লক্ষ্মীছড়িতে পুলিশ কনেস্টেবল ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা


লক্ষ্মীছড়ি প্রতিনিধি:

খাগড়াছড়ি জেলার লক্ষ্মীছড়ি উপজেলায় এক পুলিশ সদস্য পারিবারিক কলোহের জের ধরে বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টায় ময়ূরখীল পুলিশ ফাঁড়ি এলাকায় নিজ বাসায় গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় লক্ষ্মীছড়ি হাপাতাল থেকে মানিকছড়ি এবং পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শিরা জানান, ময়ূরখীল এলাকার জনৈক মেম্বারের ভাড়া বাসায় দরজার তালাবদ্ধ দেখে আশপাশের লোকজনকে খবর দেয়। প্রতিবেশিরা দরজা ভেঙ্গে ময়ূরখীল ফাঁড়ির কনেস্টেবল আব্দুর রাজ্জাক(২৯) কং- ৬৪২ কে উদ্ধার করে প্রথমে লক্ষ্মীছড়ি হাসপাতালে ভর্তি করে। অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে দ্রুত লক্ষ্মীছড়ি জোনের সহায়তায় নিরাপত্তাবাহিনীর এ্যম্বুল্যান্সে করে মানিকছড়ি হাসপাতালে পাঠালে কর্তব্যরত ডাক্তার মূমূর্ষ অবস্থায় জরুরী চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। লক্ষ্মীছড়ি হাসপাতালের ডা. রাব্বী সাংবাদিকদের জানান, রোগীর অবস্থা খুবই আশঙ্কাজনক।

ময়ূরখীল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. জাহাঙ্গির আলম জানান, আমরা খবর পাওয়ার সাথে সাথে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে এসেছি। ঘটনার কারণ সম্পর্কে তাৎক্ষনিক কিছুই জানাতে পারেননি তিনি।

আব্দুর রাজ্জাকের স্ত্রী জানান, আজকে কোনো ঝগড়া বিবাদ হয়নি। তবে বার বার অজ্ঞান হয়ে পড়ায় তার কাছ থেকে কোনো কিছু জানা সম্ভব হয়নি।

প্রতিবেশিরা জানান, মাঝে মধ্যেই জগড়া হতে দেখা যায়। আরও কোনো ঘটনা আছে কিনা স্পষ্ট করে কেউ বলতে পারেনি।

উল্লেখ্য প্রায় ২ বছর ধরে মূয়রখীল পুলিশ ফাঁড়িতে কর্মরত আছেন আব্দুর রাজ্জাক। ঘটনার দিন সকালে উপজেলা সদরে মোবাইল টীমে পোশাক পরিহিত অবস্থায় ডিউটি করেছে বলেও জানা যায়। আব্দুল সোবাহান নামে ৬ বছরের ছেলে এবং সুমাইয়া আক্তার নামে ৪ বছরের কন্যা সন্তান রয়েছে। তার বাড়ি রংপুর জেলায়। ঘটনাটি শোনার সাথে সাথে অন্যান্য সহকর্মী ও কর্মকর্তারা হাসপাতালে ছুটে যান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *