লংগদুতে সেনাবাহিনী কর্তৃক উদ্ধারকৃত সন্ত্রাসীদের সরঞ্জাম ধ্বংস


লংগদু প্রতিনিধি:

রাঙামাটির লংগদু উপজেলার গলাছড়ি এলাকায় ইউপিডিএফ সন্ত্রাসীদের আস্তানা থেকে সেনাবাহিনী কর্তৃক উদ্ধারকৃত বিভিন্ন সরঞ্জামদি (আলামত) উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ধ্বংস ও নিলাম দেওয়া হয়েছে।

বুধবার (৬ জুন) উপজেলা পরিষদের সামনে আনুষ্ঠানিকভাবে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোসাদ্দেক মেহদী ইমাম ও লংগদু থানা অফিসার ইনচার্জ রঞ্জন কুমার সামন্ত এর উপস্থিতে লংগদু থানা প্রশাসন সেনাবাহিনী কর্তৃক উদ্ধারকৃত সন্ত্রাসীদের বিভিন্ন সরঞ্জামদি (আলামত) আগুন দিয়ে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়। এসময় লংগদু উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. তোফাজ্জল হোসেন ছিলেন।

লংগদু থানা অফিসার ইনচার্জ রঞ্জন কুমার সামন্ত জানান, গত ২০১৭ সালের ২৯ জুন লংগদু সেনা জোনের জোন কমান্ডার লে. কর্ণেল আ. আলীমের নের্তৃত্বে সেনাবাহিনীর একটি দল উপজেলার গলাছড়ি এলাকার ইউপিডিএফ সন্ত্রাসীদের আস্তানায় গোপন সংবাদের বিত্তিতে বিশেষ অভিযান চালিয়ে বেশ কিছু অস্ত্র, গোলা-বারুদসহ সন্ত্রাসীদের ব্যবহৃত সরঞ্জামাদি (আলামত) উদ্ধার করে থানায় হস্তান্তর করে। সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যাওয়ায় কাউকে আটক করা যায়নি।

এ ব্যাপারে লংগদু থানায় অস্ত্র আইনে মামলা হয়েছে।

উদ্ধারকৃত সরঞ্জামের (আলামত) মধ্যে যেগুলো ধ্বংস করা হয়েছে তা হলো- সেনাবাহীনীর শার্ট ৭টি, প্যান্ট ৬টি, ক্যাপ ৪টি, গেঞ্জি ১টি, বিভিন্ন ব্যাগ ৯টি, নাগ্রা জুতা ৭ জোড়া, বই ও চাঁদা সংগ্রহের বই ৪টি। এছাড়া ওই সময়ে উদ্ধারকৃত ৪টি সিমফনি মোবাইল সেট ৬ হাজার ৬৫০ টাকায় নিলামে বিক্রি করা হয়। বিক্রিত অর্থ রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা করা হয় বলে প্রশাসন জানায়।

নিউজটি লংগদু বিভাগে প্রকাশ করা হয়েছে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *