রোয়াংছড়িতে তিন দিনব্যাপি উন্নয়ন মেলা


rowangchari-pic-10-01

রোয়াংছড়ি প্রতিনিধি:

আগের চেয়ে বান্দরবানে সারা দেশের ন্যায় বিভিন্ন রকম অবকাঠামোগত উন্নয়ন কার্যক্রম অনেক এগিয়েছে। তবে এলাকায় শিক্ষার মান এখনো অনেক পিঁছিয়ে রয়েছে। শিক্ষার মান উন্নয়ন করতে হলে শিক্ষকদের আন্তরিকতা নিয়ে দায়িত্ব পালন করা দরকার। মঙ্গলাবার উপজেলা শিশু পার্ক প্রাঙ্গনে ‘উন্নয়ন মেলা-২০১৭’ উপলক্ষে আয়োজিত এক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন দিলি কুমার বণিক।

সকাল সাড়ে ১১টায় লাল ফিতা কেটে উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক দিলি কুমার বণিক। তিন দিনব্যাপী এ উন্নয়ন মেলা চলবে। সাসটেইনেবল ডেভলাপমেন্ট গোল্ড (এসডিজি)  ১৭টি টেকসই উন্নয়নের মধ্যে দিয়ে শিক্ষার গুনগতমানের ওপর দক্ষতা অর্জন বাস্তবায়নে সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে উৎসাহিত করাসহ সরকারের সাফল্য ও উদ্যোগ গুলো উপস্থাপনসহ উন্নয়নমূলক কার্যক্রমে জনগণকে সম্পৃক্তকরণের লক্ষ্যে উপজেলা প্রশাসন এ মেলার আয়োজন করেছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মোহাম্মদ দাউদ হোসেন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ও অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা দেন ভাইস চয়ারম্যান ক্যসাইনু মারমা, রোয়াংছড়ি সদর ইউপির চেয়ারম্যান চহ্লামং মারমা, বিশ্বনাথ তঞ্চঙ্গ্যা, উপজেলা (ভারপ্রাপ্ত) শিক্ষা কর্মকর্তা মোহাম্মদ কামাল হোসেন, রোয়াংছড়ি থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ ওমর আলীর, নোয়াপতং ইউপির চেয়ারম্যান উবাপ্রু মারমা, তারাছা ইউপির চেয়ারম্যান উথোয়াইচিং মারমা এসময় উপস্থিত ছিলেন।

যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা পুলুপ্রু মারমার উপস্থাপনায় মেলার তাৎপর্য তুলে ধরে স্বাগত ও সভাপতির বক্তব্য দেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মোহাম্মদ দাউদ হোসেন চৌধুরী।

তিনি বলেন, ব্যক্তি স্বার্থ চিন্তা না করে উন্নয়নের কার্যক্রমকে সামনে এগিয়ে নিতে হবে। বান্দরবানের সবচেয়ে অপরূপ সৌন্দর্য জেলা হিসেবে রূপান্তরিত হয়েছে। তাই আরও দৃষ্টি নন্দন ও উন্নয়নের সমষ্টি চিন্তা করতে এক সাথে কাজ করার জন্য উপস্থিত সকলের প্রতি আহ্বান জানান। মেলাতে শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাপ স্টলসহ ৩০টি স্টল বরাদ্দ করা হয়েছে। ব্যাপক অংশগ্রহণের মাধ্যমে উন্নয়নের চিত্রটি প্রজেক্টরে প্রদর্শন করেছেন।

image_pdfimage_print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *