার জন্য খুঁজতে থাকে।

এসময় তার কাছ থেকে ব্যবহৃত ২ভরি স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকা লুট করে সন্ত্রাসীরা। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন ৬নং রূপসীপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান চাচিং প্রেুা। এ বিষয়ে লামা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আনোয়ার হোসেন কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, মহিলা মেম্বারকে পিটিয়ে জখমের বিষয়টি শুনেছি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও তিনি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *