লামায় রিক্সাচালক খুন: আজিজনগরে ২টি লাশ উদ্ধার


লামা (বান্দরবান:

লামায় এক গরু বিক্রেতার লাঠির আঘাতে মোঃ রবিউল হোসেন (২৮) নামক এক রিক্সাচালক নিহত হযেছে।

শনিবার (১৮ আগস্ট) দুপুরে লামা টাউন হলের সামনের রাস্তায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত রবিউল হোসেন লামা সদর ইউনিয়নের হাসপাতাল পাড়ার মৃত মোঃ নাছির উদ্দিনের ছেলে।

শনিবার দুপুরে বমু বিলছড়ি ইউনিয়নের পানিস্যাবিল এলাকা থেকে লামা বাজারের কোরবানির হাটে গরু বিক্রয় করার জন্য কয়েকজন মিলে গরু নিয়ে আসতে থাকে। ঘটনাস্থলে পৌঁছলে মৃত রবিউল হোসেনের রিক্সার সাথে গরু হোঁচট খায়। এ নিয়ে উভয়ের মধ্যে বাক বিতন্ডার এক পর্যায়ে লাঠি দিয়ে রিক্সা চালককে আঘাত করা হয়। লাঠির আঘাতের পর তাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে ডাক্তার মৃত ঘোষণা করেন। লাঠি দিয়ে আঘাত করে ঘাতক পালিয়ে যাওয়ার সময় লামা বাজারের সূর্য ডাক্তারের দোকানের সামনে উত্তেজিত জনতার রোষানলে পড়ে। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাঠিচার্জ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় ৬ জন আহত হয়। আহতরা হল- মোঃ ইমরান(২২), মোঃ মনির হোসেন(১৯), মোঃ শহিদুল ইসলাম (১৮), মোবারক(১৫), মোঃ ফারুক(৩৫), শাহাদাত (১৮)। আহতদেরকে লামা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে প্রাথমিকভাবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

অপর দিকে শনিবার (১৮ আগস্ট) দুপুরে উপজেলার আজিজনগর ইউনিয়নের ছেলং ঝিরি নামক স্থানে পানিতে ভাসমান অবস্থায় এক অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে আজিজনগর মিশন পাড়া থেকে মানিক শীল (৩৬) নামক একজনের লাশ উদ্ধার করা হয়।

আজিজনগরের একটি ঝিরিতে ভাসমান অবস্থায় অজ্ঞাত নামা একজনের লাশ উদ্ধার করে বান্দরবান সদর হাসপাতালে ময়না তদন্তের জন্য প্রেরণ করা হয়েছে। শুক্রবার সকালে আজিজনগরের মিশন পাড়া হতে বৃহস্পতিবার সকালে মানিক শীল নামক আরো একজনের লাশ উদ্ধার করা হয়। মানিক শীলের পরিবারের পক্ষ থেকে পরিকল্পিত হত্যাকান্ড বলে দাবি করা হয়েছে।

লামা থানার অফিসার ইনচার্জ অপ্পেলা রাজু নাহা উভয় ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, লাঠির আঘাতে মৃত্যুর ঘটনায় নিহতের পরিবার থেকে এজাহার পেলে মামলা রুজু করা হবে। আজিজনগর থেকে মানিক শীল ও অজ্ঞাতনামা ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করে বান্দরবানে প্রেরণ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *