সেনাবাহিনীর উদ্যোগে দূর্গম লক্ষীছড়িতে ৭শ পাহাড়ি-বাঙ্গালীকে চক্ষু চিকিৎসা প্রদান


untitled-1-copy

নিজস্ব প্রতিবেদক:

খাগড়াছড়ির লক্ষ্মীছড়ি উপজেলায় দু:স্থ্য ও অসহায় মানুষের অন্ধ চোখে আলো ফিরে দিতে পাশে দাঁড়িয়েছে সেনাবাহিনী ও চট্টগ্রামের লায়ন্স ফাউন্ডেশন। বুধবার ও বৃহস্পতিবার ২দিনে উপজেলার অন্তত ৭শ জন পাহাড়ি-বাঙ্গালীকে বিনামূল্যে এ চিকিৎসা সেবা দেয়া হয়। মার্কস মেডিকেল কলেজ এন্ড ডেন্টাল হাসপাতালের সহায়তায় আরো ২৪ জনের চোখের ছানি অপারেশন করা হয়। উন্নত চিকিৎসার জন্যে ৫জন দরিদ্র চক্ষুরোগীকে চট্টগ্রামে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে লক্ষ্মীছড়ি উপজেলা পরিষদ মাঠে চক্ষুসেবা ক্যাম্পের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন খাগড়াছড়ির সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা। এ সময় গুইমারা রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো: কামরুজ্জামান, সিভিল সার্জন ডা. নিশিত নন্দী মজুমদার, ভারপ্রাপ্ত লক্ষ্মীছড়ি জোন কমান্ডার মেজর রাসেল আহমেদ, লায়ন্স ফাউন্ডেশনের গভর্নর মোস্তাক হোসেন ও দি মার্কস গ্রুপের হেড অব মিডিয়া ও কমিউনিকেশন জান্নাতুল ফেরদৌস বৃষ্টি বক্তব্য রাখেন।

এছাড়াও পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য রেম্রাচাই চৌধুরী, এমএ জব্বার, মাটিরাঙ্গা পৌর মেয়র সামশুল হক, লক্ষ্মীছড়ি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সুপার জ্যোতি চাকমা, ভাইস চেয়ারম্যান অংগ্য প্রু মারমা, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো: মোমিনুল হক, থানার অফিসার্স ইনচার্জ আরিফ ইকবাল, সদর ইউপি চেয়ারম্যান প্রবিল কুমার চাকমা, বর্মাছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান হরিমোহন চাকমা, দুল্যাতলী ইউপি চেয়ারাম্যান ত্রিলন চাকমাসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

সেনাবাহিনীর তরুন উদ্যোক্তা ক্যাপ্টেন এসএম সালাউদ্দিন এর তত্ত্বাবধানে চট্টগ্রামের বিশেষজ্ঞ দল চিকিৎসক ক্যাম্পটি পরিচালনা করেন।

এর আগে বুধবার সকালে লক্ষ্মীছড়ি জোনের উপ-অধিনায়ক মেজর রাসেল আহমেদ ২ দিন ব্যাপি আয়োজিত বিনামূল্যে চক্ষু শিবির কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। লক্ষ্মীছড়ি উপজেলা পরিষদ মাঠে আয়োজিত ১ম দিন চক্ষু রোগী বাছাই করা হয়। সকাল থেকে অনেক দুরদুরান্ত ও প্রত্যন্ত এলাকা থেকে শত শত নারি, পুরুষ, শিশু রোগী চিকিৎসা সেবা নেয়ার জন্য দীর্ঘলাইন ধরেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *